টপ খবর

স্কুল-কলেজে পান,জর্দা ‍ও গুল পরিহার করতে নির্দেশ শিক্ষকদের

ডেস্ক,২৪ এপ্রিল : এখন থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভেতরে ধূমপান থেকে বিরত থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে শিক্ষকদের। এমনকি বিদ্যালয়ের বাইরেও শিক্ষার্থীদের সামনে ধূমপান থেকে বিরত থাকতে হবে তাদের। বিষয়টি শিক্ষাসুলভ ও জন স্বাস্থ্যের পরিপন্থী।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এসংক্রান্ত একটি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, কোনো কোনো শিক্ষক প্রচুর পরিমান পান,জর্দা ও গুল গ্রহণ করে শ্রেণিকক্ষে যান। এ অবস্থায় শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে তারা কথা বলেন। এতে শিক্ষার্থীদের ভেতরে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। শিখন-শিখানো কার্যক্রম পরিচালনার সময় কিংবা শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে শিক্ষক পান,জর্দা ও গুল গ্রহণ না করার জন্য অধিপ্তরের চিঠিতে নির্দেশনা দেয়া হয়।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়ানোর প্রস্তাব সংসদে উঠছে কাল

ডেস্ক,২৩ এপ্রিল:   সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ এবং অবসরের বয়স ৬২ করার প্রস্তাব আগামীকাল একাদশ জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশনে উঠছে। বিকাল ৫ টায় অধিবেশন শুরু হবে।

গত ৩ এপ্রিল রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এ অধিবেশন আহ্বান করেন। সংবিধানের ৭২ অনুচ্ছেদের (১) দফায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ অধিবেশন আহ্বান করেন রাষ্ট্রপতি। তবে এই অধিবেশন কতদিন চলবে তা জানা যায়নি। অধিবেশন শুরুর এক ঘণ্টা আগে সংসদের কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তবে এ অধিবেশন পাঁচ কার্যদিবস চলতে পারে। Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

সরকারি কর্মচারী নিয়োগে আইন মন্ত্রণালয়ের দ্বারস্থ শিক্ষা মন্ত্রণালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক,২৩ এপ্রিল: সরকারি স্কুল-কলেজের তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী পদে নিয়োগ দিতে ২০১৩ সালের ৭ মার্চ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছিল মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) অধিদপ্তর। ছয় বছরে এরই মধ্যে পাল্টেছে চারজন মহাপরিচালক (ডিজি)। অধিদপ্তর এখনো সেই নিয়োগপ্রক্রিয়া শেষ করতেই পারেনি। অবশেষে ছয় বছর পর এ ব্যাপারে আইন মন্ত্রণালয়ের দ্বারস্থ হয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

পুল শিক্ষক নিয়োগ প্রাথমিকের জন্য একটি মাইলফলক

নিজস্ব প্রতিবেদক,২৩ এপ্রিল: সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো শিক্ষক সংকটে ধুকছে। সারাদেশের প্রায় শতভাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকের অভাব রয়েছে। নিয়মিত শিক্ষক সংকট ছাড়াও কর্মরত শিক্ষকরা নানা ছুটিতে থাকায় পাঠদান মারাত্মক বিঘ্নিত হচ্ছে। এ থেকে উত্তরণে বর্তমানে কর্মরত শিক্ষকদের ২০ শতাংশ তথা প্রায় ৭০ হাজার ‘পুল শিক্ষক’ নিয়োগের পরিকল্পনা করছে সরকার। Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

আবার প্রাথমিকে নিয়োগ হচ্ছে পুল শিক্ষক

অনলাইন ডেস্ক,২২ এপ্রিল:

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো শিক্ষক সংকটে ধুকছে। সারাদেশের প্রায় শতভাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকের অভাব রয়েছে। নিয়মিত শিক্ষক সংকট ছাড়াও কর্মরত শিক্ষকরা নানা ছুটিতে থাকায় পাঠদান মারাত্মক বিঘ্নিত হচ্ছে। এ থেকে উত্তরণে বর্তমানে কর্মরত শিক্ষকদের ২০ শতাংশ তথা প্রায় ৭০ হাজার ‘পুল টিচার’ নিয়োগের পরিকল্পনা করছে সরকার।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে উন্নীত করার ঘোষণা দিয়েছেন। বর্তমানে যারা প্রাথমি স্তরের শিক্ষার্থী তাদেরকে গুনগত শিক্ষা দিতে ব্যর্থ হলে এটা অর্জন করা সম্ভব হবে না। প্রশিক্ষণ ছাড়াও শিক্ষকরা নানা ধরনের ছুটিতে থাকায় বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক সংকট থাকে। পাঠদান নিশ্চিত করতে আপদকালীন ২০ শতাংশ রিজার্ভ টিচার নিয়োগ দেওয়ার সিদ্বান্ত নিয়েছি।’

Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

পাঠ্যক্রমে কোন পরিবর্তন আসছে না

নিজস্ব প্রতিবেদক,২২ এপ্রিল: আগামী বছরের জন্য সাড়ে ৩৫ কোটি বিনামূল্যে পাঠ্যবই ছাপবে সরকার। এরই মধ্যে প্রক্রিয়া শুরু করেছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড। অক্টোবরের মধ্যে বই ছাপার কাজ শেষ করবে বলে জানিয়েছে বোর্ড। তবে পাঠ্যক্রমে এবারও কোন পরিবর্তন আসছে না বলে জানিয়েছে বোর্ড। -ইন্ডিপেন্ডেট

২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে বছরের প্রথম দিন উৎসব করে শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে বই তুলে দিয়ে আসছে।

এনসিটিবি’র চেয়ারম্যান নারায়ন চন্দ্র সাহা বলেন, প্রাথমিকের দরপত্র এরই মধ্যে জমা দিয়েছে মুদ্রণ ব্যবসায়ীরা। প্রতিটি বইয়ের দাম ২৩ টাকা দরে দরপত্র জমা দিয়েছেন তারা। কাগজের দামের চাহিদা দিয়েছে টনপ্রতি গড়ে ৮৫ হাজার টাকা করে।

মুদ্রণ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জহুরুল ইসলাম বলেন, এবার কাগজের দাম কম হওয়ায় আমরা সেভাবেই দরপত্র দিয়েছি। এনসিটিবি সেভাবেই বিবেচনা করবে।

গত বছর বিনা বিনামূল্যের পাঠ্য বই ছাপানো নিয়ে মুদ্রণ মালিকদের সাথে দ্বন্দে দুই দফা দরপত্র আহ্বান করতে হয় এনসিটিবিকে। ফলে নির্ধারিত সময়ে বই পাওয়া নিয়ে ছিল শঙ্কা।

এনসিটিবি’র চেয়ারম্যান নারায়ন চন্দ্র সাহা আরো বলেন, এবারো পাঠ্যক্রমে কোন পরিবর্তন আসছে না। তবে ২০২১ সালে পাঠ্যক্রমে পরিবর্তন আনবে এনসিটিবি।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

শ্রীলঙ্কায় গির্জা-হোটেলে সিরিজ বোমা, হামলায় নিহত বেড়ে ২৯০

ডেস্ক,২২ এপ্রিল: রোববার ইষ্টার সানডে উদযাপনের সময় তিনটি গির্জা ও ৩টি পাঁচতারকা হোটেলসহ ৮টি স্থানে সিরিজ আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৯০ জনে। পুলিশ গতকাল দুপুর পর্যন্ত সন্দেহভাজন হিসেবে ২৪ জনকে আটক করার কথা জানিয়েছে।বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ফেসবুক সহ সব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।
দুই দফায় এ হামলা চালানো হয়। পরবর্তীতে সন্ধ্যায় পুরো শ্রীলঙ্কায় জারি করা হয় কারফিউ। সোমবার সকাল ৬টায় তা তুলে নেওয়া হয়েছে। রয়টার্স, বিবিবি, ইয়ন।

শ্রীলঙ্কায় তামিল টাইগারদের বিদ্রোহ দমনের পর গত এক দশকের মধ্যে রোববারের হামলাই ছিলো সবচেয়ে ভয়াবহ। তবে গতকাল পর্যন্ত এ হামলার দায় এখনও কেউ স্বীকার করেনি।

তবে সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, রোববারের আত্মঘাতী সিরিজ বোমা হামলার আগেই বিবৃতির মাধ্যমে সতর্কবার্তা পাঠানো হয়েছিলো। সিএনএন তাদের এক প্রতিবেদনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। গত ১১ এপ্রিল দেশটির পুলিশের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল স্বাক্ষরিত একটি বিবৃতিতে এরকম একটি হামলার পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে যা উপেক্ষা করা হয়েছিল।

ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের তিনটি বড় গির্জা সেইন্ট অ্যান্থনির চার্চ, সেইন্ট সেবাস্টিয়ানের চার্চ আর জিয়ন চার্চে যখন ইস্টার সানডের প্রার্থনায় সমবেত হয়েছিল হাজারো মানুষ তখনই চালানো ওই নৃশংস আত্মঘাতী বোমা হামলা। হামলার অন্য লক্ষ্য ছিল কলম্বোর পাঁচ তারকা হোটেল সাংগ্রি-লা, কিংসবেরি আর সিনামন গ্র্যান্ড পাঁচ তারকা হোটেলের বিদেশি পর্যটকরা।

শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অন্তত ৬টি দেশের ৩৫ জন বিদেশি নাগরিক ওই বোমা হামলায় নিহত হয়েছে। অন্য পাঁচ শতাধিক মানুষ আহত অবস্থায় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

স্বজন হারানোর কথা জানালেন টিউলিপ : ব্রিটিশ লেবার পার্টির এমপি টিউলিপ সিদ্দিক একটি টুইট বার্তায় জানিয়েছেন যে, শ্রীলঙ্কার হামলায় তিনি একজন স্বজন হারিয়েছেন।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বোন ও আওয়ামী লীগ নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিমের মামাতো বোন শেখ রেহানার কন্যা টিউলিপ সিদ্দিক। ওই হামলায় শেখ সেলিমের নাতি মারা গেছেন বলে জানা যাচ্ছে।

আমরা এটা প্রত্যাশা করিনি : কলম্বে^ার কার্ডিনাল আর্চবিশপ ম্যালকম রনজিত বিবিসিকে বলেছেন, ‘এটা আমাদের সবার জন্য কঠিন ও দু:খজনক পরিস্থিতি কারণ এমন ঘটনা ঘটবে তাও আবার ইস্টার সানেডেতে সেটি আমরা কখনোই প্রত্যাশা করিনি’।

‘মানুষ কিছু না জেনেই গির্জায় গিয়েছিলো……. এবং এখন তাদের মধ্যে অনেকেই মৃত’

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

৩০ এপ্রিলের মধ্যে অবসর ও কল্যাণ ফান্ডে বর্ধিত ৪ শতাংশ চাঁদার আদেশ বাতিলের দাবী

নিজস্ব প্রতিবেদক,২২ এপ্রিল: ৩০ এপ্রিলের মধ্যে অবসর ও কল্যাণ ফান্ডে বর্ধিত ৪ শতাংশ চাঁদার আদেশ বাতিল না হলে অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্টের অফিস ঘেরাও ও আমরণ অনশন করার হুমকি দিয়েছেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি। সোমবার (২২ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সংগঠনের সভাপতি অধ্যক্ষ মো: বজলুর রহমান মিয়া বলেন, শিক্ষক নেতাদের সাথে কোনরকম আলোচনা ছাড়াই চাঁদার হার বৃদ্ধি করা হয়। এতে শিক্ষকরা মর্মাহত ও ক্ষুব্ধ। তিনি বলেন, এর আগেও কয়েকবার চাঁদা বৃদ্ধির চেষ্টা করা হয়েছে এবং প্রজ্ঞাপন জারি করেও তা স্থগিত করা হয়।

৩০ এপ্রিল সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল এবং প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীদেরকে স্বারকলিপি দেবেন শিক্ষকরা। একইদিনে সারাদেশের জেলা শহরে মানবন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল এবং জেলা প্রশাসকদের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীদেরকে স্বারকলিপি দেবেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিটিএ উপদেষ্টা মোহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিক, উপদেষ্টা মন্ডলীর অন্যতম সদস্য রঞ্জিত কুমার সাহা, সিনিয়র সহসভাপতি অধ্যক্ষ মো. আবুল কাশেম, সহসভাপতি আলী আজগার হাওলাদার, বেগম নুরুন্নাহার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবু জামিল মোহাম্মদ সেলিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইকবাল হোসেন, অর্থ সম্পাদক মোস্তফা জামান খান, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক নিহার কান্তি বাছাড়, দপ্তর সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, গ্রন্থগার সম্পাদক অশোক কান্তি গুহ, সহদপ্তর সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম, সহ সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফাহমিদা রহমান, সহ মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শাহানা বেগম।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

৩৫ বিসিএস: নন-ক্যাডারে সরকারি মাধ্যমিকে ১০ শিক্ষক নিয়োগ

নিজস্ব প্রতিবেদক,২১এপ্রিলঃ

৩৫ তম বিসিএস থেকে নন-ক্যাডার পদে ১০ জনকে নিয়োগ প্রদান করেছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

আজ ২১ এপ্রিল রবিবার এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ।

 

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, তাদের বেতনস্কেল-২০১৫ অনুসারে ১০ তম গ্রেডে নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, তাদের ২ বছর শিক্ষানবিশ হিসেবে কাজ করতে হবে। শিক্ষানবিশ কালে যদি তিনি চাকরিতে বহাল থাকার অনুপোযোগী বলে বিবেচিত হন তবে তাকে কোন কারণ দর্শানো ছাড়াই অপসারণ করা যাবে।

আগামী ২৯ এপ্রিল তাদেরকে কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে। অন্যথায় নির্ধারিত সময়ে চাকরিতে যোগদান না করলে ধরে নেওয়া হবে তিনি চাকরিতে যোগদানে সম্মত নন। এবং নিয়োগপত্র বাতিল বলে গন্য হবে।

তালিকা:

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

৩৬ হাজার নিয়োগ:জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

ডেস্কঃ  শিগগিরই বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে ৩৬ হাজার শূন্য পদে নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। বার্তা সংস্থা ইউএনবির সঙ্গে এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানিয়েছেন তিনি।

অবিলম্বে খালি পদ পূরণের জন্য মন্ত্রণালয়ের আবেদনপত্র অনুমোদন করা হবে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, আশা করছি, আমরা খুব শিগগির খালি পদগুলো পূরণ করতে সক্ষম হব।

জনপ্রশাসনের গতিশীলতা ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ বলেন, আমরা নিম্ন আয়ের দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশ গড়ার লক্ষ্যে প্রশাসনের গতিশীলতা আনতে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি।

জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রশাসনের দ্বারা মানুষ প্রায়ই হয়রানির শিকার হচ্ছে— এমন অভিযোগের ব্যাপারে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানান, জনসাধারণের প্রশাসন গঠনের জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। জনগণকে দ্রুত সেবা দেওয়ার লক্ষ্য পূরণের জন্য আমরা চেষ্টা করছি।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, আমি দেখেছি যে, সাধারণ মানুষ সরকারি অফিসে যেতে পারেন না। এমনকি তাঁরা সরকারি অফিসে গেলেও যথাযথ সম্মান পান না। এ পদ্ধতিতে বেশ কয়েকটি ত্রুটি রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা জনসাধারণের কল্যাণভিত্তিক প্রশাসন গড়ে তুলতে চাই।

এসব ব্যাপারে সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ। এ ছাড়া এ ব্যাপারে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে তৃণমূল কর্মকর্তাদের কাছে বার্তা পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ফরহাদ।

তিনি বলেন, আমরা মনে করিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছি যে, জনগণ সব ক্ষমতার উৎস এবং প্রশাসনকে সেবা দেওয়ার জন্যই কাজ করতে হবে।

প্রশাসনকে দুর্নীতিমুক্ত করার জন্য গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কে জানতে চাইলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১০ বছর ধরে মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তিনি দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সের নির্দেশ দিয়েছেন। আমি সেই নীতিই অনুসরণ করছি।

বঙ্গবন্ধুর বক্তব্যকে স্মরণ করে ফরহাদ বলেন, যারা সেবা চান, তারা আমাদের ভাইবোনদের মতো, আমাদের আত্মীয়স্বজনদের মতো। তাদের প্রাপ্য সম্মান দিতে হবে। সরকার এই লক্ষ্য পূরণের জন্যই কাজ বলে জানান ফরহাদ। জনসাধারণের সেবা বাড়বে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, আমরা সমৃদ্ধ হতে চাই, পৃথকভাবে না বরং একসঙ্গে। আমরা জনপ্রশাসনকে জনগণের বন্ধুত্বপূর্ণ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। ভবিষ্যতে এটি আন্তর্জাতিক মানের হবে। আমরা যদি দক্ষতার সঙ্গে আমাদের কর্মকর্তাদেরকে গড়ে তুলতে পারি, তাহলে মানুষ তাঁদের সেবা থেকে বঞ্চিত হবে না।

আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে এই লক্ষ্য পূরণ হবে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী। ফরহাদ হোসেন জানান, জনগণের দুর্ভোগ সম্পর্কে জানতে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের প্রশাসনকে সাপ্তাহিক শুনানি রাখার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা মানুষের পছন্দমতো সেবা দেওয়ার চেষ্টা করছি।

ফরহাদ আরো বলেন, সরকার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সুশাসন নিশ্চিত করতে চায়। সুশাসন মানে জনগণের প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করা এবং জনসাধারণের কর্মচারী হিসেবে তাদের মতো করে সেবা দেওয়া।

প্রতিমন্ত্রি ফরহাদ বলেন, জনগণের সেবা করার জন্য আমি আমার যথাসাধ্য চেষ্টা করবো।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ। নানা মহলে প্রতারনা!

ডেস্ক,২১এপ্রিলঃপ্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন দেশের বিভিন্ন জেলায় অবস্থিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে। বিভিন্ন সূত্রে অভিযোগ পাওয়া গেছে যে কোন কোন মহল/ব্যক্তি নানাভাবে প্রতারণার মাধ্যমে সহকারী শিক্ষক পদে আবেদনকারীগণকে প্রতারণামূলক তথ্য দিয়ে অবৈধ পন্থায় চাকরি দেওয়ার প্রস্তাব/আশ্বাস দিয়ে আর্থিক সুবিধা গ্রহণ করছে। সম্প্রতি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সচিব স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে উল্লেখ করা প্রয়োজন যে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে অনলাইনে আবেদন গ্রহণ, আবেদন যাচাই শেষে প্রার্থীদের নিকট অনলাইনে প্রবেশপত্র প্রেরণ, পরীক্ষা কেন্দ্রের সিট বিন্যাস, একাধিক সেট প্রশ্নপত্রের মাধ্যমে পরীক্ষা গ্রহণ ও উত্তরপত্র মূল্যায়ন শেষে স্বল্পতম সময়ের মধ্যে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ সহ বিভিন্ন সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ পূর্বক অত্যন্ত স্বচ্ছতার সাথে শিক্ষক নিয়োগ সম্পন্ন করা হয়ে থাকে।

এ পরিপ্রেক্ষিতে সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, প্রতারণার মাধ্যমে বা অনৈতিক ভাবে অর্থের বিনিময়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে চাকুরী পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। সংশ্লিষ্ট সকলকে এ ধরনের প্রতারণা বা প্রলোভন এর সাথে না জড়ানোর জন্য পরামর্শ দেওয়া হল।

এছাড়াও ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, যদি কোনও ব্যক্তির বিরুদ্ধে এসব প্রতারণার অভিযোগ পাওয়া যায় তাহলে সঙ্গে সঙ্গে নিকটস্থ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারি সঙ্গে যোগাযোগ করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলা হয়েছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

প্রশ্নপত্রে পর্ন তারকার নাম, বরখাস্ত সেই শিক্ষক

নিজস্ব প্রতিবেদক,২০ এ্রপ্রিল:নবম শ্রেণির পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে দুই পর্ন তারকা সানি লিওন ও মিয়া খলিফার নাম ছাপা হওয়ায় রামকৃষ্ণ মিশন স্কুলের শিক্ষক শংকর চক্রবর্তীকে বাধ্যতামূলক কর্মবিরতিতে পাঠানো হয়েছে। সেই সঙ্গে ওই ঘটনার কারণ দর্শানোর জন্য তাকে পাঁচদিনের সময় দিয়েছে বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ।

শনিবার (২০ এপ্রিল) রামকৃষ্ণ মিশন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জয়প্রকাশ সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

জয়প্রকাশ সরকার আরও জানান, রোববার (২১ এপ্রিল) রামকৃষ্ণ মিশনের পরিচালক ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যরা বৈঠকে বসবেন। দায়িত্বে অবহেলায় ওই শিক্ষককে বরখাস্ত করা হবে কি না ওইদিন সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।।

এর আগে ১৭ এপ্রিল, বুধবার রাজধানীর রামকৃষ্ণ মিশন স্কুলের নবম শ্রেণির বাংলা প্রথম পত্রের বহু নির্বাচনি প্রশ্নে জানতে চাওয়া হয়, ‘বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের পিতার নাম কী?’ এই প্রশ্নের সম্ভাব্য যে চারটি উত্তর দেওয়া হয়েছে, তার মধ্যে ছিল পর্ন তারকা মিয়া খালিফার নাম! তবে তার নাম লেখা হয় ‘মিয়া কালিফা’।

এছাড়া বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিখ্যাত কিশোর উপন্যাস ‘আম-আঁটির-ভেঁপু’র (প্রশ্নে আঁটি বানানে চন্দ্রবিন্দু নেই) রচয়িতার সম্ভাব্য নাম হিসেবে রাখা রয়েছে সাবেক পর্ন তারকা অভিনেত্রী সানি লিয়নের নাম! এমন অদ্ভুত প্রশ্নপত্রে বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষা নেয় বিদ্যালয়টি।

প্রশ্নপত্রটির ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকে পোস্ট দিয়েছেন। এবং যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পরে।

এ বিষয়ে শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) রামকৃষ্ণ মিশন স্কুলের প্রধান শিক্ষক জয়প্রকাশ সরকার বলেন, ‘এ ঘটনায় রামকৃষ্ণ মিশন স্কুলের সুনাম প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। আমরা কোনোভাবেই বিষয়টিকে হালকাভাবে দেখছি না।’

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

১৭৪ সহকারী শিক্ষককে ৪ জেলায় বদলি

নিজস্ব প্রতিবেদক,২০ এ্রপ্রিল: দেশের বিভিন্ন উপজেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১৭৪ জন সহকারী শিক্ষককে বদলি করা হয়েছে। গত ৩১ মার্চ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের (ডিপিই) পলিসি ও অপারেশন পরিচালক খান মো. নুরুল আমিন স্বাক্ষরিত আদেশটি শনিবার ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়।

বদলির আদেশে বলা হয়, শূন্য পদের বিপরীতে বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে চট্টগ্রামে ৫২ জন, খুলনায় ২৩ জন, গাজীপুরে ৩৬ জন এবং রংপুরে ৬৩ জন শিক্ষককে এসব জেলার বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদলি করা হলো। ডিপিই মহাপরিচালকের অনুমোদনে এ আদেশ জারি করা হয়েছে। এটি অবিলম্বে কার্যকর করা হবে বলে আদেশে উল্লেখ রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় বদলি হতে প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ডিপিইতে ভিড় করছেন শিক্ষকরা। বদলি প্রত্যাশী, দালালচক্র ও শিক্ষকদের স্বজনরা দূর-দূরান্ত থেকে এসে মহাপরিচালকের রুমে ভিড় জমাচ্ছেন।

অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে শুরু করে মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যদের লিখিত তদবিরের পাহাড় জমেছে অধিদফতরে। সবচেয়ে বেশি তদবির ঢাকা জেলায় শিক্ষক বদলির জন্য।

ইতোমধ্যে ঢাকা জেলায় অর্ধশতেরও বেশি শিক্ষককে বদলি করা হয়েছে। প্রায় ১২ হাজার আবেদন রয়েছে ঢাকায় বদলির জন্য। তবে খুব দ্রুত আরও অর্ধশত শিক্ষককে ঢাকায় বদলি আদেশ জারি করা হবে বলে অধিদফতর থেকে জানা গেছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

দৈনিক শিক্ষাবার্তা পত্রিকায় সাংবাদিক নিয়োগ

শিক্ষকতার পাশাপাশি অবসর সময়ে গণমাধ্যমে কাজ করতে আগ্রহীরা আবেদন করুন।

শিক্ষা বিষয়ক দেশের একমাত্র অনলাইন জাতীয় পত্রিকা দৈনিকশিক্ষাবার্তা  http://shikkhabarta.com সাংবাদিকতায় আকর্ষণীয় ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ দিচ্ছে। যারা শুদ্ধভাবে বাংলা ও ইংরেজি লিখতে, বলতে ও পড়তে পারেন এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় এ্যাকটিভ শুধু তাদেরকেই খুঁজছে দৈনিক শিক্ষাবার্তা পত্রিকা।

এর জন্য ঢাকা সহ প্রতিটি জেলায় জেলা প্রতিনিধি ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি আবশ্যক । শিক্ষাগত যোগ্যতা নুন্যতম স্নাতক। শিক্ষকদের অগ্রাধিকার।

আবেদন পাঠানোর ইমেইল: info@shikkhabarta.com, shikkhabarta@gmail.com

যোগাযোগ : বরাবর, নির্বাহী সম্পাদক. “দৈনিক শিক্ষাবার্তা” ।
মোবাইলঃ ০১৫৫৭৬৩১০৯৭,০১৯২৮১২৩৫৪৬

আবেদনের শেষ তারিখ: ২৭/৪/২০১৯

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

২০২১ সাল থেকে নতুন শিক্ষাক্রমের পাঠ্যবই পাবে শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক,২০ এপ্রিল: পাল্টে যাচ্ছে সিলেবাস ও বই। প্রাথমিক থেকে উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত পরিবর্তন করা হচ্ছে বিভিন্ন বিষয়ের পাঠ্যক্রম। প্রথম ধাপে ২০২১ সালের জানুয়ারিতেই প্রথম ও ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা হাতে পাবে সব বিষয়ের নতুন পাঠ্যক্রমের বই। ধাপে ধাপে সব শ্রেণির ছাত্রছাত্রীই নতুন পাঠ্যক্রমের লেখা পাবে। কমে যাবে বেশ কিছু বিষয়ের পাঠ্যবইয়ের টেক্সট ও কনটেক্সট। নতুন কিছু যুক্ত হবে আবার। শিক্ষাক্রম বদলানোর পুরো কাজটি শেষ হবে আগামী এক বছরে। ১০ এপ্রিল থেকে শিক্ষাক্রম পরিবর্তনের কাজ শুরু করেছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)।

এনসিটিবি চেয়ারম্যান অধ্যাপক নারায়ণ চন্দ্র সাহা বলেন, `শিক্ষাক্রম রিভিউয়ের কাজ চলছে। এরপর শুরু হবে রিভিশন। আগামী বছরের মাঝামাঝিতে নতুন শিক্ষাক্রম চূড়ান্ত করা যাবে। তারপর নতুন শিক্ষাক্রম অনুসারে বই লেখা হবে। ২০২১ সাল থেকে নতুন শিক্ষাক্রমের পাঠ্যবই হাতে পেতে শুরু করবে ছাত্রছাত্রীরা।`

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter