Home » সর্বশেষ খবর

সর্বশেষ খবর

চুয়াডাঙ্গায় তেলবাহী ৪ ট্যাংকার লাইনচ্যুত, খুলনার সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি,৩০ আগষ্ট ২০২১:
চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার উথলী রেলস্টেশনের কাছে তেলবাহী ট্রেনের চারটি ট্যাংকার লাইনচ্যুত হয়েছে। গতকাল রোববার রাত ১২টা ৪০ মিনিটের দিকে এ ঘটনা ঘটে। এর পর থেকে খুলনার সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ আছে।

তেলবাহী ট্যাংকার লাইনচ্যুত হওয়ার পর খুলনা থেকে ঢাকা, রাজশাহী ও গোয়ালন্দগামী এবং বিপরীতমুখী যাত্রীবাহী ট্রেনগুলো দর্শনা, আনসারবাড়িয়া ও সাবদালপুর স্টেশনে আটকা পড়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন এই পথে চলাচলকারী যাত্রীরা।
লাইনচ্যুত ট্যাংকার উদ্ধারে পাবনার ঈশ্বরদী থেকে আসা উদ্ধারকারী ট্রেন সকাল সাতটায় কাজ শুরু করেছে। আজ সোমবার সকাল নয়টা পর্যন্ত উদ্ধারকাজ চলছিল।

উথলী রেলওয়ের স্টেশনমাস্টার মোহাম্মদ আলী বলেন, খুলনা থেকে ৩০টি ট্যাংকারে ডিজেল নিয়ে একটি ট্রেন রোববার রাতে নাটোরে যাচ্ছিল। বিপরীতমুখী একটি ট্রেনকে ক্রসিং দেওয়ার জন্য উথলী রেলস্টেশনের কাছাকাছি ট্রেনটি ১ নম্বর লাইন থেকে ২ নম্বর লাইনে নেওয়া হয়। রাত ১২টা ৪০ মিনিটের দিকে ট্রেনটিকে পুনরায় ১ নম্বর লাইনে ওঠানোর সময় ১৪/১৫ নম্বর পয়েন্টের কাছে চারটি ট্যাংকার লাইনচ্যুত হয়।

উদ্ধারকারী দলের প্রতিনিধিদের উদ্ধৃতি দিয়ে স্টেশনমাস্টার মোহাম্মদ আলী বলেন, আজ দুপুর ১২টা নাগাদ লাইনচ্যুত ট্যাংকারগুলো উদ্ধার শেষে ট্রেন চলাচল শুরু হতে পারে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সব প্রস্তুতি আছে: শিক্ষামন্ত্রী

ডেস্ক,১৮ আগষ্ট:
প্রায় দেড় বছর ধরে বন্ধ থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার প্রস্তুতির কথা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বুধবার সকালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা পাওয়ার পর বিকালে তিনি এ কথা জানালেন। এক আলোচনা সভায় তিনি বলেছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার জন্য আমাদের সব প্রস্তুতি আছে।

বুধবার বিকালে আওয়ামী লীগ যুব মহিলা লীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, সরকার অনুকূল পরিস্থিতির জন্য অপেক্ষা করছে। আশা করি দ্রুতই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া সম্ভব হবে। সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে দ্রুততম সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া সম্ভব হবে।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, এ ব্যাপারে প্রথম কথা, আমরা যেন শিক্ষার্থী-অভিভাববকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারি। দ্বিতীয়ত, তাদের শিক্ষা যেন ব্যাহত না হয়। যতদূর সম্ভব আমরা যেন চালিয়ে যেতে পারি। তৃতীয়ত, আমরা যেন সবসময় প্রস্তুত থাকি যে, পরিস্থিতি অনুকূল হওয়া মাত্র আমরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে নিয়ে যেতে পারি।

তিনি বলেন, কীভাবে কত দ্রুত সময়ের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে পারি সে ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী করোনা সংকটের প্রথম দিক থেকেই আমাদের নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন। এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী তার নির্দেশনা দিয়ে রেখেছেন। সেই নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার জন্য আমাদের সর্বাত্মক প্রস্তুতি রয়েছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

সরকারি হলো আরও একটি স্কুল

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০১ জুলাই, ২০২১
আরও একটি স্কুল সরকারি করা হয়েছে। স্কুলটি হলো ময়মনসিংহ জেলার গফারগাঁওয়ের দি ফাদার অব দি ন্যাশন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেমোরিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ।
Read More »

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

৭ জুলাই পর্যন্ত মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০১ জুলাই, ২০২১
করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে আগামীকাল থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত লকডাউনে সারা দেশে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন থাকবে। লকডাউনের বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তার জন্য সশস্ত্র বাহিনী কাজ করবে।

বুধবার (৩০ জুন) আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই কথা জানানো হয়েছে।

Read More »

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

পদোন্নতি পেলেন ৫ হাজার ৪৫২ শিক্ষক

নিজস্ব প্রতিবেদক | ৩০ জুন, ২০২১
সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৫ হাজার ৪৫২ জন সহাকারী শিক্ষককে সিনিয়র শিক্ষক পদে পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। তারা বিভিন্ন সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে কর্মরত ছিলেন। ননক্যাডার ২য় শ্রেণির পদে কর্মরত এ শিক্ষকদের ননক্যাডার প্রথম শ্রেণির ৯ম গ্রেডে পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। বুধবার (৩০ জুন) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দীর্ঘদিন ধরে আটকে আছে সরকারি স্কুল শিক্ষকদের পদোন্নতি। নতুন নিয়োগ বিধিমালা অনুসারে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৫০ শতাংশ সহকারী শিক্ষককে পদোন্নতি দেয়া হবে বলে ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে জানায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

স্কুল-কলেজ খোলার দাবি অবান্তর : শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক | ৩০ জুন, ২০২১
করোনার উচ্চ সংক্রমণের সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দাবি অবান্তর বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। শিগগিরই এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো বলে বলেও মন্ত্রী উল্লেখ করেছেন।

বুধবার (৩০ জুন) সংসদে বাজেট পাসের প্রক্রিয়ার সময় বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের বিভিন্ন ছাঁটাই প্রস্তাবের জবাব দিতে গিয়ে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন। এর আগে জাতীয় পার্টি, বিএনপি ও গণফোরামের সদস্যরা ছাঁটাই প্রস্তাবেরও পর তাদের বক্তব্য দেন। এসময় কোনও কোনও সংসদ সদস্য স্কুল খুলে দেওয়ার দাবি করেন। অবশ্য কেউ কেউ এর বিরোধিতাও করেন।

Read More »

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রেকর্ড শনাক্তের দিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক,৩০ জুন ২০২১:
দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ১১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত করোনায় দেশে মোট মৃত্যু হয়েছে ১৪ হাজার ৫০৩ জনের।

একই সময়ে নতুন আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৮ হাজার ৮২২ জন, যা দেশে একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত। এনিয়ে মোট শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৯ লাখ ১৩ হাজার ২৫৮ জনে।

বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনা বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

কাল থেকে কঠোর বিধিনিষেধ, প্রজ্ঞাপন জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক | ৩০ জুন, ২০২১
কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধে সারাদেশে সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। বৃহস্পতিবার ভোর ৬ টা থেকে শুরু হচ্ছে এই লকডাউন। ৭ দিনের এই লকডাউনে কেউ বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বাইরে বের হলেই কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে।

বুধবার সকালে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এতে সরকারি, আধা সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

কঠোর এই বিধিনিষেধ বাস্তবায়ন করতে পুলিশ-বিজিবির সঙ্গে মাঠে থাকবে সেনাবাহিনীও।

জনসাধারণ ও যানবাহন চলাচল এবং বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান পরিচালনা বন্ধের বিষয়ে সরকার বিধিনিষেধ ও নিষেধাজ্ঞা পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ সময়ে জরুরি পরিষেবা প্রদানকারী কর্মরতরা ছাড়া এবং জরুরি কারণ ছাড়া ঘরের বাইরে কেউ বের হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এতে আরও বলা হয়, এ ছাড়া মাস্ক পরিধানসহ সব স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানানো হয়

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

সর্বাত্মক লকডাউনেও চালু থাকবে পোশাক কারখানা-ব্যাংক

এর বাইরে শুধু রফতানিমুখী পোশাক কারখানা, বন্দর, আন্তর্জাতিক ফ্লাইট খোলা থাকবে। এছাড়া খুবই সীমিত পরিসরে খোলা থাকবে ব্যাংক।…

পুরো খবর পড়তে ক্লিক করুন

সম্পূর্ণ আর্টিকেল পড়ুন

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

সেপ্টেম্বরেও খুলবে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান?

নিজস্ব প্রতিবেদক,৬ আগষ্ট:
সেপ্টেম্বর মাসে স্কুল খুলে দেওয়ার প্রস্তুতি নিয়ে এগোচ্ছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। সে লক্ষ্যে এরই মধ্যে নানা পরিকল্পনাও নেওয়া হয়েছে; কিন্তু করোনাভাইরাস সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতিতে সেপ্টেম্বরেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছে। ওদিকে সংক্রমণের ঝুঁকির মধ্যেই সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসছে। অবস্থাদৃষ্টে বলা যায়, সব খাতের প্রতিষ্ঠানের পরই খুলবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের দরজা। দেশের একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হলে সবার আগে গত ১৭ মার্চ থেকে বন্ধ করা হয় সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। কয়েক দফা বাড়িয়ে সেই ছুটি আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছে। তবে এই সময়ের পরও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে না বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে দুই ধরনের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। সেপ্টেম্বরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব হলে চলতি বছরের মধ্যেই সিলেবাস কমিয়ে শিক্ষাবর্ষ শেষ করা হবে। তা সম্ভব না হলে চলতি শিক্ষাবর্ষ আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চ পর্যন্ত বাড়ানো হবে। তবে পর্যায়ক্রমে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। সে ক্ষেত্রে প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা হতে পারে। এরপর উচ্চ মাধ্যমিক, মাধ্যমিক এবং সবার শেষে প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলা হবে। করোনার কারণে এবার এসএসসির ফল প্রকাশে দেরি হয়। এরপর একাদশ শ্রেণিতে ভর্তিও আটকে ছিল। পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হওয়ায় আগামী ৯ আগস্ট থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। তবে গত ১ এপ্রিল এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা এখনো স্থগিত রয়েছে। এতে চরম অনিশ্চয়তায় পড়েছে ১২ লাখের বেশি শিক্ষার্থী।

এ ছাড়া স্কুলের ষান্মাসিকসহ নানা ধরনের পরীক্ষা আটকে আছে। শহরাঞ্চলের শিক্ষার্থীরা অনলাইনে ক্লাস করতে পারলেও গ্রামাঞ্চলের শিক্ষার্থীরা পিছিয়ে পড়ছে। এতে শিক্ষায় বৈষম্য তৈরি হচ্ছে। সব মিলে করোনার প্রাদুর্ভাবে দেশের পাঁচ কোটি শিক্ষার্থীই নানাভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন বলেন, ‘বাচ্চাদের নিরাপত্তা আমাদের কাছে সবার আগে। তাই সবকিছু বিবেচনায় নিয়েই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার ক্ষতি পোষাতে নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। শিক্ষার্থীদের জন্য পাঁচ মিনিট টোল ফ্রি পরামর্শও চালু করা হচ্ছে।’

জানা যায়, করোনার মধ্যে দেশের প্রায় সবকিছু স্বাভাবিক হতে শুরু করলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে ভিন্নভাবে দেখা হচ্ছে। কারণ অভিভাবকরা সন্তানের স্বাস্থ্য নিয়ে বেশি চিন্তিত। করোনা পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত কারা সন্তানকে স্কুলে পাঠাতে অনিচ্ছুক। তা ছাড়া বেশকিছু দেশ একবার স্কুল খুলে দিলেও পরে আবার বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে। ফলে সবকিছু বিবেচনায় নিয়ে একটু দেরিতেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে চায় মন্ত্রণালয়।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক বলেন, ‘করোনার মধ্যেই আমরা এসএসসির ফল প্রকাশ করেছি। একাদশে ভর্তি কার্যক্রমও শুরু করতে যাচ্ছি, তবে আটকে আছে এইচএসসি পরীক্ষা। এখন এইচএসসি পরীক্ষা নিতে হলে কমপক্ষে ১৫ দিন ২০ থেকে ২৫ লাখ লোকের চলাফেরা বাড়বে। এতে ভীতি থেকেই যাচ্ছে। কিন্তু দীর্ঘদিন করোনা থাকলে আমাদের বিকল্প ভাবতে হবে। আমরা সবকিছু নিয়েই কাজ করছি, পরিকল্পনা করছি। তবে আরো কিছুদিন সময় নিতে চাই।’


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ৬ আগষ্ট পর্যন্ত

 

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৫ জুন:

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে স্কুল-কলেজসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানো হয়েছে। আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

সোমবার (১৫ জুন) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়েরের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষার্থীদের সার্বিক সুরক্ষা ও নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চলমান ছুটি আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

দেশে করোনাভাইরাসের বিস্তার হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৭ মার্চ থেকে সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এরপর দফায় দফায় ছুটি বাড়িয়ে ১৫ জুন অর্থাৎ সোমবার পর্যন্ত করা হয়।

মাঝে ১ জুন দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রশাসনিক, রক্ষণাবেক্ষণ জাতীয় কর্মকাণ্ড এবং শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমোদন দেয়া হয়। আর ছুটি আজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও করোনা সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকায় তা বাড়ানো হলো ৬ আগস্ট পর্যন্ত।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, করোনা মহামারি আকারে ধারণ করায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে শিক্ষার্থীদের হুমকির মধ্যে ফেলা হবে না। প্রতিদিন সংসদ টিভিতে ক্লাস সম্প্রচার করা হচ্ছে, বাসায় বসে তারা পাঠগ্রহণ চালিয়ে যাবে। বর্তমানে শিক্ষার্থীদের বাসায় রেখে কীভাবে পরীক্ষা নেয়া সম্ভব সে বিষয়েও চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

৯ এপ্রিল পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ

ডেস্ক,২৪ মার্চঃ
করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যৌথসভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
এর আগে ৩১ মার্চ পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল।
বিস্তারিত আসছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

১৮ মার্চ থেকে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৬ মার্চঃ
করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বুধবার (১৮ মার্চ) থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করছে সরকার। আপাতত ৩১ মার্চ পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

সোমবার (১৬ মার্চ) বিকেলে এ সংক্রান্ত আদেশ জারি হবে। শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, ১৭ মার্চ সাধারণ ছুটি। ১৮ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছুটি ঘোষণা করা হবে। প্রতিমন্ত্রী মহোদয় এলেই আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করব।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রধান শিক্ষক পদে ২৯৬ জনকে গেজেটভুক্ত করার নির্দেশ

ডেস্ক,৫ মার্চ:
সদ্য জাতীয়করণ করা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২৯৬ জনকে প্রধান শিক্ষক পদে গেজেটভুক্ত করে তা প্রকাশের নির্দেশ দিয়েছেন হইকোর্ট।

জাতীয়করণের আগে তাদের করা ৫টি রিটের চূড়ান্ত নিষ্পত্তির পর বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি নাইমা হায়দার এবং বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় দেন।

আদালতে আজ রিটকারীদের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট শেখ শফিক মাহমুদ।

অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, সরকার ২০১৩ সালে সারা দেশের ২৬ হাজার বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ তালিকায় আনে। পর্যায়ক্রমে ওই বিদ্যালয়গুলোর শিক্ষকদের ২০১৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে সরকারি শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিয়ে অফিস আদেশ জারি করে। এক্ষেত্রে যে শিক্ষকরা যে পদে নিয়োগ পেয়েছেন (জাতীয়করণের আগের কমিটি কর্তৃক) তাদেরকে জাতীয়করণের পর স্ব স্ব পদে, অর্থাৎ প্রধান শিক্ষকদের প্রধান শিক্ষক হিসেবে এবং সহকারী শিক্ষকদের সহকারী শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। কিন্তু রিটকারীরা কমিটি কর্তৃক প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হলেও তাদেরকে ২য় ধাপে স্কুল জাতীয়করণের পর ২০১৬ সালের ১ ডিসেম্বর প্রধান শিক্ষকের পরিবর্তে সহকারী শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়, যা আগের শিক্ষকদের সঙ্গে বৈষম্যমূলক। তাই রিটকারীরা ওই সিদ্ধান্তে সংক্ষুব্ধ হয়ে প্রধান শিক্ষক পদের গেজেট প্রদানের জন্য হাইকোর্টে রিট করেন। ওই রিটের জারি করা রুলের শুনানি শেষে রিটের চূড়ান্ত নিষ্পত্তি করে এ রায় দেন হাইকোর্ট।

তিনি আরও বলেন, এ রায়ের ফলে রিটকারী ২৯৬ জনের প্রধান শিক্ষক হিসেবে গেজেট পেতে আইনি পথ সুগম হলো এবং তারা দেরিতে হলেও ন্যায়বিচার পেলেন।

রিটকারীদের মধ্যে আছেন- পটুয়াখালীর আব্দুর রহিম, মো. হারুন, মো. হানিফ, অরুনা, মো. আরিফ হোসেন, মো. মনিরুজ্জামান, মো. সবুজ মিয়া, মো. রফিকউল্লাহ, বগুড়া জেলার নারগিছ আক্তার, প্রভাস চন্দ্র সরকার, বিউটি আক্তার, আয়েশা আক্তার, মো. মোজাম্মেল, মনসুর আলী এবং কুড়িগ্রাম জেলার মো. আবু তাহের, মো. তাজুল ইসলাম, তানিয়া ইয়াসমিন, মো. ইউনুস আলী, মো. আব্দুল মান্নান, মো. আবেদ আলি, মো. রওজা আলী, মোসা. জাহানারা বেগমসহ ২৯৬ জন।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

দেশে সরকারি চাকরিতে শূন্যপদ ৩ লাখেরও বেশি

ডেস্ক,১৯ জুলাই:

এই মুহূর্তে দেশে ৩ লাখ ১৩ হাজার ৮৪৮ পদ শূন্য রয়েছে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী মো. ফরহাদ হোসেন। এছাড়া দেশে মোট ১২ লাখ ১৭ হাজার ৬২ জন সরকারি চাকরিজীবী রয়েছে।

রোববার বিকেলে একাদশ সংসদের ৬ষ্ঠ অধিবেশনে মন্ত্রীদের জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে পৃথক তিনটি প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী সংসদকে এ তথ্য জানান। এর আগে, স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে দিনের কার্যসূচি শুরু হয়।

সরকারি কর্মকর্তাদের মধ্যে ২৯০ জন কর্মকর্তা বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) হিসেবে কর্মরত। সংসদে সরকারি কর্মকর্তাদের ওএসডি’র ব্যাখ্যাও দেন প্রতিমন্ত্রী। বিএনপি’র সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মদ সিরাজের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, সরকারি কর্মকর্তাদের দাপ্তরিক বিভিন্ন কারণে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) হিসেবে পদায়ন করা হয়। জনস্বার্থে যেকোনো কর্মকর্তার ক্ষেত্রেই এটি একটি নিয়মিত পদায়ন হিসেবেই বিবেচিত হয়। সাধারণত বিশেষ কিছু কারণে কর্মকর্তাদের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওএসডি হিসেবে পদায়ন করা হয়।

বিরোধী দল জাতীয় পার্টির দলীয় সংসদ সদস্য মুজিবুল হকের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, বর্তমানের সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে ৩ লাখ ১৩ হাজার ৮৪৮ পদ শূন্য আছে। তিনি বলেন, ‘শূন্যপদ পূরণে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় হতে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের ক্যাডার পদে নিয়োগ দেওয়া হয়ে থাকে। বর্তমানে বাংলাদেশে সরকারি কর্ম কমিশনের মাধ্যমে নিয়মিত নিয়োগ হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, ২০১৯ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৩৭ তম বিসিএস এর মাধ্যমে ১ হাজার ২৪৮ জন কর্মকর্তাকে বিভিন্ন ক্যাডারে, ৩৯ তম বিসিএস এর মাধ্যমে ৪ হাজার ৬১২ জনকে স্বাস্থ্য ক্যাডারে। সর্বমোট ৫ হাজার ৮৫৯ জন কর্মকর্তাকে নিয়োগ করা হয়। এছাড়া ৪০তম বিসিএস এর মাধ্যমে ১ হাজার ৯১৯ টি বিভিন্ন ক্যাডারে শূন্যপদে নিয়োগের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো জানান, ২০১৯ সালের জানুয়ারি হতে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় হতে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় বিভাগ এবং দপ্তরে ৮৮ হাজার ১২৩টি পদ সৃজনের সম্মতি দেওয়া হয়েছে। এই সময়ে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের ৯ম থেকে ২০ তম গ্রেডের সর্বমোট ৮৬৪টি পদে নিয়োগের ছাড়পত্রও দেওয়া হয়েছে। আদালতে মামলা থাকায় নিয়োগবিধি কার্যক্রম শেষ না হয় এবং পদোন্নতি যোগ্য প্রার্থী না পাওয়া কিছু শূন্যপদ পূরণ করা যায় না বলেও উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter