হোলি আর্টিজানে হামলা নিয়ে এক প্রতিবেশীর বর্ণনা

ডেস্ক,৩০জুন: প্রতিদিন রাতের আহারে ভাত নয়, পাউরুটি পছন্দ করেন তিনি। এর সঙ্গে খানিকটা পনির। পাউরুটি একটু টাটকা চাই। সে জন্য রাতের বেলাতেই এটি কিনে থাকেন সাখাওয়াত খান। টাটকা, নরম ও খেতে সুস্বাদু হওয়ায় পাউরুটির জন্য বাড়ির পাশের এক বেকারি ছিল তাঁর পছন্দের। ‘ছিল’ শব্দটিই তিনি উচ্চারণ করেছেন, কারণ ওই বেকারির সঙ্গেই জড়িয়ে আছে এক ভয়াবহ ঘটনা। সেই ভয়াবহতা তাঁকে এতটাই গ্রাস করেছে যে পছন্দের বেকারি থেকেই তিনি ছিটকে পড়েছেন। এখনো ওই সড়কের পাশ দিয়ে যেতেও আতঙ্কে শিউরে ওঠেন তিনি।

ভয়ংকর সেই রাত

নিজের ব্যবসার পাশাপাশি সাংবাদিকতাও করে থাকেন সাখাওয়াত খান। রাজধানী ঢাকার গুলশান ২ নম্বরের ৭৮ নম্বর সড়কের ১ নম্বরের একটি বহুতল বাড়ির ফ্ল্যাটে স্ত্রী ও একমাত্র ছেলেকে নিয়ে বসবাস করেন তিনি। বাড়ির সামনে দাঁড়িয়েই কথা হচ্ছিল তাঁর সঙ্গে। হাত দিয়ে দেখালেন পাশের সড়কেই ছিল সেই বেকারি স্প্যানিশ রেস্তোরাঁ ‘হোলি আর্টিজান বেকারি’। নামটি উচ্চারণ করেই কয়েক মুহূর্ত চুপ করে রইলেন সাখাওয়াত খান। মনে হলো যেন এক ঝটকায় হুড়মুড় করে অনেক কিছুই তাঁর চোখের সামনে এসে হাজির হয়েছে। থেমে থেমে বললেন, ‘আমি এখন সেখানে যাই না।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*