Home » টপ খবর (page 3)

টপ খবর

হুমকির মুখে ভারত ছাড়লেন সিরাম সিইও

ডেস্ক:

করোনা টিকার জন্য নানা ধরণের হুমকির মুখে ভারতের টিকা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান সিরাম ইনস্টিটিউটের সিইও আদর পুনাওয়ালা দেশ ছেড়ে ব্রিটেনে পাড়ি জমিয়েছেন।

মুখ্যমন্ত্রী থেকে শুরু করে কর্পোরেট কর্মকর্তাসহ একাধিক প্রভাবশালী ব্যক্তির চাপের কারণে ভারতীয় ফ্লাইটগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার আগেই দেশ ছেড়ে ব্রিটেনে পাড়ি জমিয়েছেন তিনি।

দ্য টাইমস এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, কোভিশিল্ড টিকার জন্য পুনাওয়ালাকে বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা এবং অন্যান্যরা ফোন করতেন। দ্রুত টিকা পাওয়ার দাবি জানাতেন তারা।

ব্রিটিশ গণমাধ্যমটিকে পুনাওয়ালা বলেছেন, হুমকি বললে কম বলা হয়। মানুষের আশা এবং আগ্রাসন অভূতপূর্ব। এটা আশ্চর্যজনক। প্রত্যেকেই মনে করছেন, তার টিকা পাওয়া উচিত। তারা এটা বুঝতে চাইছেন না, কেন অন্যদেরও তাদের আগে টিকা পাওয়া উচিত।

পুনাওয়ালা ওই ব্রিটিশ সংবাদপত্রটিকে আরো বলেন, ওরা বলছে, তুমি যদি টিকা না দাও তা হলে ফল ভালো হবে না, এটা খারাপ ভাষা নয়। কিন্তু বলার ধরনটা খারাপ। এমন হুমকি আসছেই এবং তাদের দাবি না মানা পর্যন্ত কোনো কাজই করতে দিচ্ছে না।

প্রতিবেদন অনুযায়ী পুনাওয়ালা বলেন, সব ভার আমার কাঁধে। কিন্তু আমি একা তা বহন করতে পারব না।

তবে পুনাওয়ালা যে হঠাৎই দেশ ছেড়েছেন মোটেই এমন দাবি করছে না ব্রিটিশ গণমাধ্যমগুলো। তাদের দাবি, অনেক দিন ধরেই ভারত ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন সিরাম সিইও। লন্ডনের মেফেয়ার এলাকায় ২৫ হাজার স্কয়ার ফুটের বাড়িও ভাড়া নিয়েছিলেন তিনি। ভারতীয় মুদ্রায় যার ভাড়া সপ্তাহে ৫১ লাখ রুপি।

দ্য টাইমস এর দাবি, পুনাওয়ালা ব্রিটেনে কিছুদিন কাটাবেন বলে জানিয়েছেন। তবে ঠিক কারা পুনাওয়ালাকে ‘হুমকি’ দিয়ে আসছিলেন কিংবা তিনি কবে ভারত ছেড়েছেন এ বিষয়ে ওই প্রতিবেদনে কিছু উল্লেখ করা হয়নি।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

অনলাইনে লিখিত পরীক্ষা সম্ভব নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক:

অনলাইনে সর্বোচ্চ এমসিকিউ পরীক্ষা নেয়া সম্ভব। রচনামূলক সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের সমন্বয়ক ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর নেহাল আহমেদ।

শনিবার মুঠোফোনে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। নেহাল আহমেদ বলেন, আমরা আরো বৈঠক করে বিকল্প উপায়ে পড়ালেখা চালুর বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পরামর্শ পাঠাবো।

এদিকে দীর্ঘ ১৩ মাসের বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এই সময় হয়নি একাধিক পাবলিক পরীক্ষা। এমন পরিস্থিতিতে এসএসসি-এইচএসসিসহ পাবলিক পরীক্ষা অনলাইনে নেওয়া যায় কি-না এর জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় দুটি কমিটি করে দিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের সভাপতি অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, আমরা চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা ক্লাস করিয়েই নিতে চাই। সে লক্ষ্যে পরীক্ষার্থীদের জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস করা হয়েছে। কিন্তু করোনার কারণে আজকের সিদ্ধান্ত হয়তো কাল বদলাতে হচ্ছে। ফলে কবে পরীক্ষা নিতে পারব, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। করোনা পরিস্থিতির দিকেই আমরা তাকিয়ে আছি।

জানা গেছে, এবারের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষাসহ সব শ্রেণির ক্লাস-পরীক্ষা নিয়েই অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। ফলে বিকল্প উপায় খুঁজতে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের একটি কমিটি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তারা এ বিষয়ে করণীয় ঠিক করবেন।

এর আগে গত ১ ফেব্রুয়ারি এসএসসি এবং ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে এসএসসির জন্য ৬০ কর্মদিবস এবং এইচএসসির জন্য ৮৪ কর্মদিবসের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস করা হয়েছিল। এ ক্লাস করিয়ে দুই সপ্তাহ সময় দিয়ে দুটি পাবলিক পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে ২২ মে পর্যন্ত ছুটি বাড়ানোয় ক্লাস-পরীক্ষা নেওয়া অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

এ বিষয়ে নেহাল আহমেদ বলেন, আমরা দুটি ভার্চুয়াল বৈঠক করেছি। অন্যান্য দেশে কী উপায়ে পড়ালেখা চলছে, কীভাবে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে তা পর্যালোচনা করছি। কোনো দেশই করোনার সময়ে সরাসরি পাবলিক পরীক্ষা নেয়নি।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

অনলাইন ক্লাস পরিচালনা করতে ১৩ নির্দেশনা

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনার প্রকোপে ১৩ মাস বন্ধ রয়েছে সব ধরণের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। টিভি-রেডিও ও অনলাইনে ক্লাশ কার্যক্রম চললেও শিক্ষার্থীরা কতটুকু শিখনফল অর্জন করেছে তা নিয়ে রয়েছে নানা প্রশ্ন। তবে এবার ছুটির মধ্যেই প্রাথমিক শিক্ষকদের নতুন কার্যক্রমের ঘোষণা দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিপিই)।

বৃহস্পতিবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ডিজি আলমগীর মুহাম্মদ মনসুরুল আলম স্বাক্ষরিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় অনলাইন ক্লাস পরিচালনা করতে আদেশে শিক্ষকদের উদ্দেশে ১৩ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

আদেশে বলা হয়, এবারই প্রথম গুগল মিট অনলাইন ক্লাস এর প্ল্যাটফর্ম হিসেবে ব্যবহৃত করে অনলাইন ক্লাস পরিচালনা করা হবে। ক্লাস্টারে একটি করে আইসিটি পুল গঠন করতে হবে এবং এইউও/এটিও নেতৃত্বে ক্লাস্টারে অন্তর্গত বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের থাকবেন যারা ইতোমধ্যে গুগল মিটে কাজ করেছেন। কোন শিক্ষক গুগোল মিটার উপর অরিয়েন্টেড না হয়ে থাকলে সে ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সংখ্যক শিক্ষককে একদিনের অরিয়েন্টেশন দিতে হবে। তবে আইসিটি পুল সদস্যরা ক্লাস্টারের যত বেশি সংখ্যক সম্ভব শিক্ষকদের একদিনের অরিয়েন্টেশন দিবেন। আইসিটি পুলের সদস্যগণ এবং ইতোমধ্যে অরিয়েন্টেড শিক্ষকগণ সকল শিক্ষার্থী ও প্রয়োজনে তাদের অভিভাবকগণকে যাদের স্মার্ট ডিভাইস আছে তাদেরকে গুগল মিনিটে অরিয়েন্টেড করবেন। এছাড়াও সংশ্লিষ্ট ক্লাস্টারের প্রতিটি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ক্যাচমেন্ট এরিয়ার সকল শিক্ষার্থীদের শিক্ষক প্রতি ভাগ করে নেবেন। শিক্ষকগণ প্রতিজন শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে নিয়মিতভাবে যোগাযোগ করে শিক্ষার্থীদের পাঠ অগ্রগতির খোঁজখবরব নিবেন। সংশ্লিষ্ট অনলাইন পাঠ দানকারী শিক্ষকের নিকট হতে মূল্যায়ন প্রতিবেদন সংগ্রহ এবং আবশ্যিকভাবে রেকর্ড সংগ্রহ করবেন।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

এসএসসি-সমমানের ২৩ লাখ পরীক্ষার্থী দুশ্চিন্তায়, আগস্টে পরীক্ষার পরিকল্পনা

নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৭ এপ্রিল, ২০২১:
সারাদেশের ১১টি শিক্ষা বোর্ডের প্রায় ২৩ লাখ মাধ্যমিক (এসএসসি) পরীক্ষার্থী দিশেহারা। কবে নাগাদ স্কুল খোলা হবে, কবে থেকে পরীক্ষা শুরু হবে- এসব প্রশ্নের উত্তর পাচ্ছেন না শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

এ অবস্থায় গত রোববার ঢাকা শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমদের সঙ্গে কথা বলেছে শিক্ষাবার্তা ডটকমকে। তিনি জানিয়েছেন, যখনই বিদ্যালয় খুলে দেওয়া সম্ভব হবে, তার পর থেকে ৬০ কর্মদিবস ক্লাস নেয়া হবে। এর পর আরও ১৫ দিন সময় দিয়ে তবেই এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা নেওয়া হবে।

চেয়ারম্যান বলেন, এরই মধ্যে এ বছরের পরীক্ষার জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ করেছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। ওই সিলেবাসের ওপরই এসএসসির প্রশ্নপত্র প্রণয়ন করা হবে।

চেয়ারম্যান বলেন, ক্লাস না নিয়ে কোনোভাবেই পরীক্ষা নেওয়া হবে না। সারাদেশে এবার প্রায় ২৩ লাখ শিক্ষার্থী এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় অবতীর্ণ হবে। এর মধ্যে ঢাকা বোর্ডের রয়েছে প্রায় পাঁচ লাখ। এখনও ফরম পূরণ চলছে। লকডাউনের কারণে সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, ২৩ মে স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়ার সরকারি সিদ্ধান্ত এখনো বহাল আছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ২৩ মে স্কুল-কলেজ এবং ২৪ মে সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়া হবে। এর পর ৬০ কর্মদিবস পাঠদান শেষে মাধ্যমিক পরীক্ষা নিতে চায় সরকার। সব মিলিয়ে আগস্টের শেষে মাধ্যমিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে, যেভাবে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে নতুন করেও ভাবতেও হতে পারে ছুটির বিষয়ে।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এর আগে সাংবাদিকদের বলেছিলেন, সবকিছু বিবেচনায় নিয়ে এবারের এসএসসি ও এইচএসসির একটি সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে। তা সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠানোও হয়েছে। বিদ্যালয় যখনই খোলা সম্ভব হবে, ওই সংক্ষিপ্ত সিলেবাস পড়িয়ে শেষ করে, আরও অন্তত দু’সপ্তাহ সময় দিয়ে তবেই পরীক্ষা নেয়া হবে।

যশোর শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মোল্লা আমীর হোসেনও একই কথা বলেন। তিনি বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের ঘরে বসেই ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়ে রাখার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, পড়াশোনা চালিয়ে যেতে হবে। অনলাইন ক্লাসগুলো ঠিকভাবে করতে হবে।

পরীক্ষা আয়োজনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করার কথা জানিয়েছেন চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডর চেয়ারম্যান অধ্যাপক প্রদীপ চক্রবর্তীও। শতভাগ প্রস্তুত রয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা পরীক্ষা নিয়েই শিক্ষার্থীদের ফল দিতে চাই। সে লক্ষ্যে আমাদের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। স্কুল খোলার পর ৬০ কর্মদিবস ক্লাস করিয়ে তাদের পরীক্ষা গ্রহণের কথা মন্ত্রণালয় থেকে আমাদের জানানো হয়েছে। আমরা এখনও সেই সিদ্ধান্তের ওপর ভিত্তি করে আছি। লকডাউনের পর এ ব্যাপারে মন্ত্রীর সঙ্গে বোর্ডপ্রধানদের বৈঠকের কথা রয়েছে।’

সিলেট শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. রমা বিজয় সরকার সাংবাদিকদের বলেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে যথাসময়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয়া হবে। সিলেট বোর্ডে এসএসসিতে আনুমানিক সোয়া লাখ এবং এইচএসসিতে ৮০ হাজারের মতো শিক্ষার্থী এ বছর পরীক্ষা দেবে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

১৫ দিনের মধ্যেই প্রাথমিকে উপবৃত্তির টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক,২৭ এপ্রিল ২০২১:
নগদের মাধ্যমে প্রাথমিকে ১ কোটি ৪০ লাখ খুদে শিক্ষার্থীর উপবৃত্তির টাকা পাঠাচ্ছে সরকার। গত বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত এই ছয় মাসের বকেয়া টাকা ১৫ দিনের মধ্যে মায়েদের কাছে পৌঁছে যাবে। প্রাথমিকে উপবৃত্তির প্রকল্প পরিচালক অতিরিক্ত সচিব ইউসুফ আলী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ইউসুফ আলী বলেন, ‘বিভিন্ন জায়গায় প্রতারণার তথ্য আমাদের কাছে এসেছে। একারণে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ৫টি উপজেলায় পাইলটিং করা হবে। এতে যদি সব ঠিকঠাক থাকে, তবে পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে সারাদেশে উপবৃত্তির টাকা পাঠিয়ে দেয়া হবে। মূলত প্রতারক চক্রের প্রতারণা এড়াতে এই কৌশল নেয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীদের সঙ্গেও আলাপ করেছি। সবার সতর্ক দৃষ্টি রয়েছে। ১৫ দিনের মধ্যে শিক্ষার্থীদের মায়েদের নগদ অ্যাকাউন্টে বকেয়া ৬ মাসের টাকা যাবে। অর্থাৎ ২০২০ সালের জুলাই থেকে ডিসেম্বর, এই ছয় মাসের টাকা এই কিস্তিতে দেয়া হবে।’

প্রকল্প পরিচালক আরো বলেন, ‘এ বকেয়া ছয় মাসের অর্থ নিরাপদভাবে পাঠানোর পর পরবর্তী তিন মাসের অর্থ পাঠানো হবে। অর্থাৎ চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চের অর্থ পাঠানো হবে। এটি কার্যকর করা হবে আগামী মে থেকে জুন মাসের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে।’

প্রসঙ্গত, করোনার মধ্যে প্রাথমিকের উপবৃত্তি বিতরণের এই প্রকল্প বন্ধ ছিল প্রায় এক বছর। পরে গত ডিসেম্বরে ‘নগদ’র সঙ্গে চুক্তি করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। চুক্তির তিন মাসের মধ্যে প্রায় দেড় কোটি শিক্ষার্থী ও তাদের মায়ের তথ্যসহ ডাটাবেজ তৈরি করা হয়েছে।

এছাড়া, গত কয়েক বছর ধরে আরেক মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘শিওর ক্যাশ’র মাধ্যমে উপবৃত্তির টাকা বিতরণ করতো সরকার। এতে প্রতি হাজার টাকার উপবৃত্তি বিতরণে সাড়ে ২১ টাকা সার্ভিস চার্জ এবং ক্যাশ-আউট চার্জ লাগতো। এখন সব মিলিয়ে নগদে প্রতি হাজারে সরকারের লাগবে ৭ টাকা।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

ভারতের করোনা পরিস্থিতি মর্মান্তিক

ডেস্ক,২৭ এপ্রিল ২০২১:
করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে ভারতের বিদ্যমান পরিস্থিতিকে হৃদয় বিদারক বলে বর্ণনা করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান টেড্রোস অ্যাধানম গেব্রেয়িসাস। দেশটিতে দৈনিক করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে তিন লাখ পার, অক্সিজেন সংকটের পাশাপাশি প্রতিদিন বিপুল সংখ্যক মানুষের মৃত্যুর কারণে সোমবার তিনি এই মন্তব্য করেন। এনডিটিভি।

ভারতে দৈনিক করোনা সংক্রমণের সংখ্যা সাড়ে তিন লাখ ছাড়িয়েছে আগেই। দেশজুড়ে চলছে অক্সিজেনের হাহাকার। ভেঙে পড়েছে খোদ রাজধানী নয়াদিল্লির চিকিৎসা সেবা। এমনকি মৃত্যুর পরেও মৃতদেহ দাহ করতে সৃষ্টি হয়েছে লম্বা লাইনের। কবরস্থানের দেখা দিয়েছে জায়গা সংকটের।

সোমবার ভারতের বর্তমান পরিস্থিতিকে ‘হৃদয় বিদারক’ উল্লেখ করে ডব্লিউএইচও’র প্রধান বলেন, ‘মহামারির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ভারতে অতিরিক্ত জনবল পাঠাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। অনেক জায়গায় সংক্রমণ এবং মৃত্যুর সংখ্যা কিছুটা হ্রাস পেয়েছে। তবে অনেক দেশ এখনও কোভিড -১৯ এর কারণে তীব্র সংকটে রয়েছে। ভারতের পরিস্থিতি হৃদয় বিদারক।’

টেড্রোস অ্যাধানম বলেন, ‘আমরা যা যা করতে পারি তা করছি। প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরঞ্জামও সরবরাহ করা হচ্ছে। ভারতে অক্সিজেন কন্টেইনার, মোবাইল ফিল্ড হাসপাতাল এবং ল্যাবরেটরি পাঠানো হচ্ছে। এছাড়াও দেশটিতে ২ হাজার ৬০০ জন বিশেষজ্ঞকে পাঠিয়েছে ডব্লিউএইচও।’

গত ৯ সপ্তাহ ধরে বিশ্বব্যাপী করোনার দৈনিক সংক্রমণের হার বাড়ছে। এর বেশিরভাগই ভারতে। দেশটিতে শনাক্ত করোনার নতুন ধরন নিয়ে চিন্তিত সারা বিশ্ব। ইতোমধ্যেই ভারতে করোনা টিকা তৈরির কাঁচামাল পাঠানোর ঘোষণা দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র।

এছাড়া ভারতের পাশে থাকার কথা জানিয়েছে ব্রিটেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, পাকিস্তান, জার্মানি, ফ্রান্সসহ অনেক দেশ। সাহায্যের প্রস্তাব নিয়ে এগিয়ে এসেছে গুগুল ও মাইক্রোসফটের মতো প্রতিষ্ঠানও।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

২২ মে মেডিকেলে ভর্তি শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৬ এপ্রিল, ২০২১
আগামী ২২ মে থেকে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে সরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তি শুরু হচ্ছে। আর বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হবে জুলাই মাসের ১ তারিখ থেকে। এছাড়া পহেলা আগস্ট থেকে এমবিবিএস কোর্সের ক্লাস শুরু হবে।

রবিবার (২৫ মে) স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা) ডা. এ কে এম আহসান হাবীব স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ১৮ এপ্রিল স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আলী নূরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আড়ামী ২২ মে থেকে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস কোর্সের ভর্তি শুরু হবে। ২২ থেকে ৩১ মে পর্যন্ত সরকারি মেডিকেলে দেশীয় শিক্ষার্থীদের ভর্তি কার্যক্রম চলবে।

বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুযায়ী, সরকারি মেডিকেলে বিদেশী শিক্ষার্থীদের ভর্তি কার্যক্রম চলবে ১৫ থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত। বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা ১ থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত ভর্তি হতে পারবেন।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রাথমিক শিক্ষকদের উপবৃত্তির কন্টিজেন্সি বাড়লো

অনলাইন ডেস্ক ।।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উপবৃত্তি কন্টিজেন্সি ২৫০০ টাকার পরিবর্তে ৪০০০ টাকা করে পরিপত্র জারি করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর।গত ১৩ এপ্রিল ২০২১ খ্রিঃ তারিখে প্রকর্প পরিচালক মোঃ ইউসুফ আলি স্বাক্ষরিত এ আদেশ জারি করেন্
প্রাথমিক প্রধান শিক্ষক সমিতির সভাপতি রিয়াজ পারভেজ শিক্ষা বার্তা ডটকমকে জানান,প্রধান শিক্ষকরা উপবৃত্তির জন্য যে পরিমান সময় এবং অর্থ ব্যয় করেছেন এতদিন তা ছিল অপ্রতুল। উপবৃত্তির কন্টিজেন্সি ৪০০০ টাকা করায় তিনি মহাপরিচালককে ধন্যবাদ জানান ।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান ১৬ তম নিবন্ধনকারীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক,২৫ এপ্রিল ২০২১ খ্রিঃ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ চেয়েছেন ১৬তম নিবন্ধন পরীক্ষার ফল প্রত্যাশীবৃন্দ কেন্দ্রীয় কমিটি। রোববার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে ৫ দফা দাবি জানান তারা।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, গত ৩০ মার্চ ৫৪ হাজার শিক্ষক নিয়োগে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এনটিআরসিএ। এমন সময় আমাদের মৌখিক পরীক্ষা চলছিল। কিন্তু চলমান লকডাউনে ৭ দিনের জন্য মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত হয়ে যায়। এমন পরিস্থিতিতে এনটিআরসিএ কর্তৃপক্ষের কাছে দ্রুত মৌখিক পরীক্ষা সম্পন্ন ও ফলাফল ঘোষণার দাবি জানাই। কিন্তু এনটিআরসিএ অপরাগতা প্রকাশ করে। এছাড়াও শিক্ষামন্ত্রণালয় থেকে অনুমতি গ্রহণের কথা জানায়। যা অসম্ভব।

লিখিত আবেদনে তারা কয়েকটি দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে-

১. দ্রুত সময়ের মধ্যে সরাসরি বা ভার্চুয়াল মাধ্যমে মৌখিক পরীক্ষা শেষ করা।

২. করোনা পরিস্থিতির কারণে আগের নিবন্ধনকারীদের বয়স ৩৫ করা হয়েছে। সেহেতু ৪৩তম বিসিএস এর আদলে আবেদনের সময় বৃদ্ধি করে ১৬তমদের চলমান গণবিজ্ঞপ্তিতে অন্তর্ভুক্ত করা।

৩. ১ থেকে ১২তম নিবন্ধনকারীরা মৌখিক পরীক্ষা ছাড়াই গণবিজ্ঞপ্তিতে আবেদনের সুযোগ পাচ্ছে। সেহেতু ১৪তমদের আদলে আমাদেরকে সুযোগ দেওয়া।

৪. ১৬তমদের ক্ষেত্রে ইতোমধ্যে দুবছর অতিবাহিত হয়েছে। সময় বিবেচনা করে দ্রুত সময়ের মধ্যে ফল ঘোষণা করে চলমান তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তিতে আমাদের সুযোগ দেয়া হোক

৫. ১৬ তম নিবন্ধনকারীদের সুযোগ দিলে কারো ক্ষতি নেই তাই এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত বন্ধ ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক,২৫ এপ্রিল ২০২১ খ্রিঃ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, সোমবার থেকে আগামী ১৪ দিনের জন্য বন্ধ বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত বন্ধ থাকবে।

রোববার গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।

এর আগে, কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি কমিটির প্রধান অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লা বলেছিলেন, ভারতের ডাবল ভ্যারিয়েন্ট যেন দেশে না ঢুকে সে জন্য জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ভারতের সঙ্গে যাতায়াত বন্ধ করা দরকার। জাতীয় কমিটি এ নিয়ে আলোচনা করেছে। দ্রুতই সরকারকে এ বিষয়ে সুপারিশ করা হবে।

উল্লেখ্য, ভারতে আশঙ্কাজনক হারে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ছড়াচ্ছে। ডাবল ও ট্রিবল মিউট্যান্ট ভাইরাসের কথা শোনা যাচ্ছে। নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট বাংলাদেশে চলে আসার আশঙ্কা রয়েছে বলে জানিয়েছেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। আর যদি এ ভ্যারিয়েন্ট বাংলাদেশে চলেই আসে তাহলে সেটা বাংলাদেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাতে কুলাবে না বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

এইচএসসির ফলে বৃত্তি, তালিকা প্রকাশ

ডেস্ক,২২ এপ্রিল:

করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে ‘অটোপাস’ দেওয়া হয় ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের। পাবলিক এ পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ড থেকে মেধাবৃত্তি ও সাধারণ বৃত্তি পেয়েছেন ১০ হাজার ৫০১ শিক্ষার্থী। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিকে, আজ বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডর ওয়েবসাইটে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করছে সংশ্লিষ্ট বোর্ড কর্তৃপক্ষ। সর্বশেষ পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ঢাকা, সিলেট, বরিশাল ও কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এছাড়া বাকি শিক্ষা বোর্ডগুলোও আজকের মধ্যে তাদের ওয়েবসাইটে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করবে বলে জানা গেছে।

মাউশি জানিয়েছে, এবার এইচএসসি পরীক্ষায় মেধাবৃত্তি পেয়েছেন মোট এক হাজার ১২৫ শিক্ষার্থী। অন্যদিকে সাধারণ বৃত্তি পেয়েছেন ৯ হাজার ৩৭৬ শিক্ষার্থী।

মেধাবৃত্তি পাওয়াদের মধ্যে- ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে ৪২৭, ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ডে ৭২, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে ১৯৪, কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে ৬৯, সিলেট শিক্ষা বোর্ডে ৩১, বরিশাল শিক্ষা বোর্ডে ৪১, যশোর শিক্ষা বোর্ডে ৯৪, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে ৮৬ ও দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে ১১১ শিক্ষার্থী রয়েছেন।

আর সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্তদের মধ্যে- ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে ২ হাজার ৭০০, ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ডে ৬৫৯, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে এক হাজার ২৬২, কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে ৮৯৬, সিলেট শিক্ষা বোর্ডে ৫৯২, বরিশাল শিক্ষা বোর্ডে ৫৭০, যশোর শিক্ষা বোর্ডে এক হাজার দুই, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে ৭২৯, দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে ৯৬৬ শিক্ষার্থী রয়েছেন।

যারা মেধা বৃত্তি পেয়েছেন তাদের মাসিক ৮২৫ টাকা ও বছরে এককালীন ১ হাজার ৮০০ টাকা দেওয়া হবে। আর সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্তদের মাসে ৩৭৫ টাকা এবং বছরে এককালীন ৭৫০ টাকা দেওয়া হবে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

পরিচয়পত্র পাবেন প্রাথমিকের শিক্ষকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক | ২২ এপ্রিল, ২০২১
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও কর্মচারীরা আইডি কার্ড পাচ্ছেন। তাদের আইডি কার্ড দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের পরিচয়পত্র ইস্যু করবে।

বুধবার (২১ এপ্রিল) প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে জারি করা এক আদেশে এ তথ্য জানা গেছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

পাকিস্তানে চীনা রাষ্ট্রদূতকে লক্ষ্য করে বোমা হামলা-নিহত ৪

অনলাইন ডেস্ক,২২ এপ্রিল ২০২১:

পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের রাজধানী শহর কোয়েটার একটি বিলাসবহুল হোটেলে বোমা হামলায় কমপক্ষে চারজন নিহত এবং আরও ১২ জন আহত হয়েছেন। বুধবার রাতে হোটেলটিতে বোমা বিস্ফোরিত হলে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। বেলুচিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, চীনের রাষ্ট্রদূতকে হত্যার জন্য এই হামলা চালানো হয়েছে। ডন,বিবিসি।
আরো খবর

কোয়েটার সেরেনা হোটেলে যেখানে গাড়ি পার্ক করে রাখা হয় সেই স্থান লক্ষ্য করেই হামলাটি করা হয়। চীনা রাষ্ট্রদূত হামলার সময় কোয়েটায় ছিলেন বলে জানা গেলেও তিনি হামলাস্থলে ছিলেন না বলে জানা গেছে। আফগানিস্তান সীমান্ত লাগোয়ো বেলুচিস্তানের কোয়েটার হোটেলে এই হামলার দায় স্বীকার করেছে ‘পাকিস্তান তালেবান’। তবে বিস্তারিত কিছু জানায়নি।

প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে, কোনো একটি গাড়িতে শক্তিশালী ওই বোমা রাখা ছিল।এই হামলায় নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে এক পুলিশ কর্মকর্তাও আছেন। ঘটনার পরপর ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও উদ্ধারকারী সংস্থার কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ ও উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেন। পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। এই এলাকায় কাউকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।

এ ঘটনার পর এক সংবাদ সম্মেলনে বেলুচিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মির জিয়াউল্লাহ বলেন, ‘এই অঞ্চলে সন্ত্রাসবাদের ঢেউ চলছে। এসব সন্ত্রাসী কার্যক্রমে আমাদের নিজেদের লোকজনই জড়িত।’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, এই হামলার লক্ষ্যবস্তু ছিলেন পাকিস্তানে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত। তবে তিনি বিস্ফোরণের সময় ওই হোটেলে ছিলেন না। মন্ত্রী বলেন, ‘আমি একটু আগেই চীনের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে দেখা করেছি। তিনি সুস্থ ও ভালো আছেন।’ এ ঘটনার তদন্ত চলছে।

উল্লেখ্য, দ্য সেরেনা হোটেল কোয়েটায় সবচেয়ে প্রসিদ্ধ হোটেল। সরকারি কর্মকর্তা এবং সেখানে সফর করা অতিথিদের এই হোটেলেই থাকার ব্যবস্থা করা হয়।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

ভারতে অক্সফোর্ডের টিকা নেওয়া ব্যক্তিদের সংক্রমণের হার খুব কম

ডেস্ক,২২ এপ্রিল
ভারতে টিকা নেওয়ার পর করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বেশ কম। বুধবার দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, যারা সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনার টিকা কোভিশিল্ডের একটি ডোজ নিয়েছেন, তাঁদের মধ্যে দশমিক শূন্য ২ শতাংশ মানুষের নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর যারা এই টিকার দুটি ডোজ নিয়েছেন তাঁদের মধ্যে এ হার আরও কম, দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ। ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিন গ্রহণকারীদেরও সংক্রমণের হার কম।
আরো খবর

তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তিতে দিনে দুই লাখ আবেদন

বাংলাদেশেও অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার উদ্ভাবিত ও সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি করোনার টিকা কোভিশিল্ডের প্রয়োগ চলছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী গত মঙ্গলবার পর্যন্ত দেশে ৫৭ লাখের বেশি মানুষকে প্রথম ডোজের টিকা দেওয়া হয়েছে। আর ১৬ লাখের বেশি মানুষ দ্বিতীয় ডোজের টিকা পেয়েছেন।
ভারতে টিকা নেওয়ার পর করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বেশ কম। বুধবার দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, যারা সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনার টিকা কোভিশিল্ডের একটি ডোজ নিয়েছেন, তাঁদের মধ্যে দশমিক শূন্য ২ শতাংশ মানুষের নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর যারা এই টিকার দুটি ডোজ নিয়েছেন তাঁদের মধ্যে এ হার আরও কম, দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ। ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিন গ্রহণকারীদেরও সংক্রমণের হার কম।

বাংলাদেশেও অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার উদ্ভাবিত ও সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি করোনার টিকা কোভিশিল্ডের প্রয়োগ চলছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী গত মঙ্গলবার পর্যন্ত দেশে ৫৭ লাখের বেশি মানুষকে প্রথম ডোজের টিকা দেওয়া হয়েছে। আর ১৬ লাখের বেশি মানুষ দ্বিতীয় ডোজের টিকা পেয়েছেন।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তিতে দিনে দুই লাখ আবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদক,২১ এপ্রিল:

গত ৪ এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত সারাদেশ থেকে ৩৪ লাখ ৭০ হাজার নিবন্ধিত চাকরিপ্রত্যাশীর আবেদন জমা হয়েছে। অনেকে নিয়োগ নিশ্চিত করতে ৫০০টি পর্যন্ত আবেদন করেছেন। প্রতিটি আবেদন বাবদ ১০০ টাকা করে মোট ৩৪ কোটি ৭০ লাখ টাকা আয় করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এনটিআরসিএ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
আরো খবর

দৈনিক সংক্রমণে বিশ্ব রেকর্ড, মৃত্যু ছাড়াল দু’হাজার

এনটিআরসিএ’র চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন বলেন, অনেকে চাকরি নিশ্চিত করতে অনেকগুলো করে আবেদন করেছেন। যারা নম্বরে কিছু পিছিয়ে রয়েছেন তারা কিছুটা দুশ্চিন্তায় রয়েছেন, তারা চাকরি নিশ্চিত করতে বেশি আবেদন করেছেন। যারা নম্বরে এগিয়ে রয়েছেন তারা বেশি আবেদন করছেন না।

তিনি আরো বলেন, ১৬তম নিবন্ধন পরীক্ষা শেষ না হওয়ায় তাদের তৃতীয় ধাপে নিয়োগ কার্যক্রমে যোগদানের সুযোগ দেয়া সম্ভব হয়নি। তবে তারা লিখিতভাবে এ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে একাধিক আবেদন জানিয়ে চলমান নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত রাখতে অনুরোধ জানাচ্ছেন।

নিয়োগ কার্যক্রম শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে পরিচালিত হচ্ছে উল্লেখ করে আশফাক উদ্দিন বলেন, আমরা চাইলেও এ কার্যক্রম স্থগিত রাখতে পারি না। বিষয়টি তাদের বোঝানোর চেষ্টা করেছি। আগামী তিন/চার মাস পর চতুর্থ ধাপে নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হবে বলে তাদের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, বেসরকারি স্কুল-কলেজ, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৫৪ হাজার ৩০৪টি শূন্য পদে নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করেছে এনটিআরসিএ। শিক্ষক নিয়োগের জন্য গত ৩০ মার্চ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। ৪ এপ্রিল থেকে আবেদন শুরু হয়ে চলবে আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter