Home » Tag Archives: ছুটি

Tag Archives: ছুটি

১লা মার্চ খুলছে না প্রাথমিক বিদ্যালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২ঃ দেশের করোনা সংক্রমণ কমায় প্রাথমিক বিদ্যালয় আগামী ১ মার্চ থেকে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত ক্লাস চলার ঘোষণা এলেও ১লা মার্চ খুলছে না প্রাথমিক বিদ্যালয়। ঐদিন সরকার ঘোষিত নির্ধারিত ছুটি শব-ই-মিরাজ/শ্রী শ্রী শিবরাত্রি ব্রত থাকায় ১লা মার্চ খুলছে না প্রাথমিক বিদ্যালয়। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সুত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আরো পড়ুনঃ প্রাথমিক খুললেও বন্ধ থাকবে প্রাক-প্রাথমিক

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিন বলেন, মার্চের প্রথম সপ্তাহে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে সশরীরে পাঠদান শুরু হবে। এ বিষয়ে শিগগিরই অফিস আদেশ জারি করা হবে।

আরো পড়ুনঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বদলি প্রক্রিয়া শুরু মার্চে

করোনা সংক্রমণের কারণে ২০২০ সালের ১৭ মার্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়। সংক্রমণ কমায় দেড় বছর পর ২০২১ সালের ১২ সেপ্টেম্বর খুলে দেওয়া হয় সব স্তরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। কিন্তু ফের সংক্রমণ বাড়ায় গত ২১ জানুয়ারি থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়। আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ থাকবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।


২০২৩ সাল থেকে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দুই দিন ছুটি

ডেস্ক,১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২
২০২৩ সাল থেকে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাপ্তাহিক ছুটি দুদিন হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডে (এনসিটিবি) নতুন জাতীয় কারিকুলাম পাইলটিংয়ের জন্য ষষ্ঠ শ্রেণির নতুন পাঠ্যবই বিতরণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

আরো পড়ুনঃ প্রাথমিক খুললেও বন্ধ থাকবে প্রাক-প্রাথমিক

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে এখনই সাপ্তাহিক দুদিন ছটি আছে। মাধ্যমিকে ও উচ্চ মাধ্যমিকে কোথাও কোথাও এখন দুদিন আছে। আমরা যখন কারিকুলামের রূপরেখা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে গিয়েছিলাম তখনই মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষায় দুদিন ছুটি করতে চাই। পাঁচ দিন খুব মনোযোগ করে পড়বে তারপর দুদিন ছুটি থাকা দরকার। প্রাথমিক একদিন প্রস্তাব করেছিল। প্রধানমন্ত্রী তখন প্রাথমিকের পক্ষ নিয়ে বললেন—আমাদেরও দুদিন লাগে। আমরা ঠিক করেছি সবারই দুদিন হবে। এখন যারা ট্রাইআউটে (পাইলটিংয়ে) যাবে তাদের দুদিন ছুটি থাকবে। আশা করি ২০২৩ সাল থেকে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাপ্তাহিক ছুটি দুদিন থাকবে।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, একসঙ্গে প্রতিটি প্রতিষ্ঠানে কারিকুলাম বাস্তবায়ন করতে বিশাল আকারের বিনিয়োগ করতে হবে। প্রতিটি শিক্ষা প্রতি অবকাঠামোগত বড় পরিবর্তন আনতে হবে। সমস্ত সরঞ্জাম দিতে হবে, শিক্ষক নিয়োগ করতে হবে ল্যাবরেটরি অ্যাসিটেন্ট নিয়োগ করতে হবে। এটা একটি বড় বিনিয়োগ। শিক্ষায় আমাদের বড় বিনিয়োগ করতেই হবে।
মন্ত্রী বলেন, নতুন কারিকুলাম ধাপে ধাপে বাস্তবায়ন হবে। ২০২৩ সালে ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণি বাস্তবায়ন হবে। আর প্রাথমিকে কোনও অসুবিধা নেই মার্চ থেকেই তারা শুরু করতে পারবে। এরই মধ্যে সংক্রমণ আরও হয়তো কমে যাবে। শিক্ষার্থীরা যখন ক্লাসে ফিরবে তখন পাইলটিং শুরু হবে।
শিক্ষার্থীদের নির্দিষ্ট সময়ে সঠিক গন্তব্যে পৌঁছাতে নতুন কারিকুলাম করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডে (এনসিটিবি) নতুন জাতীয় কারিকুলাম পাইলটিংয়ের জন্য ষষ্ঠ শ্রেণির নতুন বই বিতরণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। নতুন কারিকুলামের পাইলটিং আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে মাধ্যমিক স্তরের ৬২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শুরু হবে।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, নতুন শিক্ষাক্রমে শিক্ষার্থীরা শুধু জ্ঞান অর্জন নয় একইসঙ্গে দক্ষতা, সঠিক দৃষ্টিভঙ্গি, মূল্যবোধ শিখতে পারবে। সব কিছুর সমন্বয় ঘটিয়ে শিক্ষার্থীরা দক্ষ মানুষ হবে। নিজেরা চিন্তা করতে শিখবে, চিন্তার জগত প্রসারিত হবে, শিক্ষার্থীরা যা শিখবে তা প্রয়োগ করা শিখবে, সমস্যা চিহ্নিত করতে পারবে, তার সমাধান খুঁজে বের করতে পারবে। আমরা শিক্ষার্থীদের সেভাবে গড়ে তুলতে চাই। বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথে যে গন্তব্য আমরা ঠিক করেছি, সেই গন্তব্যে পৌঁছাতে হলে গতানুগতিক যে পড়াশোনা সেটি যথেষ্ট নয়। আজকের শিশুরাই আগামী দিনে দেশের হাল ধরবে এবং দেশকে প্রত্যাশার সেই জায়গায় নিয়ে যাবে। সেই প্রত্যাশায় নতুন কারিকুলামের জন্য সবাই আমরা প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

আর বাড়ছে না প্রাথমিকের ছুটি

ডেস্ক,১২ ফেব্রুয়ারী ঃ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আর না বাড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

শনিবার দুপুরে ‘বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস ইন্টারন্যাশনাল মডেল ইউনাইটেড নেশন্স কনফারেন্স’ এর সমাপনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি, করোনা সংক্রমণের হার কমছে। এটা ভালো খবর। আমরা আশা করছি, এর হার আরও কমবে৷ শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবন আর যাতে ব্যাহত না হয়, সেজন্য শ্রেণি কক্ষে যে পাঠদান বন্ধ আছে আশা করছি সেটা আর বাড়াতে হবে না।

তিনি বলেন, করোনা সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সাথে আগামীকাল আমাদের একটি বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। তবে সেটি আরও দুইদিন পরে হবে। সেখানে আমরা সার্বিক অবস্থা পর্যালোচনা করব।

মন্ত্রী বলেন, আমরা কারিগরি পরামর্শক কমিটির সাথে পরামর্শ করে এর আগেও বিজ্ঞান সম্মত সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সামনেও নিব।

এর আগে শুক্রবার সকালে সিলেট সার্কিট হাউস মিলনায়তনে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতার সঙ্গে মতবিনিময় সভায় শিক্ষামন্ত্রী জানান, করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন কমছে, আশা করা যাচ্ছে খুব শিগগিরই খুলে দেয়া হবে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

বুধবার ব্যাংক বন্ধ থাকবে

নিজস্ব প্রতিবেদক | ১৪ অক্টোবর, ২০২১

ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে বুধবার (২০ অক্টোবর) সব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করেছে।

এর আগে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে ১৯ অক্টোবর সব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করেছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।

আরো পড়ুনঃ উসকানি দিয়ে পূজা মন্দিরে হামলা, আটক ৪৩

তবে পরবর্তীতে চাঁদ দেখা কমিটি সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) ২০ অক্টোবর নির্ধারণ করে। ফলে এই দিনে সব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকছে।

বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো সার্কুলারে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে ১৯ অক্টোবর ছুটি ঘোষণা করা হয়েছিল। কিন্তু জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ঘোষিত ছুটি ১৯ অক্টোবরের পরিবর্তে ২০ অক্টোবর নির্ধারণ করা হলো।

আরো পড়ুনঃ প্রাথমিকে বার্ষিক পরীক্ষা ডিসেম্বরে

 

প্রাথমিকে সাপ্তাহিক ছুটি এক দিন এবং মাধ্যমিকে দুই দিন

প্রাথমিকে সাপ্তাহিক ছুটি এক দিন

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৫ সেপ্টেম্বর:

দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা দেশের শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন ব্যবস্থায় বড় রকমের পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। প্রাক্‌–প্রাথমিক থেকে উচ্চমাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত বিদ্যমান পরীক্ষার চেয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ধারাবাহিক মূল্যায়ন (শিখনকালীন) বেশি হবে। এর মধ্যে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত কোনো পরীক্ষা হবে না, পুরোটাই মূল্যায়ন হবে সারা বছর ধরে চলা বিভিন্ন রকমের শিখন কার্যক্রমের ভিত্তিতে। পরবর্তী শ্রেণিগুলোর মূল্যায়নের পদ্ধতি হিসেবে পরীক্ষা ও ধারাবাহিক শিখন কার্যক্রম—দুটোই থাকছে।

নতুন নিয়মে এখনকার মতো এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা হবে না। শুধু দশম শ্রেণির পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে হবে এসএসসি পরীক্ষা। একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে দুটি পাবলিক পরীক্ষা হবে। প্রতি বর্ষ শেষে বোর্ডের অধীনে এই পরীক্ষা হবে। এরপর এই দুই পরীক্ষার ফলের সমন্বয়ে এইচএসসির চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করা হবে।

প্রাক্-প্রাথমিক থেকে উচ্চমাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত যে নতুন শিক্ষাক্রম প্রণয়ন করতে যাচ্ছে সরকার, তাতে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন ব্যবস্থায় এমন অনেক পরিবর্তনের কথা রয়েছে।

নতুন শিক্ষাক্রমের রূপরেখাটি গত সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুমোদন দেওয়ার পর এখন সেটির বাস্তবায়ন কৌশল নিয়ে আলোচনা শুরু করেছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)।

নতুন শিক্ষাক্রমের রূপরেখা অনুযায়ী,১ম থেকে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত বছরে মোট শিখন ঘণ্টা রাখা হয়েছে ৬৮৪ এবং চতুর্থ থেকে পঞ্চম শ্রেণিতে শিখন ঘণ্টা ৮৫৫। প্রাথমিকে সাপ্তাহিক ছুটি থাকবে এক দিন। অন্যদিকে মাধ্যমিক স্তরে সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন রাখা হয়েছে। এর মধ্যে ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত বছরে শিখন ঘণ্টা ১ হাজার ৫৫, নবম থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত ১ হাজার ১১৭ এবং একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে শিখন ঘণ্টা ১ হাজার ১৬৭। তবে জাতীয় দিবসগুলোতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা থাকবে এবং এসব দিবস পালনের কর্মসূচি শিক্ষা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বিবেচিত হবে।

নতুন শিক্ষাক্রমের মূল্যায়ন ব্যবস্থার বিষয়ে জানতে চাইলে মূল্যায়ন বিশেষজ্ঞ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক এস এম হাফিজুর রহমান দৈনিক শিক্ষাবার্তাকে বলেন, ধীরে ধীরে ধারাবাহিক মূল্যায়নের দিকেই যেতেই হবে। এটি ভালো দিক। কিন্তু কাজটি করতে হবে আস্থা এবং বস্তুনিষ্ঠতার সঙ্গে। তবে যেখানে পরীক্ষা কমানোর কথা বলা হচ্ছে, সেখানে দশম, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে পরপর তিনটি পাবলিক পরীক্ষা রাখার বিষয়টি বোধগম্য হচ্ছে না। এ জন্য প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আরও পরামর্শ করে ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।

চাকুরি প্রস্তুতি নিতে ক্লিক করুন

শিক্ষার্থীদের হতাশা কাটাতে চলমান ছুটি আর না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত

ডেস্ক,৩ সেপ্টেম্বর ২০২১:
শিক্ষার্থীদের হতাশা কাটাতে চলমান ছুটি আর না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।
একটি বেসরকারি টেলিভিশন একাত্তরের টকশো একাত্তর জার্নালকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এ তথ্য জানান।

আরো পড়ুনঃ ১২ সেপ্টেম্বর খুলছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান: শিক্ষামন্ত্রী

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার ধীরে ধীরে কমে আসায় আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলতে সব প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে কথা বলার পর, এর রোডম্যাপ নিয়ে জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, সবকিছু ঠিক থাকলে ১২ সেপ্টেম্বর থেকেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে।

প্রাথমিকেও ছুটি বাড়লো

ডেস্ক,১ সেপ্টেম্বর ২০২১:
করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি বাড়তির দিকে থাকায় মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মতো প্রাথমিক ও কিন্ডারগার্টেনের ছুটিও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়।

নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ছুটি বাড়ানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে অফিস আদেশ জারি করেছে।

আরেক দফা বাড়ল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি

নিজস্ব প্রতিবেদক আগস্ট ২৬, ২০২১
আরেক দফায় বাড়ানো হয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি।দেশে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির কারণে এই ছুটি আগামী ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে করোনা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়সহ টেকনিক্যাল কমিটির সঙ্গে বৈঠক হয়।

সেখানে এ সিদ্ধান্ত জানান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

এছাড়া বিকেলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতেও ছুটি বৃদ্ধির তথ্য জানানো হয়েছে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি আবারও বাড়ল

নিজস্ব প্রতিবেদক,২৯ জুন ২০২১:
দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং ইবতেদায়ি ও কওমি মাদ্রাসায় চলমান ছুটি আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে ।

আজ মঙ্গলবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সারা দেশে করোনা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। লকডাউনও কার্যকর হয়েছে। শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারী ও অভিভাবকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও সার্বিক নিরাপত্তার বিবেচনায় এবং কোভিড ১৯ সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির সঙ্গে পরামর্শক্রমে এই ছুটি বৃদ্ধি করা হয়েছে। সর্বশেষ ঘোষণা অনুযায়ী ছুটি ছিল ৩০ জুন পর্যন্ত ।

ঈদ পর্যন্ত বাড়ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি

নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৭ জুন, ২০২১
করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে প্রায় দেড় বছর ধরে। এ অবস্থায় আগামী ৩০ জুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার কথা থাকলেও করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় যথাসময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব হচ্ছে না। ঈদ পর্যন্ত বাড়ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি।

আরো পড়ুন

প্রাথমিক প্রধান শিক্ষকরা চান টাইমস্কেল

এদিকে করোনার ঊর্ধ্বগতিতে সোমবার (২৮ জুন) থেকে আসছে কঠোর লকডাউন। এ অবস্থায় ফের অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে যথাসময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা।
শিক্ষামন্ত্রণালয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের হার ক্রমেই বাড়ছে। আজকেই (গতকাল) ২১ শতাংশের বেশি ছিল। ৫ শতাংশের নিচে না আসলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হচ্ছে না। ৩০ জুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সম্ভাবনা নেই। তবে পরিস্থিতি বুঝে শিক্ষামন্ত্রী সিদ্ধান্ত জানাবেন। এর জন্য কয়েকদিন অপেক্ষা করতে হবে।’

সরকারি কর্মচারীদের নতুন ছুটির নিয়মাবলী

বাংলাদেশের সরকারি কর্মচারীদের ছুটির নিয়মাবলী অনেকেই হয়ত জানেন না। এবার জেনে নিন-

(১) কোন কর্মচারী নিম্নবর্ণিত যে কোন ধরণের ছুটি পাবেন, যথাঃ
(ক) পূর্ণ বেতনে ছুটি;
(খ) অর্ধ বেতনে ছুটি;
(গ) বিনা বেতনে অস্বাভাবিক ছুটি
(ঘ) বিশেষ অক্ষমতাজনিত ছুটি
(ঙ) সংগরোধ ছুটি (Quarantine Leave);
(চ) প্রসূতি ছুটি (Maternity Leave);
(ছ) অধ্যয়ন ছুটি (Study Leave); এবং
(জ) নৈমিত্তিক ছুটি (Casual Leave) ।
(২) উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ কোন কর্মচারীকে বিশেষ অক্ষমতাজনিত ছুটি ও অধ্যয়ন ছুটি ব্যতীত অন্যবিধ ছুটি মঞ্জুর করতে পারেন এবং ইহা বন্ধের দিনের সাথে সংযুক্ত করেও প্রদান করা যেতে পারে।
Read More »

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ৬ আগষ্ট পর্যন্ত

 

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৫ জুন:

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে স্কুল-কলেজসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানো হয়েছে। আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

সোমবার (১৫ জুন) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়েরের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষার্থীদের সার্বিক সুরক্ষা ও নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চলমান ছুটি আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

দেশে করোনাভাইরাসের বিস্তার হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৭ মার্চ থেকে সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এরপর দফায় দফায় ছুটি বাড়িয়ে ১৫ জুন অর্থাৎ সোমবার পর্যন্ত করা হয়।

মাঝে ১ জুন দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রশাসনিক, রক্ষণাবেক্ষণ জাতীয় কর্মকাণ্ড এবং শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমোদন দেয়া হয়। আর ছুটি আজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও করোনা সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকায় তা বাড়ানো হলো ৬ আগস্ট পর্যন্ত।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, করোনা মহামারি আকারে ধারণ করায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে শিক্ষার্থীদের হুমকির মধ্যে ফেলা হবে না। প্রতিদিন সংসদ টিভিতে ক্লাস সম্প্রচার করা হচ্ছে, বাসায় বসে তারা পাঠগ্রহণ চালিয়ে যাবে। বর্তমানে শিক্ষার্থীদের বাসায় রেখে কীভাবে পরীক্ষা নেয়া সম্ভব সে বিষয়েও চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ছে ১৫ জুন পর্যন্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৭ মে, ২০২০
চলমান করোনা পরিস্থিতিতে সাধারণ ছুটি আর বাড়ছেনা। আগামী ৩১ মে থেকে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অফিস-আদালতে কাজ করতে হবে। তবে বয়স্ক এবং গর্ভবতী নারীরা এর আওতামুক্ত থাকবেন। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ১৫ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হচ্ছে। আজ বুধবার বিকেলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, এ সময়ে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অফিস-আদালতে কাজ করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তবে বয়স্ক এবং গর্ভবতী নারীদের অফিসে আসতে হবে না। সেইসঙ্গে গণপরিবহনও চলবেনা। স্কুল, কলেজসহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ১৫ জুন পর্যন্ত আপাতত বাড়ানো হবে।
সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাজে যোগ দেয়ার জন্য আসতে হবে উল্লেখ করে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী জানান, ইতোমধ্যেই নির্দেশনায় প্রধানমন্ত্রীর সাইন হয়েছে। কাল বৃহস্পতিবার প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। দোকানপাট সকাল ১০ টা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে।

স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানকে নিজস্ব পরিবহনে কর্মীদের আনা নেয়া করতে হবে। বয়স্ক,অসুস্থ ও অন্ত:স্বত্ত্ব নারীরা কর্মক্ষেত্রে যাবেন না। গণপরিবহন,যাত্রীবাহী রেল ও নৌযান চলবে না। স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিমান চলাচল করতে পারবে। ১৫ জুন পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে,অনলাইনে ক্লাস চলবে। গণজমায়েত,সভা,সমাবেশ নিষিদ্ধ। ধর্মীয় উপাসনালয় খোলা থাকবে। এক জেলা থেকে অন্য জেলায় চলাচলে নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে।

সাধারণ ছুটি ঈদ পর্যন্ত বাড়তে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক | ১২ মে, ২০২০

করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে চলমান সাধারণ ছুটি আরও এক দফা বাড়তে পারে। আগামী ১৭ থেকে ২৬ মে পর্যন্ত অর্থাৎ ঈদ পর্যন্ত ছুটি বাড়ানোর ঘোষণা আসতে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

করোনার কারণে সরকার প্রথমে ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করে। পরে আরও ছয় দফায় ছুটি বাড়িয়ে ১৬ মে পর্যন্ত করা হয়। কিন্তু দেশে এখনও করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির উন্নতি নেই, বরং দিন দিন অবনতির দিকে যাচ্ছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, পরিস্থিতি যা, তাতে ছুটি আরও বাড়বে-এটাই স্বাভাবিক। তিনি আরও বলেন, ১৬ মে ও ঈদের ছুটির মাঝখানে কর্মদিবস মাত্র চারটি- ১৭, ১৮, ১৯, ২০ মে।

তিনি বলেন, ২১ মে শবে কদরের ছুটি। এরপর ২২ ও ২৩ মে সাপ্তাহিক ছুটি। আবার ২৪ মে (রোববার) থেকে শুরু ঈদের ছুটি। ২৫ ও ২৬ মে’ও (সোম ও মঙ্গলবার) ঈদের ছুটি থাকবে। সরকারি ছুটির তালিকায় এভাবেই নির্ধারিত আছে। তবে রমজান মাস ২৯ দিনে শেষ হলে ঈদের ছুটি থাকবে ২৩, ২৪ ও ২৫ মে (শনি, রবি ও সোম)।

তাই এবারের ছুটি আগামী ২৬ মে পর্যন্ত বর্ধিত হতে পারে বলে মনে করছেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা। তবে ১৬ মে’র পর ছুটি বাড়বে কি বাড়বে না কিংবা ছুটি বাড়লেও কতদিন বাড়বে সেটা প্রধানমন্ত্রীর ওপর নির্ভর করছে।

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘ছুটির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত আমরা এখনও পাইনি। দু-একদিনের মধ্যেই এটি আমরা জানতে পারব। তখনই জানা যাবে ছুটির বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত নিচ্ছে সরকার।’

ইতোমধ্যে জরুরি সেবা সংশ্লিষ্ট সরকারি অফিস সীমিত পরিসরে খুলে দেয়া হয়েছে। এছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মানা সাপেক্ষে দোকান, শপিংমল, কারখানা, গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিসহ অন্যান্য শিল্প ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান সীমিত আকারে খুলে দেয়া হয়েছে। তবে বন্ধ রয়েছে গণপরিবহন।

সাধারণ ছুটি আরও বাড়তে পারে

প্রথম আলো:
করোনা–পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রণে না আসায় সাধারণ ছুটি আরও বাড়াতে যাচ্ছে সরকার। এ বিষয়ে আগামীকাল বুধবার ঘোষণা আসতে পারে বলে জানিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

ছুটি বাড়ানো হচ্ছে কি না, জানতে চাইলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন আজ মঙ্গলবার ইউএনবিকে বলেন, ‘অবশ্যই! এখনো অফিস খুলে দেওয়ার সময় আসেনি। এখন করোনার চূড়ান্ত সময় যাচ্ছে।’
অপর এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ছুটি বর্ধিত বিষয়ে এখনো কোনো নির্দেশনা আসেনি। আগামীকাল (বুধবার) হয়তো নির্দেশনা আসতে পারে।
প্রতিমন্ত্রী জানান, এবার বর্ধিত ছুটি ঘোষণা হলে তাতে কিছু নতুন নির্দেশনা থাকতে পারে। তবে বিষয়টি চূড়ান্তভাবে বলা যাবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসার পর।

তবে একই বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে জনপ্রশাসনসচিব শেখ ইউসুফ হারুন ইউএনবিকে বলেন, ‘এখনো ছুটি বর্ধিত করার বিষয়ে কোনো নির্দেশনা পাওয়া যায়নি।’

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে প্রথম দফায় গত ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি ও বেসরকারি অফিসে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। দ্বিতীয় দফায় তা ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত এবং তৃতীয় দফায় ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

তবে সাধারণ ছুটির মধ্যেই সীমিত আকারে খোলা রয়েছে ব্যাংকগুলো। পাশাপাশি নিত্যপণ্য, ওষুধসহ জরুরি সেবাগুলো খোলা রয়েছে।

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter