Home » Tag Archives: ক্রিকেট

Tag Archives: ক্রিকেট

শ্রীলঙ্কা সিরিজে সুযোগ পাওয়া সৌরভ কুমারকে চিনে নিন

অনেকেই খেয়াল করেননি যে দলে সুযোগ পেয়েছেন সম্পূর্ণ অখ্যাত এক ক্রিকেটার। তিনি সৌরভ কুমার।
ডেস্ক,১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২:
শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে চেতেশ্বর পুজারা, অজিঙ্ক রহাণে, ঋদ্ধিমান সাহার বাদ পড়া নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেট উত্তাল। অনেকেই খেয়াল করেননি যে দলে সুযোগ পেয়েছেন সম্পূর্ণ অখ্যাত এক ক্রিকেটার। তিনি সৌরভ কুমার। অনামী হলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে সাম্প্রতিক কালে যথেষ্ট দাপুটে পারফরম্যান্স রয়েছে সৌরভের। আইপিএল-এ একটি দলের সদস্যও ছিলেন।

এখনও পর্যন্ত প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৪৬টি ম্যাচ খেলে ১৯৬টি উইকেট পেয়েছেন সৌরভ। গড় ২৩.৪৪। ক্রিকেটজীবনে ১৬ বার ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিয়েছেন, যার মধ্যে ১২টি এসেছে গত দুই মরসুমে। ম্যাচে ১০ উইকেট রয়েছে ছয় বার। ২০১৮-১৯ রঞ্জি মরসুমে ১০ ম্যাচে ৫১টি উইকেট নেন সৌরভ। পাঁচ উইকেট নেন পাঁচ বার। ২০১৮-র ডিসেম্বরে হরিয়ানার বিরুদ্ধে একটি ম্যাচে দুর্দান্ত খেলেন তিনি। ৬৫ রানে ১৪টি উইকেট নেন। উত্তরপ্রদেশের কোনও বোলারের এটাই দ্বিতীয় সেরা বোলিং পারফরম্যান্স। এক মরসুমে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারের তালিকায় তাঁর ৫১ উইকেট ছিল পঞ্চম স্থানে।

তার আগেই দলীপ ট্রফিতে তিন ম্যাচে ১৯ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক হন। পরের মরসুমেও রঞ্জিতে দুর্দান্ত ছন্দে ছিলেন সৌরভ। মোট ৪৪টি উইকেট নেন। স্পিনার হিসেবে খ্যাতি অর্জন করলেও ব্যাটার হিসেবে কম যান না সৌরভ। সাধারণত উত্তরপ্রদেশের হয়ে নীচের দিকে ব্যাটিং করেন। ইতিমধ্যেই তাঁর নামের পাশে দু’টি শতরান রয়েছে। তার মধ্যে একটি শতরান করার সময় কুলদীপ যাদবের সঙ্গে ১৯২ রানের জুটি গড়েছিলেন। সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে ভারত ‘এ’ দলের হয়ে খেলেছেন। দু’টি ম্যাচে ৪ উইকেট নিয়েছেন।
উল্লেখ্য, কুলদীপের সঙ্গে সৌরভের সম্পর্ক খুবই ভাল। গত মরসুমে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে নেট বোলার হিসেবে নেওয়া হয়েছিল তাঁকে। এক সাক্ষাৎকারে সৌরভ জানিয়েছিলেন, কুলদীপ তাঁকে নিয়মিত বোলিংয়ের ব্যাপারে পরামর্শ দিয়ে থাকেন। শুধু তাই নয়, জাতীয় দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার সুরেশ রায়নার অধীনেও উত্তরপ্রদেশের হয়ে খেলেছেন সৌরভ। ২০১৭ সালের আইপিএলে রাইজিং পুণে সুপারজায়ান্ট দলের সদস্য ছিলেন তিনি। ফলে কাছ থেকে দেখেছেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি এবং স্টিভ স্মিথের মতো ক্রিকেটারকে।

নতুন কোচ এলেও লক্ষ্য স্থির, এবার মিশন দক্ষিণ আফ্রিকা, জানালেন কোহলি

ওয়েবডেস্ক: টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর শেষ হয়েছে শাস্ত্রী-কোহলি জমানা| ওয়াংখেড়ে থেকেই শুরু হয়েছে দ্রাবিড়(Rahul Dravid)-কোহলি যুগের| নতুন জুটি বেঁধেছেন বিরাট কোহলি(Virat Kohli)| কোচ থেকে সাপোর্ট স্টাফ বদলালেও, রাহুল দ্রাবিড়ের হাত ধরে ভারতীয় দলের দর্শন ও লক্ষ্য একই আছে| বিরাট সাফল্যের মঞ্চ থেকে বার্তা বিরাট কোহলির|

আরো পড়ুনঃ খোলা চুল সাদা শাড়িতে গভীর রাতে হবু শ্বশুরবাড়িতে

রবি শাস্ত্রী যাওয়ার পরই ভারতীয় দলের হেডস্যারের দায়িত্ব পেয়েছেন রাহুল দ্রাবিড়| সেই থেকেই সকলর চোখ ছিল বিরাট-দ্রাবিড় জুটির দিকে| ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে প্রথমবার রাহুল দ্রাবিড়ের তত্ত্বাবধানে মাঠে নেমেছিলেন বিরাট কোহলি| আর প্রথম জুটিতেই সাফল্য|

নিউ জিল্যান্ডকে বিরাট ব্যবধানে হারিয়ে টেস্ট সিরিজ জিতে নিয়ছে টিম ইন্ডিয়া| স্বভাবতই বিরাটকে যে এই প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হবে তা সকলেরই জানা ছিল| ম্যাচ শেষেই তাই বিরাটের সামনে উঠে গেল দুই কোচের মধ্যে তুলনা নিয়ে প্রশ্ন| কী কী নতুন হচ্ছে|

সেখানেই বিরাটের জবাব, ‘নতুন কোচ এবং সাপোর্টস্টাফ এলেও, লক্ষ্যটা সকলের একই রয়েছে| সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়া| নতুন কোচের হাত ধরে ভারতীয় ক্রিকেটকে আরও উন্নত করাই আমাদের লক্ষ্য’|

একইসঙ্গে ওয়াংখেড়ে টেস্ট জয়ের মঞ্চ থেকেই বিরাটের চোখ এখন দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের দিকে| দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিত টেস্ট জিতলেও, এখনও পর্যন্ত সিরিজ জয় অধরা রয়েছে তাদের| রাহুল দ্রাবিড়ের তত্ত্বাবধানে এবার সেটাই কাটাতে চান বিরাট কোহলি|

তিনি জানান, ‘এবার আমাদের নজর ওভারসিজ টেস্ট সিরিজ জয়ের দিকে| অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডে আমরা পেরেছি| এবার দক্ষিণ আফ্রিকায় করতে হবে| কাজটা কঠিন হবে ঠিকই, কিন্তু সাফল্য পাওয়ার ব্যপারে আশাবাদী আমরা’|

মুম্বইয়ে রেকর্ড গড়ে টেস্ট সিরিজ জিতলেও, এখনই ভারতীয় দল উচ্ছ্বাসে গা ভাসাতে নারাজ| ওয়াংখেড়ে থেকেই টিম ইন্ডিয়ার ড্রেসিংরুমে ঢুকে পড়েছে মিশন দক্ষিণ আফ্রিকা|

কোচের চাকরি নেই, জানেন না মুমিনুল

বাংলাদেশের ক্রিকেটে আলোচিত বিষয়গুলোর অন্যতম হলো কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর চুক্তি নবায়ন এবং তাকে বরখাস্তের চিন্তা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই কৌশলে নিজের মেয়াদ বাড়িয়ে নিয়েছিলেন ডমিঙ্গো।

বিশ্বকাপ আর পাকিস্তান সিরিজে ব্যর্থতার পর তাকে বাদ দিতে উঠেপড়ে লেগেছে বিসিবি। এখন বরখাস্ত করতে চুক্তির শর্ত অনুযায়ী ডমিঙ্গোকে ২ কোটি টাকা দিতে হবে। কিন্তু আইনজীবীর সঙ্গে আলোচনা করে সেই অংক কমিয়ে আনার বুদ্ধি পেয়েছে বিসিবি।

আরও পড়ুন : ‘শনিবার শিক্ষার্থীরা সড়কে লাল কার্ড প্রদর্শন করবে

এরপরই ডমিঙ্গোকে বরখাস্ত করা হয়েছে। যদিও এটা অফিসিয়াল কোনো ঘোষণা নয়। ভালো বিকল্প পেয়ে গেলে এই ক্ষতি স্বীকার করে হলেও বিসিবি ডমিঙ্গোর বিদায়ী সংবর্ধনার আয়োজন করে ফেলতে রাজি। পাকিস্তান সিরিজের মাঝেই দুই পক্ষের দর কষাকষি শেষ হতে পারে এবং নিউজিল্যান্ড সফরে অন্তর্বর্তী কোচ হিসেবে যেতে পারেন ডমিঙ্গো। আজ শুক্রবার গণমাধ্যমে এমন সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর তোলপাড় সৃষ্টি হয়। অধিনায়ক মুমিনুল হককেও এই প্রশ্নের জবাব দিতে হয়েছে।

আরও পড়ুন : ‘যে কারনে বন্ধ হলো কুয়েট

কাল থেকে মিরপুরে শুরু হতে যাচ্ছে সিরিজের দ্বিতীয় তথা শেষ টেস্ট। আজ শুক্রবার ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে এক সাংবাদিক মুমিনুলকে ডমিঙ্গোর বরখাস্তের বিষয়ে প্রশ্ন করেন। জবাবে মুমিনুল বলেন, ‘দেখেন, এটা আমি আপনার কাছেই প্রথম শুনলাম যে এ রকম একটা ঘটনা হতে চলেছে। তো একজন অধিনায়ক হিসেবে, পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে এটা নিয়ে আমার কথা বলা কঠিন। এটা তো বোর্ডের সিদ্ধান্ত, বোর্ড কী করবে। এগুলো নিয়ে আমার কথা বলাও কঠিন আর এগুলো নিয়ে আমি কথা বলতেও চাই না।’

প্রথমবারের মতো ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের মেয়েরা

অনলাইন ডেস্ক ॥ নিগার সুলতানাদের স্বপ্নপূরণে বাধা থাকল না। করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের কারণে স্থগিত হয়ে গেছে মেয়েদের বিশ্বকাপ বাছাই।

গ্রুপের শীর্ষে থাকায় প্রথমবারের মতো ওয়ানডে বিশ্বকাপে চলে গেছে বাংলাদেশের মেয়েরা।

করোনার কারণে টুর্নামেন্ট বন্ধ ঘোষণায় ভাগ্য খুলে গেল নিগার সুলতানা জোতি-রুমানা আহমেদদের।

আরো পড়ুনঃ ৫ উইকেট নিয়ে ৪৩ বছর আগের রেকর্ড ছুঁলেন অক্ষর

স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড ছাড়াও অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা এরইমধ্যে জায়গা পেয়েছে মূল পর্বে। সঙ্গে এবার যোগ দিল-বাংলাদেশ, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তান। ২০২২ সালে মার্চে অনুষ্ঠেয় এই টুর্নামেন্ট দিয়েই ওয়ানডে বিশ্বকাপে অভিষেক হবে টাইগ্রেসদের। প্রথমবারের মতো নামবে বিশ্বকাপে!

বাছাই পর্বের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে হারায় বাংলাদেশ। পরের ম্যাচে জয় পায় যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে জয় পায় নিগার সুলতানারা। এরপর থাইল্যান্ডের কাছে হারলেও গ্রুপ এ তে শীর্ষেই ছিলেন তারা।

অন্যদিকে গ্রুপে শীর্ষে থাকায় বাংলাদেশের সঙ্গে পরের পর্বে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

আইসিসির টুর্নামেন্ট প্রধান ক্রিস টেলি বাছাই পর্ব বাতিল নিয়ে বলেছেন, ‘আমরা খুবই হতাশ যে টুর্নামেন্টটি বাতিল করতে হয়েছে। কিন্তু খুবই অল্প সময়ের মধ্যে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞাগুলো দেওয়া হয়েছে। দলগুলো আবার না ফিরতে পারার শঙ্কা আছে। তাই টুর্নামেন্ট বাতিল করতে হয়েছে।’

শঙ্কার শুরুটা হয় মূলত শ্রীলঙ্কার একজন সাপোর্ট স্টাফ করোনা আক্রান্ত হলে। নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের এই ম্যাচটি বাতিল করে আইসিসি। শেষ পর্যন্ত পুরো টুর্নামেন্টই বাতিল করতে হলো বাংলাদেশকে।

ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুককে রাখছে না বিসিবি

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ১৩ নভেম্বর ২০২১
জাতীয় দলের ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুকের সঙ্গে আর চুক্তি বাড়াচ্ছে না বিসিবি।

আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান বিষয়টি জানিয়েছেন।

আরো পড়ুনঃ বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতি

তিনি বলছেন, ‘কুককে আমরা পাচ্ছি না। ওর জায়গায় নতুন একজন স্থানীয় দিচ্ছি। এটা ১৬ তারিখ ফাইনাল করব। ওর মেয়াদ শেষ পর্যায়ে আছে। ও এখন আসছে না। ওর চুক্তি নবায়ন করাচ্ছি না। এ জন্য ওকে এই সিরিজে পাচ্ছি না।’

কুকের সঙ্গে বোর্ডের চুক্তি ছিল এবারের বিশ্বকাপ পর্যন্ত। তার জায়গায় স্থানীয় কাউকে খুঁজছে বিসিবি, ‘আমাদের হাতে কিছু নাম আছে। পাশাপাশি আমরা উঁচু মানের ফিল্ডিং কোচকেও দেখছি এবং আশা করছি মাস খানেকের মধ্যে পেয়ে যাব।’

বিশ্রাম পায়নি দল, সৌরভের বোর্ডের ঘাড়ে দোষ চাপালেন বিদায়ী কোচ রবি শাস্ত্রীও

ক্রীড়া ডেস্ক,৯ নভেম্বর ২০২১:
জৈবদুর্গে থাকার পরিশ্রমেই ক্লান্ত হয়ে যাচ্ছেন ক্রিকেটাররা। সেই কারণেই টি২০ বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের খারাপ ফলাফল হয়েছে, বললেন রবি শাস্ত্রী। ক্রিকেটারদের ক্লান্তির জন্য তিনি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকেই দায়ী করেছেন। তাঁর মতে টানা এত দিন ধরে জৈবদুর্গে থাকতে হলে ডন ব্র্যাডম্যানের গড়ও কমে যেত।

আরো পড়ুনঃ ভারতীয় দল ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম সেরা

ভারতীয় কোচ হিসাবে শেষ রবি শাস্ত্রীর মেয়াদ। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজ থেকে দায়িত্ব নেবেন রাহুল দ্রাবিড়। টি২০ বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার প্রসঙ্গে শাস্ত্রী বলেন, “জৈবদুর্গে ছ’মাস যদি থাকতে হয় তা হলে ক্লান্তি আসবেই। এই দলে একাধিক ক্রিকেটার রয়েছে, যারা তিন ধরনের ক্রিকেটই খেলে। শেষ দু’বছরে মাত্র ২৫ দিন বাড়ি যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল তারা। ব্যাটার কে সেটা যায় আসে না, জৈবদুর্গে থাকতে হলে ব্র্যাডম্যানেরও গড় কমে যেত। ক্রিকেটাররা মানুষ, এমন তো নয় যে, পেট্রল ঢেলে দিলাম আর খেলতে শুরু করে দেবে তারা।”

বিশ্রাম না পাওয়ার জন্য বোর্ডকেই দায়ী করলেন শাস্ত্রী। তিনি বলেন, “আমার দায়িত্ব নয় বোর্ডকে বিশ্রামের জন্য বলা। যেকোনও বড় ক্রিকেট খেলিয়ে দেশের বোর্ডও প্রতিযোগিতার আগে ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দিতে চাইবে। মানসিক ভাবে চাঙ্গা রাখতে সেটাই করা হয়। সবাই স্বাধীন, কোনও ক্রিকেটারকে জুনিয়র হিসাবে দেখা হয় না।’’

ভারতীয় দলের সাফল্যে খুশি শাস্ত্রী। তিনি বলেন, “গত পাঁচ বছরে দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছে এই দলটা। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গিয়ে সিরিজ জিতে এসেছে।”কি

T20 World Cup 2021: ফের এক অচেনা দল, বুধবার রশিদদের বিরুদ্ধে কোহলীদের মান বাঁচানোর লড়াই

নিজস্ব প্রতিবেদক,৩ নভেম্বর ২০২১:
পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হারের কারণ হিসেবে উঠে এসেছিল বাবর আজমদের বিরুদ্ধে বেশি না খেলা। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধেও কিন্তু সেই সিঁদুরে মেঘ দেখা যাচ্ছে। আইপিএল-এ রশিদ খানদের খেললেও বাকি দলকে চেনেই না ভারত।

টি২০ ক্রিকেটে আফগানিস্তান বেশ শক্তিশালী দল। রশিদ, মহম্মদ নবি, মুজিব উর রহমানদের স্পিন যেমন বিপদে ফেলতে পারে, তেমনই ব্যাট হাতে মহম্মদ শাহজাদরাও বিধ্বংসী হয়ে উঠতে পারেন। এখনও অবধি ভারত বনাম আফঘানিস্তান টি২০ ম্যাচ খেলা হয়েছে মাত্র দু’টি। টি২০ বিশ্বকাপেই সেই দু’টি ম্যাচ খেলা হয়েছিল। দু’টি ম্যাচেই ভারত জিতেছিল।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম বার বিশ্বকাপের মঞ্চে হারতে হয়েছে ভারতকে। টি২০ ক্রিকেটে প্রথম বার ১০ উইকেটে হারতে হয়েছে তাদের। এ বারের বিশ্বকাপ থেকেও প্রায় বিদায় হয়ে গিয়েছে বলেই ধরে নিয়েছেন সমর্থকরা। এমন অবস্থায় সামনে রশিদরা। নেট রান রেটে ভারতের থেকে বেশ খানিকটা এগিয়ে রয়েছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন: সরকারি কর্মচারীদের অনুমতি ছাড়া চাকরির আবেদন নয়

আরও পড়ুন: ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৮৩ শতাংশ ফেল

ভারত এবং আফগানিস্তানের মধ্যে যে দু’টি ম্যাচ হয়েছে তাতে এক ইনিংসে সব চেয়ে বেশি রান বিরাট কোহলী এবং নুর আলি জাদরানের। দু’জনেই ৫০ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। দু’টি ম্যাচ মিলিয়ে মোট রানে এগিয়ে সুরেশ রায়না। ৫৬ রান রয়েছে তাঁর দখলে। সব চেয়ে বেশি উইকেটও নিয়েছেন এক ভারতীয়। আশিস নেহরা তিনটি উইকেট নিয়েছিলেন।

ইতিহাস ভারতকে এগিয়ে রাখলেও বুধবারের ম্যাচে কাঁধ ঝুঁকে যাওয়া ভারতীয় দলের বিরুদ্ধে অঘটন ঘটিয়ে দিতেই পারে আফগানিস্তান। রশিদদের সামনে সুযোগ রয়েছে সেমিফাইনালে যাওয়ার। গ্রুপ ২ থেকে দ্বিতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনালে যেতে হলে ভারতের বিরুদ্ধে জয় প্রয়োজন আফগানিস্তানের। কোহলীদের নামতে হবে সেমিফাইনালের আশা জিইয়ে রাখতে। সেই সঙ্গে হারানো সম্মান ফিরে পাওয়ার লড়াইয়ে নামতে হবে তাঁদের।

সেমি-ফাইনালে খেলার স্বপ্নে ‘ঝড়’ কাটানোর চ্যালেঞ্জ

ডেস্ক,২৯ অক্টোবরঃ

হিন্দি কিংবা বাংলা সিরিয়ালের মতো মনে হচ্ছে চারপাশ। যে যেভাবে পারছে, মন্তব্য করে যাচ্ছে! কেউ পরামর্শ দিচ্ছে, কেউ সমালোচনা করছে। আবার কেউ এমন কিছু করছেন যে মনে হচ্ছে সার্কাসের রিং মাস্টার তিনি! এমন ছন্নছাড়া বাংলাদেশ ক্রিকেট আর কখনো দেখা গেছে কি না সন্দেহ। দুঃসময় এসেছে, সমালোচনার ঝড়ও ছিল। কিন্তু এবার যেসব কাণ্ডকারখানা দেখা যাচ্ছে সব যেন মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছে!

আরো পড়ুনঃ বাদ পড়ছেন লিটন দাস!

ওমানে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের সময় যে আগুন জ্বালিয়েছিলেন নাজমুল হাসান পাপন, তা এখন রীতিমতো অগ্নিকুণ্ড! কখনো সেই আগুনে ঘৃতাহুতি দিচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, কখনো সাকিব আল হাসান কিংবা মুশফিকুর রহিম। শেষটাতে এসে সাকিব পত্মী উম্মে আহমেদ শিশিরও যোগ দেওয়ায় এটি যেন হয়ে গেছে মেগা সিরিয়াল। মাঠের ক্রিকেট নিস্প্রভ হলেও উত্তাল অন্তর্জাল, ফেসবুক, টুইটার।

এসবের ভেতরই আজ শুক্রবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ দল। হেরে গেলে সেমি-ফাইনালে খেলার স্বপ্নটাও শেষ হয়ে যাবে। ম্যাচটি সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে স্থানীয় সময় দুপুর ২টায় (বাংলাদেশ সময় বিকাল চারটায়)। যেটি ক্যারিবীয়দের জন্যও টিকে থাকার লড়াই।

আরো পড়ুনঃ কেমন হবে বাংলাদেশের আজকের একাদশ?

কিন্তু এমন একটা ম্যাচ খেলার আগে কী হচ্ছে তার চেয়ে বরং বলা উচিত কী হচ্ছে না! মাঠের বাইরে সরব সবাই। শ্রীলঙ্কার পর ইংল্যান্ডের কাছেও হেরে দল যখন বিপাকে তখন কি না চোখ বন্ধ করে শুধু খেলায় মন দেওয়ারও সুযোগ নেই। আর মাহমুদউল্লাহদের কোন সিদ্ধান্ত যৌক্তিকও হয়ে উঠছে না।

এই যেমন ম্যাচের আগের দিন, হঠাৎ করেই দল অনুশীলন বাতিল করল। বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা আছেন দুবাইয়ের ফেস্টিভাল সিটির ক্রাউন প্লাজা হোটেলে। যেখান থেকে শারজাহর মাঠ মিনিট পঁচিশের পথ, অথচ সেখানেই কি না ট্র্যাফিক জ্যামের অজুহাতে গেল না দল!
আমরা যখন খারাপ করি, আমাদের সমালোচনা সব সময়ই হয়। আমরাও এটা মনে করি যে সমালোচনা হবে। গঠনমূলক সমালোচনা হওয়াটাও জরুরি।
নুরুল হাসান সোহান

আরো পড়ুনঃ সচিব পদে ৬ জনের পদোন্নতি

টানা দুই ম্যাচ হেরে জয়ের জন্য ক্ষুধার্ত হয়ে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচের আগে ক্রিকেটীয় আলোচনাটা কোথায় যেন দূরে সেরে গেছে। ম্যাচ প্রিভিউতেও মাঠের বাইরের সেই উত্তেজনারই খবর। মাঠের বাইরে অনেক রকম ঘটনা ঘটছে, অনেকেই বলছেন বাইরে এই যে সমালোচনার ঝড় তার জন্য চাপে আছে বাংলাদেশ দল। ক্যারিবীয় পরীক্ষার আগে কতোটা চাপে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা?

এই প্রশ্নের মুখে বৃহস্পতিবার পড়লেন নুরুল হাসান সোহান। জাতীয় দলের এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান বলছিলেন, ‘আমরা যখন খারাপ করি, আমাদের সমালোচনা সব সময়ই হয়। আমরাও এটা মনে করি যে সমালোচনা হবে। গঠনমূলক সমালোচনা হওয়াটাও জরুরি। হয়তো আমরা খারাপ করছি। এটা মেনে নিতেই হবে। অনেকবারই এমন হয়েছে যে আমরা খারাপ সময়ে ছিলাম, যেখান থেকে আমরা আবার নিজেরাই ফিরে এসেছি। আমার কাছে মনে হয় এটা আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ বিশ্বকাপে আরও তিনটা ম্যাচ, এখানে ভালো করতে পারলে ব্যাপারটা ইতিবাচকভাবেই আসবে।’

একটা জয়ই আসলে পাল্টে দিতে পারে এই টালমাটাল পরিবেশ। একইসঙ্গে টিকে থাকবে সেমি ফাইনালের আশাও। দল কী সেমির স্বপ্ন দেখে এখনো? সোহান বলছিলেন, ‘আমাদের টিকে থাকতে হলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচ গুরুত্বপূর্ণ। সবার মনোযোগ এই ম্যাচ নিয়েই। ইনশাআল্লাহ্‌ কাল যদি ভালোভাবে শুরু এবং শেষ করতে পারি তাহলে হয়তো পরের ম্যাচগুলো সহজ হয়ে যাবে এবং পুরো দল চাঙ্গা হয়ে যাবে। দুই ম্যাচ হেরে অবশ্যই আমরা টুর্নামেন্টে ব্যাকফুটে আছি। বাংলাদেশে থাকতে অনেকেই বলেছি আমাদের আশা সেমিফাইনাল খেলা। জিতলে সেমিতে খেলার আশা টিকে থাকবে।’

কিন্তু জয় তো আর ছেলের হাতের মোয়া নয়! উইন্ডিজ মরন কামড় বসাবে সন্দেহ নেই। টানা দুই ম্যাচ হেরে সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা কোণঠাসা। নিকোলাস পুরান জানিয়ে রাখলেন, জয় ছাড়া অন্য ভাবনা মাথাতেই নেই তাদের। উইন্ডিজের এই ক্রিকেটার বলছিলেন, ‘দল হিসেবে আগ্রাসী হতে চাই আমরা। শুক্রবার যখন আমরা মাঠে যাব, পিচ ও কন্ডিশন দেখব, তখন আমরা খেলার একটা পরিকল্পনা সাজাব। যত দ্রুত সম্ভব একটা খুব ভালো সংগ্রহ গড়তে চাইব।’

জানিয়ে রাখলেন শারজাহর মাঠ যেহেতু ছোট, সেটির ফায়দাও নিতে চাইবেন তারা। নিকোলাস পুরান বলেন, ‘আমরা শুধু নিজেদের স্কিল কাজে লাগাতে চাই। যখন সেটি করতে পারব, তখন এমনিতেই ফল আসবে। ছোট বাউন্ডারি বলেই ছক্কা মারতে যাচ্ছি, এটা অবশ্য বলবো না।’
আমরা শুধু নিজেদের স্কিল কাজে লাগাতে চাই। যখন সেটি করতে পারব, তখন এমনিতেই ফল আসবে। ছোট বাউন্ডারি বলেই ছক্কা মারতে যাচ্ছি, এটা অবশ্য বলবো না।
নিকোলাস পুরান

২০ ওভারের ক্রিকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ যতো শক্তিশালীই হোক, হেড টু হেড কিন্তু মন্দ নয় বাংলাদেশের। দুই দল টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হয়েছে মোট ১২ বার। যেখানে ক্যারিবীয়রা জিতেছে ৬টিতে। বাংলাদেশের জয় ৫ ম্যাচে। এবার জিতে গেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ছুঁয়ে ফেলবে বাংলাদেশ। একইসঙ্গে তলানিতে থাকা আত্মবিশ্বাসের পারদটাও বেশ উপরে উঠবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের।

নুরুল হাসান সোহান যেমন বলেছেন, ‘দেখুন, টি-টোয়েন্টিতে ছোট বা বড় দল বলে কিছু নেই। যারা ভালো খেলবে, তারাই জিতবে। আমরা খারাপ সময় এলে ভালোভাবেই ঘুরে দাঁড়াতে পারি। এখন আমরা একটা ম্যাচ জেতার জন্য অপেক্ষা করছি।’ শুধু সোহান কিংবা মাহমুদউল্লাহরাই নন, গোটা বাংলাদেশ একটা জয়ের প্রতীক্ষায়। অনেক হয়েছে মাঠের বাইরের অক্রিকেটীয় আলোচনা।

সেদিন সংবাদ সম্মেলনে এসে স্পিনার নাসুম আহমেদ অদ্ভূদ সরলতা নিয়ে বলেছিলেন, ‘আমাদের দ্বারা হচ্ছে না!’ এবার হোক, আর শারজাহর ঢেউ আছড়ে পড়ুক ছোট্ট বদ্বীপে, হেসে উঠুক গোটা বাংলাদেশ!
ঢাকা পোষ্ট হতে সংগৃহিত

কেমন হবে বাংলাদেশের আজকের একাদশ?

ডেস্ক,২৯ অক্টোবর ২০২১ঃ
ঘুরে না দাঁড়ালেই নয় বাংলাদেশের। বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের প্রথম দুই ম্যাচেই হারের স্বাদ পেয়েছে টাইগাররা। তাই সেমিফাইনালের স্বপ্ন বাঁচাতে হলে জিততে হবে। তবে প্রতিপক্ষ এবার চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

আরো পড়ুনঃ চিব পদে ৬ জনের পদোন্নতি

অন্যদিকে, এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে হারতে হারতে দেয়ালেই পিঠ ঠেকে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের। এখন সচল না হলেই নয়।তাই বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ এখন দাঁড়িয়ে একবিন্দুতেও। সেমিফাইলে উঠতে দুদলেরই ‘ফাইনাল’ আজ।

শুক্রবার শারজা স্টেডিয়ামে হবে এই অঘোষিত ‘ফাইনাল’। সেমিফাইনালে উঠতে শক্ত একাদশ বেছে নিদে দু’দলই।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ :

মোহাম্মদ নাঈম শেখ,সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকু রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, মেহেদী হাসান, নাসুম আহমেদ, তাসকিন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাম্ভব্য একাদশ :

এভিন লুইস, ক্রিস গেইল, লেন্ডল সিমন্স/রোস্টন চেজ, শিমরন হেটমায়ার, নিকোলাস পুরান, কিরন পোলার্ড, আন্দ্রে রাসেল, ডোয়াইন ব্রাভো, আকিল হোসাইন, জেসন হোল্ডার/থমাস, রবি রামপাল, ওবেড ম্যাককয়।

বিশ্বকাপের মূলপর্বে বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক

পাপুয়া নিউগিনিকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে বিশ্বকাপের মূলপর্বে পৌঁছে গেলো টাইগাররা। শুরুতে ব্যাট করতে নেমে সাকিব ও মাহমুদউল্লার ব্যাটে ভর করে ১৮১ রানের লক্ষ্য দেয় বাংলাদেশ দল।
আরো পড়ুনঃ প্রাথমিক প্রধান শিক্ষকরা টাইমস্কেল জটিলতায় অর্থমন্ত্রনালয়ের বক্তব্য

জবাবে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় পিএনজি। তবে টেলওর্ডার ব্যাটসম্যানদের চেষ্টায় পিএনজি ৯৭ রানে ১৯ দশমিক ২ ওভারে তারা অলআউট হয়ে যায়। শেষ উইকেট নেন তাসকিন।

রান পেলেন সৌম্য, ব্যর্থ মুশফিক-লিটন-নাইম-আফিফরা

ডেস্ক,১৩ অক্টোবরঃ
টানা অফফর্মের কারণে যাকে নিয়ে বিশ্বকাপে সবচেয়ে বড় দুশ্চিন্তা, সেই সৌম্য সরকার অবশেষে রানের দেখা পেলেন। কিন্তু দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে দিলেন টাইগার দলের বাকি ব্যাটসম্যানরা।

মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, নাইম শেখ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, শামীম হোসেন পাটোয়ারী-ব্যাটিংয়ে কারও কাছ থেকেই ভালো একটা ইনিংস পাওয়া গেলো না। ফলে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৭ উইকেটে ১৪৭ রানেই আটকে গেছে বাংলাদেশ। এরপর বোলিং নেমে লঙ্কান ব্যাটারদের আটকে রাখতে পারেননি তাসকিন-শরিফুলরা।

আরো পড়ুনঃ ২৮ অক্টোবর প্রাথমিক শিক্ষকদের অর্ধদিবস কর্মবিরতি

এক ওভার হাতে রেখেই চার উইকেট জয় নিশ্চিত করে শ্রীলঙ্কা। জয়-পরাজয় ছাপিয়ে ওয়ার্ম-আপ ম্যাচের মূল উদ্দেশ্যে ক্রিকেটারদের প্রস্তুতি। লঙ্কানদের বিপক্ষে সেই প্রস্তুতি ঠিক কতটা হলো সেই প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

বাংলাদেশের দেওয়া ১৪৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি শ্রীলঙ্কার। তারপরও সহজেই ম্যাচ জিতেছে তারা। বাংলাদেশের বোলাররা লঙ্কান অন্য ব্যাটসম্যানদের আটকে রাখতে পারলেও চার নম্বরে নামা অভিষ্কা ফার্নান্ডোকে আটকে রাখতে পারেননি। তার হাফসেঞ্চুরিতেই মূলত জয় পায় লঙ্কানরা।

মিডল অর্ডার ব্যাটার অভিষ্কা ৪২ বলে ২ চার ও ৩ ছক্কায় খেলেন অপরাজিত ৬২ রানের ইনিংস। তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন চামিকা করুণারত্নে। তার ব্যাট থেকে আসে ২৫ বলে ১ চার ও ১ ছক্কায় অপরাজিত ২৯ রানের ঝড়ো ইনিংস। মূলত এই ঝড়েই ছত্রখান হয়ে যায় বাংলাদেশের স্লগ ওভারের বোলিং লাইনআপ। অথচ ১৫ ওভারে শ্রীলঙ্কার রান ছিল ৬ উইকেট হারিয়ে ৯৫। বাকি ৪ ওভারে লঙ্কানরা কোনও উইকেট না হারিয়ে তুলে ৫৩ রান।

তাসকিন-শরিফুল কেউই কোনও প্রতিরোধ গড়তে পারেননি। ফলশ্রুতিতে এক ওভার হাতে রেখেই ৬ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় শ্রীলঙ্কা।

এদিন বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল ছিলেন সৌম্য সরকার। এই স্লো মিডিয়াম পেসার ১২ রান খরচায় নেন দুটি উইকেট। তাসকিন এক উইকেট নিলেও প্রথম তিন ওভারে বেশ কৃপণ বোলিং করেন। ৩ ওভারে ১৪ রান দেওয়া তাসকিন চতুর্থ ওভারে দেন ১১ রান। এছাড়া একটি করে উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান ও শরিফুল ইসলাম। শরিফুল ইসলাম সবচেয়ে ব্যয়বহুল বোলিং করেন। ৪ ওভারে ৪১ রান দেন তিনি।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিং নিয়েও বাংলাদেশের ব্যাটাররা সফল হতে পারেননি। সবচেয়ে সফল সৌম্য সরকার, তার ব্যাট থেকেই এসেছে ৩৪ রানের ইনিংস। সবমিলিয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৪৭ রান।

এদিন আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত ওয়ার্মআপ ম্যাচে ওপেনিং জুটি ক্লিক করতে পারেনি। দলীয় ৩১ রানে লিটন ব্যক্তিগত ১৬ রানে বিদায় নেন। লিটনের পর আরেক ওপেনার নাঈম শেখও ১১ রানের ইনিংস খেলে বিদায় নেন। এরপর সৌম্য-মুশফিক মিলে বড় জুটির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন। কিন্তু ওমানের বিপক্ষে ব্যর্থ মুশফিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও ফর্মহীন। ১৩ বলে ১৩ রান করে আউট হয়েছেন এই ব্যাটার। মুশফিকের বিদায়ের পর আফিফও বেশিক্ষণ ঠিকতে পারেননি। ১১ বলে ১১ রান করে তিনিও বিদায় নেন।

এরপর লঙ্কানদের বিপক্ষে দারুণ ইনিংস খেলা সৌম্য সরকার ৩৪ রানে আউট হন। ২৬ বলে ১ চার ও ২ ছক্কার বিনিময়ে নিজের ইনিংসটি সাজিয়েছেন বাঁহাতি এই ব্যাটার। ওমান ‘এ’ দলের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে ঝড় তোলা নুরুল হাসান সোহান ১৪ বলে ১৫ রান করে আউট হয়েছেন। শামিম হোসেনও পারেননি ঝড় তুলতে। ৮ বলে ৫ রান করে আউট হয়েছেন শামীম। শেষ দিকে মেহেদী হাসানের ১২ বলে ১৬ রান করলে বাংলাদেশের ইনিংস ১৪৭ রানে গিয়ে থামে।

লঙ্কান বোলারদের মধ্যে দুষ্মন্থ চামিরা ২৭ রানে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট নিয়েছেন।

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter