Home » টপ খবর (page 30)

টপ খবর

গ্রেড উন্নয়ন হলেও অসন্তোস প্রাথমিক শিক্ষকদের

ডেস্করিপোর্ট,৯ফেব্রুয়ারীঃ
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের গ্রেড উন্নীত করে বেতন বৃদ্ধি করা হয়েছে। তবে নতুন বেতন গ্রেডে সন্তুষ্ট নয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ‘প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের’ নেতারা। দ্রুত এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাতে ও পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করতে সভা ডাকা হবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের নেতারা।

রোববার এ সংক্রান্ত নির্দেশনা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে থেকে প্রকাশের পর প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব মো. শাসছুদ্দিন মাসুদ বলেন, প্রধান শিক্ষকদের ১০ম ও সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড উন্নীত করতে আমরা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছি। বর্তমানে শিক্ষকদের দাবি-দাওয়ার আন্দোলন বন্ধ করতে অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে এটি জোর করে চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমাদের দাবি যৌক্তিক বলে তা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে অর্থ মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব করে। অথচ অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে তা নাকচ করে শুধু সহকারী শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডে উন্নীত করা হয়েছে। শিক্ষকরা এটি মেনে নেবেন না, এর প্রতিবাদ জানাবে। আমাদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। তবে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও প্রশিক্ষণবিহীন শিক্ষকদের গ্রেড পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত তুলে দেয়াকে তিনি সাধুবাদ জানিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, আমাদের দাবি বাস্তবায়নে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করা হবে। এ জন্য শিগগিরই কেন্দ্রীয় কমিটির সভা ডেকে নতুন এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানানো হবে। পাশাপাশি দাবি আদায়ে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করা হবে বলেও জানান তিনি।
বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতির সিনিয়ার যুগ্ন সাধারন সম্পাদক স্বরুপ দাস বলেন, সরকারের গ্রেড উন্নয়নকে স্বাগত জানিয়েছে , পাশাপাশি সকল সহকারী শিক্ষক যেন এ সুবিধা পায় সে ব্যাপারটি নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানান।

উল্লেখ্য, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডে উন্নীত করা হয়েছে। রোববার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মনোয়ারা ইশরাত স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। গত বছরের ৭ নভেম্বর অর্থ বিভাগের সম্মতিক্রমে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মাঠ পর্যায়ের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের বেতনস্কেল ১৪ থেকে ১৩তম গ্রেড উন্নীত করা হয়েছে। এ নির্দেশনার ফলে এখন থেকে সহকারী শিক্ষকরা যোগদানের পর ১৩তম গ্রেডে ১১ হাজার টাকা বেসিকসহ সকল সুবিধা পাবেন।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকদের বেতন ১৩তম গ্রেডে, আদেশ জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডে বেতন বাড়িয়ে আদেশ জারি করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। আজ রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) জারি করা আদেশটি প্রধান হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র দৈনিক শিক্ষাবার্তা ডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সূত্র জানায়, সহকারী শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডে বেতন এ আদেশ জারির তারিখ অর্থাৎ ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হবে। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও প্রশিক্ষণবিহীণ উভয় শিক্ষকরাই ১৩তম গ্রেডে বেতন পাবেন। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা ২০১৯ এর যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা অনুযায়ী পূরণযোগ্য পদের যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা অনুযায়ী এ আদেশ কার্যকর হবে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রতিষ্ঠান প্রধানসহ শিক্ষকদের উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্তি নিশ্চিত করার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের সাথে প্রতিষ্ঠান প্রধান ও সহকারী প্রধানদের উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্তি নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ও এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান লিয়াজোঁ ফোরামের নেতারা। তাদের দাবি বিদ্যমান এমপিও নীতিমালায় অনুযায়ী শিক্ষক-কর্মচারীরা উচ্চতর গ্রেড পেলেও প্রতিষ্ঠান প্রধান ও সহকারী প্রধানরা উচ্চতর গ্রেড বঞ্চিত হবেন। তাই, এমপিও নীতিমালা সংশোধন করে অবশ্যই প্রতিষ্ঠান প্রধান ও সহকারী প্রধানদের উচ্চতর গ্রেড দেয়ার দাবি জানিয়েছেন সমিতির নেতারা। একই সাথে মুজিববর্ষে এমপিওভুক্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সরকারিকরণের দাবি জানিয়েছেন তারা।

শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) এ সংক্রান্ত ৩ দফা দাবি জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব বরাবর চিঠি পাঠিয়েছেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ও এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান লিয়াজোঁ ফোরামের সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম রনি ও মহাসচিব মো. মেজবাহুল ইসলাম প্রিন্স।

শিক্ষক নেতাদের দাবিগুলো হল, এমপিওভুক্ত সব শিক্ষক-কর্মচারীকে উচ্চতর গ্রেড দিতে হবে, প্রতিষ্ঠানের প্রধান বা সহকারী প্রধান শিক্ষকদেরকে অবশ্যই উচ্চতর গ্রেড দিতে হবে, মুজিববর্ষেই এমপিওভুক্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সরকারিকরণ করতে ব্যবস্থা নিতে হবে।

চিঠিতে শিক্ষকরা জানান, ‘এমপিও নীতিমালা-২০১৮ এর ১১ এর ৫ ধারা অনুযায়ী এমপিওভুক্তির তারিখ থেকে ১০ বছর পর্যন্ত সন্তোষজনক চাকরি পূর্ণ হলে পরবর্তী উচ্চতর বেতন গ্রেড প্রাপ্য হবেন শিক্ষকরা। পাশাপাশি পরবর্তী ৬ বছর পর একইভাবে পরবর্তী উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্য হবেন তারা। এমপিও নীতিমালার এ ধারা কার্যকর হলে প্রতিষ্ঠান প্রধান ও সহকারী শিক্ষকরা উচ্চতর গ্রেড থেকে বঞ্চিত হবেন বলে আশঙ্কা তাদের।’

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

করোনায় মৃত্যু ৮১২

ডেস্ক,৯ফেব্রুয়ারীঃ
২০০৩ সালে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া সার্স (সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটরি সিনড্রোম) ভাইরাসকে ছাড়িয়ে গিয়েছে করোনাভাইরাস। ওই সময় ২৫টি দেশে আট মাসে সার্স ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন ৮০৯৮ জন এবং প্রাণ হারিয়েছিলেন ৭৭৪ জন।
আক্রান্তের সংখ্যার দিক থেকে অনেক আগেই সার্সকে ছাড়িয়েছে করোনাভাইরাস। এবার নিহতের সংখ্যায়ও সার্সকে পেছনে ফেলেছে করোনা। শনিবার পর্যন্ত চীনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে নিহত হয়েছেন ৮১২ জন।

শুধুমাত্র শনিবার চীনে করোনায় নিহত হয়েছেন ৮৯ জন। একইদিনে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৬৫৬ জন। এ নিয়ে চীনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮১২ জনে। এছাড়া মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৭ হাজার ২৫১ জনে।

তবে চীনের স্বাস্থ্য কমিশন আশার কথা জানিয়ে বলেছে, করোনায় আক্রান্তের পর সুস্থ হয়ে ঘরে ফেরা মানুষের সংখ্যা বাড়ছে। শনিবার পর্যন্ত ২ হাজার ৬৫১ সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন। তাদের মধ্যে একজন ম্যাকাওয়ের এবং একজন তাইওয়ানের। রোববার দেশটির স্বাস্থ্য কমিশন এসব তথ্য জানিয়েছে। খবর চায়না গ্লোবাল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক ও পিপলস ডেইলি চায়নার।

শনিবার পর্যন্ত চীনের মূল ভূখণ্ড ছাড়াও হংকংয়ে ২৬ জন, ম্যাকাওয়ে ১০ জন এবং তাইওয়ানে ১৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। ২৮ হাজার ৯৪২ জনকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এরই মধ্যে চীনের সকল প্রদেশে শনাক্ত হয়েছে করোনাভাইরাস। নিহতদের বেশিরভাগই হুবেই প্রদেশের। প্রদেশটির উহান শহর থেকেই বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। সংক্রমণ ঠেকাতে হাসপাতাল নির্মাণ, করোনাভাইরাস শনাক্তের কিট আবিষ্কারে সরকারি অনুমোদনসহ সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে চীন। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আতঙ্কে জনমানবশূন্য ভৌতিক এলাকায় পরিণত হয়েছে চীনের একেকটি গ্রাম ও শহর।

রোগীদের সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। উহান শহরে স্টেডিয়াম, কনফারেন্স সেন্টারসহ কয়েকটি ভেন্যুকে অস্থায়ী হাসপাতালে পরিণত করা হয়েছে। এই ভাইরাস মোকাবেলায় শুরু থেকে তাদের অবহেলা ও দুর্বলতার কথা স্বীকার করেছে চীন।

চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, নেপাল, জাপান, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া, শ্রীলঙ্কা, তাইওয়ান, ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়া ছাড়াও অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, জাপান, যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্তত ২৩টি দেশে শনাক্ত হয়েছে।

বিশ্বব্যাপী স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা ডব্লিউএইচও। বিভিন্ন দেশ বিমানবন্দরে সর্বোচ্চ নজরদারি জারি করেছে। এছাড়া প্রাথমিকভাবে কাউকে সন্দেহ হলে তাকে নজরদারিতে রাখা হচ্ছে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শরীরে প্রাথমিক লক্ষণ হিসেবে শ্বাসকষ্ট, জ্বর, সর্দি, কাশির মতো সমস্যা দেখা দেয়।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রাথমিকে অনুত্তীর্নরা নিয়োগ চান

ডেস্ক,৯ফেব্রুয়ারীঃ
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২০১৮-এর চূড়ান্ত ফলাফলে যারা উত্তীর্ণ হতে পারেননি (লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ) তারা প্যানেলের মাধ্যমে নিয়োগ চান। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন অনুত্তীর্ণ আবেদনকারীরা।

এ লক্ষ্য আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি (রোববার) ‘প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ (২০১৮) প্যানেল বাস্তবায়ন কেন্দ্রীয় কমিটি’ চাঁদপুর জেলার পক্ষ থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়েছে।

মানববন্ধনের ব্যানারে উল্লেখ করা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী মুজিবর্ষের কথা বিবেচনা করে হলেও যেনো সবাইকে প্যানেলের মাধ্যমে নিয়োগ প্রদান করা হয়। এ বিষয়ে তারা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রাথমিকের দফতরিদের চাকরি জাতীয়করণের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
মুজিববর্ষ শুরুর আগেই চাকরি জাতীয়করণের দাবি জানিয়েছেন প্রাথমিকের দফতরিরা। শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) মিরপুর চিড়িয়াখানা রোডের পাশের ঈদগাহ মাঠে সারাদেশ থেকে আসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দফতরি কাম নৈশ প্রহরীদের সমাবেশ থেকে এই দাবি জানানো হয়। সমাবেশে সংহতি প্রকাশ করেন শ্রমিক নেতা ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শাজাহান খান। ‘প্রাথমিক বিদ্যালয় দফতরি কাম নৈশ প্রহরী’ সংগঠনের ব্যানারে এই সমাবেশ হয়।
শাজাহান খান বলেন, আমি আপনাদের দাবির সঙ্গে একমত। আপনাদের দাবি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছে দেব। যেহেতু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই দফতরি কাম নৈশ্য প্রহরী পদ সৃষ্টি করে আপনাদের কাজের সুযোগ করে দিয়েছেন, তাই তিনি আপনাদের বিষয়টি বিবেচনা করবেন বলে আশা করি। কোনো রকম বিশৃঙ্খলা না করে নিয়মতান্ত্রিক পন্থায় দাবি তুলে ধরার পরামর্শ দেন তিনি।

সংগঠনের সভাপতি মো. মামুন সরদার বলেন, আমরা দফতরিরা প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করি। স্কুলের যাবতীয় কাজ এই দফতরিরা করে থাকেন। তাই তাদের পরিবারের কথা চিন্তা করে জাতির জনকের কন্যা আমাদের বিষয়টি গুরুত্ব দেবেন, এই দাবি করি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী শুরুর আগেই সারাদেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দফতরি কাম নৈশ প্রহরীদের চাকরি জাতীয়করণের দাবি জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দাবি তুলে ধরতে ঢাকাতে সমাবেশ করেছে দফতরি কাম নৈশ প্রহরীরা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, আগামী ১৭ মার্চ মুজিববর্ষ শুরুর আগেই প্রধানমন্ত্রীকে আমাদের কথা চিন্তা করে সকল দফতরি কাম নৈশ প্রহরীদের চাকরি জাতীয় করণ করতে হবে।

সমাবেশ শেষে দফতরি ও নৈশ প্রহরীরা নিজ নিজ জেলার স্কুলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন।


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রধানমন্ত্রীকে স্বপ্ন লিখে পাঠালো ৬০০ মেধাবী শিক্ষার্থী

ঝিনাইদাহ প্রতিনিধি,৮ ফেব্রুয়ারী:
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা থেকে ২০১৯ সালে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পাওয়া ৬০০ মেধাবী শিক্ষার্থী তাদের নিজ নিজ স্বপ্ন লিখে পাঠিয়েছে প্রধানমন্ত্রী বরাবর।

প্রতি বছরের মতো এবারও মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জাপানভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী উন্নয়ন সংস্থা হাঙ্গার ফ্রি ওয়ার্ল্ড। শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে অনুষ্ঠানে মেধাবী শিক্ষার্থীদের হাতে সার্টিফিকেট ও ক্রেস্ট তুলে দেয়া হয়।
পরে শিক্ষার্থীরা ৬০০ পোস্টকার্ডে নিজ নিজ স্বপ্ন লিখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর পাঠিয়ে দেয়। এসব ক্ষুদে শিক্ষার্থী বড় হয়ে কী হতে চায় এবং কেমন বাংলাদেশ গড়তে চায়- তা লিখে পাঠায়।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুবর্ণা রানী সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার।

বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকার ইব্রাহিম মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক ডা. আবু সাইদ, কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম আশরাফ, উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান শিবলী নোমানী ও হাঙ্গার ফ্রি ওয়ার্ল্ডের কান্ট্রি ডিরেক্টর আতাউর রহমান মিটনসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

‘ভর্তিশূন্য’ ঢাকা মেডিকেলের আইসোলেশন ইউনিট

ডেস্ক,৮ ফেব্রুয়ারী:
করোনাভাইরাসের সতর্কতায় আগাম প্রস্তুতি হিসেবে ৩০ জানুয়ারি ঢাকা মেডিকেল কলেজে খোলা হয়েছিল আইসোলেশন ইউনিট। ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত স্বয়ংসম্পূর্ণ এ ইউনিটে কাউকে ভর্তি করা হয়নি।

সম্প্রতি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের কারণে রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মীরজাদী সেব্রিনা স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে দেশের সব বিভাগীয় ও জেলা শহরের হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিট স্থাপনের নির্দেশনা দেয়া হয়। হাসপাতালগুলোতে কমপক্ষে পাঁচ শয্যার আইসোলেশন ইউনিট চালুর কথা বলা হয় নির্দেশনায়।

নির্দেশনা অনুযায়ী ঢামেক হাসপাতালের নতুন ভবনের নিচতলায় একিউট মেডিসিন বিভাগের একটি কক্ষকে আইসোলেশন ইউনিট হিসেবে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এ ইউনিটে মোট ১০টি বেড রাখা হয়েছে।

jagonews24

এ বিষয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমরা আগে থেকেই এ ভাইরাসের বিষয়ে অবগত। করোনাভাইরাস মোকাবিলার আগাম প্রস্তুতি এরই মধ্যে নিয়েছি। আমাদের আইসোলেশন ইউনিটে সিনিয়র-জুনিয়র চিকিৎসকরা থাকবেন। আমরা রোস্টার তৈরি করছি। রোস্টার অনুযায়ী চিকিৎসকরা দায়িত্বপালন করবেন।’

উল্লেখ্য, এ পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়া, বেলজিয়াম, কম্বোডিয়া, কানাডা, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, জার্মানি, হংকং, ভারত, ইতালি, জাপান, ম্যাকাও, মালয়েশিয়া, নেপাল, রাশিয়া, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া, স্পেন, শ্রীলঙ্কা, সুইডেন, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড, ফিলিপাইন, আরব আমিরাত, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র এবং ভিয়েতনামে করোনাভাইরাস আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রাথমিকে যুক্ত হচ্ছে নতুন বিষয়

নিজস্ব প্রতিবেদক,ফেব্রুয়ারী
প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেছেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লব মোকাবিলায় দেশের মানবসম্পদের দক্ষতা উন্নয়নের বিকল্প নেই।

যার কারণে প্রাথমিক বিদ্যালয়েই শিশুদের কম্পিউটারের ভাষা বা কোডিং শেখানোর উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। শনিবার রাজধানীর রেডিসন ব্লু হোটেলে স্টার্টআপ ওয়ার্ল্ড কাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘তথ্য প্রযুক্তি ও স্টার্টআপে সহায়তা দিতে সরকার বাজেটে ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। প্রযুক্তি নির্ভর দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে প্রাথমিক পর্যায় থেকেই শিক্ষার্থীদের কোডিং শেখানো হচ্ছে।

এ নিয়ে ন্যাশনাল স্কিল ডেভেলপমেন্ট অথরিটি কাজ করছে।’

মুজিবর্ষকে সামনে রেখে এ বছর জাঁকজমকভাবে স্টার্টআপ ওয়ার্ল্ড কাপ-২০২০ যৌথভাবে আয়োজন করছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, আইসিটি ডিভিশন, ভেঞ্জার ক্যাপিটাল অ্যান্ড প্রাইভেট ইক্যুইটি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, ইন্টারন্যাশনাল ফিনান্স করপোরেশন ও পাওয়ার্ড বাই ই-জেনারেশন।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি ইতো, জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. জামাল উদ্দিন আহমেদ, চাকরি খুঁজব না চাকরি দেব-এর ফাউন্ডার মুনীর হোসেন প্রমুখ।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

করোনাভাইরাস: সব যাত্রীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার সিদ্ধান্ত

ডেস্ক,৮ফেব্রুয়ারীঃ
প্রাণ সংহারক নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে এতদিন শুধু চীন থেকে আসা ব্যক্তিদের পরীক্ষা করা হলেও এখন তার পরিসর বাড়ানো হচ্ছে।

শনিবার করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে আইইডিসিআরের নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

জানা যায়, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে প্রতিদিন ২৫টি ফ্লাইটে গড়ে সাড়ে ১২ হাজার যাত্রী বাংলাদেশে প্রবেশ করছে।

বিমানবন্দরে কর্মরত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ জানান, শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে প্রতিদিন ২৫টি ফ্লাইটে সাড়ে ১২ হাজার যাত্রী বাংলাদেশে আসেন। বৈশ্বিক করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় অধিকতর সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে রোগতত্ত্ববিদদের পরামর্শে এখন থেকে ২৫টি ফ্লাইটে আগত সকল যাত্রীদের মনিটর করা হবে।

এদিকে গত বেশ কিছুদিন যাবত সকল যাত্রীকে থার্মাল স্ক্যানার ও হ্যান্ড স্ক্যানারে জ্বর পরীক্ষা করা হলেও তাদের প্রত্যেককে মেডিকেল ডিক্লারেশন ফর্ম, স্বাস্থ্য তথ্য কার্ড ও প্যাসেঞ্জার লোকেটর ফরম পূরণ করতে হয়নি। তবে এখন থেকে সকল যাত্রীর কাছ থেকে এ তিনটি কার্ডে তথ্য সংগ্রহ করা হবে বলে জানান তিনি।

গত ২১ জানুয়ারি থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) পর্যন্ত হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সর্বমোট ৮ হাজার ৩৯৬ জনের হেলথ স্ক্রিনিং করা হয়েছে। এ সময়ে আইইডিসিআর-এর ল্যাবরেটরিতে ৫৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কাউকে পাওয়া যায়নি।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষার ফল এ মাসে

ডেস্ক,৮ফেব্রুয়ারী
১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষা ফল চলতি মাসেই (ফেব্রুয়ারি) প্রকাশ করার পরিকল্পনা করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। এনটিআরসিএ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
এনটিআরসিএর এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানান, ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষার ফল চলতি মাসেই (ফেব্রুয়ারি) প্রকাশ করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। পরিকল্পনা মাফিক কাজ চললে মার্চ ও এপ্রিল মাসে ভাইভা পরীক্ষা নেয়ার পরিকল্পনাও আছে। তবে, ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যেই ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমানারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)।

প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় ২ লাখ ২৮৪৪২ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। স্কুল পর্যায়ে ৮৪ হাজার ৬৯৬ জন, স্কুল পর্যায়-২ এ ১১ হাজার ৫৪৭ জন এবং কলেজ পর্যায়ে ১ লাখ ৩২২৯৯ জন প্রার্থী উত্তীর্ণ হয়েছেন। ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় পাসের হার ছিল ২৩ দশমিক ৮২ ভাগ। ৯ লাখ ৫৯ হাজার ১৮৫ জন ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিলেন।

গত বছরের ৩০ আগস্ট ১৬ তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ পরীক্ষায় ১১ লাখ ৭৬ হাজার প্রার্থী ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অংশ নিতে আবেদন করেছিলেন।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

কল্যাণ ট্রাস্ট’ চালু প্রাথমিকে

ডেস্ক,৮ফেব্রুয়ারীঃ
প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য ‌‘শিশু কল্যাণ ট্রাস্ট নীতিমালা ২০১৯’ প্রকাশ করা হয়েছে। গত ৪ ফেব্রুয়ারি এ নীতিমালা প্রকাশ করা হয়।
নীতিমালায় বলা হয় শিশু ক্যলাণ ট্রাস্ট পরিচালিত সকল শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের শিশু কল্যাণ ট্রাস্ট বৃত্তির জন্য বিবেচিত হবে। দ্বিতীয় শ্রেণি থেকে চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রতিযোগীতার মাধ্যমে এবং পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলের মাধ্যমে বৃত্তির জন্য বিবেচিত হবে। দ্বিতীয় শ্রেণি থেকে চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বাংলা ইংরেজি, গণিত এই তিনটি বিষয়ে ১০০ নম্বরের ২ ঘণ্টাব্যাপী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
যার পাস নম্বর থাকবে ৪০ নম্বর। পরীক্ষার নম্বর কোনোভাবেই প্রকাশ করা যাবেনা। পরীক্ষা কেন্দ্র: নীতামালায় ঢাকা মহনগরীর শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়সমূহের জন্য প্রতিটি শিক্ষা থানায় ১টি, জেলা সদরের বিদ্যালয় সমূহের জন্য জেলা সদরে ১টি, থানা/উপজেলা পর্যায়ের বিদ্যালয়সমূহের ক্ষেত্রে ১টি বৃত্তি পরীক্ষার কেন্দ্র নির্বাচন করার কথা বলা হয়েছে।
বৃত্তির তহবিল: শিশু ক্যলান ট্রাস্ট বৃত্তি পরিচালনা জন্য সরকার প্রদত্ত এনডোমেন্ট ফান্ড বিনিয়োগর মাধ্যমে প্রাপ্ত লভ্যাংশ হতে দশ শতাংশ মূল তহবিলের স্থানান্তরের পর অবশিষ্ট অর্থ বৃত্তি হিসাবে ব্যবহৃত হবে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

৫২২ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ল্যাব এ্যাসিস্ট্যান্ট নিয়োগ

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
সাধারণ ধারার স্কুলগুলোতেও চালু হচ্ছে বৃত্তিমূলক বা ভোকেশনাল কোর্স। প্রাথমিকভাবে সেসিপ প্রকল্পের আওতায় প্রায় ছয়শ স্কুল ও মাদরাসায় ভোকেশনাল কোর্স চালু করা হবে। এ লক্ষ্যে ৫২২টি স্কুলে ২জন করে ল্যাব অ্যাসিসট্যান্ট নিয়োগের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। আগামী ৪৫ দিনের মধ্যে এসব স্কুলে কম্পিউটার অ্যান্ড ইনফরমেশন টেকনলজির জন্য একজন ও অন্যান্য ট্রেডের জন্য একজন ল্যাব অ্যাসিসট্যান্ট নিয়োগ দিতে বলা হয়েছে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের। বিষয়টি জানিয়ে নির্বাচিত প্রতিষ্ঠান প্রধানদের বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

আদেশ দেখতে ক্লিক করুন।



Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

অনলাইনে এমপিও আবেদন সাময়িক স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
ইএমআইএস সেলের নতুন সফটওয়্যারে মাইগ্রেশনের প্রক্রিয়া চলমান থাকায় এমপিওসহ সব প্রকার অনলাইন আবেদন ও তথ্য সংশোধন স্থগিত করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে জারি করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। তবে নতুন সফটওয়্যার প্রস্তুত হলে পুনরায় নোটিশ জারি করে বিষয়টি সবাইকে জানানো হবে।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ইএমআইএস সফটওয়্যার আপগ্রেড করা হয়েছে। এখন নতুন সফটওয়্যারে আপগ্রেডেশনের প্রক্রিয়া চলছে। তাই www.emis.gov.bd ওয়েবলিংকভুক্ত বিভিন্ন সেবা যেমন, এমপিও, আইএমএস, আইএসেএএস, পিডিএস ইত্যাদি মাধ্যমে সকল প্রকার অনলাইন আবেদন ও তথ্য হালনাগাদকরণ সাময়িকভাবে বন্ধ করা হলো।

আপগ্রেড সফটওয়্যারটি চালু করে নোটিশের মাধ্যমে জানানো হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

সরকারি স্কুল-কলেজের ৬৩ কর্মচারী বদলি

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
বিভিন্ন সরকারি স্কুল-কলেজ, জেলা উপজেলা শিক্ষা অফিস ও মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে কর্মরত ৬৩জন কর্মচারীকে বদলি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে তাদের বদলির পৃথক ছয়টি আদেশ জারি করা হয়।

পাঠকদের জন্য বদলির আদেশগুলো তুলে ধরা হল।
আদেশ দেখতে ক্লিক করুন।


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter