Home » Tag Archives: প্রাথমিক শিক্ষক

Tag Archives: প্রাথমিক শিক্ষক

প্রাথমিক শিক্ষিকার ১০ কোটি টাকা আত্মসাত

পাবনা প্রতিনিধি, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১,
দ্বিগুণ মুনাফার লোভ দেখিয়ে গ্রাহকদের কাছ থেকে অন্তত ১০ কোটি টাকা আত্নসাতের অভিযোগ উঠেছে এক স্কুলশিক্ষিকার বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর ঐ শিক্ষিকাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

অভিযুক্ত শিক্ষিকা সীমা আক্তার (৪০) পাবনা পৌর সদরের পুলিশ লাইনস স্কুল এন্ড কলেজের প্রাথমিক শাখার শিক্ষিকা। তিনি পাবনা শহরের আটুয়া হাউজ পাড়া মহল্লার মৃত হানিফুল ইসলামের স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার সারাদিন তাকে বাসায় অবরুদ্ধ করে রাখেন প্রতারিত লোকজন। পরে ঐদিন রাত আটটার দিকে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

প্রতারনার স্বীকার একাধিক ব্যক্তি অভিযোগ করেন, ওই শিক্ষিকা তাদের বৈধ ব্যবসার মাধ্যমে লাভ দেয়ার লোভ দেখান। শিক্ষক হওয়ায় সবাই তাকে সরল মনে বিশ্বাস করেন টাকা দেন।

প্রতারনার স্বীকার আরেক ব্যক্তি বলেন, গরুর খামার ও আরো নানা ধরনের হালাল ব্যবসার নাম করে সবার কাছ থেকে টাকা নেন ঐ শিক্ষিকা। বিশ্বাস অর্জনের জন্য প্রথম কিছুদিন সবাইকে কথিত লাভের টাকা নিয়মিত দিতে থাকেন। এতে লোকজন তার কাছে হুমড়ি খেয়ে পড়েন। তিনি সবমিলিয়ে হাতিয়ে দেন অন্তত ১০ কোটি টাকা। এরপর গত একমাস ধরে তার সাথে গ্রাহকরা যোগাযোগ করতে পারছিলেন না। তখন তারা প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পেরে পাবনা সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযোগ উঠেছে, সাধারণ মানুষের পাশাপাশি তার প্রতারণার জালে পড়েছেন সহকর্মী থেকে শুরু করে একাধিক পুলিশ সদস্যও।

গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে মানুষের কাছ থেকে অর্থ নেয়ার বিষয়টি স্বীকার করে ঐ নারী জানান, এক জনের কাছ থেকে টাকা নিয়ে আরেক জনকে দিয়েছি।

অভিযুক্ত নারী দাবি করেন, তার কোন বৈধ ব্যবসা নাই। যারা টাকা দিয়েছে তাদেরকে সুদে অনেক টাকা লাভ দিয়েছি। অমি কারো টাকা আত্মসাৎ করি নাই। মানুষ না জেনে না বুঝে আমাকে টাকা দিয়েছে, এটা তাদের ভুল।

প্রতারণার অভিযোগ নিয়ে ঐ নারী বলেন, যারা খোঁজ খবর না নিয়েই অন্ধ বিশ্বাসে টাকা দিয়েছেন ভুল তাদেরই।

তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি যারা আমাকে টাকা দিয়েছে তাদের টাকার হিসাব করেছি। এর পরিমাণ তিন কোটি টাকা। আমি এসব টাকা দিয়ে দেবেন। আর যারা লাভের আশায় দিয়েছেন তাদের দাবি করা টাকা দিতে পারব না।

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্নিগ্ধ আখতার জানান, তারা ভুক্তভোগীদের অভিযোগ পেয়েছেন। তার বিরুদ্ধে ওঠা সুনির্দিষ্ট অভিযোগের কারনে তাকে স্কুল থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রাথমিকের ৫ শিক্ষককে শোকজ

ভোলা প্রতিনিধি:
রাতে বিদ্যালয়ে জাতীয় পতাকা উড়তে থাকার অভিযোগে ভোলা সদর উপজেলার দক্ষিণ-পশ্চিম শিবপুর শরীফ সরদার বাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঁচ শিক্ষককে শোকজ করেছেন প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তারা। একইসঙ্গে আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তাদের কাছে জবাব চাওয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার রাত ১০টার দিকে কয়েকজন ব্যক্তি ওই পথ দিয়ে যাওয়ার সময় বিদ্যালয়ে জাতীয় পতাকা উড়ার দৃশ্য দেখতে পান। বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয়রা ভিড় জমান এবং ক্ষুব্ধ হন। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তারা।

আরো পড়ুনঃ অবৈধভাবে টাইমস্কেল লাগিয়ে জাতীয়করণ প্রাথমিক শিক্ষকের বেতন দিগুণ

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ফরিদ উদ্দিন জানান, তিনি একটু অসুস্থ থাকায় স্কুল ছুটির পর বের হয়ে যান বিদ্যালয় থেকে। বিদ্যালয়ের অন্য শিক্ষকদের ভুলের কারণে জাতীয় পতাকা নামানো হয়নি। এছাড়া ভবিষ্যতে এমন ভুল যাতে না হয় সে ব্যাপারে সজাগ থাকবেন তিনি।

আরো পড়ুন : ৪ বছর চাকুরী জীবনে প্রাথমিক প্রধান শিক্ষকের টাইমস্কেল তিনটি

ভোলা সদর উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শেখর রঞ্জন ভক্ত বলেন, বিষয়টি শোনার পর আজ সকালে প্রধান শিক্ষক মো. ফরিদ উদ্দিনসহ ওই বিদ্যালয়ের পাঁচজন শিক্ষককে শোকজ করা হয়েছে। আগামী তিনদিনের মধ্যে এ ব্যাপারে তাদের কাছে জবাব চাওয়া হয়েছে। এছাড়া তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তীতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter