Home » টপ খবর (page 30)

টপ খবর

আবরার হত্যাকারীরা অনুতপ্ত হয়ে যা বললেন!

নিজস্ব প্রতিবেদক,১০ অক্টোবর:
বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যায় অংশ নেয়ায় হতবাক অনিক সরকার এবং মেহেদী হাসান রবিনের পরিবার। এরা দুজনই বুয়েটের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী।




অনিকের বিভাগ মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং। আর রবিনের কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং। দুজনেরই বাড়ি রাজশাহী। আবরার হত্যায় এরা দুজন গ্রেপ্তার হওয়ার পর থেকেই মুষড়ে পড়েছে তাদের পরিবার।

অনিক বুয়েট ছাত্রলীগের প্রচার ও গবেষণা সম্পাদক পদে ছিলেন। আর রবিন ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক। ইতিমধ্যেই তাদের সংগঠন থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে। আর এ হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয়ায় চুরমার হয়ে গেছে তাদের বাবা মায়ের স্বপ্ন। মেধাবি এ দুই শিক্ষার্থী আরেক মেধাবি শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যার মতো লোমহর্ষক ঘটনা ঘটিয়েছেন তা তারা এখনও মানতেই পারছেন না।

অনিক সরকারের বাড়ি রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার বড়ইকুড়ি গ্রামে। আবরার ফাহাদকে মদ্যপ অবস্থায় সবচেয়ে বেশি মারধর করেছে অনিক।

জিজ্ঞাসাবাদে অনিক জানায়, আবরারকে অন্তত দেড়শ বার আঘাত করেন তিনি। মারধরের সময় নিজের ভূমিকার বিষয়েও জিজ্ঞাসাবাদে তথ্য দিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, আবরার একেক সময়ে একেক তথ্য দিচ্ছিলেন। এজন্য তার মাথা গরম হয়ে যায়। ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি তাকে বারবার মারছিলেন। বর্বরোচিত নির্যাতনের একপর্যায়ে আবরার যখন নিস্তেজ হয়ে পড়ছিলেন, তারা বলছিল- ‘ও ঢং ধরেছে’।

হামলাকারীদের নানা পরামর্শ দেন বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল। আবরার হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃতরা রিমান্ডে এ ঘটনায় তাদের প্রত্যেকের ভূমিকার কথা তুলে ধরেন।

কয়েকজন ‘অনুতপ্ত’ হয়ে গোয়েন্দাদের এও বলেন, ‘ক্রসফায়ার নইলে ফাঁসি দিয়ে দেন। ওই হত্যার দায় নিয়ে বাঁচতে চাই না।’ একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রে গতকাল এসব তথ্য পাওয়া গেছে।



Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রাথমিক শিক্ষকদের উদ্দেশে ডিপিই’র জরুরি নির্দেশনা

নিজস্ব প্রতিবেদক,১০ অক্টোবর:
৬৭টি পিটিআই-এ আইসিটি ইন এডুকেশন বিষয়ে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের তথ্য চেয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।



বুধবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের (ডিপিই) প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে জানানো হয়, আগামী ১৩ অক্টোবর ২০১৯ তারিখে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিতব্য সভায় উপস্থাপনের জন্যে ২০১২-১৩ অর্থবছর হতে ২০১৮-১৯ অর্থবছর পর্যন্ত পিটিআই সমূহে আইসিটি ইন এডুকেশন বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত শিক্ষকদের তথ্য আগামী ১০ অক্টোবরের মধ্যে উপপরিচালক প্রশিক্ষণ বরাবর প্রেরণ করার জনা অনুরোধ করা হলো।



Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

আবরার হত্যা: আটক দশজন পুলিশ রিমান্ডে

ডেস্ক,৯ অক্টোবর: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া দশজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে নিয়েছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ ।

গোয়েন্দা পুলিশের কন্ট্রোল রুম থেকে জানানো হচ্ছে আজ মঙ্গলবার এই রিমান্ড চেয়ে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে পাঠালে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা চকবাজার থানায় দায়ের করা মামলা তদন্তের দায়িত্ব আজ মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয় বলে জানান চকবাজার থানার ওসি সোহরাব হোসেন।

তিনি জানান আবরার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তার বাবা সোমবার চকবাজার থানায় ১৯ জনকে আসামি করে মামলা করেন। এর মধ্যে ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে বেশিরভাগই বুয়েটে ছাত্রলীগের নেতা।

ঐ ছাত্র মারা যাওয়ার ঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে গতকাল সোমবার বুয়েটের ছাত্রলীগের দুই নেতাকে আটক করা হয় বলে বিবিসি বাংলাকে নিশ্চিত করেন সোহরাব হোসেন।

“বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাসেল এবং যুগ্ম সম্পাদক ফুয়াদকে আটক করা হয়েছে”,জানান মি. হোসেন।

এর কিছুক্ষণ পর হল থেকে বুয়েট ছাত্রলীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক অনিক সরকার এবং ক্রীড়া সম্পাদক মিফতাহুলইসলাম জিয়নকে আটকের তথ্য নিশ্চিত করেন মি. হোসেন।

মি. হোসেন জানান পরবর্তীতে ডিবি পুলিশ হল থেকে আরো দু’জনকে আটক করে, কিন্তু ঐ দু’জনের পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এদিকে বুয়েট সহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের খবর আসছে।

আবরার ফাহাদের হত্যাকাণ্ডকে কেন্দ্র করে বুয়েট শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলনের সাথে সংহতি জানিয়েছে বুয়েটের শিক্ষক সমিতি।

বুয়েটের সাবেক শিক্ষার্থীরাও সেখানে আজ মানববন্ধন করেছেন।

আবরার হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে সকাল থেকে ঢাকা ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস সহ দেশের অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করছেন শিক্ষার্থীরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভকারীরা একটি গায়েবানা জানাজারও আয়োজন করেন।

বরিশাল থেকে সংবাদদাতারা জানাচ্ছেন, শহরের টাউন হলের সামনে মানববন্ধন করেছে ছাত্র ফেডারেশন।

ময়মনসিংহেও ছাত্ররা মানববন্ধন করেছে বলে জানা গেছে।

আবরারের বাড়ি কুষ্টিয়ার যে গ্রামে সেখানে বিক্ষোভ দেখিয়েছে গ্রামবাসীরা।

কুষ্টিয়ার ছেলে আবরার ফাহাদ বুয়েটের ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

source: bbc.com/bangla



Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

দূর্গা পুজোতে অংশ নেয়াতে প্রাণনাশের হুমকি পেলেন নুসরাত

ওয়েবডেস্ক : টলিউডের নায়িকা তথা সাংসদ নুসরাত জাহান গত ১৯ সে জুন বিয়ে করেন সাংসদ নিখিল জৈন কে । গত অষ্টমীতে শাড়ি ও সিঁদুর পরে স্বামীকে সঙ্গে নিয়ে তিনি অঞ্জলি দিয়েছিলেন সুরুচি সঙ্ঘের মণ্ডপে । সঙ্গে ছিলেন মন্ত্রী এরূপ বিশ্বাস ও । নুসরাতের পূজা মণ্ডপের এই ছবি সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পরেই তাকে পড়তে হয়েছে মৌলবাদীদের প্রকাশ্য হুমকি মুখে ,তাকে ধর্ম ত্যাগ করার পরামর্শ দিয়েছেন ,কিছু মুসলিম ধর্মগুরুরা ,আর প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন ন্যাশনাল কংগ্রেসের আইটি দলের এক কর্মী ।


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

বেসরকারি শিক্ষকদের বদলি ব্যবস্থা চালু

বেসরকারি শিক্ষকদের বদলি ব্যবস্থা চালু ও ইনডেক্সধারীদের প্রতিষ্ঠান পরিবর্তন সুযোগের বিষয়ে শিগগিরই ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেয়ার আশ্বাস জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা। বদলি চালুর দাবিতে স্মারকলিপি প্রদানের সময় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তারা এ আশ্বাস দিয়েছেন বলে দাবি করেন এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বদলি বাস্তবায়ন কমিটির নেতারা। এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বদলি বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য সচিব মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলামএ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।



‘বেসরকারি শিক্ষকদের বদলি ব্যবস্থা চালু ও ইনডেক্সধারীদের প্রতিষ্ঠান পরিবর্তন সুযোগের দাবিতে বৃহস্পতিবার এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বদলি বাস্তবায়ন কমিটির পক্ষ থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদের কাছে স্মারকলিপি দেয়া হয়। এ সময় প্রতিনিধি দল মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব সোহরাব হোসাইন ও অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদর সাথে এ বিষয়ে আলোচনাও করেন। আলোচনায় কর্মকর্তারা বেসরকারি শিক্ষকদের বদলি ব্যবস্থা চালু ব্যাপারে ইতিবাচক এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন। শীঘ্রই এ ব্যাপারে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নিবেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।’


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৪ অক্টোবর, ২০১৯
শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু হচ্ছে আজ। ষষ্ঠীপূজার মধ্য দিয়ে সূচনা ঘটছে বাঙালির শারদোৎসবের। পাঁচ দিনের এ উৎসব শেষ হবে ৮ অক্টোবর মঙ্গলবার বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে। হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় এ ধর্মীয় উৎসবকে ঘিরে সারাদেশে এখন বইছে উৎসবের আমেজ। দুর্গাপূজাকে আনন্দমুখর করে তুলতে শেষ হয়েছে দেশজুড়ে বর্ণাঢ্য প্রস্তুতিও।
এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার সারাদেশের পূজামণ্ডপগুলোতে দুর্গা দেবীর বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শারদীয় দুর্গোৎসবের প্রাক্কালে এই বোধনের মাধ্যমে দক্ষিণায়নের নিদ্রিত দেবী দুর্গার নিদ্রা ভাঙার জন্য বন্দনা পূজা করা হয়। মণ্ডপে-মন্দিরে পঞ্চমীতে সায়ংকালে তথা সন্ধ্যায় এই বন্দনা পূজা অনুষ্ঠিত হয়। পুরাণ মতে, রাজা সুরথ প্রথম দেবী দুর্গার আরাধনা শুরু করেন। বসন্তে তিনি পূজার আয়োজন করায় দেবীর এ পূজাকে বাসন্তী পূজা বলা হয়। কিন্তু রাবণের হাত থেকে সীতাকে উদ্ধার করতে লংকা যাত্রার আগে শ্রী রামচন্দ্র দেবীর পূজার আয়োজন করেছিলেন শরৎকালের অমাবস্যা তিথিতে, যা শারদীয় দুর্গোৎসব নামে পরিচিত। দেবীর শরৎকালের পূজাকে এ জন্যই হিন্দুমতে অকাল বোধনও বলা হয়।



সনাতন বিশ্বাস ও পঞ্জিকামতে, জগতের মঙ্গল কামনায় দেবী দুর্গা এবার ঘোটকে (ঘোড়া) চড়ে মর্ত্যলোকে (পৃথিবী) আসবেন (আগমন)। দেবী স্বর্গলোকে বিদায়ও (গমন) নেবেন ঘোটকে চড়ে, যার ফল হলো ফসল ও শস্যহানি। অর্থাৎ এবার দুর্গা দেবীর আগমনে পৃথিবী থেকে শস্য ও ফসলের বিনাশ হবে।

এবার সারাদেশে ৩১ হাজার ৩৯৮টি পূজামণ্ডপে দুর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ জানিয়েছে, যা গতবারের তুলনায় ৪৮৩টি বেশি। আর ঢাকা মহানগরীর এবারের পূজামণ্ডপের সংখ্যা ২৩৭টি, যা গত বছরের তুলনায় তিনটি বেশি।

শারদীয় দুর্গাপূজার প্রথম দিন আজ ষষ্ঠীতে দশভুজা দেবী দুর্গার আমন্ত্রণ ও অধিবাস। ষষ্ঠী তিথিতে সকাল ৯টা ৫৭ মিনিটের মধ্যে দেবীর ষষ্ঠাদি কল্পারম্ভ ও ষষ্ঠীবিহিত পূজা। সায়ংকালে দেবীর আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে শুরু হবে মূল দুর্গোৎসব। আগামীকাল শনিবার মহাসপ্তমী, রোববার মহাষ্টমী ও কুমারী পূজা, সোমবার মহানবমী এবং মঙ্গলবার বিজয়া দশমী। শেষ দিনে প্রতিমা বিসর্জন ও বিজয়ার শোভাযাত্রা।

দুর্গোৎসব চলাকালে পূজার প্রতিদিনই অঞ্জলি, প্রসাদ বিতরণ ও ভোগআরতির আয়োজন করা হবে। এ ছাড়া দেশজুড়ে দুর্গোৎসব চলাকালে মণ্ডপে মণ্ডপে আলোকসজ্জা, আরতি প্রতিযোগিতা, স্বেচ্ছায় রক্তদান, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা, নাটক, নৃত্যনাট্যসহ বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করা হবে।

দুর্গোৎসব উপলক্ষে পৃথক বাণীতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ হিন্দু ধর্মাবলম্বীসহ দেশবাসীকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

পৃথক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতিত্রয় মেজর জেনারেল (অব.) সি আর দত্ত বীরউত্তম, ঊষাতন তালুকদার ও হিউবার্ট গোমেজ, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত, সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জী, মহানগর সর্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি শৈলেন্দ্র নাথ মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কিশোর রঞ্জন মণ্ডল, ছাত্র যুব ঐক্য পরিষদের সভাপতিত্রয় পংকজ সাহা, রাহুল বড়ূয়া ও রবার্ট নিক্সন ঘোষ এবং সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার তাপস বল জন্মাষ্টমীর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের প্রতিটি পূজামণ্ডপের নিরাপত্তা রক্ষায় পুলিশ, আনসার, র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন। পাশাপাশি প্রায় প্রতিটি মণ্ডপে স্বেচ্ছাসেবক বাহিনীও দায়িত্ব পালন করবে। ঢাকেশ্বরী মন্দির মেলাঙ্গনে মহানগর সর্বজনীন পূজা কমিটির উদ্যোগে কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা হয়েছে।

রাজধানীতে কেন্দ্রীয় পূজা উৎসব বলে পরিচিত ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির পূজামণ্ডপে পাঁচ দিনের শারদীয় দুর্গোৎসবের সূচনা ঘটবে আজ। পূজার পাশাপাশি ভক্তিমূলক সঙ্গীতানুষ্ঠান, দুস্থদের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ, মহাপ্রসাদ বিতরণ, আরতি প্রতিযোগিতা, স্বেচ্ছায় রক্তদান ও শেষ দিনে অনুষ্ঠিত হবে বিজয়া শোভাযাত্রা।

রামকৃষ্ণ মিশন ও মঠ পূজামণ্ডপে মহাষ্টমী ও কুমারী পূজার দিনে বিতরণ করা হবে মহাপ্রসাদ। রাজারবাগের বরোদেশ্বরী কালীমাতা মন্দির ও শ্মশান কমিটির পূজামণ্ডপে পূজার আনুষ্ঠানিকতা ছাড়াও দরিদ্রদের মধ্যে খাদ্য বিতরণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, নৃত্যনাট্য ও নাটক পরিবেশিত হবে। গুলশান-বনানী সর্বজনীন পূজা উদযাপন পরিষদের আয়োজনে বনানী পূজামণ্ডপে পূজার পাঁচ দিনই পরিবেশিত হবে বিশেষ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। মিরপুর কেন্দ্রীয় মন্দির পূজামণ্ডপেও অনুরূপ আয়োজন থাকছে। জয়কালী রোডের রামসীতা মন্দিরে আলোচনা সভা ও বস্ত্র বিতরণ করা হবে দরিদ্রদের মধ্যে।

এ ছাড়া রমনা কালীমন্দির ও আনন্দময়ী আশ্রম, সিদ্ধেশ্বরী কালীবাড়ি, পুরান ঢাকার অভয়নগর দাস লেনের ভোলানন্দগিরি আশ্রম, রাধিকা বসাক লেন, নবেন্দ্র বসাক লেন, ঢাকেশ্বরীবাড়ী, শাঁখারীবাজারের পান্নিটোলা, টিকাটুলীর প্রণব মঠ, ঠাঁটারীবাজারের পঞ্চানন শিবমন্দির, সূত্রাপুরের ঋষিপাড়া গৌতম মন্দির, বনগ্রাম তরুণ সংসদ, ওয়ারী সর্বজনীন পূজা কমিটির মণ্ডপ, উত্তর মৈশুণ্ডী, ফরাশগঞ্জ জমিদারবাড়ি, বিহারীলাল জিও মন্দির ও মতিঝিলের অরুণিমা সংসদ পূজা কমিটির মণ্ডপসহ বিভিন্ন মন্দির ও মণ্ডপে দুর্গোৎসবের ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

২৯১ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বাদ পড়া শিক্ষকদের জাতীয়করণ




নিজস্ব প্রতিবেদক,৩ অক্টোবর:
অবশেষে ২৯১ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বাদ পড়া শিক্ষকদের জাতীয়করণের আওতায় আনা হচ্ছে। আগামী সপ্তাহে এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বদরুল হাসান চৌধুরী বলেন, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না পাওয়ায় তৃতীয় ধাপে প্রায় সাড়ে ৫০০ বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জাতীয়করণ করা হলেও ২৯১টি বিদ্যালয়ের এক হাজার ৩১ জন শিক্ষকদের জাতীয়করণের আওতায় আনা সম্ভব হয়নি। সম্প্রতি মন্ত্রিপরিষদের সভায় এসব শিক্ষকদের জাতীয়করণে চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়। আগামী সপ্তাহে এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে তারা জাতীয়করণের আওতাভুক্ত হয়ে যাবেন।

তবে প্রজ্ঞাপন প্রকাশের দিনের মধ্যে যদি কারোর সরকারি চাকরির সময়সীমা বা অবসরে যাওয়ার সময় হয়, তাহলে তিনি পেনশনসহ সরকারি সকল সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী গত চার বছরে সারাদেশে ২৬ হাজারের বেশি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হয়। তিনটি ধাপে এসব প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষকদের জাতীয়করণের আওতায় আনা হয়। তৃতীয় ধাপে সারাদেশে ৫৪৯টি বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হলেও মামলা জটিলতা, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিতে বিলম্ব, নানা অভিযোগ-আপত্তিসহ বিভিন্ন সমস্যা সৃষ্টি হওয়ায় এ ধাপে ২৯১টি বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সরকারিকরণ করা সম্ভব হয়নি।

এ তালিকায় এক হাজার ৩১ জন শিক্ষকের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২৪৭ জন, রংপুরে ৪৩২ জন, রাজশাহীতে ৭৪ জন, চট্টগ্রামে ৬৮ জন, বরিশালে ১১৭ জন, সিলেটে ২৭ জন ও খুলনা বিভাগে ৫৬ জন শিক্ষক রয়েছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, তৃতীয় ধাপে শিক্ষকদের জাতীয়করণ করতে ২০১৭ সালের ২৩ জুলাই ট্রাস্কফোর্সের সভা হয়। সভায় জাতীয়করণ হওয়া ২৯১টি বিদ্যালয়ে কর্মরত এক হাজার ৩১ জন শিক্ষকের সরকারিকরণ কার্যক্রম আটকে যায়। বাদ পড়া এসব শিক্ষকদের তালিকা আগামী সপ্তাহের রোববার অথবা সোমবার প্রজ্ঞাপন জারি করা হতে পারে।


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

ওষুধ তৈরি প্রতিষ্ঠান সানোফি বাংলাদেশ ছেড়ে যাচ্ছে না




হ্যাপি আক্তার : আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন ওষুধ প্রস্তুত ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান সানোফি বাংলাদেশ থেকে নিজেদের শাখা প্রতিষ্ঠান গুটিয়ে নিচ্ছে না। বুধবার এ তথ্য জানিয়েছেন সানোফির জেনারেল ম্যানেজার রামপ্রসাদ ভাট। চ্যানেল টোয়েন্টিফোর

সম্প্রতি কিছু গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়, দেশ ছেড়ে চলে যাচ্ছে সানোফি। দেশের অনৈতিক বিপণনব্যবস্থাকে দায়ী করে তাদের সকল পণ্যসহ চলে যাচ্ছে সানোফি। যা নিছক গুজব বলে জানান তিনি।

ফরাসি এ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে কাজ করছে ১৯৫৮ সাল থেকে। সানোফি বাংলাদেশ লিমিটেডের মোট শেয়ারের মধ্যে ৪৫.৩৬ শতাংশ মালিকানা বাংলাদেশ সরকারের। বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) অধীনে পরিচালিত এটি একটি লাভজনক প্রতিষ্ঠান। বাকি অংশের মালিকানায় রয়েছে সানোফি। এ দেশে তাদের এক হাজার কর্মী রয়েছে। ওষুধ উৎপাদন, মজুদ ও সরবরাহে আন্তর্জাতিক মান বজায় রাখে সানোফি, এমন স্বীকৃতি রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির। ঢাকার টঙ্গীতে প্রতিষ্ঠানটির কারখানা রয়েছে।
সানোফির বাংলাদেশ ত্যাগের ঘোষণায় ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলো কর্মীরা। দেশ ছেড়ে না যাবার সিদ্ধান্তে স্বস্তি ফিরেছে সানোফিতে কর্মরত কর্মীদের।


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রতি গণশিক্ষা সচিবের আহ্বান

ডেস্ক:
বেতন-বৈষম্য নিরসনের দাবিতে সর্বাত্মক আন্দোলনে যাচ্ছেন সারাদেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় পৌনে চার লাখ শিক্ষক। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষকদের মোট ১৪টি সংগঠন মিলে সম্প্রতি গঠিত হয়েছে ‘বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদ’। এই পরিষদের মাধ্যমে আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।


এদিকে আগামী মাসে ১৭ নভেম্বর শুরু হতে যাচ্ছে চলতি বছরের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা। ইংরেজি পরীক্ষার মধ্য দিয়ে শুরু হবে এ পরীক্ষা। ২৪ নভেম্বর গণিত পরীক্ষা আয়োজনের মাধ্যমে শেষ হবে এ পরীক্ষা। পরীক্ষার আর দেড় মাস মাত্র বাকি। এ মুহূর্তে শিক্ষকরা বিদ্যালয় বন্ধ করে লাগাতার ধর্মঘটে গেলে শিশু শিক্ষার্থীদের অপূরণীয় ক্ষতি হবে। তাই দ্রুত সরকারকে শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসে সমস্যার সমাধানে উদ্যোগী হতে হবে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রধান শিক্ষকদের জাতীয় বেতন স্কেলের দশম গ্রেডে ও সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেডে বেতন দেয়ার দাবিতে আগামী ১৪ অক্টোবর সারাদেশের প্রায় ৬৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এক ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করা হবে। পরদিন ১৫ অক্টোবর পালন করা হবে দুই ঘণ্টার কর্মবিরতি। তার পরের দিন ১৬ অক্টোবর এসব বিদ্যালয়ে অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করবেন শিক্ষকরা। ১৭ অক্টোবর পূর্ণ দিবস কর্মবিরতিতে যাবেন তারা। এরপরও দাবি আদায় না হলে ২৭ অক্টোবর রাজধানী ঢাকায় মহাসমাবেশ করা হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত লাগাতার কর্মসূচি চলবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম আল হোসেন জানান, শিক্ষকদের বেতন-বৈষম্য কমাতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে তারা আলাপ-আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন। তারা শতভাগ আন্তরিক এ বিষয়ে। তবে কোমলমতি ছাত্রছাত্রীদের কোনো ক্ষতি হয়, এমন কোনো কর্মসূচি শিক্ষকদের না দেয়ার জন্য তিনি আহ্বান জানান।

শিক্ষক নেতা মোহাম্মদ শামছুদ্দীন মাসুদ বলেন, ৬ অক্টোবর জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরে কর্মসূচি আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হবে। মন্ত্রণালয়ে লিখিত আবেদনের মাধ্যমে তাদের দাবির বিষয়ে কর্তৃপক্ষকে আবারো চূড়ান্তভাবে জানানো হবে বলে তিনি জানান।

এর আগে গত ২৯ জুলাই এই শিক্ষকদের বেতন বাড়ানোর এই প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছিল প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। ৮ সেপ্টেম্বর তা নাকচ করে দেয় অর্থ মন্ত্রণালয়। এরপর সারাদেশের শিক্ষকরা ক্ষুব্ধ হয়ে এই আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন।

বর্তমানে সারাদেশে ৬৫ হাজার ৯০২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এগুলোতে তিন লাখ ২৫ হাজার সহকারী শিক্ষক ও ৪২ হাজার প্রধান শিক্ষক রয়েছেন। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা দীর্ঘদিন ধরেই তাদের বেতন স্কেল দশম গ্রেডে নেয়ার দাবি জানিয়ে আসছিলেন। বেতন নিয়ে অসন্তুষ্টি রয়েছে সহকারী শিক্ষকদের ভেতরেও।


Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

ছাত্রীর সর্বনাশ করলেন পল্টন থানার ওসি

নিজস্ব প্রতিবেদক,৩০ সেপ্টেম্বর:
রাজধানীর পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হকের বিরুদ্ধে ভয়াবহ অভিযোগ ‍উঠেছে। জানা যায়, চাকরি দেওয়ার কথা বলে এক ছাত্রীকে হোটেলে নিয়ে ধর্ষণের করেন তিনি। পরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ওই তরুণীর সঙ্গে মাসের পর মাস শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেছেন তিনি।


ওই তরুণীর অভিযোগ, তিনি অন্তঃস্বত্ত্বা হয়ে পড়লে ওসি গর্ভপাতের শর্তে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিলে তিনি গর্ভপাত করান। তবে এরপর মাসের পর মাস পেরিয়ে গেলেও তিনি আর বিয়ে করেননি। একপর্যায়ে ওই তরুণীর সঙ্গে যোগাযোগই বন্ধ করে দেন ওসি মাহমুদুল। শেষ পর্যন্ত ওই তরুণী প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও পুলিশের মহাপরিদর্শক বরাবর অভিযোগ করেছেন ওসির বিরুদ্ধে। তদন্তে সে অভিযোগের সত্যতা মিলেছে, জমা পড়েছে তদন্ত প্রতিবেদনও। এরপরও মাহমুদুল হক পল্টন থানার ওসি হিসেবে বহাল তবিয়তেই কাজ করে যাচ্ছেন।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) একাধিক সূত্র মতে, মাহমুদুল হকের বিরুদ্ধে দায়ের করা অভিযোগের তদন্তের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও ভুক্তভোগী ওই তরুণীসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

ভুক্তভোগী তরুণী গণমাধ্যমের কাছে অভিযোগ করে বলেন, ‘আমি সরকারি একটি কলেজ থেকে পড়ালেখা শেষ করে চাকরির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। এর মধ্যে ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্র ধরে ওসি মাহমুদুল হক আমার সঙ্গে ফোনে কথা বলতেন। গত বছরের ২১ সেপ্টেম্বর তিনি চাকরি দেওয়ার কথা বলে আমাকে ঢাকায় ডেকে আনেন। আমাকে রাখার জন্য পল্টনের ক্যাপিটাল হোটেলের একটি রুমে নিয়ে যান। সেখানে হোটেল বয়কে দিয়ে আমার জন্য স্যুপ নিয়ে আসান। আমি খেতে না চাইলেও জোর করে খাওয়ান। এরপরই আমি ঘুমিয়ে পড়ি।’

ওই তরুণী বলেন, ঘুম ভাঙলে দেখি রাত ২টার মতো বাজে। ওই সময় মাহমুদুল হক আমার পাশেই শুয়ে ছিলেন। আমি বুঝতে পারি, ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় ধর্ষণের শিকার হয়েছি। মাহমুদুল হকের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তিনি আমাকে ভালোবাসেন। তার স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক ভালো নয় জানিয়ে তিনি আমাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেন।

ওই তরুণীর অভিযোগ, এরপর প্রতি সপ্তাহেই ওই তরুণীকে ঢাকায় ডেকে এনে একই হোটেলে নিয়ে যেতেন মাহমুদুল হক। গত বছরের অক্টোবর মাসে তিনি বুঝতে পারেন, অন্তঃস্বত্ত্বা হয়ে পড়েছেন। এ কথা মাহমুদুল হককে জানালে তিনি ওই তরুণীকে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে গর্ভপাত করতে বলেন এবং একপর্যায়ে তার কথায় রাজি হয়ে গর্ভপাত করান ওই তরুণী।

তিনি জানান, দু’জনের সম্মতিতে তাদের মধ্যেকার শারীরিক সম্পর্কের ভিডিও ও ছবিও ধারণ করা হয়েছে, যেগুলো ওই তরুণীর কাছে রয়েছে।

ওই তরুণী বলেন, মাহমুদুল হক বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিলেও আমাকে বিয়ে করেননি। সবশেষ গত ২ এপ্রিল আমার সঙ্গে সব যোগাযোগ বন্ধ করেন দেন। আমি ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টাও করেছি এসময়। পরে আমার পরিবার সবকিছু জানতে পারলে তারা মাহমুদুলের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে। এসময় আমার পরিবারকে হুমকি দেওয়া হয়, পল্টন থানার ওসির অনেক ক্ষমতা, বাড়াবাড়ি করলে আমার অনেক ক্ষতি হবে। আমি ঢাকার বাইরে একটি চাকরি করছি। সেখানেও আমার ক্ষতি করার চেষ্টা করেছেন মাহমুদুল হক।

ওই তরুণী বলেন, সবশেষে বাধ্য হয়ে আমি মতিঝিল জোনের এডিসি শিবলী নোমানকে বিষয়টি জানাই। তিনি বিষয়টি মীমাংসা করে দেবেন বলেও জানান। মাহমুদুলের বাবাকেও বিষয়টি জানাই। তবুও কোনো কাজ হয়নি। শেষ পর্যন্ত আমি আইজিপি বরাবর লিখিত অভিযোগ করি। মাহমুদুল হক আমাকে বিয়ে না করলে আমি আদালতে মামলা করব।

ভুক্তভোগী তরুণীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে জানা যায়, পুলিশের মহাপরিদর্শকের কাছে ওসি মাহমুদুলের বিরুদ্ধে করা অভিযোগ তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় মতিঝিল বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার মোনালিসা বেগমকে। তদন্ত শেষ করে তিনি প্রতিবেদন ডিএমপি সদর দফতরে পাঠিয়েও দিয়েছেন। সেখান থেকে ২৫ সেপ্টেম্বর প্রতিবেদনটি পুলিশ সদর দফতরে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, প্রতিবেদনে মাহমুদুল হকের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের সত্যতা মিলেছে। পল্টনের হোটেল ক্যাপিটালে নিয়ে যাওয়া বিষয়ে ওই তরুণী যেসব তথ্য দিয়েছেন, তা ঠিক। প্রতি মাসেই ওই হোটেলে ওসি পল্টনের নামে এক বা একাধিক দিন বুকিংয়ের তথ্য মিলেছে। তদন্তে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, সর্বশেষ এ বছরের ১৭ মার্চ ওই হোটেল থেকে চেকআউট করেন ওসি মাহমুদুল। এছাড়া কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন স্থানেও ওসি ওই তরুণীকে নিয়ে গিয়েছিলেন বলেও তথ্য পাওয়া গেছে প্রতিবেদনে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে পল্টন থানার ওসি মাহমুদুল হক রোববার রাতে সাংবাদিকদের বলেন, আমি সূক্ষ্ণ ষড়যন্ত্রের শিকার। আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে, তা মিথ্যা ও বানোয়াট।

ওসি মাহমুদুলের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ তদন্ত করেছেন সবুজবাগ জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার মোনালিসা। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘পল্টন থানার ওসি মাহমুদুল ও ভুক্তভোগী মেয়েটির ব্যাপারে তদন্ত শেষ করে ডিএমপি সদর দফতরে প্রতিবেদন জমা দিয়েছি। তবে প্রতিবেদন নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে পারব না।’ এক প্রশ্নের জবাবে তিনি কেবল বলেন, তদন্তে ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা মিলেছে।

ডিএমপির একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, এডিসি মোনালিসার তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার তা গত বুধবার পুলিশ সদর দফতরে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ সদর দফতর ওসি মাহমুদুলের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।

ডিএমপি সূত্রে জানা যায়, ওসি মাহমুদুল হক ২০০১ সালে এসআই পদে পুলিশে যোগ দেন। তার বাড়ি নওঁগা জেলায়। চাকরি জীবনে তিনি একটি গুরুদণ্ড-ব্ল্যাক মার্ক এবং ২২টি লঘুদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন। তিনি ২০১৭ সালের ২ জুলাই পল্টন থানার ওসি হিসেবে যোগ দেন। তার স্ত্রী ও এক সন্তান রয়েছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

শিক্ষক-কর্মকর্তাদের মোবাইল নম্বর-ইমেইল ঠিকানা পাওয়া যাবে অ্যাপসে

নিজস্ব প্রতিবেদক,৩০ সেপ্টেম্বর:
শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শেকৃবি) অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল অ্যাপসভিত্তিক ডিজিটাল টেলিফোন ডাইরেক্টরি (সাউ ডাইরেক্টরি) উদ্বোধন করা হয়েছে। অ্যাপসটিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিভাগের মোবাইল নম্বর ও ই-মেইল ঠিকানা পাওয়া যাবে।



রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) উপাচার্য প্রফেসর ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদ এ ডাইরেক্টরির উদ্বোধন করেন। এ সময় উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. সেকেন্দার আলী, ট্রেজারার প্রফেসর ড. মো. আনোয়ারুল হক বেগসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিন, পরিচালক, শিক্ষক ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন ।

SAU-1

এ বিষয়ে তথ্য ও যোগাযোগ কেন্দ্রের পরিচালক প্রফেসর ড. মীর্জা হাছানুজ্জামান বলেন, অ্যাপসটি প্রাথমিক অবস্থায় শুধুমাত্র অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনে ব্যবহার করা যাবে। আইফোন গ্রাহকদের এই অ্যাপসটি ব্যবহার করতে কিছুটা সময় লাগবে। অন্য সব অ্যাপসের মতো গুগল প্লে স্টোর থেকে SAU Directory অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ইনস্টল করে এ সেবা পাওয়া যাবে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

প্রাক-প্রাথমিকে ২৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি নভেম্বরে

নিজস্ব প্রতিবেদক,৩০ সেপ্টেম্বর:
নতুন করে আরও ২৬ হাজারের বেশি শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক পর্যায়ে এসব শিক্ষকদের নিয়োগ দেয়া হবে। চলতি বছর নভেম্বরে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হবে। এ নিয়োগ থেকে নারীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক বা ডিগ্রি পাস কার্যকর করা হবে।



জানা গেছে, সারাদেশে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ ধাপে ২৬ হাজার ৩৬৬ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। ফলে প্রতিটি বিদ্যালয়ে একজন করে শিক্ষক নিয়োগ পাবেন। এ নিয়োগ কার্যক্রম থেকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগে নারী-পুরুষ উভয়ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক বা ডিগ্রি পাস বাধ্যতামূলক।

বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (বিদ্যালয়) মো. বদরুল হাসান বাবুল জাগো নিউজকে বলেন, প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম শেষে নভেম্বরে প্রাক-প্রাথমিক পর্যায়ে ২৬ হাজার ৩৬৬ শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম শুরু হবে। নভেম্বরের মাঝামাঝি এ নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, দেশের ৬৫ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সেই আলোকে প্রথম ধাপে এ স্তরে ২৬ হাজারের বেশি নিয়োগ দেয়া হবে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পদ সৃজনের প্রস্তাব জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে সচিব কমিটিতে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে অনুমোদন হওয়ার পর তা মন্ত্রিপরিষদ সভায় পাঠানো হবে। অনুমোদন সংক্রান্ত কার্যক্রম অক্টোবরের মধ্যে শেষ হবে। নভেম্বরে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। পর্যায়ক্রমে দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষকের পদ সৃজন করে নিয়োগ দেয়া হবে

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

দ্বিতীয় বিয়ের করলেন অপু বিশ্বাস!

বিনোদন প্রতিবেদক,৩০ সেপ্টেম্বর:
হঠাৎ করেই চাউর হয়েছে বিয়ে করছেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। ঢালিউড কুইন খ্যাত এই নায়িকা দ্বিতীয়বারের মতো সংসার পাতবেন। মায়ের পছন্দের ছেলের গলায় মালা দেবেন তিনি।


ফেসবুক ও কিছু গণমাধ্যম নায়িকার বিয়ের গুঞ্জনে ঘি ঢেলেছে চিত্রনায়ক বাপ্পীকে জড়িয়ে। বলা হচ্ছে বাপ্পীকেই বিয়ে করতে চলেছেন অপু। কিন্তু সব খবরকেই হেসে উড়িয়ে দিলেন নায়িকা। দাবি করলেন ‌‘খুবই দুর্বল গুজব’ বলে।

অপু বিশ্বাস সোমবার সকালে জাগো নিউজকে তার বিয়ে প্রসঙ্গে বলেন, ‘বিয়ে নিয়ে এই মুহূর্তে কোনোরকম পরিকল্পনাই নেই। যা ছড়িয়েছে বা ছড়ানো হচ্ছে সবই গুজব। খুবই দুর্বল গুজব। কারণ আমি এখন ছেলে ও ক্যারিয়ার নিয়ে বেশি মনযোগী।’

বিয়ের খবরটি তবে হঠাৎ করে ছড়ালো? এমন প্রশ্নের জবাবে অপু বলেন, ‘আমি নিজেও জানি না। সামনে আমার ‘শ্বশুড়বাড়ি জিন্দাবাদ’ ছবিটি মুক্তি পাবে। এখানে বাপ্পী চৌধুরীর সঙ্গে জুটি বেঁধেছি আমি। হতেও পারে আমাদের ভক্তরা আলোচনা তৈরি করতেই এ ধরনেই ‘ফান পোস্ট’ দিচ্ছেন ফেসবুকে।

সেখান থেকেই বিষয়টি ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে বাপ্পীর সঙ্গে আমার বিয়ের খবর কিছু অখ্যাত গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে। সেসব নিয়ে আমার মাথা ব্যথা নেই।

তবে কিছু প্রথমসারির গণমাধ্যমেও বিয়ের খবর প্রকাশ হয়েছে সম্প্রতি। সেটা নিয়ে বলবো ঘটনা ঠিক এমনটি নয় যেমনটি প্রকাশ হয়েছে। আমার কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিলো লাইফ নিয়ে কী পরিকল্পনা আমার। আবারও কখনো বিয়ে করবো কী না।

উত্তরে বলেছিলাম একজন মানুষ হিসেবে জীবনটাকে তো বয়ে নিয়ে যেতে হবে। সেজন্য হয়তো একটা আস্থা ও নির্ভরতার আশ্রয় আমার প্রয়োজন হতে পারে। বিয়ে হয়তো করতেও পারি কোনো একদিন। যদি করি তবে এবার মায়ের ইচ্ছেতে করবো। তার মানে এই নয় যে আমি এখনই বিয়ে করে ফেলছি বা বিয়ের জন্য পাত্র দেখা শুরু করে দিয়েছি।’

নায়িকা বলেন, আপাতত একমাত্র পুত্র আব্রাম খান জয়কে সময় দিচ্ছেন তিনি। তাকে মানুষ করে তোলাই এখন তার জীবনের ব্রত। ছেলের দেখাশোনা, পড়াশোনা সবকিছু সামলে যেটুকু সময় পান সেটুকু শোবিজের জন্য বরাদ্দ রেখেছেন। সিনেমা-বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন রকম শো-তে অংশ নেন।

এদিকে শাকিব খানকে বিয়ের পর অপু বিশ্বাসের ধর্ম নিয়ে যে ধোঁয়াশা চলমান ছিলো তার ইতি টেনেছেন তিনি। নায়িকার ভাষ্য, ‘আমি হিন্দু ধর্মেই আছি। এবার আমি দূর্গা পূজা করবো। শাকিব তো আমাকে কাগজ-কলমে মুসলিম করেননি। আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করেছিলাম ইসলাম ধর্ম।তবে বাবা-মার সঙ্গে থেকে তো আমি অন্য ধর্ম পালন করতে পারি না।’

অপুর দাবি, তিনি কোরআন শিখেছেন। পড়তেও পাড়েন। ধর্ম পালন নিয়ে অপু বলেন, ‘কাগজে-কলমে, মনে প্রাণে বা গরুর মাংস খেয়ে বা হজ্ব করে আমি নিজে মুসলিম হইনি। একজনকে ভালোবেসে মুসলিম ধর্মকে সম্মান দেখিয়েছি, আজও দেখাই। সব ধর্মের প্রতি আমার সম্মান ও শ্রদ্ধা আছে।’

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের ফল আগামী সপ্তাহে

অনলাইন ডেস্ক,২৬ সেপ্টেম্বর:

১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল চলতি সেপ্টেম্বর মাসেই প্রকাশ করার পরিকল্পনা নিয়েছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। জানা গেছে আগামী সপ্তাহেই এ প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হতে পারে। এনটিআরসিএ সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।



এনটিআরসিএর এক কর্মকর্তা জানান, চলতি মাসেই ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হতে পারে। ফল তৈরির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। চলতি মাসের একদম শেষ দিকে প্রিলির ফল প্রকাশের পরিকল্পনা নিয়ে কাজ শুরু করেছেন কর্মকর্তারা।

তিনি আরও জানান, খুব শিগগিরই ফল প্রকাশের বিষয়ে সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে সম্মতি চাওয়া হবে। যদি কোন কারণে চলতি মাসে ফল প্রকাশ সম্ভব না হয়, তাহলে অক্টোবরের শুরুতেই ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ আগস্ট ১৬ তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত স্কুল ও স্কুল পর্যায়-২ এর প্রিলিমিনারি পরীক্ষা আর বিকেল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত কলেজ পর্যায়ের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ পরীক্ষায় ১১ লাখ ৭৬ হাজার প্রার্থী অংশগ্রহণ করেছেন। তাদের মধ্যে স্কুল পর্যায়ে ৬ লাখ ১০ হাজার ২৬৬ জন, স্কুল পর্যায়-২ এ ১ লাখ ৩৩ হাজার ৫৯৫ জন এবং কলেজ পর্যায়ে ৪ লাখ ৩২ হাজার ৩৩৫ জন প্রার্থী রয়েছেন। সারাদেশের ২৪টি জেলা শহরের ৭৭৭টি ভেন্যুতে এমসিকিউ পদ্ধতিতে প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

টাইম স্কেল পেলেন শিক্ষকরা

ডেস্ক

এমপিওভুক্তি নীতিমালার আলোকে বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের নতুন টাইম স্কেল দেয়া শুরু হয়েছে। চলতি মাস থেকে এটি কার্যকর হবে বলে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে জানা গেছে।



গত ২৩ সেপ্টেম্বর কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে জারি করা এক আদেশ থেকে জানা যায়, এমপিও অনুমোদন কমিটির ষষ্ঠ সভায় এসব শিক্ষক-কর্মচারীকে টাইম স্কেল দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তারই পরিপ্রেক্ষিতে চলতি মাস থেকে তাদের টাইম স্কেল কার্যকর হবে।

এর আগে গত এপ্রিল মাসে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের এমপিও অনুমোদন কমিটির তৃতীয় সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে পাঁচজন শিক্ষক-কর্মচারীকে, জুনে কমিটির চতুর্থ সভায় তিনজন, জুলাই মাসে কমিটির পঞ্চম সভায় তিনজন শিক্ষক-কর্মচারীকে টাইম স্কেল দেয়া হয়। পর্যায়ক্রমে সকল শিক্ষক-কর্মচারীদের নতুন টাইম স্কেলের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন কারিগরি শিক্ষা অধিদদপ্তরের মহাপরিচালক রওনক মাহমুদ।

অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের জুলাইয়ে জারি করা এমপিও নীতিমালার আলোকে বেসরকারি কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এসএসসি ভোকেশনাল শিক্ষা কার্যক্রমে কর্মরত চারজন শিক্ষক-কর্মচারীকে টাইম স্কেল দেয়া হয়েছে।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter