Home » ভর্তি ও পরীক্ষা

ভর্তি ও পরীক্ষা

আজ সন্ধ্যা থেকে শুরু ঢাবি ভর্তির পরীক্ষার প্রবেশপত্র সংগ্রহ

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৬ মে ২০২২ঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদনকৃত শিক্ষার্থীরা আজকে থেকে তাদের পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন।

আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটারবিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মো. মোস্তাফিজুর রহমান বাংলাদেশ জার্নালকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আজ সন্ধ্যা ৬ টা থেকে ‘গ’ ও ‘খ’ ইউনিটের প্রবেশপত্র পাওয়া যাবে। এছাড়া অন্যান্য ইউনিটের প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে রাত সাড়ে ৮টা থেকে। প্রত্যেকটি ইউনিটের পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগ পর্যন্ত প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে।

এবার ৬ হাজার ৩৫টি আসনের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে গত ২০ এপ্রিল থেকে শুরু করে ১০ মে পর্যন্ত আবেদন নেয়া হয়।‌ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ‘ক’ ইউনিটের ১ হাজার ৮৫১ টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ১ লক্ষ ১৫ হাজার ৭২৬ জন। এ ছাড়া ‘খ’ ইউনিটের ১ হাজার ৭৮৮ আসনের বিপরীতে ৫৮ হাজার ৫৬৫ জন, ‘গ’ ইউনিটে ৯৩০ আসনের বিপরীতে ৩০ হাজার ৭০৪ জন, ‘ঘ’ ইউনিটে ১ হাজার ৩৩৬ আসনের বিপরীতে ৭৮ হাজার ৪৫ জন এবং ‘চ’ ইউনিটে ১৩০ আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ৭ হাজার ৪৪০ জন। এ হিসেবে মোট আবেদনকারীর সংখ্যা ২ লক্ষ ৯০ হাজার ৪৮০ জন।

অনলাইনে আবেদনের পর চারটি রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকের (সোনালী, অগ্রণী, জনতা ও রূপালী) যেকোনো শাখায় প্রার্থীদের আবেদন ফি জমা দিতে হয়েছে। এ বছর ভর্তি আবেদন ফি ৬৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১ হাজার টাকা করা হয়। সে হিসেবে এবার মোট ২৯ কোটি ৪ লক্ষ ৮০ হাজার টাকার ফর্ম বিক্রি করেছে বিশ্ববিদ্যালয়।

এর আগে ৭ এপ্রিল নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে উপাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ ভর্তি কমিটির সভায় পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত করা হয়। ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষ থেকে পাঁচটি ইউনিটের পরিবর্তে চারটি ইউনিটে যাথাক্রমে ক, খ, গ এবং চ পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়।

ভর্তি কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ৩ জুন ব্যবসা শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শুরু হবে এবারের ভর্তি পরীক্ষা। ৪ জুন কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিট, ১০ জুন বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিট এবং ১১ জুন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিট এবং ১৭ জুন চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) অনুষ্ঠিত হবে।

‘ক’, ‘খ’, ‘গ’ এবং ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। ‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) বেলা ১১টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে গত বছরের মতো এবারো ভর্তি পরীক্ষা ঢাকাসহ ৮টি বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হবে।

বুয়েট ভর্তি: প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন যারা (তালিকা)

বুয়েট প্রতিনিধি,১৩ মে ২০২২ঃ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) স্নাতক ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তির প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষার যোগ্যপ্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১২ মে) রাতে বুয়েটের ভর্তির ওয়েবসাইটে এই তালিকা প্রকাশ করে কর্তৃপক্ষ।

ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য প্রাথমিক আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে মোট ১৭ হাজার ৩৩ জনকে প্রাক নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। আগামী ৪ জুন দুই শিফটে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা এবং এরপর মূল ভর্তি পরীক্ষা ১৮ জুন অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, প্রাক নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাওয়াদের মধ্যে প্রথম শিফটে রয়েছে ৮ হাজার ৫১৭ জন এবং দ্বিতীয় শিফটে ৮ হাজার ৫১৬ জন শিক্ষার্থী।

এর আগে গত ১৬ এপ্রিল অনলাইনের মাধ্যমে প্রাথমিক ভর্তির আবেদনপত্র পূরণ ও সাবমিট শুরু হয়ে চলে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত। এরপর মোবাইল বা অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে আবেদন ফি প্রদান শেষ হয় ২৬ এপ্রিল বিকাল ৩টায়।

ভর্তির বিজ্ঞপ্তির তথ্য মতে, প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য আবেদনকারীদের নামের তালিকা প্রকাশের সর্বশেষ তারিখ ছিল ১৪ মে। তবে এর দুইদিন আগে এই তালিকা প্রকাশ করা হয়।

এদিকে, আগামী ৪ জুন প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে শিফট-১ ‘ক’ ও ‘খ’ গ্রুপ সকাল ১০টা থেকে সকাল ১১টা এবং শিফট-২ ‘ক’ ও ‘খ’ গ্রুট বিকেল ৩টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত পরীক্ষা হবে।

মূল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য আবেদনকারীদের নামের তালিকা প্রকাশের সর্বশেষ তারিখ আগামী ১১ জুন শনিবার। আর মূল মূল ভর্তি পরীক্ষা হবে আগামী ১৮ জুন।

শিফট-১ঃতালিকা দেখুন

শিফট-২তালিকা দেখুন

বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষা নিতে ইউজিসির সুপারিশ, নাকচ করল জাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ২৬ এপ্রিল, ২০২২ :
সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বেশ কিছু স্বায়ত্তশাসিত বিশ্ববিদ্যালয় বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষা নিচ্ছে। তবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) এখনো নিজস্ব ক্যাম্পাসে পরীক্ষা নিচ্ছে। সোমবার জাবির সিনেট কক্ষে শিক্ষা পর্ষদের এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।
আরো পড়ুনঃ মেডিকেলে ভর্তির তারিখ চূড়ান্ত

বিভাগীয় শহরে কেন্দ্র করে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার জন্য জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিকটে সুপারিশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি)। তবে ইউজিসির এ সুপারিশ নাচক করে দিয়েছে জাবি কর্তৃপক্ষ।

জাবি প্রশাসন জানিয়েছে, ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথমবর্ষ ভর্তি পরীক্ষা পূর্বের মতোই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হবে। তবে জাবি প্রশাসন ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানোর বিষয়ে চিন্তা করছে।

আরো পড়ুনঃ ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

জানা গেছে, ৭ এপ্রিল দেশের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা বিষয়ে উপাচার্যদের সঙ্গে ইউজিসির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ১৯৭৩-এর অধ্যাদেশ অনুসারে প্রতিষ্ঠিত দেশের চারটি সরকারি (ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও জাহাঙ্গীরনগর) বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি গুচ্ছ করার আহ্বান জানানো হয়।

সভায় আরও সিদ্ধান্ত হয়, গুচ্ছে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ না নিলে ওই চার বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫টির বেশি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা ও বিভাগভিত্তিক ভর্তি পরীক্ষার ফি নেওয়া যাবে না। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি), চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়কে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আদলে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ ও ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের ভোগান্তি লাঘবে বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্র করার সুপারিশ করা হয়।

এদিকে ইউজিসির সুপারিশ অনুযায়ী জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) ১০ ইউনিটের পরিবর্তে ৫টি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে শিক্ষা পর্ষদের জরুরি সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বকীয়তা ও স্বতন্ত্রতা বজায় রেখে পূর্বের মতোই ক্যাম্পাসে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাবি প্রশাসন।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. নূরুল আলম জানান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ১৯৭৩-এর অ্যাক্ট মেনে চলে। অ্যাক্ট মেনে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বকীয়তা ও স্বতন্ত্রতা বজায় রেখে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। একাডেমিক কাউন্সিলে মেজরিটি এ মতামত দিয়েছেন। তবে ক্যাম্পাসের যত জায়গায় সম্ভব ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের ব্যবস্থা করব।

মেডিকেলে ভর্তির তারিখ চূড়ান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক,২৪ এপ্রিল ২০২২ঃ চূড়ান্ত হয়েছে সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস প্রথমবর্ষ ভর্তির তারিখ।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের (চিকিৎসা শিক্ষা-১) উপসচিব মো. আবদুল কাদের স্বাক্ষরিত পৃথক দুই বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, সরকারি মেডিকেলে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে আগামী ৮ মে। অন্যদিকে বেসরকারিতে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে ১৪ জুলাই।

আরো পড়ুনঃ ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সরকারি মেডিকেলে ভর্তি কার্যক্রম ৮ থেকে শুরু হয়ে ১৮ মে পর্যন্ত চলবে। এ ছাড়া ক্লাস শুরু হবে ১ আগস্ট।

আর বেসরকারি মেডিকেলে ভর্তি কার্যক্রম ১৪ জুলাই থেকে শুরু হয়ে ২৮ জুলাই পর্যন্ত চলবে। ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে ১৬ জুন। আবেদন বিতরণ শুরু হবে ২১ জুন। আবেদন পত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ ৩ জুলাই। ক্লাস শুরু হবে ১ আগস্ট।

ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

ডেস্ক, ২৪ এপ্রিল ২০২২
দেশের সরকারি-বেসরকারি ডেন্টাল কলেজ ও ডেন্টাল ইউনিটের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে।

রোববার স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ এইচ এম এনায়েত হোসেন আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন।

স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে-(https://www.dgme.gov.bd/index.php/Hms/details_notice/83) পাওয়া যাচ্ছে এই ফলাফল।

একটি সরকারি ডেন্টাল কলেজ এবং আটটি মেডিকেল কলেজের ডেন্টাল ইউনিটে ভর্তির জন্য মেধাতালিকা ও কোটার ভিত্তিতে মোট ৫৪৫ জন শিক্ষার্থীকে নির্বাচিত করা হয়েছে।

এ ছাড়া উত্তীর্ণ বাকি শিক্ষার্থীরা দেশের বেসরকারি ডেন্টাল কলেজ এবং ইউনিটে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবেন। বেসরকারি ডেন্টালে মোট ১ হাজার ৪০৫টি আসন রয়েছে।

এবারের পরীক্ষায় ৬৫ হাজার ৯০৭ জন আবেদন করেন। পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন ৫৩ হাজার ৮২জন। পাস করেছেন ৩৯ হাজার ৩৯৫ জন শিক্ষার্থীর। পাসের হার ৫৯ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

ছেলেদের পাসের হার ৩৪ দশমিক ৯০ শতাংশ যা সংখ্যার হিসাবে ১৩ হাজার ৭৪৯ জন। আর মেয়েদের পাসের হার ৬৫ দশমিক ১০ শতাংশ, সংখ্যার হিসাবে ২৫ হাজার ৬৪৬জন।

সরকারি ডেন্টাল কলেজে ছেলেদের জন্য ২৫৭টি আর মেয়েদের ২৮৮টি আসন রয়েছে।

দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত—দেখে নিন কোনটি কবে

নিজস্ব প্রতিবেদক,৯ এপ্রিল ২০২২ঃ দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

শুক্রবার (৮ এপ্রিল) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যদের সংগঠন বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সভায় এ তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

সভায় গুচ্ছভিত্তিক ৩২টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া শীর্ষ চারটি সাধারণ বিশ্ববিদ্যালয় ও বুয়েট আলাদাভাবে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করেছে।

উপচার্যদের সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, গুচ্ছভুক্ত তিনটি প্রকৌশল ‍ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৬ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তির নীতিমালাসহ শিগগিরই এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে। বৈঠক শেষে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম সেখ।

এ ছাড়া বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৪ জুন থেকে শুরু হবে। এবারও দুই ধাপে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। গত বুধবার বুয়েটের একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভা সূত্রে জানা গেছে, আগামী ৪ জুন প্রাথমিক বাছাই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এবার প্রাথমিক বাছাই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন ২০ হাজার শিক্ষার্থী। প্রাথমিক বাছাই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রথম ৬ হাজার জনকে চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়া হবে। আগামী ১৮ জুন বুয়েট ক্যাম্পাসে চূড়ান্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বুয়েটের ছাত্র কল্যাণ বিষয়ক পরিচালক অধ্যাপক মিজানুর রহমান। তিনি জানান, আজকের সভায় ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত করা হয়েছে। পরবর্তী সভায় কবে থেকে আবেদন শুরু হবে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এদিকে আগামী ৩১ জুলাই থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথমবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। আবেদন শুরু হবে ১৮ মে থেকে। ১৬ জুন পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। জাবি উপাচার্য (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক মো. নূরুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গুচ্ছভুক্ত ২১টি সাধারণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে আগামী ৩ সেপ্টেম্বর থেকে। শুক্রবার (৮ এপ্রিল) সভা শেষে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ছাদেকুল আরেফিন জানান, আগামী ৩, ১০ এবং ১৭ সেপ্টেম্বর তিন ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

তবে দেশের ৮টি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করতে পারেনি আয়োজক কমিটি। সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত হওয়ার পর নিজেদের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করতে চায় কর্তৃপক্ষ।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে কৃষি গুচ্ছের আহবায়ক ও শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শেকৃবি) উপাচার্য অধ্যাপক মো. শহীদুর রশীদ ভুঁইয়া বলেন, ‘আমরা এবার একটু দেরিতে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করতে চাই। আগে পরীক্ষা হলে শিক্ষার্থীরা ভর্তি হয়ে বসে থাকে। আমরা সেটা চাচ্ছি না। আমরা চাচ্ছি শিক্ষার্থীরা ভর্তি পরীক্ষা শেষে ভর্তি হয়েই যেন ক্লাস করতে পারে। সেজন্য এবার দেরিতে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করা হবে।’

জানা গেছে, চলতি শিক্ষাবর্ষে কৃষি গুচ্ছে একটি বিশ্ববিদ্যালয় যুক্ত হয়েছে। নতুনভাবে যুক্ত হওয়া এই বিশ্ববিদ্যালয়টি ‘হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়’। বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনটি অনুষদের অধীনে ৩০ জন করে মোট ৯০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।

আরো পড়ুন: গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা হবে তিন ধাপে

অপরদিকে বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১২ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য দ্রুত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে। সভা শেষে শুক্রবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সভাপতি এবং ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. হাবিবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে। সে অনুযায়ী, বিজনেস স্টাডিজ অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৩ জুন, কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৪ জুন, বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১০ জুন, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১১ জুন এবং চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) ১৭ জুন অনুষ্ঠিত হবে।

‘ক’, ‘খ’, ‘গ’ এবং ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা সকাল ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। ‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) সকাল ১১টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ঢাকাসহ ৮টি বিভাগীয় শহরে।

আগামী ২০ এপ্রিল থেকে অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তি পরীক্ষার আবেদন এবং ফি জমা দেওয়া শুরু হয়ে ১০ মে পর্যন্ত চলবে। আগামী ১৬ মে ২থেকে পরীক্ষা শুরুর ১ ঘন্টা পূর্ব পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে। গত বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সাধারণ ভর্তি কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

অপরদিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১৬ আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস কমিটির এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। গত বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কমিটির সচিব ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার (একাডেমিক) এস. এম. আকবর হােছাইন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ৪ এপ্রিল অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি সংক্রান্ত ডিনবৃন্দের সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত প্রথম সভার সিদ্ধান্তক্রমে বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষার সম্ভাব্য সময়সূচী আগামী ১৬ আগস্ট থেকে ২৫ আগস্ট পর্যন্ত নির্ধারণ করা হলো।

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা হবে তিন ধাপে

ডেস্ক,৯ এপ্রিল ২০২২ঃ
বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা তিনটি ধাপে আয়োজন করা হবে। আগামী ৩,১০ ও ১৮ সেপ্টেম্বর এ পরীক্ষা আয়োজন করা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে উপাচার্য পরিষদ।

শুক্রবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যদের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মদ নূর বলেন, আজ উপাচার্য পরিষদের সভা হয়েছে। সেখানে সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

আরো পড়ুনঃ দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত—দেখে নিন কোনটি কবে

তিনি বলেন, এবার দেশের ৩২ বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। এ পরীক্ষা আগামী ৩,১০ ও ১৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। আজকের সবাই ভর্তি পরীক্ষার শুধু সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজ নিজ একাডেমিক কাউন্সিলের সভা করে পরবর্তী প্রস্তুতি গ্রহণ করবে।

এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের এক সভায়, দেশের ৩২টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক পর্যায়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ বছর নতুন করে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা অংশ নিবে কিশোরগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চাঁদপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং কৃষি গুচ্ছে হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।

সভা সূত্রে জানা গেছে, ভর্তি পরীক্ষা সময়সূচি বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ সভা করে চূড়ান্ত করবে।তবে, এবছর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রের বাইরে বিভিন্ন কলেজে ভর্তি পরীক্ষা নেয়া হবে। তবে, গুচ্ছের বাইরে থাকা আটটি বিশ্ববিদ্যালয়–ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম ইউনিভার্সিটি ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস ইউনিভার্সিটি নিজেদের মতো ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করবে।

সভায়, গুচ্ছের বাইরে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়সমূহকে দ্রুত ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি, ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ, ফলাফল ও ভর্তির সময় প্রকাশ করা, কেন্দ্রীয়ভাবে সাবজেক্ট এর প্লেসমেন্ট করা, বিভাগ পরিবর্তনের সময় নির্ধারণ, ভর্তি ফি একবার প্রদানের সুপারিশ করে ইউজিসি।

একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন শুরু ১২ এপ্রিল

নিজস্ব প্রতিবেদক,০৮ এপ্রিল ২০২২,
২০২২ সালের শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন আগামী ১২ এপ্রিল থেকে শুরু হচ্ছে, যা চলবে ১০ মে পর্যন্ত।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক তপন কুমার সরকারের সই করাঅফিস আদেশ থেকে এ তথ্য জানা যায়।

অফিস আদেশে বলা হয়, ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন ১২ এপ্রিল থেকে ১০ মে পর্যন্ত চলবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো এ সময়ের মধ্যে ভর্তির ওয়েবসাইটে (http://www.xiclassadmission.gov.bd/) কলেজ প্যানেলে লগইন করে শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করবেন। ১০ মে বিকেল পাঁচটার মধ্যে রেজিস্ট্রেশনের তথ্য অনলাইনে পাঠাতে প্রতিষ্ঠানগুলো অনুরোধ করা হলো।

এতে আরও বলা হয়, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কলেজ অনলাইনে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন করতে না পারলে জটিলতার জন্য বোর্ড দায়ী থাকবে না।

গুচ্ছ নিয়ে আসতে পারে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত!

নিজস্ব প্রতিবেদক,৬ এপ্রিল ২০২২ঃ দেশের ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে শুরু হয়েছিল ভর্তি পরীক্ষা। আশা করা হয়েছিল, এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি ও খরচ কমবে। তবে সেই উদ্দেশ্য পুরোপুরি পূরণ হয়নি।

গত বছর থেকে চালু হওয়া এই উদ্যোগ নিয়ে এখন নানা প্রশ্ন। কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় বেরও হয়ে যেতে চায়। যদিও তারা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার ও আগামী শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের দুটি সভা থাকায় এক সপ্তাহের মধ্যে এ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, গত বছর দেশের শীর্ষ চার বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছে না আসলেও এবার আসবে বলে আশা করা হচ্ছিল। তবে গুচ্ছ ভর্তি প্রক্রিয়া জটিলতায় পড়ায় সে উদ্যোগ আর এগোয়নি। ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ইতিমধ্যে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থী ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু করেছে।

এক্ষেত্রে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় মাথায় রাখা জরুরি। বিশেষত কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ থেকে বেরিয়ে যেতে চায়। সেক্ষেত্রে তারা আবার নিজস্ব পদ্ধতির ভর্তি প্রক্রিয়ায় ফিরে যেতে পারে। সে জন্য তাদের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রও সেভাবে সাজানো হবে। তারা এ ধরনের সিদ্ধান্ত নিচ্ছে কিনা খোঁজ রাখতে হবে।

আর যদি গুচ্ছ আগের মতোই থেকে যায়, তাহলে প্রশ্নপত্র বা ভর্তি প্রক্রিয়ায় কিছু পরিবর্তন আসার সম্ভাবনা রয়েছে। কারণ গত বছরের ভর্তি প্রক্রিয়ায় বড় ধরনের কিছু ত্রুটি ছিল। সেগুলো এবার সংশোধনের উদ্যোগ নেওয়া হবে। এ বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনিসহ গুচ্ছের সঙ্গে যুক্ত কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে ইঙ্গিত দিয়েছেন। সে কারণে এ বিষয়ে আপডেট তথ্য রাখতে হবে।

আরো পড়ুন: মেডিকেলে প্রথম হওয়া মিমকে নিয়ে ৪ কোচিংয়ের টানাটানি

গত বছর ২০টি বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে আসে। তবে সমন্বয়হীনতা ও নানা জটিলতার কারণে এ প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এ অবস্থায় ত্রুটিগুলো সংশোধনের উদ্যোগ নেবে কর্তৃপক্ষ। আগামীকাল বৃহস্পতিবার ও পরশু শুক্রবার তথা ৭ ও ৮ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) ও উপাচার্যদের সংগঠন বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সভা রয়েছে। সেখান থেকে এ বিষয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত আসবে।

তবে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার নিয়মে পরিবর্তন আসলেও প্রশ্নপত্র নিয়ে পরিবর্তন আসার সম্ভবনা কম। সে কারণে প্রস্তুতি নিয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের চিন্তার কোনো কারণ নেই। শুধু কারা গুচ্ছে থাকছে বা কী ধরনের পরিবর্তন আসছে, সে বিষয়ে তথ্যগুলো আপডেট জেনে নিলেই হবে। এ ছাড়া ভর্তি পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর তাতেও এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

লেখক: সাবেক শিক্ষার্থী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও গণমাধ্যমকর্মী

মেডিকেলে প্রথম হওয়া মিমকে নিয়ে ৪ কোচিংয়ের টানাটানি

ডেস্ক,৬ এপ্রিল ২০২২ঃ ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়ায় সুমাইয়া মোসলেম মিমকে নিয়ে টানাটানি শুরু করেছে চারটি কোচিং সেন্টার। চারটি কোচিং সেন্টারের দাবি মিম তাদের শাখায় কোচিং করেছেন। যদিও মিমের বাবার দাবি মিম ডিএমসি ড্রিমার্স নামক একটি কোচিং সেন্টারের খুলনা শাখায় কোচিং করেছেন।

মঙ্গলবার (৫ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর কনফারেন্স রুমে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফল ঘোষণা করেন। প্রকাশিত ফলাফলে ২৯২ দশমিক ৫ পেয়ে সারাদেশের মধ্যে প্রথম হন মিম।

ফল প্রকাশের থেকেই মেডিকেল ভর্তি কোচিংয়ের জন্য পরিচিত উন্মেষ, রেটিনা, মেডিকো এবং ডিএমসি ড্রিমার্স দাবি করে সুমাইয়া মোসলেম মিম তাদের কোচিং সেন্টারে কোচিং করেছেন। বিষয়টি প্রমাণ করতে মিমের সাথে একাধিক ছবি এবং ভিডিও পোস্ট করেছে এই প্রতিষ্ঠানগুলো।

বিষয়টি জানতে প্রথমে যোগাযোগ করা হয় উন্মেষ কোচিং সেন্টারের সাথে। উন্মেষের হেল্প লাইন ফোন করা হলে ইমরান নামে একজন জানান, যারা ভর্তি পরীক্ষায় ভালো করে তারা সব কোচিং সেন্টারের সাথেই কোনো না কোনো ভাবে যুক্ত থাকে। সুমাইয়া মোসলেম মিম তেমনি ভাবে উন্মেষের সাথেও যুক্ত ছিল।
রেটিনা কোচিং সেন্টারের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে দেয়া নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, যে যাই বলুক সুমাইয়া মোসলেম মিম রেটিনার খুলনা ব্রাঞ্চে কোচিং করেছেন। এ সংক্রান্ত ভিডিও আমাদের পেজে দেয়া আছে। আপনারা সেখান থেকে তথ্য নিয়ে দেখতে পারে।

মেডিকো কোচিং সেন্টারের দেয়া নাম্বারে কল দেয়া হলে তারা জানান, এ বিষয়ে কথা বলতে হলে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করতে হবে। পরে নম্বর চাইলে এসএমএস করে পাঠানোর কথা বললেও তা আর পাঠানো হয়নি।

মিমের কোচিং করা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তার বাবা মোসলেম উদ্দীন সরদার জানান, মিম কেবলমাত্র ডিএমসি ড্রিমার্স নামে একটি কোচিং সেন্টারের খুলনা ব্রাঞ্চে কোচিং করেছেন। এর বাইরে তিনি রেটিনা এবং উন্মেষে কিছু পরীক্ষা দিয়েছেন। তবে রেটিনা এবং উন্মেষে নিয়মিত কোচিং করেননি তার মেয়ে।

তথ্যমতে, এবার মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিলেন এক লাখ ৩৯ হাজারের বেশি শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে পাস করেছেন ৭৯ হাজার ৩৩৯ জন। সরকারি মেডিকেল পড়ার সুযোগ পেয়েছে ৪ হাজার ৩৫০ জন।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ, পাসের হার ৫৫.১৩%

ডেস্ক,০৫ এপ্রিল ২০২২

সারাদেশের সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ এপ্রিল) দুপুর ১ টার দিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সভাকক্ষে আয়োজিত সনবাদ সম্মেলনে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

এবছর মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় ১ লাখ ৪৩ হাজার ৭৩০ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাস করেছে ৭৯ হাজার ৩৩৯ জন শিক্ষার্থী। পাসের হার ৫৫ দশমিক ১৩ শতাংশ।

এবারের ভর্তি পরীক্ষায় সর্বোচ্চ ৯২ দশমিক ৫ পেয়েছেন শীর্ষস্থান দখল করেছেন সুমাইয়া মোসলেম মীম।

ফল প্রকাশের সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। ছেলেদের তুলনায় মেয়েরা বেশি পাস করেছে। সর্বোচ্চ নম্বরও পেয়েছে একজন মেয়ে।

ফলাফল অনুযায়ী এবছর দেশের সরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে ৪ হাজার ২৩০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হতে পারবে। যার মধ্যে ১ হাজার ৮৮৫ জন ছাত্র এবং ২ হাজার ৩৪৫ জন ছাত্রী।

ফলাফল জানার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোনে মেসেজ দিয়ে মাধ্যমে ফলাফল জানিয়ে দেয়া হবে। এছাড়া স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট (https://result.dghs.gov.bd/mbbs/) থেকেও ফলাফল জানা যাবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব মো. সাইফুল হাসান বাদল, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোশিয়েশনের (বিএমএ) সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) সভাপতি অধ্যাপক ডা. মাহমুদ হাসান।

মাদরাসার অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন শুরু কাল

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০২ এপ্রিল, ২০২২

জেডিসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ২০২২ খ্রিষ্টাব্দের বিভিন্ন মাদরাসায় দাখিল অষ্টম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম আগামীকাল রোববার (৩ এপ্রিল) থেকে শুরু করছে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড।

আরো পড়ুনঃ চাঁদ দেখা গেছে, মাহে রমজান শুরু

৩১ মে পর্যন্ত বিলম্ব ফি ছাড়া রেজিস্ট্রেশনের ফরম পূরণ করা যাবে। আর ৫০ টাকা বিলম্ব ফি দিয়ে ২৩ জুন পর্যন্ত রেজিস্ট্রেশনের ফরম পূরণের সুযোগ পাবেন মাদরাসার অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা। ইতোমধ্যে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড থেকে বিষয়টি জানিয়ে জারি করা বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

জানা গেছে, বিলম্ব ফি ছাড়া টিটি স্লিপ অনুযায়ী ফি জমা দেয়া যাবে ৩ এপ্রিল থেকে ৩১ মে পর্যন্ত। আর ১ জুন থেকে এপ্রিল থেকে ২৩ জুন পর্যন্ত বিলম্ব ফি দিয়ে টিটি স্লিপ অনুযায়ী টাকা জমা দেয়া যাবে। ইএসআইএফ পূরণ ও সাবমিট করা যাবে ৩০ জুন পর্যন্ত। আর ১০ জুলাই পর্যন্ত রেজিস্ট্রেশনের কাগজ পত্র জমা দেয়া যাবে।

জানা গেছে, দাখিল অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশনে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মোট ৬৪ টাকা ফি নেয়া হবে। এরমধ্যে রেজিস্ট্রেশন ফি বাবদ নেয়া হবে ৪০ টাকা আর রেডক্রিসেন্ট ফি বাবদ নেয়া হবে ২৪ টাকা। কোন শিক্ষার্থী ৩১ মের পর রেজিস্ট্রেশন করলে বিলম্ব ফি হিসেবে নেয়া হবে ৫০টাকা। বিলম্ব ফি দিয়ে রেজিস্ট্রেশনের ফরমপূরণে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১১৪টাকা নেয়া হবে।

জানা গেছে, নির্ধারিত ওয়েবসাইটে ইএসআইএফ পূরণ করে শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। দাখিল অষ্টম শ্রেণিতে রেজিস্ট্রেশন করতে শিক্ষার্থীদের জেডিসি পরীক্ষার বছর সর্বনিম্ন ১১ বছর হতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে দাখিল ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশনের বিস্তারিত প্রক্রিয়া তুলে ধরা হয়েছে। দৈনিক শিক্ষাডটকমের পাঠকদের জন্য বিজ্ঞপ্তিটি তুলে ধরা হল।

ডিগ্রি পাস কোর্স পরীক্ষার ফল প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক , ২৯ মার্চ, ২০২২
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮ সালের ডিগ্রি পাস ও সার্টিফিকেট কোর্স (পুরনো সিলেবাস, বিশেষ) পরীক্ষার ফল গতকাল সোমবার বিকেলে প্রকাশিত হয়েছে। পরীক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন ও কলেজওয়ারি ফল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.nu.ac.bd/results) গতকাল রাত ৮টা থেকে পাওয়া যাচ্ছে।

আরো পড়ুনঃ প্রাথমিকে ৪৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে নতুন নতুন তথ্য

ফল সম্পর্কে কোনো পরীক্ষার্থী বা সংশ্লিষ্ট কারো অভিযোগ থাকলে ফলাফল প্রকাশের এক মাসের মধ্যে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের কাছে লিখিতভাবে জানাতে হবে।

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অব্যাহত রাখার আহ্বান শিক্ষামন্ত্রীর

বিশ্ববিদ্যারয় প্রতিবেদক,২৭ মার্চ ২০২২ঃ
শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি দূর করতে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

আরো পড়ুনঃ রমজানে স্কুল-কলেজঃ ক্লাস চলবে ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত

সোমবার (২৮ মার্চ) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি এ আহ্বান জানান। মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির আয়োজনে ‘বঙ্গবন্ধু: বাংলাদেশ জাতিরাষ্ট্র সৃষ্টির মহানায়ক’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রথমবারের মতো আমরা ভর্তি পরীক্ষা নিয়েছি। এখানে কিছু ভুল-ত্রুটি থাকতেই পারে। ভুল-ত্রুটি সংশোধনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তির কথা চিন্তা করে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে গুচ্ছ পদ্ধতি থেকে বের না হওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।

এইচএসসির ফল প্রকাশ রোববার বেলা ১২টায়

নিজস্ব প্রতিবেদক,১২ ফেব্রয়ারী ২০২২ঃ
আগামীকাল রোববার এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে। দুপুর ১২টায় রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউটে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ফল ঘোষণা করবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। শনিবার শিক্ষামন্ত্রীর দপ্তর এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ২০২১ সালের এইচএসসি, আলিম, এইচএসসি ভোকেশনাল, এইচএসসি ব্যবসা ব্যবস্থাপনা ও ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হবে।

এর আগে এইচএসসি-সমমান পরীক্ষার ফলাফল ফেব্রুয়ারি মাসের ১২ থেকে ১৪ তারিখের প্রকাশ করতে চেয়েছিলো শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ফলাফল প্রকাশে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ সংক্রান্ত প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সম্মতির পর এইচএসসি ফল প্রকাশের দিনক্ষণ ঘোষণা করা হয়েছে। আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশের জন্য সার্বিক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক আবু তালেব মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, অন্যান্য বারের মতই শিক্ষার্থীরা ফল জানতে পারবে। সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান, ওয়েবসাইট এমনকি মোবাইলেও ফলাফলের এসএমএস পাওয়া যাবে। শিক্ষার্থীরা কখন এসএমএস পাবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সন্ধ্যা ৬ টার পর পরীক্ষার্থীদের মোবাইলে ফল পৌঁছে যাবে।

এর আগে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি এবং ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ ৩০ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশের কথা জানিয়েছিলেন। তিনি বলেন, এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের তিনটি বিষয়ের পরীক্ষা হলেও তাদের পত্র কিন্তু ছয়টি। তাই কিছুটা সময় লাগতে পারে।

গত বছরের ২ ডিসেম্বর প্রায় ১৪ লাখ শিক্ষার্থী উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন। ওই দিন শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছিলেন, পরীক্ষা শেষ হওয়ার এক মাসের মধ্যে ফল প্রকাশ করা হবে। এরপর গত ৩০ ডিসেম্বর এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শেষ হয়।

এদিকে আটটি সাধারণ শিক্ষাবোর্ডের ফল প্রার্থীরা মোবাইলের মাধ্যমে ফল পেতে HSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের প্রথম তিন অক্ষর লিখে আবার স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০২১ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফল জানা যাবে।

মাদরাসা বোর্ডের শিক্ষার্থীদের ফল জানতে HSC লিখে স্পেস দিয়ে MAD স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০২১ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফল পাওয়া যাবে।

এছাড়া কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের ফল জানতে HSC লিখে স্পেস দিয়ে TEC লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০২১ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফল জানিয়ে দেয়া হবে।

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter