নিউজ

সিলেটে সরকারী শিক্ষকদের গাইড বইয়ের বিজ্ঞাপন প্রচার

সিলেট থেকে স্টাফ রির্পোটার : বই মানুষকে দেয় শিক্ষা সমাজকে দেয় সমৃদ্ধি’ এ স্লোগান নিয়ে সিলেটে ‘গোল্ডেন প্লাস’ প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী টেস্ট পেপারসের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে বইয়ের ব্যপক প্রচারন শুরু করেছে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি সিলেট জেলা শাখা। এ ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছে প্রধান শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দরা।

সিলেটের একটি অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের শিরোনাম গোল্ডেন প্লাস প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী টেস্ট পেপারসের প্রকাশনা । অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি সিলেট জেলা শাখার সভাপতি গোলাম রব হাসনু। প্রধান অতিথি ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি ওয়েছ আহমদ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা শাখার জ্যেষ্ঠ সহ সভাপতি আহমেদুল কিবরিয়া বকুল, সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব পুরকায়স্থ, কেন্দ্রীয় নেতা আবুল খায়ের ও পুলিশ লাইন উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আব্দুস সোবহান খান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বন্ধু লাইব্রেরী অ্যান্ড পাবলিকেশনের স্বত্বাধিকারী মাহবুবুল আলম মিলন। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শাহজালাল লাইব্রেরীর স্বত্বাধিকারী এহসানুল হক তাহের।
বক্তারা এই বইটিকে অত্যন্ত সময়োপযোগী ও শিক্ষার্থীদের পরম সহায়ক বলে উল্লেখ করেন।

সংবাদটি প্রকাশ হওয়ার পরপরই প্রধান শিক্ষক নেতৃবৃন্দের মাঝে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায়।

প্রধান শিক্ষক সমিতির নেতা শাকিল আহমেদ বলেন কিভাবে একজন সরকারী কর্মকর্তা একটি গাইড বইয়ের প্রচারে নামেন তা বোধগম্য নয়।

আরেক নেতা জাহাঙ্গির আবেদ বলেন বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি  সারা দেশে শিক্ষকদের কাছ থেকে বিভিন্ন দাবী আদায়ের কথা বলে চাদা আদায় করায় তাদের মুল কাজ।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি সিলেট জেলা শাখার সভাপতি গোলাম রব হাসনু সাথে টেলিফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া  যায়নি।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি সিলেট জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক বিপ্লব পুরকায়স্থ বলেন তারা বইটিকে প্রচারের জন্য বলেনননি। সাংগাঠনিক মিটিংএ  তারা বইটিকে পাঠ্যবইয়ের সহায়ক হিসাবে উল্লেখ করেছেন।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

দামুড়হুদায় গত ২দিনে কৃমি নাশক ট্যাবলে খেয়ে প্রায় দেড় শতাধিক শিক্ষার্থী অসুস্থ ॥

সংবাদদাতা,দামুড়হুদা,চুয়াডাঙ্গা,৩এপ্রিল ॥ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গত ২ দিনে কৃমি নাশক ট্যাবলেট খেয়ে আসমা খাতুন, সালমা খাতুন, আনিকা তাবাস্সুম, খাদিজা, আখি তারা, শিল্পী রুমি, লাবনী, সেতু, মিষ্টি, রেবেকা, তাছলিমা, আম্বিয়া, শামসুননাহার, সোনিয়া সহ প্রায় দেড় শতাধিক শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তাদেরকে দামুড়হুদা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।
শিক্ষকরা জানান, জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রন সপ্তাহ উপলক্ষ্যে রোববার এবং সোমবার সকালে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের কৃমি নাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো হয়। প্রথমে কার্পাসডাঙ্গা হাদিকাতুল উলুম দাখিল মহিলা মাদ্রাসায় ১’শ জন শিক্ষাথীর মাথা ঘুরতে শুরু করে পরে তারা বমি করতে অসুস্থ হয়ে পড়ে।
এরপর, পীরপুরকুল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,ওসমানপুর সপ্রাবি ও কার্পাসডাঙ্গা মিশনারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ বিভিন্ন বিদ্যালয়ের আরও ৫০ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাদেরকে উদ্ধার করে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়।
এদিকে, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-ক্লিনিক গুলোতে স্যালাইনের অভাব এবং সেখানে ঔষুধ ও চিকিৎসকের সংকট দেখা দিয়েছে। শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হয়ে পড়ায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে অভিভাবকেরা।
খবর পেয়ে দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান মাওঃ আজিজুর রহমান ও উপজেলা নির্বাহী রফিকুল হাসান এবং পুলিশ প্রশাসন তাদেরকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান।
দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোঃ জামাল শুভ জানান, খালি পেটে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ার পরে অতিরিক্ত গরমে শিক্ষার্থীদের পেটে সমস্যার কারণে তারা অসুস্থ হয়ে পড়ে। তবে এতে আতঙ্কের কিছু নেই। আমরা তাদের চিকিৎসা দিচ্ছি। আশা করা হচ্ছে তারা দ্রুত সুস্থ হয়ে যাবে।
চুয়াডাঙ্গা ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. আলি হোসেন জানান, জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রন সপ্তাহ উপলক্ষ্যে শিক্ষার্থীরা কৃমিনাশক ট্যাবলেট সেবন করেছে। এখন পর্যন্ত কারও অবস্থা গুরুতর নয়। তবে চিকিৎসা চলছে অতি তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে যাবে। # #

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

‘মিথ্যা মামলায় জেল খেটেছি, স্কুলে যাব না’

ডেস্ক:আমি তো আসামি। স্কুলে যাব না। পড়ালেখাও করব না। স্কুলে গেলেই সবাই আমাকে নিয়ে ঠাট্টা করবে। আমার সাথে কেউ বসতেও চাইবে না। হত্যা মামলায় মিথ্যা জেল খেটেছি, কেউ তো এ কথা বুঝবে না। সমাজে লজ্জায় আমি মুখ দেখাতে পারছি না।’

এমন কথা বলেই কান্নায় ভেঙে পড়ে স্থানীয় হাজি জহির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী বুশরা আক্তার পান্না। সে কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার কমলপুর মুসলিমের মোড় এলাকার রিকশাচালক মো. খায়ের মিয়ার ছোট মেয়ে।

পরিবারের অভিযোগ, ভৈরব থানার  উপ-পরিদর্শক নজমুল হুদার রোষানলে পড়ে শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়ে একটি মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে এক মাসেরও বেশি সময় কারাভোগের পর গত বৃহস্পতিবার আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পায় পান্না। একই মামলায় তার সঙ্গে কারাভোগ করে তার বড় বোন দুই শিশু সন্তানের মা বন্যা বেগমও। কারাভোগের পর বাড়িতে এসেও তারা প্রায় অন্তরীণ অবস্থায় আছে, লোকলজ্জার ভয়ে।

এলাকার আলোচিত ঘটনা হওয়ায় প্রতিদিন প্রতিবেশীরা ছুটে আসছে ওই দুই বোনকে দেখতে। তাই বর্তমানে নিজ বাড়িতে ‘বন্দিজীবন’ই কাটাতে হচ্ছে তাদের। মিথ্যা ঘটনায় স্বাভাবিক জীবনে বাধা তৈরি করায় অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের বিচারসহ ওই মামলা থেকে মুক্তি চায় ক্ষতিগ্রস্ত দুই বোনসহ তাদের পরিবার।

খায়ের মিয়া ও তার স্ত্রী মরিয়ম বেগম বীনা জানান, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি দুপুরে

একটি ডাকাতি মামলায় অভিযুক্ত আসামি তাদের ছেলে কাউছারকে গ্রেপ্তার করতে এসআই নজমুল হুদার নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল তাদের বাড়িতে আসে। পুলিশ সদস্যরা তাদের বাড়ির ফটকের গেইট ভেঙে ভেতরে ঢুকে পড়েন। তখন ঘরে থাকা দুই বোন বুশরা ও বন্যা এগিয়ে গিয়ে বাড়ির গেইট ভেঙে পুলিশ প্রবেশ করায়  প্রতিবাদ করেন। এই নিয়ে পুলিশের সঙ্গে বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে এসআই নাজমুল হুদা দুই বোনকে কিল-থাপ্পড় ও লাঠি দিয়ে পেটান এবং ঘরে ঢুকে কাউছারের খোঁজ করেন।

পরিবারের অভিযোগ, এ সময় পুলিশ সদস্যরা তাদের ঘরের আসবাবপত্র ও মালামাল তছনছ করতে থাকলে দুই বোন আবারও প্রতিবাদ করে। একপর্যায়ে কাউছারকে না পেয়ে দুই বোনকে আ

বারও মারধর করে ধরে নিয়ে যান এসআই নাজমুল। সেখানে নিয়েও দুই বোনকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে পুলিশ।

দুই বোন বন্যা-পান্নাকে গ্রেপ্তার ও নির্যাতন বিষয়ে ঢাকাটাইমসে খবর প্রকাশিত হলে চাপের মুখে পড়ে পুলিশ বিভাগ। পরে পুলিশ বিভাগ তাকে গাজীপুরে বদলি করে।

জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি সকালে বিএনপি-জামায়াতের ডাকা হরতাল-অবরোধের সময় ভৈরব থানার সংলগ্ন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বাসে থাকা এক যাত্রী পিকেটারদের ইট-পাটকেলে আহত হন। ওই বছর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। ওই ঘটনায় পর ২০১৬ সালের ২২ জুন ভৈরব থানায় একটি হত্যা মামলা হয়। গ্রেপ্তারের পর এদিনই ওই মামলায় অভিযুক্ত আসামি দেখিয়ে দুই বোনকে আদালতে পাঠায় পুলিশ। পরে আদালত তাদের জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠায়।

রবিবার সকালে এই প্রতিনিধি তাদের বাসায় গেলে বন্যা জানান, জেলে যাওয়ার পর তার দুই শিশু সন্তানকে শ্বশুর বাড়ির লোকজন তার বাবার বাড়ি থেকে তাদের বাড়ি নিয়ে যায়। আমি ৩৫ দিন কারাগারে বন্দী ছিলাম বলে আমার দুটি শিশু মায়ের আদর থেকে বঞ্চিত ছিল। জেল খেটেছি বলে স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন আমাকে দেখতে আসেনি এবং আমার শিশু সন্তান এখনো ফিরে পায়নি।

তিনি জানান, জীবনে এমন অপমান আর শারীরিক নির্যাতনের শিকার  কখনো হইনি। নির্যাতনের পর ওই এসআই আমাদের দুই বোনকে হুমকি দিয়ে বলেছিল ‘মাইরের কথা কাউকে বললে তোদের আবারও জেল থেকে থানায় আনা হবে।’ বিনা অপরাধে আমাদের জীবনকে কলঙ্কিত করায় অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা নজমুল হুদার বিচার দাবি করছি।

তাদের রিকশাচালক বাবা খায়ের মিয়া জানান, আমার দুই মেয়ে জামিনে মুক্তি পেয়েছে, কিন্তু ‘মিথ্যা’ মামলা থেকে এখনো মুক্তি পায়নি।

তিনি বলেন, অভিযুক্ত ওই পুলিশের বিচারসহ আমার মেয়েকে ‘মিথ্যা’ মামলা থেকে মুক্তি দেয়ার জন্য সরকারের কাছে দাবি করছি।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

জাবি শিক্ষার্থীদের জন্য নতুন ৩টি বাস

জাবি প্রতিনিধি, ০২ এপ্রিল ২০১৭:জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) পরিবহন অফিসে শিক্ষার্থীদের জন্য নতুন ৩টি বাস আনা হয়েছে। আগামীকাল সোমবার থেকে নতুন বাসগুলো শিক্ষার্থীদের পরিবহনে ব্যবহার করা হবে বলে জানান পরিবহন অফিসের ভারপ্রাপ্ত শিক্ষক সহকারী অধ্যাপক মো. শরিফ হোসেন।

রোববার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবহন চত্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের কাছে চাবি হস্তান্তর করেন নিটল মোটরসর অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার মো. সাঈদ। বাসগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহনের ঐতিহ্যের সঙ্গে মিল রেখে সবুজ রঙের বডি করা হয়েছে।

বাসগুলো উদ্বোধনের সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম বলেন, নতুন তিনটি বাস বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহনে যোগ হওয়ায় শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি কিছুটা হলেও কমবে। পরবর্তীতে আরও বাস ক্রয় করা হবে বলেও আশা ব্যক্ত করেন তিনি।

এ সময়  উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মো. আবুল হোসেন, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক আবুল খায়ের, রেজিস্ট্রার আবু বকর সিদ্দিক, পরিবহন অফিসের ভারপ্রাপ্ত শিক্ষক সহকারী অধ্যাপক মো. শরিফ হোসেন, শহীদ সালাম বরকত হলের প্রাধ্যক্ষ সহযোগী অধ্যাপক কবিরুল বাশার প্রমুখ।

তিনটি বাস ক্রয়ের আগে শিক্ষার্থীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব মোট চারটি বাস ছিল। আর বিআরটিসি থেকে ৫টি বাস ভাড়া নিয়ে চালানো হতো।

পরিবহন অফিসের ভারপ্রাপ্ত শিক্ষক সহকারী অধ্যাপক মো. শরিফ হোসেন বলেন, শিক্ষার্থীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব বাস কম থাকায় অধিকাংশ সময় আমাদের বিআরটিসি বাসের ওপর নির্ভর করতে হতো। বর্তমানে আমরা কিছুটা হলেও নির্ভরশীল।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

প্রশ্নপত্র গ্রহণের সময় স্মার্টফোন বহন : তিন শিক্ষক-শিক্ষিকা আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক, ০২ এপ্রিল ২০১৭ :  উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষার প্রশ্নপত্র আনতে গিয়ে স্মার্টফোন বহনের অভিযোগে আটক হয়েছেন দুই শিক্ষক ও এক শিক্ষিকা।

রোববার সকালে এইচএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে প্রশ্ন আনতে গিয়ে স্মার্টফোন বহনের বিষয়টি প্রকাশ পেলে ঢাকা ট্রেজারি থেকে তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন ঢাকা বোর্ডের কর্মকর্তারা।

এদিকে, এ ঘটনায় তাদের সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। তারা পরীক্ষাকেন্দ্র সচিবের প্রতিনিধি ছিলেন। তারা হলেন, হাবিবুল্লাহ বাহার কলেজের সহকারী অধ্যাপক আবদুর রশিদ, ঢাকা টিএনটি কলেজের প্রভাষক নাঈমা নাসরিন ও প্রভাষক মাহবুবুর রহমান।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, প্রশ্নপত্র গ্রহণের সময় স্মার্টফোন বহন নিষিদ্ধ। তারা বহন করায় তাদের পুলিশে দেয়া হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে শুক্রবার ভুয়া প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে মগবাজারের নয়াটোলা থেকে দুই যুবককে আটক করে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

এইচএসসির প্রশ্নপত্র ফাঁস: গ্রেফতার ২

রাজধানীতে এইচএসসির ‘ভুয়া’ প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উত্তর বিভাগ। গতকাল শুক্রবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ডিএমপি মিডিয়ার পক্ষ হতে আজ শনিবার সকালে এ বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। দুপুরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানানো হয়েছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতি চট্টগ্রামের স্বতস্ফূর্ত মানববন্ধন সম্পন্ন

চট্রগ্রাম প্রতিনিধি,২৪ মার্চ ১৭ : সম্প্রতি চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুন্ড উপজেলার বার আউলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাজী নাসিম উদ্দিনকে শ্রেণি কক্ষে প্রবেশ করে অহেতুক তথাকথিত বখাটে মোঃ ইকবাল হোসেন কর্তৃক নির্মমভাবে হামলার শিকার হয়ে মাথা ফাটিয়ে রক্তাক্ত করণ ও পটিয়া উপজেলার দক্ষিণ ভূর্ষি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মিসফা সুলতানাকে স্থানীয় বখাটে আহসান উল্লাহ টুটুল দ্বারা খুন্তি দিয়ে পিটিয়ে হাত পা ভেঙ্গে দেওয়ার প্রতিবাদে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতি চট্টগ্রামের উদ্যোগে আজ ২৪ মার্চ শুক্রবার সকাল ১০.৩০ থেকে ১১.৩০টার পর্যস্ত চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব চত্বরে চট্টগ্রামের সকল শিক্ষকদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের মাধ্যমে এক মানববন্ধন কর্মসূচি সুসম্পন্ন হয়।

উক্ত মানববন্ধনে চট্টগ্রাম জেলা তথা বিভাগের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, সহকারি শিক্ষক বৃন্দ, পেশাজীবী, সাংবাদিক, বুদ্ধিজীবী, সরকারি, বেসরকারীপদস্থ কর্মকর্তা ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
উক্ত মানববন্ধনে নেতৃবৃন্দরা বলেন, আগামী ৭ দিনের মধ্যে প্রধান শিক্ষক কাজী নাসিম উদ্দিনের উপর হামলাকারী বখাটে মোঃ ইকবাল হোসেনকে গ্রেপ্তার করে দ্রুত বিচার ট্রাব্যুনালে মামলাটির স্থানান্তরপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জোর দাবি জানান।
পটিয়া উপজেলার সহকারী শিক্ষিকা মিসফা সুলতানাকে খুন্তি দিয়ে পিঠিয়ে হাত পা ভেঙ্গে দেওয়ায় গ্রেপ্তারকৃত বখাটের মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানাস্তর করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানান। বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতি কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম জেলা সভাপতি কাইছারুল আলম জোর দাবি জানান। অন্যথায় পুনরায় মানববন্ধন, সাংবাদিক সম্মেলনসহ আরও কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।
উক্ত মানববন্ধনটি সভাপতি কাইছারুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম ছিদ্দিকী ও সহ-সাধারণ সম্পাদক ফয়েজুল ইসলামের নেতৃত্বে মানববন্ধনের পর গোল চত্বর পর্যন্ত মৌন মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, বাঁশখালী উপজেলার সভাপতি শহীদুল্লাহ, আজিজুর রশিদ চৌধুরী, পানু লাল দত্ত, নুর মোহাম্মদ শিকদার, নুরুর ইসলাম, লিটন দেব, প্রবীর দেব, সঞ্জিব কুমার দে, বোয়ালখালী উপজেলার সভাপতি জসিম উদ্দিন তালুকদার, সীতাকুন্ড উপজেলার সভাপতি এস.এম. আতিকুর রহমান, সাতকানিয়া উপজেলার সহ-সভাপতি উত্তম চক্রবর্ত্তী, চান্দগাঁও থানার সহ-সভাপতি রূপালী বড়–য়া, মরিয়ম বেগম, চন্দনাইশ উপজেলার সিনিয়র সহ-সভাপতি জিতেন্দ্র লাল বয়া, আবুল কালাম, আনোয়ারা থানার সন্জীব মজুমদার, পুলক কুমার সেন, পটিয়া থানার সভাপতি শামীমা ইয়াছমিন, শামীম উদ্দিন চৌধুরী, রাউজান উপজেলার মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক জুলকর নাইন, কৈষ্ণব সরকার, সহকারী শিক্ষক নেতা মোঃ মনসুর আলম চৌধুরী, আবুল হাশেম, ইন্দ্রজিৎ ভট্টাচার্য্য, শামীমা আক্তার জাহান প্রমুখ।

প্রধান শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রিয় নেতৃবৃন্দ জানান আগামী ৭দিনের মধ্যে যদি হামলাকারীদের গ্রেফতার করা না হলে সারা দেশে কঠোর কর্মসুচি ঘোষনা করা হবে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

আটঘরিয়ায় বিশ্ব যক্ষা দিবসের র‌্যালীতে পারখিদিরপুর হাই স্কুলের ক্ষুদে ডাক্তার

পাবনা প্রতিনিধি,২৪ মার্চ:

পাবনার আটঘরিয়ায় বিশ্ব যক্ষা দিবসে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে উপজেলা বিদ্যালয় স্বাস্থ্য কেন্দ্র পারখিদিরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২৫জন ক্ষুদে ডাক্তার ও স্কাউটসগণ অংশ গ্রহণ করেছে। ২৪ মার্চ বিশ্ব যক্ষা দিবস উদযাপন করার জন্য আটঘরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তার কার্যালয় হতে সকালে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীর শেষে আটঘরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তার কার্যালয়ের সভা কক্ষে একটি আলোচনা সভা করা হয়। র‌্যালী ও আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন আটঘরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তার কার্যালয়ের আরএমও ডাঃ মোঃ সজিবুর রহমান সজিব। বক্তব্য রাখেন মোঃ আনোয়ারুল হাদী ফার্মাসিস্ট, মোঃ সিরাজুল ইসলাম, আটঘরিয়া থানার এসআই মোঃ আলমগীর হোসেন। সার্বিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আটঘরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তার কার্যালয়ের যক্ষা বিভাগের পরিচালক মোঃ মোশাররফ হোসেন।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদক পেলেন খুবির ৬ শিক্ষার্থী

পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের (অনুষদভিত্তিক সর্বোচ্চ জিপিএ অর্জন) জন্য খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ মেধাবী শিক্ষার্থী ‘প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদক’ লাভ করেছেন। বুধবার (২২ মার্চ) সকালে ঢাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদেরকে এই স্বর্ণপদক ও সনদপত্র প্রদান করেন।
পদক প্রাপ্তদের মধ্যে ২০১৩ সালে জীব বিজ্ঞান স্কুলের (অনুষদের) সর্বোচ্চ জিপিএ অর্জনকারী (জিপিএ ৪ এর মধ্যে ৩.৯৫) ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন রিসোর্স টেকনোলজি ডিসিপ্লিনের শারমীন আকতার এবং ২০১৪ সালে ব্যবস্থাপনা ও ব্যবসায় প্রশাসন স্কুলে সর্বোচ্চ জিপিএ অর্জনকারী (জিপিএ ৪ এর মধ্যে ৪) ব্যবসায় প্রশাসন ডিসিপ্লিনের জান্নাতুল ফেরদৌস বৃষ্টি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে স্বর্ণপদক ও সনদপত্র গ্রহণ করেন।

প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদক প্রাপ্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অপর চারজন হলেন- ২০১৩ সালের সমাজ বিজ্ঞান স্কুলের অর্থনীতি ডিসিপ্লিনের অপূর্ব রায়। তিনি জিপিএ ৪ এর মধ্যে ৩.৮ পান। একই সালে বিজ্ঞান প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা স্কুলের গণিত ডিসিপ্লিনের আফরোজা পারভীন জিপিএ ৪ এর মধ্যে ৩.৯১, ২০১৪ সালে সমাজ বিজ্ঞান স্কুলের অর্থনীতি ডিসিপ্লিনের নূসরাত জাহান জিপিএ ৪ এর মধ্যে ৩.৮৬ এবং একই সালে জীব বিজ্ঞান স্কুলের ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন রিসোর্স টেকনোলজি ডিসিপ্লিনের শারমীন সুলতানা পান জিপিএ ৪ এর মধ্যে ৩.৮৫।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ জন মেধাবী শিক্ষার্থীর কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের জন্য প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদক পাওয়ায় প্রত্যেককে অভিনন্দন জানিয়েছেন। এক অভিনন্দন বার্তায় তিনি বলেন, ‘এটা তাদের কঠিন পরিশ্রম ও অধ্যবসায়ের স্বীকৃতি। তাদের এই কৃতিত্ব খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল করবে, যা অন্যান্য শিক্ষার্থীদের মধ্যেও অনুপ্রেরণা যোগাবে।’

তিনি ভবিষ্যতে তাদের ব্যক্তিগত জীবনের সাফল্য কামনা করেন। এছড়া
উপাচার্য শিক্ষার্থীদের মেধার স্বীকৃতিস্বরূপ এই স্বর্ণপদক প্রদান করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ভালো ফলাফল অর্জনে অনুপ্রাণিত করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। এছাড়া তিনি শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ ও এই উদ্যোগ গ্রহণ করায় ইউজিসির চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নানকেও আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষক সুব্রত সাহার ওপর বহিরাগতদের হামলার প্রতিবাদে ও দুষ্কৃতকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ক্যাম্পাস।

মঙ্গলবার সকাল থেকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল বের করে। শিক্ষকের উপর হামলাকারীরা গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত ক্লাসে ফিরবে না বলে ঘোষণা দিয়েছে কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এর আগে সোমবার বিকেল ৫টার দিকে শিক্ষক সুব্রত সাহা কলেজ থেকে বাসায় ফেরার পথে বহিরাগত জুয়েল মিয়া দুখুসহ (২৫) তার সহযোগীরা অতর্কিত হামলা চালায় তার ওপর। সহকর্মীরা আহত শিক্ষককে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান।

এ ঘটনায় ওই শিক্ষক ৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ১০ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন। রাতেই ঘটনার সঙ্গে জড়িত একজনকে গ্রেফতার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শিক্ষক সুব্রত সাহা লক্ষ্মীপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের কম্পিউটার বিভাগের ইনস্ট্রাক্টর। আর হামলাকারী মামলার প্রধান আসামি দুখু সদর উপজেলার লাহারকান্দি গ্রামের আজাদ খন্দকারের ছেলে। অন্য আসামিরা হলেন, বাঞ্চানগর গ্রামের নাজমুল ইসলাম তারেক, আবির নগরের শাহ আলম হেলালের ছেলে শাহ মোহাম্মদ রাফি ও পৌরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা আরমান হোসেন মঞ্জু।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

নিবন্ধনে উত্তীর্ণ ১২৫ জনের নিয়োগে হাইকোর্টের রুল

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১২৫ জন পরীক্ষার্থীর মেধাক্রম প্রণয়ন ও মেধাক্রমের ভিত্তিতে কেন নিয়োগ দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

সোমবার বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট খায়রুল আলম।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে শিক্ষাসচিব, এনটিআরসিএ কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এর আগে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পরও নিয়োগবঞ্চিত সোহেল রানাসহ ১২৫ জন হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন।

রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে আদালত  রুল জারি করেন।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ঢাবিতে উল্লাস শততম টেস্টে স্মরণীয় বিজয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক :

শ্রীলংকার বিপক্ষে টাইগারদের শততম টেস্টে স্মরণীয় বিজয়ে বাঁধভাঙা উল্লাসে মেতে উঠেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা।

রোববার টেস্টের ৫ম ও শেষ দিনে তৃতীয় সেশনে এসে যখন মেহেদী হাসান মিরাজের ব্যাট থেকে জয়সূচক রানটি আসে তখন গোটা বাংলাদেশের মত উল্লাসে ফেটে পড়েন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি হলের টিভি রুম থেকে বাংলাদেশ বাংলাদেশ শ্লোগান ভেসে আসতে থাকে।

পরে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকার রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে গিয়ে উল্লাস করেন। তারা জাতীয় পতাকা নেড়ে পুরো এলাকা মাতিয়ে তোলেন।

উদ্বেল আনন্দে জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে বিভিন্ন হল থেকে দলে দলে মিছিল নিয়ে শিক্ষার্থীরা ছুটে আসে রাজু ভাস্কর্যের সামনে। শততম টেস্টে শ্রীলঙ্কাকে হারানোর পর থেকেই শিক্ষার্থীদের ভিড় বাড়তে থাকে টিএসসি প্রাঙ্গণে। দল বেধে মিছিল করে ‘বাংলাদেশ বাংলাদেশ’ ধ্বনিতে তারা মুখরিত করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।

শত শত শিক্ষার্থী আনন্দ মিছিল নিয়ে রাজু ভাস্কর্যের সামনে এসে শ্লোগানের মাধ্যমে ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন জানায়। তাদের মুখে কেবলই ‘বাংলাদেশ, বাংলাদেশ’ শ্লোগান। শিক্ষার্থী বাংলাদেশের পতাকা নিয়ে ‘বাংলাদেশ’ ‘বাংলাদেশ’ বলে শ্লোগান দিতে দিতে আনন্দ নৃত্যে মেতে ওঠেন। ‘ভি’ চিহ্ন দেখিয়ে স্মার্টফোনে সেলফিও তুলেছেন কেউ কেউ।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ঢাবি সাংবাদিকের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা জবিসাসের

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) সাংবাদিক সমিতির সদস্য ও বার্তা সংস্থা ইউএনবির বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ইমরান হোসেনের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (জবিসাস)।

এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (জবিসাস) সভাপতি সোহাইল মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক হাসান মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার এক যৌথ বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ক্যাম্পাসে সাংবাদিকরা বিভিন্ন ঝুঁকি নিয়ে পেশাগত দায়িত্ব পালন করেন। গণমাধ্যম কর্মীদের ওপর এ ধরনের হামলা স্বাধীন মত প্রকাশের অন্তরায়। ভবিষৎতে যেন কেউ এ ধরনের ন্যাক্কারজনক কাজ করতে না পারে সেজন্য এ ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য কতৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন তারা। একই সাথে এ ঘটনায় আহত সহকর্মী ইমরান হোসেনের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন তারা।

উল্লেখ্য, সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ঢাবির বিজয় একাত্তর হলে সংবাদ সংগ্রহ শেষে সাংবাদিকরা হল ত্যাগের সময় লাইট বন্ধ করে মুখে কাপড় দিয়ে ঢেকে এ হামলা চালানো হয়।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

অধিভু্ক্ত কলেজ নিয়ে ২০ মার্চ সিদ্ধান্ত : ঢাবি প্রক্টর

ঢাবি প্রতিনিধি : অধিভুক্ত কলেজের বিষয়ে আগামী ২০ মার্চ (সোমবার) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ এম আমজাদ।
গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত না করা, অধিভু্ক্ত কলেজগুলোর সার্টিফিকেটে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম না থাকাসহ বিভিন্ন দাবিতে বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) দুপুরে ঢাবির সাধারণ শিক্ষার্থীরা ভিসিকে স্মারকলিপি প্রদান করে। স্মারকলিপি গ্রহণ করে প্রক্টর ছাত্রদের এ কথা জানান।

এর আগে ভিসি চত্বরে বেলা ১১টায় গার্হস্থ্য অর্থনীতিকলেজ শিক্ষার্থীদের অযৌক্তিক দাবি এবং রাস্তা অবরোধের প্রতিবাদে মানববন্ধন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এর পর একটি মিছিল ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে।
উল্লেখ্য, ১১ মার্চ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ইনিষ্টিটিউট করার দাবিতে নিউমার্কেট মোড় অবরোধ করে আন্দোলন করে আসছে গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের শিক্ষার্থীরা।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

শিক্ষিকার হামলাকারীর উপযুক্ত শাস্তির নির্দেশ মন্ত্রণালয়ের

চট্রগ্রাম প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের পটিয়ায় শ্রেণিকক্ষে ঢুকে শিক্ষিকার হাত-পা ভেঙে দেওয়া বখাটের সর্বোচ্চ শাস্তি এবং আহত শিক্ষিকার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা নিশ্চিতের নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

সচিবালয়ে নিজ দফতরে বুধবার দুপুরে এ কথা জানান প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিবের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত সচিব মো. নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, ‘বখাটের হাতে শিক্ষক আহত হওয়ার খবর পেয়ে বুধবার সকালেই আমরা দ্রুত ব্যবস্থা নিয়েছি। আসামি ধরাও পড়েছে। আমি ডিসিকে বলেছি, আইনগতভাবে বখাটের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতে যা যা করার তা করুন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গেও কথা বলেছি, তাদের বলেছি আহত শিক্ষকের যেন স্পেশালি কেয়ার নেওয়া হয়।’

‘আমি চট্টগ্রামের ডিসি (জেলা প্রশাসক) ও উপ-পরিচালককে বলেছি, এ ব্যাপারে সর্বোচ্চ অ্যাটেনশন দিতে হবে। তাদের দু’জনকেই হাসপাতালে গিয়ে শিক্ষিকাকে দেখতে বলেছি। আরো কোনো সহায়তা করার থাকলে আমরা করব’ যোগ করেন নজরুল ইসলাম। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অবহিত আছেন বলেও জানান তিনি। হামলার বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীও অবগত বলে জানায় মন্ত্রণালয়।

পটিয়া উপজেলার দক্ষিণ ভূর্ষি ‌ইউনিয়নের পূর্ব ডেঙ্গামারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মঙ্গলবার ক্লাস চলাকালে সহকারী শিক্ষিকা মিসফা সুলতানাকে (২৫) খন্তা দিয়ে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দেয় এক বখাটে। স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে প্রথমে পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাকে স্থানান্তর করা হয়। এরইমধ্যে হামলাকারী আহসান উল্লাহ টুটুলকে (৩০) আটক করেছে পুলিশ। টুটল একই এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free