Home » চাকুরি

চাকুরি

প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে গিয়ে আটক ৩

ডেস্ক,২১ মে ২০২২:

প্রাথ‌মিকের সহকা‌রী শিক্ষক নি‌য়োগ পরীক্ষায় প্রার্থীর বদ‌লে প্রক্সি দেওয়ার আগেই প্রতারকচক্রের তিন সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব ৮) এর সদস্যরা। এসময় তা‌দের কাছ থে‌কে বিভিন্ন প্রার্থীর বিভিন্ন পরীক্ষায় অংশগ্রহণের ৩৬টি অনলাইনের আবেদন কপি, বিভিন্ন ব্যাংকের ৩৬টি চেকবই, ৭টি মুড়ি, জালিয়াতির কাজে ব্যবহৃত মোবাইল ফোন, বিভিন্ন ব্যক্তির নামে সিলমোহর, নগদ টাকা, ডায়েরি উদ্ধার করা হয়।

শুক্রবার (২০ মে) রা‌তে বিষয়‌টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব ৮ বরিশালের কোম্পানি অধিনায়ক ও উপ পরিচালক মেজর মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম।

আটকরা হ‌লেন- বরগুনার আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য সহকারী ও তালতলী উপ‌জেলার উত্তর ঝাড়াখা‌লি এলাকার বা‌সিন্দা মাহাবুবু আলম তু‌হিন (৪২), একই উপ‌জেলার বড় পারা এলাকার রিয়াজ হো‌সেন (২৯) ও বরগুনা সদর থানার কদমতলার উত্তর ইট বাড়িয়া এলাকার আল আমিন (২৯)।

র‌্যাব জানায়, গোপন সংবা‌দের ভি‌ত্তি‌তে শুক্রবার সকা‌লে ব‌রিশাল লঞ্চঘা‌টের দুই নম্বর গে‌টের সাম‌নে থে‌কে তিন যুবক‌কে আটক করা হয়।

প‌রে তাদের মধ্যে মাহাবুব আলম তু‌হিন‌কে জিজ্ঞাসাবাদ করেলে, সে জানায়- শিক্ষক নি‌য়োগ পরীক্ষাসহ বি‌ভিন্ন চাকরির পরীক্ষায় অর্থের বি‌নিম‌য়ে চাক‌রি প্রার্থী‌দের প‌ক্ষে মেধাবী ছাত্রদের দি‌য়ে পরীক্ষা দেওয়া‌নো কাজ করে থাকে তারা। এরজন্য প্রতি চাকরি প্রার্থীর থে‌কে ৮ থে‌কে ১০ লাখ টাকা নি‌য়ে থা‌কেন তারা। টাকা লেন‌দে‌নের ক্ষে‌ত্রে বি‌ভিন্ন ব্যাংকের চেক ব্যবহার ক‌রে চক্রটি।

পরে আটককৃত রিয়াজ ও আল আমিন র‌্যাবকে জানায়, প্রাথমিক বিদ্যাল‌য়ের সহকা‌রী শিক্ষক নি‌য়োগ পরীক্ষা দি‌তে তারা ঢাকা থে‌কে ব‌রিশা‌লে এসেছে। পরীক্ষায় প্রক্সি পরীক্ষার্থী হি‌সে‌বে অংশগ্রহ‌ণের জন্য মাহাবুব আলম তুহি‌নের কাছ থে‌কে ৩০ হাজার ক‌রে টাকা নিয়ে‌ছেন তারা। পরীক্ষায় অংশগ্রহ‌ণের পর পরীক্ষার্থী উত্তীর্ণ হ‌লে আরও ২ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা ছি‌ল।

এ ঘটনায় আটকদের বিরু‌দ্ধে ব‌রিশাল কোতয়ালি ম‌ডেল থানায় র‌্যাব-৮ এর ডিএডি এনামুল হক বাদী হ‌য়ে মামলা দা‌য়ের করেছেন বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের-৮ এর উপ প‌রিচালক মেজর জাহাঙ্গীর আলম।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগঃ দ্বিতীয় ধাপের নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র সংগ্রহের পরামর্শ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ১৫ মে ২০২২
এবার তিন পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা। প্রথম ধাপের পরীক্ষা ও ফল প্রকাশ হয়েছে ইতোমধ্যেই। তবে এবার দ্বিতীয় ধাপের নিয়োগ পরীক্ষা আগামী ২০ মে শুক্রবার ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

রোববার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, পরীক্ষার্থীরা admit.dpe.gov.bd- ওয়েবসাইটে Username এবং Password দিয়ে অথবা এসএসসির রোল, বোর্ড ও পাশের সন দিয়ে লগ ইন করে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করে রঙিন প্রিন্ট কপি সংগ্রহ করতে পারবেন।

প্রার্থীদেরকে অবশ্যই প্রবেশপত্রের রঙিন প্রিন্ট এবং নিজের জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে আনতে হবে। ওএমআর শিট পূরণের নির্দেশাবলী এবং পরীক্ষা সংক্রান্ত অন্যান্য তথ্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে এবং প্রবেশ পত্রে পাওয়া যাবে।

এর আগে ২২ এপ্রিল প্রাথমিকে নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা হয় ২২ জেলায়। এর মধ্যে ১৪ জেলায় সম্পূর্ণ এবং ৮ জেলার আংশিক পরীক্ষা নেয়া হয়।

এর মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ, মাগুরা, শেরপুর, গাজীপুর, নরসিংদী, মানিকগঞ্জ, ঢাকা, মাদারীপুর, মুন্সীগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চট্টগ্রাম, মৌলভীবাজার, লালমনিরহাটে আবেদন করা পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় বসেন।

সিরাজগঞ্জ, যশোর, ময়মনসিংহ, নেত্রকোণা, কিশোরগঞ্জ, টাঙ্গাইল, কুমিল্লা ও নোয়াখালীতে পরীক্ষায় বসেন আবেদনকারীদের একটি অংশ।

মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডিপিইর জরুরি নির্দেশনা

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৪ মে ২০২২ ঃ সরকারি প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষায় যেসব প্রার্থী মৌখিক পরীক্ষার জন্য উত্তীর্ণ হয়েছেন তাদের জন্য জরুরি নির্দেশনা দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিপিই)।

শনিবার প্রকাশিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাক্ষর করেন পরিচালক (পলিসি অ্যান্ড অপারেশন) মনিষ চাকমা।

এতে বলা হয়, প্রার্থীকে আসল সনদসহ অনলাইনে আবেদনের আপলোডকৃত ছবি, আবেদনের কপি, লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্র, নাগরিকত্ব সনদ, স্থায়ী ঠিকানার সপক্ষে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান/ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর সনদপত্র, জাতীয় পরিচয় পত্র এবং শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদসহ পোষ্য সনদ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র কমপক্ষে নবম গ্রেডের গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত করে ২৩ মে’র মধ্যে (অফিস চলাকালীন) স্ব স্ব জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে আবশ্যিকভাবে জমা দিয়ে প্রাপ্তি স্বীকারপত্র সংগ্রহ করতে হবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে সব সনদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের ফটোকপি (সত্যায়িত) জমা প্রদানের সময় উক্ত কাগজপত্রের মূলকপি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে প্রদর্শন করতে হবে। মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত প্রার্থীগণ ২৩ মে, ২০২২ তারিখের মধ্যে উপরে উল্লিখিত কাগজপত্র জমা দিতে ব্যর্থ হলে তাদের অনুকূলে মৌখিক পরীক্ষার কার্ড ইস্যু করা হবে না।

মৌখিক পরীক্ষার সময় উপরে বর্ণিত সকল সনদপত্র, প্রাপ্তি স্বীকারপত্র ও অন্যান্য কাগজপত্রের মূল কপি প্রার্থীকে সঙ্গে আনতে হবে। মৌখিক পরীক্ষার তারিখ পরবর্তীতে জানানো হবে এবং তা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট (www.dpe.gov.bd)-এ প্রকাশ করা হবে।

প্রাথমিকে নিয়োগ পরীক্ষার প্রথম ধাপের ফল প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ১২ মে ২০২২:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) আনুষ্ঠানিকভাবে এ ফল প্রকাশ করা হয়।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর প্রথম দফার ২২ জেলার ফল প্রকাশ করে। এতে ৪০ হাজার ৮৬২ জন প্রার্থীকে মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে।

পরীক্ষার ফলাফল http://www.dpe.gov.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানা যাবে।

গত ২২ এপ্রিল প্রথম ধাপে ঢাকাসহ ২২টি জেলার বিভিন্ন উপজেলার প্রার্থীদের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে ১৪ জেলার সম্পূর্ণ পরীক্ষা নেয়া হয়। এসব জেলার মধ্যে ছিল— চাঁপাইনবাবগঞ্জ, মাগুরা, শেরপুর, গাজীপুর, নরসিংদী, মানিকগঞ্জ, ঢাকা, মাদারীপুর, মুন্সিগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চট্টগ্রাম, মৌলভীবাজার, লালমনিরহাট।

আর ৮ জেলার আংশিক পরীক্ষা পরীক্ষা নেয়া হয়। জেলাগুলোর মধ্যে রয়েছে— সিরাজগঞ্জ, যশোর, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, কিশোরগঞ্জ, টাঙ্গাইল, কুমিল্লা ও নোয়াখালী।

ফলাফলের নির্দেশনায় বলা হয়— এই ফলের ভিত্তিতে নির্বাচিত প্রার্থীরা কেবল মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন। এ ফল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রাজস্ব খাতভুক্ত ‘সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ২০২০’ এর কোনো শূন্য পদে নিয়োগের জন্য কোনো নিশ্চয়তা প্রদান করে না।

প্রকাশিত ফলের যেকোনো পর্যায়ে কোনো প্রকার ভুল-ভ্রান্তি/ত্রুটি-বিচ্যুতি/মুদ্রণজনিত ত্রুটি পরিলক্ষিত হলে, তা সংশোধন করার বা প্রয়োজনবোধে সংশ্লিষ্ট ফল বাতিল করার এখতিয়ার কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে।

প্রথম ধাপে ৩ লাখ ৯৬ হাজার ৭৬৪ জন পরীক্ষার্থী আবেদন করেছেন। দ্বিতীয় ধাপে ৪ লাখ ৮৪ হাজার ৭২৫ এবং তৃতীয় ধাপে ৪ লাখ ২৭ হাজার ৯৭৩ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবেন।

দ্বিতীয় ধাপে পরীক্ষা হবে আগামী ২০ মে। এই ধাপে ৩০ জেলার বিভিন্ন উপজেলার প্রার্থীদের পরীক্ষা নেওয়া হবে। তৃতীয় ধাপে ৩ জুন ৩১ জেলায় এই নিয়োগ পরীক্ষা হবে।

শিক্ষক নিয়োগে ঈদের পর বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল

নিজস্ব প্রতিবেদক : ৩০ এপ্রিল ২০২২:
বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১৫ হাজারের অধিক শিক্ষক নিয়োগে বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল আসন্ন ঈদুল ফিতরের পর প্রকাশ করা হবে।

জানা গেছে, বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তিতে ৬ মাসের আইসিটি সনদধারীরা এবং আগে থেকেই নিয়োগপ্রাপ্ত এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা নতুন করে নিয়োগের আবেদন করেন। তবে এমপিও নীতিমালা-২০১৮ অনুযায়ী ৬ মাসের সনদধারীদের নিয়োগ বন্ধ করা হয়। যা এমপিও নীতিমালা-২০২১ এও বহাল রাখা হয়েছে। এরপরও ৬ মাসের সনদধারীরা নিয়োগ পেতে রিট করেছেন। রিটের শুনানি ঈদের আগে হওয়ার কথা থাকলেও বেঞ্চ ভেঙে যাওয়া এবং নতুন বেঞ্চে মামলার শুনানি না হওয়ায় বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল আটকে গেছে।

নিয়োগদাতা প্রতিষ্ঠান বেসরকারি শিক্ষক ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) আদালতের রায় নিয়ে ঈদুল ফিতরের পর বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল প্রকাশের প্রস্তুতি নিচ্ছে। এক্ষেত্রে আইসিটি সনদধারীদের বাদ দিয়েই বিশেষের ফল প্রকাশ করা হবে।

এ বিষয়ে এনটিআরসিএর সচিব মো. ওবায়দুর রহমান বলেন, মামলা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল প্রকাশে বিলম্ব হচ্ছে। আশা করছি ঈদের পর আপিল বিভাগ এ বিষয়ে একটি মতামত দেবে। এরপর আমরা বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল প্রকাশ করব।

বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১৫ হাজারের অধিক শিক্ষক নিয়োগ দিতে বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এনটিআরসিএ। গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে আবেদন শুরু হয়ে চলে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এতে আবেদন করেন ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৪০৭ জন।

স্কুল-মাদরাসায় ৪৭১ ট্রেড ইন্সট্রাক্টর পদে নিয়োগের সুপারিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ২৬ এপ্রিল, ২০২২
সাধারণ ধারার বিভিন্ন স্কুল ও মাদরাসায় সেসিপের বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির আলোকে ট্রেড ইন্সট্রাক্টর পদে প্রাথমিক সুপারিশ পাওয়া ৪৭১ জন প্রার্থীকে চূড়ান্ত সুপারিশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। সোমবার রাত ১১টার দিকে তাদের সুপারিশপত্র ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। প্রার্থীরা ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে সুপারিশপত্র ডাউনলোড করতে পারছেন। প্রার্থীদের সুপারিশপত্র ডাউনলোড করে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যোগদান করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সোমবার রাত ১১টার দিকে এনটিআরসিএর এক কর্মকর্তা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, ২০২১ খ্রিষ্টাব্দের আগস্ট ও নভেম্বর মাসে প্রকাশি সেসিপের বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তিতে অনুসানরে ৫৯১ জন প্রার্থীদের প্রাথমিক সুপারিশ করা হয়। তাদের মধ্যে ৪৭১জন প্রার্থী তাদের ভিআর ফরম এনটিআরসিএতে জমা দিয়েছেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুসারে তাদের পুলিশ ভেরিফিকেশন কার্যক্রম চলমান অবস্থায় ভি-রোল ফরম দাখিল করা ৪৭১ জন প্রার্থীকে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হয়েছে। নিয়োগ সুপারিশের বিষয়টি সুপারিশকৃত প্রার্থী ও সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এসএমএস করে জানানো হয়েছে। সংশ্লিষ্ট প্রার্থীকে এনটিআরসিএ এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে স্ব স্ব ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ডের মাধ্যমে সুপারিশপত্র ডাউনলোড করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যোগদান করতে পারবেন।

এনটিআরসিএ জানিয়েছে, অবশিষ্ট প্রার্থীদের মধ্যে ১২০ জন প্রার্থীকে ভিআর ফরম না পাঠানোয় সুপারিশ করা হয়নি। যেসব প্রার্থীকে সুপারিশ করা হয়নি তাদের তালিকা এনটিআরসিএর ওয়েব সাইটের সেসিপ নিয়োগ সুপারিশ নামক সেবা বক্সে দেখা যাবে। যারা ভিআর ফরম পাঠাননি তাদেরকে আগামী ১২ মের মধ্যে ভিআর ফরম এনটিআরসিএ অফিসে সরাসরি জমা দেয়ার জন্য বলা হয়েছে। তা না হলে তাদের প্রাথমিক নির্বাচন বাতিল হবে।

জজ হলেন শিক্ষক বাবার মেয়ে নিশি

নিজস্ব প্রতিবেদক,২১ এপ্রিলঃ

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) প্রথমবারের মতো সহকারী জজ হিসেবে ১০২তম হয়ে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন আইন বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী নিশি আক্তার। বর্তমানে তিনি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তরে পড়াশোনা করছেন। স্নাতক পর্যন্ত জীবনের সব পরীক্ষায় প্রথম হয়েছেন নিশি। স্নাতকে ৩.৭৩ সিজিপিএ নিয়ে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হন তিনি।

নিশি আক্তারের বাড়ি লক্ষ্মীপুরের কলমনগর উপজেলায়। তিন বোন চার ভাইয়ের মধ্যে তিনি ৬ষ্ঠ। বাবা আবদুল মালেক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক এবং মা আয়েশা বেগম গৃহিণী।

২০১২ সালে তোরাবগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় মানবিক বিভাগ থেকে গোল্ডেন এ প্লাস পেয়ে এসএসসিতে উত্তীর্ণ হন। এরপর ২০১৪ সালে নোয়াখালী সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসিতেও গোল্ডেন এ প্লাস পান। পরবর্তীতে কোন ধরনের কোচিং না করেই কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পান।

অনুভূতি প্রকাশ করে নিশি আক্তার বলেন, আমার সফলতার পেছনে আমার বাবা মায়ের অনেক অনুপ্রেরণা ছিলো। আমি ছোট বেলা থেকেই জীবনে সফল হওয়ার স্বপ্ন দেখতাম। পরিশ্রম আর চেষ্টা আমাকে এতোদূর নিয়ে এসেছে। আমি আমার শিক্ষক, আত্মীয় স্বজন এবং বন্ধুদেরকে ধন্যবাদ জানাই যারা আমাকে চলার পথে সহযোগিতা করেছে।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের জানুয়ারিতে সহকারী জজ পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশন। বিজ্ঞপ্তি অনুসারে ১৪তম সহকারী জজ পদে তিনটি পরীক্ষার মাধ্যমে উত্তীর্ণ ১০২ জনকে মনোনীত করা হয়। যার ফলাফল আজ বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশন সচিবালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।

পঁয়ত্রিশোর্ধ্ব নতুন শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির জটিলতা নিরসন

নিজস্ব প্রতিবেদক | ১৮ এপ্রিল, ২০২২
বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) মাধ্যমে বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সুপারিশ পেয়ে যোগদান করা পঁয়ত্রিশোর্ধ্ব নতুন শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির জটিলতা কাটলো।

তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তিতে সুপারিশপ্রাপ্ত ও ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ১২ জুনের আগে শিক্ষক নিবন্ধন সনদ অর্জন করা শিক্ষকরা এমপিওভুক্ত হতে পারবেন।

বয়স শিথিল করে তাদের এমপিওভুক্ত করার সব সংশয় দূর করে সংশোধিত আদেশ জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সোমবার দুপুরে এ সংশোধিত আদেশ জারি হয়।

১৭তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলি জুনে হচ্ছে না

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৩ এপ্রিল ২০২২ঃ
আগামী জুন মাসে ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা আয়োজনের কথা থাকলেও সেটি হচ্ছে না। আনুষাঙ্গিক কাজের জন্য রুম ভাড়া নিতে না পারায় প্রিলি পরীক্ষা আয়োজন করতে পারছে না বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)।

এনটিআরসিএ সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রাজধানীর ধানমন্ডিতে অবস্থিত একটি কার্যালয়ে এনটিআরসিএ’র জন্য বরাদ্দকৃত দুটি রুম ছিল। ওই রুম দুটি ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ডকে দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। নতুন করে রুম খোঁজার কাজ করছে এনটিআরসিএ। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি বাড়িও দেখা হয়েছে। তবে এখনো রুম ভাড়া নেয়নি এনটিআরসিএ।

ওই সূত্র আরও জানায়, পবিত্র রমজান ও আসন্ন ঈদুল ফিতরের ছুটির কারণে চলতি মাসে রুম ভাড়া নেওয়া সম্ভব হবে না। মে মাসে রুম পেলেও সেখানে কাজ শুরু করতে জুন মাস লেগে যাবে। এই অবস্থায় চলতি অর্থ বছরের মধ্যে প্রিলি পরীক্ষা আয়োজনের কথা থাকলেও সেটি সম্ভব হবে না।

প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষা ২২ এপ্রিল, ২০ মে ও ৩ জুন

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৩ এপ্রিল ২০২২ঃ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রথম পর্যায় হবে আগামী ২২ এপ্রিল। ঈদের পর ২০ মে দ্বিতীয় পর্যায়ের এবং ৩ জুন তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

আবেদনকারীর নিজ নিজ জেলায় সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে বুধবার (১৩ এপ্রিল) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিনের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

কোন তারিখে কোন জেলা/উপজেলা পর্যায়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে, তা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

প্রার্থীদের আবেদনে উল্লিখিত মোবাইল নম্বরে যথাসময়ে ০১৫৫২-১৪৬০৫৬ নম্বর থেকে প্রবেশপত্র ডাউনলোডের এসএমএস পাঠানো হবে।

আগামী ২২ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য প্রথম পর্যায়ের পরীক্ষার জন্য প্রার্থীরা ১৭ এপ্রিল থেকে admit.dpe.gov.bd ওয়েবসাইটে ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে অথবা এসএসসির রোল, বোর্ড ও পাশের সন দিয়ে লগইন করে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করে রঙিন প্রিন্ট কপি সংগ্রহ করতে পারবেন।

পরীক্ষার হলে প্রার্থীদের অবশ্যই প্রবেশপত্রের রঙিন প্রিন্ট এবং নিজের জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে আনতে হবে। ওএমআর শিট পূরণের নির্দেশাবলী এবং পরীক্ষা সংক্রান্ত অন্যান্য তথ্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে এবং প্রবেশপত্রে পাওয়া যাবে।

এই পরীক্ষার মাধ্যমে ৪৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।

২২ জেলায় প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২২ এপ্রিল

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৬ এপ্রিল, ২০২২
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা আগামী ২২ এপ্রিল শুরু হবে। প্রথম ধাপে ২২টি জেলার মধ্যে ১৪টির সব উপজেলা এবং ৮টি জেলার কয়েকটি উপজেলার পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এদিন ৩ লাখ ৯৬ হাজার ৭৬৪ জন প্রার্থীর নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এ সংক্রান্ত চিঠি ২২টি জেলার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের পাঠানো হয়েছে। ঢাকার জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আলেয়া ফেরদৌসী শিখা বুধবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ২২ জেলার জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের ২২ এপ্রিল শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা নেয়ার নির্দেশ এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

চিঠিতে অধিদপ্তর বলছে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০২০ এর লিখিত পরীক্ষা আগামী ২২ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত নিজ নিজ জেলায় এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

চিঠি থেকে জানা যায়, আগামী ২২ এপ্রিল চাঁপাইনবাগঞ্জ, মাগুরা, শেরপুর, গাজীপুর, নরসসিংদী, মানিকগঞ্জ, ঢাকা, মাদারীপুর, মুন্সিগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চট্টগ্রাম, মৌলভীবাজার, লালমনিরহাট জেলার সব উপজেলার লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
এছাড়াও সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া, বেলকুচি, চৌহালী, কামারখন্দ, কাজীপুর; যশোর জেলার ঝিকরগাছা, কেশবপুর, মনিরামপুর, শার্শা; ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা, ধোবাউড়া, ফুলবাড়িয়া, গফরগাঁও, গৌরীপুর, হালুয়াঘাট, ঈশ্বরগঞ্জ; নেত্রকোনা জেলার আটপাড়া, বারহাট্টা, দুর্গাপুর, কমলকান্দা, কেন্দুয়া; কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম, বাজিতপুর, ভৈরব, হোসেনপুর, ইটনা, করিমগঞ্জ, কটিয়াদি; টাঙ্গাইল জেলার সদর, ভূয়াপুর, দেলদুয়ার, ধনবাড়ি, ঘাটাইল, গোপালপুর; কুমিল্লা জেলার বরুয়া, ব্রাক্ষণপাড়া, বুড়িচং, চান্দিনা, চৌদ্দগ্রাম, সদর, মেঘনা, দাউদকান্দি এবং নোয়াখালি জেলার কবিরহাট, সদর, সেনবাগ, সোনাইমড়ি, সুবর্ণচর উপজেলার প্রার্থীদের পরীক্ষা ২২ এপ্রিল নেয়া হবে।

এদিকে দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা কবে হবে সেবিষয়ে এখনো মাঠ পর্যায়ে সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি। তবে প্রথম ধাপের পরীক্ষার দুই সপ্তাহ পর দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা আয়োজন হতে পারে বলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে জানা গেছে।

প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার নতুন তারিখ ঘোষণা

ডেস্ক: ৩১ মার্চ ২০২২ঃ

প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষা দুই ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম ধাপের সম্ভাব্য পরীক্ষা আগামী ২২ এপ্রিল ও দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা ঈদের পরে অনুষ্ঠিত হবে।

দেশের সব জেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা শিক্ষা অফিসারদের সঙ্গে এক ভার্চুয়াল সভায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ সিদ্ধান্ত দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিন।

আরো পড়ুনঃ ৪০তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ

বুধবার সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করে মাহবুবুর রহমান তুহিন বলেন, দুই ধাপে প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা হবে। প্রথম ধাপে আগামী ২২ এপ্রিল পরীক্ষা আয়োজনের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে, এটিই চূড়ান্ত নয়। আর পরবর্তী ধাপের পরীক্ষা ঈদের পর হতে পারে।

এর আগে, গত ১৫ মার্চ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম স্বাক্ষরিত একটি চিঠিতে বলা হয়, আগামী ৮ এপ্রিল থেকে সরকারি প্রাথমিকের ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক পদের নিয়োগ পরীক্ষা শুরু হতে পারে। পাঁচ ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এ পরীক্ষা আগামী ১৩ মে শেষ হবে।

সহকারী শিক্ষকের ৩২ হাজার ৫৭৭টি শূন্য পদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ২০২০ সালের ২০ অক্টোবর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়নি। ইতোমধ্যে অবসরজনিত কারণে আরও ১০ হাজারেরও বেশি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য হয়ে পড়েছে।

এতে বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এ সমস্যার সমাধানে মন্ত্রণালয় আগের বিজ্ঞপ্তির শূন্য পদ ও বিজ্ঞপ্তির পরের শূন্য পদ মিলিয়ে প্রায় ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয়।

সরকারি কর্ম কমিশনে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক | ৩১ মার্চ, ২০২২

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সচিবলায়। নয়টি ভিন্ন পদে মোট ৯১ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

পদের নাম

কম্পিউটার অপারেটর, সাঁট-মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক, কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক, হিসাব সহকারী, ডেটা এন্ট্রি অপারেটর, গাড়িচালক, অফিস সহায়ক, নিরাপত্তা প্রহরী।

পদসংখ্যা

মোট ৯১ জন।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা

বিজ্ঞপ্তিতে বর্ণিত পদ অনুস্বারে যোগ্যতা পূরণ সাপেক্ষে প্রার্থীরা বিভিন্ন পদে আবেদন করতে পারবেন। পদ ভেদে প্রার্থীর কয়েক বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। ১৮ থেকে অনূর্ধ্ব ৩০ বছর বয়স পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। তবে বীর মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান/এতিম ও শারীরিক প্রতিবন্ধী প্রার্থীর ক্ষেত্রে বয়স ৩২ বছর পর্যন্ত শিথিলযোগ্য।

বেতন-ভাতা

জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ অনুযায়ী বিভিন্ন গ্রেডে বেতন-ভাতা দেওয়া হবে।

আবেদনের নিয়ম

আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে (http://bpsc.teletalk.com.bd) আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ তারিখ

২০ এপ্রিল, ২০২২।

প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষা শুরু হতে পারে ৮ এপ্রিল

নিজস্ব প্রতিবেদক, ১৬ মার্চ ২০২২:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা আগামী ৮ এপ্রিল থেকে শুরু হতে পারে। পাঁচ ধাপে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও চার ধাপে অনুষ্ঠিত হবে এই নিয়োগ পরীক্ষা।

মঙ্গলবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলমের সই করা পরীক্ষার কেন্দ্র নির্বাচন সংক্রান্ত চিঠি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

এতে বলা হয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ-২০২০-এর লিখিত পরীক্ষা আগামী ৮, ১৫ ও ২২ এপ্রিল এবং ১৩ মে বিকেল ৩টায় গ্রহণের জন্য আপনার প্রতিষ্ঠানকে কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

আরও বলা হয়, উল্লেখিত তারিখসমূহে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণের জন্য আপনার প্রতিষ্ঠান কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের জন্য অনুমতি প্রদানের অনুরোধ করা হলো।

এর আগে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্র জানিয়েছিলো কেন্দ্রীয়ভাবে এবার পাঁচ ধাপে অনুষ্ঠিত হবে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা। প্রশ্নপত্র ফাঁস এড়াতে ও দুর্নীতি স্বজনপ্রীতি বন্ধ করতে পরিবর্তন করা হয়েছে পরীক্ষা ব্যবস্থায়।

পুলিশের এসআই পদের লিখিত-মনস্তত্ত্ব পরীক্ষার ফল প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২:

বাংলাদেশ পুলিশের ক্যাডেট সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) অব পুলিশ (নিরস্ত্র) পদে নিয়োগ পরীক্ষা ২০২১ এর লিখিত ও মনস্তত্ত্ব পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এআইজি (রিক্রুটমেন্ট অ্যান্ড ক্যারিয়ার প্লানিং-১) মোহাম্মদ মাহফুজুর রহমান আল মামুন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়। বাংলাদেশ পুলিশের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.police.gov.bd থেকে ফলাফল পাওয়া যাবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, পরীক্ষায় এবার ১৪ হাজার ৫৬৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেন। ৩টি বিষয়ে অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় ৩ হাজার ৪৩৬ জন প্রার্থী সকল বিষয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন।

বাংলাদেশ পুলিশের ক্যাডেট সাব-ইন্সপেক্টর অব পুলিশ (নিরস্ত্র) পদে নিয়োগ পরীক্ষা ২০২১ এর লিখিত ও মনস্তত্ত্ব পরীক্ষা গত ৮ থেকে ১০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়। এতে পাশের হার ২৩ দশমিক ৬০ শতাংশ। উত্তীর্ণ প্রার্থীদের আবশ্যিকভাবে কম্পিউটার দক্ষতা পরীক্ষায় অংশ নিয়ে তাতে উত্তীর্ণ হতে হবে।

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter