Home » রাজশাহী ক্যাম্পাস

রাজশাহী ক্যাম্পাস

নাসিমকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে রাবি শিক্ষক বহিষ্কার

রাবি প্রতিনিধি | ২৮জুন, ২০২০

প্রয়াত সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমকে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তির অভিযোগে গ্রেপ্তার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষক কাজী জাহিদুর রহমানকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

শনিবার সকালে উপাচার্যের বাসভবনে অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিন্ডিকেট সদস্য ও মাদার বখশ হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক আব্দুল আলীম সমকালকে বলেন, সিন্ডিকেট সভায় শিক্ষক কাজী জাহিদুর রহমানকে সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিনি মামলায় জেলে আছেন। সেজন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন সেলের পরামর্শ মতো সিন্ডিকেট এ সিদ্ধান্ত নেয়।

সভায় উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান সভাপতিত্ব করেন।

ফেসবুকে মোহাম্মদ নাসিমকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে গত ১৭ জুন মধ্যরাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক কোয়ার্টার থেকে কাজী জাহিদকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রুয়েটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

রাজশাহী:
রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) রাতে এ ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে।

ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. মোশাররফ হোসেন এবং সদস্য সচিব ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মো. সেলিম হোসেনের যৌথ সই করা এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে মঙ্গলবার রুয়েট প্রশাসনিক ভবনের নোটিশ বোর্ডে এবং ওয়েবসাইটে (www.ruet.ac.bd) প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

ফলাফলে ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে ‘ক’ গ্রুপের বিভাগগুলোতে ভর্তির জন্য ১ থেকে ৫২৪৩তম প্রার্থীর মেধাক্রম অনুযায়ী তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এছাড়া ‘খ’ গ্রুপের বিভাগে ভর্তির জন্য ১ থেকে ৩৮৫তম প্রার্থীর মেধাক্রম অনুযায়ী তালিকা প্রকাশ করা হয়।

আগামী ১২ ডিসেম্বর সকাল ৯টা থেকে মেধা তালিকায় ‘ক’ গ্রুপে ১ থেকে ১২০০তম পর্যন্ত এবং ‘খ’ গ্রুপে ১ থেকে ৩০তম স্থান অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হবে। ভর্তির নিয়ম এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টের তালিকা রুয়েট প্রশাসনিক ভবনের নোটিশ বোর্ডে এবং ওয়েবসাইটে (www.ruet.ac.bd) প্রকাশ করা হয়েছে। ভর্তির জন্য নির্ধারিত তারিখ ও অন্যান্য তথ্য প্রার্থীকে নিজ দায়িত্বে জেনে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রাথমিক আবেদন ১ লাখ ৩৭ হাজার

রাবি প্রতিনিধি | ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার জন্য প্রাথমিক আবেদন করেছে ১ লাখ ৩৭ হাজার শিক্ষার্থী। সোমবার রাতে (১৬ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক খাদেমুল ইসলাম মোল্যা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে প্রাথমিক আবেদনের পর এবার চূড়ান্ত আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে আগামীকাল মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর)। এদিন দুপুর ১২টা থেকে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে চলবে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এবং ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০-২২ অক্টোবর।
বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর সূত্রে জানা যায়, এবার ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে প্রাথমিক আবেদন করেছেন ‘এ’ ইউনিটে ৫৪ হাজার ৭৬ জন, ‘বি’ ইউনিটে ২৭ হাজার সাতশ ৯৪ জন এবং ‘সি’ ইউনিটে ৫৬ হাজার ৩৩ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী। এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতি ইউনিটে সর্বোচ্চ ৩২ হাজার করে সর্বোচ্চ ৯৬ হাজার শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন। প্রতি ইউনিটের জন্য ফি দিতে হবে ১৩২০ টাকা। উল্লেখ্য, ভর্তির আবেদনসহ ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে (http://admission.ru.ac.bd) তে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

পরীক্ষা কার্যক্রমে ১০ বছর নিষিদ্ধ রাবির দুই শিক্ষক

রাবি প্রতিনিধি:রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) চারুকলা অনুষদের ভর্তি পরীক্ষায় সাম্প্রদায়িক প্রশ্নপত্র প্রণয়নের দায়ে দুই শিক্ষককে ১০ বছরের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের যেকোনো ধরনের পরীক্ষা কার্যক্রমে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বুধবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৭৪তম সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে জানান সিন্ডিকিটে সদস্য মো. মামুন আব্দুল কাইয়ূম।

ওই দুই শিক্ষক হলেন- চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান এবং চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. জিল্লুর রহমান।

সিন্ডিকিটে সদস্য মামুন আব্দুল কাইয়ূম জানান, ডিনের পদ থেকে অব্যাহতির জন্য আইনগত কোনো বাধা যদি না থাকে, তাহলে অধ্যাপক মোস্তাফিজুরকে অব্যাহতি দেয়া হবে বলেও সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়া শিক্ষক জিল্লুর রহমান ‘সহযোগী অধ্যাপক’ পদে পদন্নোতি পাবেন নির্ধারিত সময়ের পাঁচ বছর পর।

এর আগে ২৫ অক্টোবর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষপূর্ণ দুটি প্রশ্ন করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। চারুকলা অনুষদের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে ৪১ ও ৭৬ নং প্রশ্নে এমন বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়।

ওই প্রশ্ন দুটি একটি হলো, ‘পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ গ্রন্থের নাম কী?’ এই প্রশ্নের চারটি অপশন ছিল- ক. পবিত্র কুরআন শরীফ খ. পবিত্র বাইবেল গ. পবিত্র ইঞ্জিল ঘ. গীতা। অন্য প্রশ্নটি হলো ‘মুসলমান রোহিঙ্গাদের উপর মায়ানমারের সেনাবাহিনী ও বৌদ্ধধর্মালম্বীরা সশস্ত্র হামলা চালায় কত তারিখে?’ যার চারটি অপশন ছিল- ক. ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ খ. ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ গ. ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ঘ. ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭।

এ ঘটনায় গত ২৮ অক্টোবর উপ-উপার্চায অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহাকে প্রধান করে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিতে আরও ছিলেন- ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক মো. শহীদুল্লাহ, ফলতি পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক আবু বকর মো. ইসমাইল ও রসায়ন বভিাগরে অধ্যাপক নজরুল ইসলাম। ওই তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের পরই সিন্ডিকেটে দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হলো।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রাবির ‘এইচ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

সপ্তাহে ছয়দিন খোলা থাকবে রাবির কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার সপ্তাহে ছয়দিন খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে গ্রন্থাগার প্রশাসক। শুক্রবারে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের প্রশাসক অধ্যাপক সুভাষ চন্দ শীল স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রোববার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত গ্রন্থাগারের ডিসকাশন রুমসহ পাঠ কক্ষসমূহ সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা এবং আগামী ৫ আগস্ট থেকে প্রতি শনিবার গ্রন্থাগারের ডিসকাশন রুমসহ পাঠ কক্ষসমূহ সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।

উল্লেখ্য, গত রোববার (২৩ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা গ্রন্থাগার সপ্তাহে সাতদিন খোলা রাখাসহ চার দফা দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। সোমবার (২৪ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দেয় শিক্ষার্থীরা।
Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রাবিতে ছিনতাইয়ের ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলেছে

রাবি প্রতিনিধি : ৩ মে : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ছিনতাইয়ের ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ছিনতাই যেন পরিণত হয়েছে নিত্যদিনের ঘটনায়। ছিনতাই ঘটনাগুলোর সঙ্গে জড়িত রয়েছে অন্তত ৫-৬ টি চক্র। এইসব চক্রের কাছে অসহায় হয়ে পড়ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয়টি স্পটে প্রতিদিন  ঘটছে এই ঘটনা বলে জানা গেছে।

সূত্র বলছে, ছিনতাইকারীরা তাদের লক্ষ্যবস্তুকে টার্গেট করে মোটরসাইকেল নিয়ে তার গতিরোধ করে। তাদের কাছে থাকে ধারালো অস্ত্র। এই ধারালো অস্ত্র দিয়ে ভয় দেখিয়ে ভুক্তভোগীর কাছে যা পায় তাই ছিনিয়ে নেয় ছিনতাইকারীরা। ছিনতাইয়ে ব্যর্থ হয়ে ভুক্তভোগীকে ছুরিকাঘাত করার ঘটনা ঘটছে হামেশায়। রাত ১০টার পর এরকম ঘটনা বেশি ঘটছে। এছাড়াও ক্যাম্পাসের কোনো স্থানে ছেলে-মেয়েকে একা পেয়ে তাদের নামে অনৈতিক কর্মকান্ডের অভিযোগ তুলে মারধর ও সঙ্গে থাকা মোবাইল ও টাকা কেড়ে নিচ্ছে ছিনতাইকারীরা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা গেটের সামনে জুবেরি মাঠ, ইবলিস চত্বর, প্যারিস রোড, সাবাস বাংলাদেশ মাঠ, চারুকলা অনুষদ ও বধ্যভুমি এলাকাকে টার্গেট করে ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যরা। এছাড়াও রাত ৯টার পর বাসা থেকে ক্যাম্পাসে আসা শিক্ষার্থীদেরকে নজরে রাখে তারা। এমনকি দিনের বেলাও কাউকে নির্জন জায়গা একা পেলে ছিনতাই করছে ছিনতাইকারীরা। চক্রগুলোর সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের আশেপাশের এলাকার ‘বখাটেরা’ জড়িত। এদের অধিকাংশের বয়স ২০-৩০ বছরের মধ্যে। মাদক ব্যবসা ও সেবনের সঙ্গেও এরা জড়িত। বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু শিক্ষার্থী ও ক্ষমতাশীন ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদেরও এই চক্রের সঙ্গে দেখা যায়। এদিকে প্রশাসনের নাকের ডগায় বসে ছিনতাইকারীরা ছিনতাই করলেও বৃদ্ধি করা হচ্ছে না নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ছিনতাইকারী চক্রের খপ্পরে বন্দী হয়ে পড়ছে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা জানান, ক্যাম্পাসের ভেতরে বহিরাগতদের অবাধে চলাফেরা বৃদ্ধি পেয়েছে। এদের হাতেই ছিনতাইয়ের শিকার হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। ছিনতাইকারীর ভয়ে ভোর রাত কিংবা রাত ৮টার পর একা চলাচল করতে পারছেন না তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মুজিবুল হক আজাদ বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘আমরাও বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন। ক্যাম্পাসের ভেতর নিরপত্তাকর্মী বৃদ্ধি করা প্রয়োজন হয়ে পড়ছে। তবে ভিসি-প্রোভিসি না থাকার কারণে আমরা কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রাবিতে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় আর কোনও বাধা নেই

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি: ২৪ এপ্রিল : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ক্ষেত্রে আর কোন বাধা নেই। গত ১০ এপ্রিল বিচারপতি নাইমা হায়দার ও আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ বিভাগ কর্তৃক পরীক্ষা নিতে পারবে বলে নির্দেশ দিয়েছেন। সোমবার ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক জিন্নাত আরা বেগম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে গত ২৪ জানুয়ারি নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিতের আদেশ দিয়ে ‘নিয়োগ প্রক্রিয়া কেন বাতিল করা হবে না’ এই মর্মে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জবাব দিতে নির্দেশ দেন এই বেঞ্চ।

জানা যায়, গত বছর ২৯ নভেম্বর অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের ৪৬৯তম সভায় একাডেমিক কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এরপর গত ৭ ডিসেম্বর ৭টি পদে নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। এ বছর ২৫ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে এ নিয়োগ পরীক্ষার মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এই নিয়োগ প্রক্রিয়াকে চ্যালেঞ্জ করে ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের প্ল্যানিং কমিটির ৪জন শিক্ষক আদালতে রিট আবেদন দাখিল করেন। পরে এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এ নির্দেশ দেন।

এ বিষয়ে জিন্নাত আরা বেগম বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটে গৃহীত নিয়োগ পরীক্ষার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে বিভাগের প্ল্যানিং কমিটির ৪ সদস্যের পিটিশনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট এ নিদের্শ দিয়েছেন।  গত ১০ এপ্রিল পূর্ণাঙ্গ শুনানি শেষে আদালত রুলটি ডিসচার্জ করে দেন। এখন শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগে কোনো বাধা রইল না। ’

রিট আবেদনকারী চার শিক্ষকের মধ্যে ড. মো. জাফর সাদিক বলেন, ‘আদালত যে সিদ্ধান্ত দিয়েছে সেখানে তো আর কোন কথা থাকতে পারে না। এখন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসি-প্রোভিসি নেই, তারা আসলে পরবর্তীতে কী করব না করব, সেটা তখন সিদ্ধান্ত নেব।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলায় শতাধিক ভাস্কর্য ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা

রাজশাহী : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের শিক্ষার্থীদের গড়া শতাধিক ভাস্কর্য ভাঙচুর করে উল্টে ফেলে গেছে দুর্বৃত্তরা ।

শিক্ষকদের কক্ষের সামনে এবং আশপাশে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটানো হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আজ মঙ্গলবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন অফিস সহকারী এ দৃশ্য দেখতে পেয়ে শিক্ষকদের খবর দেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চারুকলা বিভাগের দুজন শিক্ষ। তাঁরা হলেন সিরামিক অ্যান্ড স্কালপচার বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কনক কুমার পাঠক এবং গ্রাফিকস ডিজাইন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মনির উদ্দীন টভেল।

তাঁরা বলেন, শিক্ষার্থীদের গড়া এ ভাস্কর্যগুলো মাঠে রাখা ছিল। কে বা কারা এক রাতের মধ্যে এ কাণ্ড ঘটিয়েছে। শতাধিক ভাস্কর্য মাঠে উল্টে ফেলে রেখে গেছে। আর কিছু ভাস্কর্য শিক্ষকদের কক্ষের দরজার সামনে রেখে গেছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

ছাত্রলীগের নাম ভাঙিয়ে অর্থ আদায় -বহিষ্কৃত দুজন

রাবি,১৬ এপ্রিল : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) থেকে তুলে নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে এক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগে সংগঠন থেকে দুই নেতাকর্মীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ।

বহিষ্কৃত দুজন হলেন- ছাত্রলীগ কর্মী অনিক মাহমুদ বনি ও রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক জাকারিয়া জামান জ্যাক।

রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে উল্লেখ করা হয়, ছাত্রলীগের নাম ভাঙিয়ে এক শিক্ষার্থীকে যেভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে অর্থ আদায় করা হয়েছে, তাতে ঐতিহ্যবাহী এ ছাত্র সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন ও দলীয় শৃংখলাভঙ্গ হয়েছে।

এ ঘটনায় জড়িত অনিক মাহমুদ বনি ও জাকারিয়া জামান জ্যাককে রাবি শাখা ছাত্রলীগের জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

ভুক্তভোগী ও ছাত্রলীগ সূত্র জানায়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রোববার সকাল ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের টুকিটাকি চত্বর থেকে হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আবদুল্লাহ আল মামুনকে তুলে নিয়ে যায় রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক জাকারিয়া জামান জ্যাক।

পরে তাকে সিনেট ভবনের পেছনে এবং শের-ই-বাংলা হলে ছাত্রলীগ কর্মী অনিক মাহমুদ বনির কক্ষে নিয়ে গিয়ে দুই ঘণ্টা আটকে রেখে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়।

মামুনকে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার কাছে ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করা হয়। টাকা দিতে অক্ষমতা প্রকাশ করলে, একপর্যায়ে তাকে দিয়ে তার বাবার কাছে মোবাইল থেকে কল দেয়া হয়।

মামুনের বাবা বিষয়টি জেনে খাসি বিক্রি করে বিকাশের মাধ্যমে ছয় হাজার টাকা পাঠালে তাকে ছেড়ে দেয় ছাত্রলীগের ওই দুই নেতাকর্মী।

পুরো ঘটনাটি ছাত্রলীগ কর্মী অনিক মাহমুদ বনি ও জাকারিয়া জামান জ্যাকের নেতৃত্বে ঘটে বলে ভুক্তভোগী ও ছাত্রলীগ সূত্র নিশ্চিতে করেছে। এর আগেও বনি ও জ্যাকের বিরুদ্ধে একাধিক চাঁদাবাজি ও শিক্ষার্থীদের মারধর করার অভিযোগ রয়েছে।

ভুক্তভোগী মামুন জানান, এর আগেও ভয়ভীতি দেখিয়ে জ্যাক এবং বনি তার কাছ থেকে দুই দফায় ছয় হাজার সাতশ’ টাকা আদায় করেছে। বিষয়টি কাউকে জানালে জামায়াত-শিবিরের কর্মী বলে পুলিশে ধরিয়ে দেয়ার ভয়ও দেখায় তারা।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে ছাত্রলীগ কর্মী অনিক মাহমুদ বনি ও সাবেক নেতা জাকারিয়া জামান জ্যাক বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসাবশত একটি পক্ষ তাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রাবিতে রসায়ন বিষয়ক সম্মেলন শুরু

রাবি প্রতিনিধি,৮এপ্রিল্:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রসায়ন বিভাগের উদ্যোগে ‘ম্যাটেরিয়াল সায়েন্স এন্ড ন্যানো-ইলেকট্রকেমিস্ট্রি’ শীর্ষক এক আন্তর্জাতিক সম্মেলন শুরু হয়েছে। শনিবার সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র মিলনায়তনে দুই দিনব্যাপী এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য প্রফেসর মো. ইউসুফ আলী মোল্লা।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর সায়েন উদ্দিন আহমেদ ও বিজ্ঞান অনুষদের অধিকর্তা প্রফেসর মো. আখতার ফারুক। রসায়ন বিভাগের সভাপতি প্রফেসর মো. নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে সম্মেলন সাংগঠনিক কমিটির সচিব প্রফেসর মো. শাহেদ জামান ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ড. বিলকিস জাহান লুম্বিনী ও ড. মো. মাহবুবর রহমান উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন। সম্মেলনের প্রথম দিনে থিম লেকচার ও প্লেনারি সেশনসহ ৬টি টেকনিক্যাল সেশনে ৪২টি এবং দ্বিতীয় দিন রবিবার দুটি প্লেনারি সেশনসহ দুটি টেকনিক্যাল সেশনে ১৭টি প্রবন্ধ উপস্থাপিত হবে বলে নির্ধারিত আছে।
এই সম্মেলনে দেশ-বিদেশ থেকে প্রায় ২০০ জন গবেষক, শিক্ষক, রসায়ন বিজ্ঞানী ও সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রের পেশাজীবী অংশ নিচ্ছেন।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রাবি শিক্ষার্থীকে মারধর : দ্বিতীয় দিনের মতো মানববন্ধন

রাবি প্রতিনিধি :রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের দুই শিক্ষার্থীকে স্থানীয় যুবলীগের নেতাদের মারধরের প্রতিবাদ ও নিজেদের নিরাপত্তার দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের  শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ঘন্টাব্যাপী কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, বাংলাদেশের কোনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়েই স্থানীয়দের কোনো প্রভাব দেখা যায় না। কিন্তু রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ই একমাত্র ব্যতিক্রম যেখানে স্থানীয়রা ক্যাম্পাসের সাধারণ শিক্ষার্থীদের মারধর, ল্যাপটপ কেড়ে নেওয়া, মাঠ দখল ইত্যাদি হর-হামেশায় ঘটচ্ছে। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান শিক্ষার্থীরা।

তারা আরো অভিযোগ করেন, অনেক শিক্ষার্থী স্থানীয়দের কাছে নির্যাতিত হচ্ছে। আমরা এখানে এসেছি লেখাপড়া করতে, আমাদের দেখভাল করার দায়িত্ব প্রশাসনের কিন্তু তারা নির্বিকার। ক্যাম্পাসে এরকম মারধর, ল্যাপটপ কেড়ে নেওয়া, এমনকি হত্যার ঘটনা ঘটলেও আমরা কোনো সুষ্ঠু বিচার পায়নি।

গত সোমবার রাত ৯টার দিকে পলাশ ও সুজন নামের দুই শিক্ষার্থী  মির্জাপুর থেকে বিনোদপুরে আসছিলেন। এসময় নেশাগ্রস্ত অবস্থায় স্থানীয় যুবলীগের কার্যালয় থেকে কয়েকজন নেতা-কর্মী বের হয়ে কোনো কারণ ছাড়াই তাদের চড়-থাপ্পড় ও কিল-ঘুষি দিতে থাকে। এরপর তাদের উদ্ধার করতে আরও কয়েকজন শিক্ষার্থী সেখানে গেলে তাদের কাছ থেকে মোবাইল কেড়ে নিয়ে দেশীয় অস্ত্র দেখিয়ে ধাওয়া করে যুবলীগের নেতা-কর্মীরা।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রাবিতে নিয়োগ পরীক্ষা বন্ধ করল আ.লীগ

রাবি সংবাদদাতা ॥ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) উপাচার্যের বাসভবনের প্রধান ফটক অবরোধ করে জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক পদের মৌখিক পরীক্ষা বন্ধ করে দিয়েছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

সোমবার বিকেল ৪টায় রাবি উপাচার্য অধ্যাপক মুহম্মদ মিজানউদ্দিনের বাসভবনে এই নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা পরীক্ষা দিতে আসা চাকরী প্রার্থী ও নিয়োগ বোর্ডের সদস্যদের উপাচার্যের বাসভবনে ঢুকতে বাধা দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দুপুর তিনটার দিকে মতিহার থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দীনের নেতৃত্বে ৫০/৬০ জন নেতাকর্মী রাবি উপাচার্য বাসভবনের মূল ফটকের সামনে অবস্থান নেয়। এরপর বিকেল চারটার দিকে কয়েকজন চাকরীপ্রার্থী মৌখিক পরীক্ষার জন্য উপাচার্য বাসভবনের ভেতরে ঢুকতে চাইলে নেতা-কর্মীরা তাদের চলে যেতে বলেন। এ সময় প্রক্টর বা পুলিশের পক্ষ থেকে কোন পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি। বিকেল ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মজিবুল হক আজাদ ‘নিয়োগ পরীক্ষা নেয়া হবে না’ মর্মে নেতাকর্মীদের আশ্বস্ত করে চলে যেতে বলেন।

মতিহার থানা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ইলিয়াস হোসেন অভিযোগ করে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন জামায়াত-শিবিরের লোকজনদের নিয়োগ দিচ্ছে। তারা তাদের মনোনীত প্রতিনিধিদের দিয়ে প্রতিক্রীয়াশীল প্রার্থীদের নিয়োগ দিতে চাইছে। তাই আমরা বাধ্য হয়ে ভিসি স্যারের বাসার সামনে অবস্থান নিয়েছি।

সাক্ষাতকার দিতে আসা এক চাকরীপ্রার্থী বলেন, ফটকে অবস্থানরত আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা আমাকে চলে যেতে বলেন। তারপর আমি ফিরে যাই।

এ ব্যাপারে রাবি উপাচার্য অধ্যাপক মুহম্মদ মিজানউদ্দিন বলেন, দুই মাস আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের কর্মকর্তা পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। তার জন্য মৌখিক পরীক্ষায় আজ (সোমবার) ৬/৭ জনকে ডাকা হয়েছিল। কিন্তু স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের বাধায় তাদের মৌখিক পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়নি।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রাবিতে জোহা দিবস পালিত হচ্ছে

রাবি সংবাদদাতা ॥ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা আয়োজনে জোহা দিবস পালন করা হচ্ছে। ঊনসত্তুরের গণঅভ্যূত্থানে বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ড. শামসুজ্জোহা প্রক্টরের দায়িত্ব পালনকালে পাকিস্তানি সেনাদের গুলিতে নিহত হন। দিনটি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘শিক্ষক দিবস’ হিসেবে পালিত হচ্ছে।

দিবসের প্রথম প্রহরে প্রশাসন ভবনসহ অন্যান্য ভবনে কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। আজ শনিবার সকাল পৌনে ৭টায় শহীদ ড. জোহার সমাধি ও জোহা স্মৃতিফলকে পুস্পস্তবক অর্পণ করে রাবি প্রশাসন। এরপর রসায়ন বিভাগ ও শহীদ শামসুজ্জোহা হলসহ অন্যান্য আবাসিক হল, বিভিন্ন বিভাগ, পেশাজীবী সমিতি ও ইউনিয়ন, সাংবাদিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন পুস্পস্তবক অর্পণ করে।

সকাল ১০টায় সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত হয় ‘শহীদ ড. শামসুজ্জোহা স্মারক বক্তৃতা’। এতে বিশিষ্ট চিন্তক-গবেষক-লেখক অধ্যাপক সনৎকুমার সাহা ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা: বিধি ও বিধিলিপি’ শীর্ষক বক্তৃতা দেন।

রসায়ন বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন স্মারক বক্তৃতার পৃষ্ঠপোষক উপাচার্য অধ্যাপক মুহম্মদ মিজানউদ্দিন। সেখানে অন্যান্যের মধ্যে কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর সায়েন উদ্দিন আহমেদও বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে রসায়ন বিভাগের শিক্ষার্থী নিশাত সুলতানা শহীদ ড. জোহার জীবনালেখ্য পাঠ করেন।

শিক্ষক দিবসের কর্মসূচিতে আরও থাকবে, বাদ জোহর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে কোরআন খানি ও বিশেষ মোনাজাত, শহীদ শামসুজ্জোহা হলে আলোচনা সভা ও প্রদীপ প্রজ্বালন। এদিন শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত দর্শকদের জন্য রাখা হবে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

রুয়েট শিক্ষকদের কর্মবিরতি পালন

রাবি প্রতিনিধি : রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) ‘৩৩ ক্রেডিট’ পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনের সময় অসদাচারণকারী ছাত্রদের শাস্তির দাবিতে ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করে প্রথম দিনের মত কর্মবিরতি পালন করেছে শিক্ষক সমিতি।

আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ক্লাস বর্জন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান করেঅর্ধশতাধিক শিক্ষকরা । এদিকে আন্দোলনের ফলে ক্লাস পরীক্ষা না হলেও প্রসাশনিক কার্যক্রম ছিল স্বাভাবিক।

সরেজমিনে আজ দুপুর ২টার দিকে দেখা যায় পুরা ক্যাম্পাসে ফাঁকা। গেটে দারয়ান ছাড়া আর কাউকে দেখা যায় নি। অনেকটা জনশন্যূ পরিনত হয়েছে।

এদিকে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, ক্লাস-পরীক্ষা না থাকায় অনেকে আবার বাড়িতে চলে গেছ। ১৪ সিরিজের সংগ্রাম সরকার নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, ক্লাস-পরীক্ষা হচ্ছে না, তাই বাড়িতে চলে যাচ্ছি। শিক্ষার্থী উদ্বোগ প্রকাশ করে বলেন, একের পর এক আন্দোলনে আমরা সেশনজটের আশঙ্কায় ভূগছি।

এ ব্যাপারে শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর নীরেন্দ্রনাথ মুস্তাফি বলেন, ‘আমরা ছাত্রদেরকে পড়াতে চাই। কিন্তু তাদের কাছ থেকে ছাত্রসূলভ অচরণ পায়নি। এটাকে আমরা আন্দোলন হিসেবে নিচ্ছি না, এটা আমাদের প্রতিবাদের অংশ।’

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, রুয়েটে ১৩ সিরিজের ব্যাচ বা ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষ থেকে পরবর্তী বর্ষে উত্তীর্ণ হওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের নূন্যতম ৩৩ ক্রেডিট প্রাপ্তি বাধ্যতামূলক করা হয়।

২০১৩-১৪ ও ২০১৪-১৫ এই দুই শিক্ষাবর্ষের মোট ১৬০০ শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৫০ জনের মত শিক্ষার্থী ৩৩ ক্রেডিট অর্জন করতে পারেনি। ফলে গত সপ্তাহের শনিবার থেকে ক্লাস বর্জন করে আন্দোলনে নামে ঐ দুই সিরিজের শিক্ষার্থীরা।

পরে গত শনিবার আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ভিসিসহ ২৫ শিক্ষককে টানা ২৩ ঘন্টা অবরুদ্ধ রাখার পর রোববার ৩৩ ক্রেডিট পদ্ধতি বাতিল করে রুয়েট প্রশাসন।

এরপর শিক্ষক সমিতি গত ৭ দিনে শিক্ষকদের সঙ্গে অসদাচারণ, শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত, ২৩ ঘন্টা অবরুদ্ধ করে রাখা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্নভাবে গালিগালাজ করা শিক্ষার্থীদের শাস্তি দাবি করে অনিদিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের সিদ্ধান্ত নেয়।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter