জেলার খবর

ঝিনাইদহে আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে র‌্যালী আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

আহমেদ নাসিম আনসারী,ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, ০৩ ডিসেম্বর: ঝিনাইদহে আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে র‌্যালী আলোচনা সভা,দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরুস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত হয়েছে।দিবসটি উপলক্ষে “বাঁধ ভাঙ্গো,দুয়ার খোল-একীভূত সমাজ গড়ো” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় এইড কমপ্লেস্ক থেকে র‌্যালী বের হয়ে মডার্ণ মোড় হয়ে  এইড কমপ্লেস্ক মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।অনুষ্ঠানে আলোচনা সভা ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ আমিনুর রহমান টুকুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সরকারী কে.সি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো: আব্দুল বাছিত মিঞা।শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন এইড’র চেয়ারপার্সন ও প্রধান নির্বাহী তারিকুল ইসলাম পলাশ।এস.এল.এফ নেদারল্যান্ডস এর সহযোগিতায় এইডের বাস্তবায়নে প্রক্লপ সম্পর্কে অবগত করেন প্রতিবন্ধি শিশু পুনর্বাসন কর্মসূচির উপ-কর্মসূচি সম্বনয়কারী সুরাইয়া পারভীন শিল্পি।বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জুলকার নায়ন,মডার্ন ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খাইরুল বাশার,সরকারী নুরুন্নাহার মহিলা কলেজের অবঃ প্রাপ্ত উপাধ্যাক্ষ এন এম শাহজালাল, হরিণাকুন্ডু সহকারি লালন শাহ ডিগ্রি কলেজের অধ্যাপক এহতেশামুল হক নতুন ।অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপ-পরিচালক (কর্মসূচি) আশাবুল হক, উপ-পরিচালক প্রশাসন আব্দুর রশীদ,প্রতিবন্ধী শিশুর মাতা বুলু রানী,আফরোজা বেগম,শাহন,সুজন,আনোয়ারা,জিনিয়া প্রমূখ। আলোচনা সভা শেষে চিত্রাংক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের প্রতিযোগিদের মধ্যে প্রধান অতিথি ও অতিথিগন প্রতিবন্ধি শিশুদের মাঝে পুরুস্কার বিতরন করেন।আলোচনা ও অনুষ্ঠান সভা পরিচালনা করেন শফিক আকরাম। এস.এল.এফ নেদারল্যান্ডস এর সহযোগিতায় এইডের বাস্তবায়নে অনুষ্ঠানের সার্বিক ভাবে সহযোগিতা করেন এইডের ড্রিম প্রকল্পের টিডিও চন্দন বসু মুক্ত,প্রতিবন্ধি শিশু পুনর্বাসন কর্মসূচির সহকারী প্রগ্রাম অফিসার ফাতেমা জাহান রুমা,এইড’র প্রগ্রাম অফিসার মাহামুদ আলী,আবু বকর,মাঠ সংগঠক নুরুল ইসলাম,মধু মঙ্গল বাকচি,রুমাইয়া ইয়াসমিন রুনা,সহকর্মসুচি সমন্বয়কারী তারিক ।অনুষ্ঠানে প্রতিবন্ধি শিশুদের অভিভাবক,বিভিন্ন এনজিও কর্মী, স্কুল কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ,সাংবাদিক,জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার-মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ঝিনাইদহে বিজিবি মোতায়েন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, ০২ ডিসেম্বর:ঝিনাইদহের উত্তেজনাপূর্ণ অবস্থায় ও আইনশৃঙ্খলার অবনতির আশঙ্কায় জেলা শহরে ৩ প¬াটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।
এদিকে জেলা প্রশাসক শফিকুল ইসলাম জানান, আইনশৃঙ্খলার অবনতির আশঙ্কায় জেলা শহরে ৩ প¬াটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ঝিনাইদহে বিজিবি মোতায়েন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, ০৫অক্টোবর:ঝিনাইদহের উত্তেজনাপূর্ণ অবস্থায় ও আইনশৃঙ্খলার অবনতির আশঙ্কায় জেলা শহরে ৩ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।
এদিকে জেলা প্রশাসক শফিকুল ইসলাম জানান, আইনশৃঙ্খলার অবনতির আশঙ্কায় জেলা শহরে ৩ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

দক্ষিণাঞ্চলে একের পর এক চেয়ারম্যান খুন,টার্গেট জনপ্রতিনিধিরা

ঝিনাইদহ, ২ নভেম্বর ২০১৩:গত দেড় যুগে এ অঞ্চলের দায়িত্বপ্রাপ্ত অর্ধশতাধিক নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ইউপি চেয়ারম্যানরা সন্ত্রাসীদের টার্গেটে পরিণত হয়েছেন। একের পর এক হত্যায় এ অঞ্চলের ইউপি চেয়ারম্যানরা চরম আতঙ্কে ভুগছেন। ঝিনাইদহসহ দেশের দক্ষিণাঞ্চলে একের পর এক খুন হচ্ছেন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানরা।
গত সপ্তাহে ঝিনাইদহ ও যশোরে খুন হয়েছেন ২ জন চেয়ারম্যান।
111
গত ২৮ অক্টোবর সোমবার দুপুরে ঝিনাইদহের হরিনাকু-ু উপজেলার দৌলতপুর ইউপি চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা আবুল হোসেনকে ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের সামনে দখলপুর বাজারে শত শত লোকের সামনে বোমা মেরে ও জবাই করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এর আগে গত ২৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রকাশ্যে যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলার সিংহঝুলি ইউপি চেয়ারম্যান যুবলীগ নেতা জিল্লুর রহমান মিন্টুকে সন্ত্রাসীরা ইউনিয়ন ভবনের সামনে গুলি করে হত্যা করে। নিহত ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান মিন্টু ’৯০-এর দশকে যশোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন।

তবে গ্রাম্য কোন্দল, স্থানীয় রাজনৈতিক বিরোধ, এলাকায় প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা, ক্যাইজা, হাটবাজার ও ঘাট ইজারা গ্রহণ, চিংড়ি ঘের দখল, চোরাচালান এবং চরমপন্থী দলের সঙ্গে সম্পর্ক ও বিরোধে জড়িয়ে পড়া এসব হত্যাকা-ের অন্যতম কারণ বলে জানা গেছে।

গত ১৬ জুন ঝিনাইদহ শহরের হামদহ আল-ফালাহ্ হাসপাতালের সামনে সন্ত্রাসীরা ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নলডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা রুহুল আমিনকে গুলি ও বোমা মেরে হত্যা করে।

গত ১৮ মে সকালে খুলনা জেলার রূপসা উপজেলার আমদাবাদ স্কুলের সামনে বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট সদর উপজেলা ইউপি চেয়ারম্যান ও স্থানীয় উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক খান জাহিদ হাসান এবং তার মোটরসাইকেল চালক মুন্না শিকদারকে গুলি করে হত্যা করে।

এর দুই মাস আগে ২৪ মার্চ বিকালে যশোর জেলার শার্শা উপজেলার পুটখালি ইউপি চেয়ারম্যান ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রাজ্জাককে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করা হয়।

এর তিনদিন আগে ২১ মার্চ রাতে সন্ত্রাসীরা মেহেরপুর জেলার মুজিবনগর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ডা. হামিদুর রহমান হেলালকে কুপিয়ে ও বোমা মেরে হত্যা করে। পিতাকে বাঁচাতে গিয়ে তার কলেজ পড়ুয়া মেয়ে সেতুও (১৭) সন্ত্রাসীদের বোমা হামলায় নিহত হন।

এর আগে গত বছরের ২৮ আগস্ট দুর্বৃত্তরা প্রকাশ্যে দিবালোকে কুষ্টিয়া জেলার খোকসা উপজেলার আমবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম এবং তার দুই সঙ্গী আফজাল ও ভুট্টোকে পার্শ্ববর্তী কুমারখালী উপজেলার শিলাইদহের কাছে পদ্মানদীর মাঝ বরাবর খেয়া নৌকার ওপর দেড় শতাধিক যাত্রীর সামনে গুলি করে হত্যা করে।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে খুনিরা থাকছে ধরা-ছোঁয়ার বাইরে।
চরম নিরাপত্তাহীনতায় অনেক ইউপি চেয়ারম্যান জীবন বাঁচাতে জেলা শহরে আশ্রয় নিয়েছেন। ফলে এলাকার উন্নয়ন কাজ মারাত্মকভাবে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

মাঠ পর্যায়ের উন্নয়ন কাজের মূল দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ইউপি চেয়ারম্যান হত্যাকা-ের কারণ অনুসন্ধানে জানা যায়,  গ্রাম্য কোন্দল, এলাকায় প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা, স্থানীয় রাজনৈতিক বিরোধ, হাট-বাজার ও ঘাট ইজারা গ্রহণ, চিংড়ি ঘের দখল, চোরাচালান এবং চরমপন্থী দলের সঙ্গে সম্পর্ক ও বিরোধে জড়িয়ে পড়াই এসব হত্যাকা-ের কারণ। কোনো কোনো ক্ষেত্রে পরাজিত প্রার্থী কিংবা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক ব্যক্তিরা নিজেদের অবস্থানকে পাকাপোক্ত করার জন্যও ক্ষমতাসীন চেয়ারম্যানকে হত্যা করে।
অবিলম্বে এ অঞ্চলে যৌথবাহিনীর অভিযানের দাবি জানিয়েছেন তারা।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

২ সন্তানের জননীর লাশ উদ্ধার

ঝিনাইদহ, ০১নভেম্বরঃ  আজ সকালে মহেশপুর পুলিশ উপজেলার সলেমানপুর গ্রাম থেকে এক মহিলার ফাস লাগানো লাশ উদ্ধার করেছে।
মহেশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) আকরাম হোসেন জানান, ২ সন্তানের জননী রোকেয়া বেগম (৩৮) মহেশপুর উপজেলার সলেমানপুর গ্রামের মৃত ইব্রাহীম হোসেনের স্ত্রী।
প্রাথমিকভাবে তার শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়নি। তবে তার গলায় ফাস লাগানোর চিহ্ন রয়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

টি২০ বিশ্বকাপের ভেন্যু থেকে বাদ পড়ল কক্সবাজার। প্রতিবাদে মানববন্ধন

অসীম দাশ,কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি:২০১৪ সালের টি-২০ বিশ্বকাপের সম্ভাব্য ভেন্যু তালিকায় কক্সবাজার স্টেডিয়ামকে রাখা হলেও চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়েছে স্টেডিয়ামটি।তবে উন্নয়ন কাজ নির্ধারিত সময়ে শেষ হওয়া নিয়ে শঙ্কা থাকলেও চূড়ান্ত ভেন্যু তালিকায় টিকে গেছে সিলেট বিভাগীয় স্টেডিয়াম। রবিবার আইসিসির তরফ থেকে এমনটিই জানানো হয়েছে।
আইসিসি’র তরফ থেকে জানানো হয়, স্টেডিয়াম উন্নয়ন কাজের অগ্রগতি সন্তোষজনক না হওয়ায় আগামী টি-২০ বিশ্বকাপে ম্যাচ পাচ্ছে না কক্সবাজার। তাই মূল বিশ্বকাপের কয়েকটি গ্রুপ ম্যাচের পাশাপাশি নারী টি-টুয়েন্টির প্রথম পর্বের ম্যাচগুলোও আয়োজনের সুযোগ পাচ্ছে সিলেট বিভাগীয় স্টেডিয়াম।
আইসিসির আগের বেঁধে দেয়া সময়সীমা অনুযায়ী গত ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সিলেট ও কক্সবাজার স্টেডিয়ামের উন্নয়ন কাজ শেষ করার কথা ছিল।তবে বিসিবির অনুরোধে আইসিসি আরোও ২ মাস সময় বাড়িয়ে আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে স্টেডিয়ামগুলো পুরোপুরি প্রস্তুুত করতে বলেছিল। এদিকে, এ বর্ধিত সময়ের মধ্যেও কক্সবাজার স্টেডিয়ামের উন্নয়ন কাজ শেষ হওয়ার সম্ভবনা কম থাকায় চূড়ান্ত ভেন্যু তালিকা থেকে বাদ দেয়া হল কক্সবাজার স্টেডিয়ামটিকে।

এদিকে এ নিয়ে আজ কক্সবাজার জেলার সচেতন মহল জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনের এক মানববন্ধন অনুষ্টিত করে। এতে স্থানীয় সাংসদ, রাজনৈতি ব্যক্তি, ক্রিড়া সংগঠন, পেশাজীবী, আইনজীবী, শিক্ষক-ছাত্র, সাংবাদিক ও বিভিন্ন স্তরের জনসাধারন অংশ গ্রহণ করে সংহতি প্রকাশ করেন।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় প্রবাসীর স্ত্রী সন্তানসহ নিখোঁজ

ঝিনাইদাহ প্রতিনিধি:Jhenidah-Pic-(7) ১০ মাসের শিশু সন্তানসহ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় কুয়েত প্রবাসীর স্ত্রী নিখোঁজের ঘটনা ঘটেছে। নিখোঁজ মিতুর পরিবার ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন অনেক খোঁজাখুজির পর তাকে না পেয়ে অপহরণ করা হয়েছে বলে দাবি করেছে। যশোরে পিতার বাড়ি থেকে ঝিনাইদহের শৈলকুপায় শ্বশুরবাড়িতে ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে।

পারিবারিকসূত্রে জানা যায়, শৈলকুপা উপজেলার কবিরপুর নতুন ব্রিজ সংলগ্ন আয়ুব হোসেনের ছেলে নীরব হোসেনের (২৬) সাথে যশোর জেলার কোতয়ালী থানার কৃষ্ণবাটী পুলেরহাট এলাকার শাহাজ উদ্দীন ব্যাপারির মেয়ে কানিজ ফাতেমা মিতুর (২০) বিয়ে হয়। দু বছরের সাংসরিক জীবনে তাদের তামিন হোসেন অরন্য নামে ১০ মাস বয়সী একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার পিতা বাড়ি যশোর থেকে সন্তানসহ শ্বশুরবাড়ি শৈলকুপার উদ্দেশ্যে রওনা দেয় নীরবের স্ত্রী মিতু। কিন্তু সে আর শ্বশুরবাড়িতে ফিরে আসেনি। ওই দিন থেকেই তার মোবাইলফোন বন্ধ পাওয়া যায়। শিশুসন্তানসহ নিখোঁজ স্ত্রী মিতুর কাছে বেশ কিছু সোনার গয়না, নগদ টাকা ও মূল্যবান জিনিসপত্র ছিলো বলে তার পরিবার জানিয়েছে। এ বিষয়ে মিতুর মা মোমেনা খাতুন যশোর কোতয়ালী মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মিতু প্রায়ই গোপনে যশোরের এক ব্যক্তির সাথে ফোনে দীর্ঘ সময় আলাপ করতো। মিতুর সাথে অজ্ঞাত ওই ব্যক্তির পরকীয়া প্রেম থাকতে পারে বলে আশপাশের লোকজন জানিয়েছে। মিতু নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই অজ্ঞাত ওই ব্যক্তির ফোন বন্ধ আছে। যে কারণে মিতু পরকীয়ার টানে পাড়ি জমাতে পারে বলে ধারণা করছে তারা।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে মাহতাব উদ্দিন ডিগ্রি কলেজ গোপনে শিক্ষক নিয়োগের চেষ্টা,

শিক্ষার্থীদের বাঁধায় পরীক্ষা পণ্ড, স্থানীয় সাংসদের বিরুদ্ধে কোটি টাকার বাণিজ্যের অভিযোগ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, ২১ অক্টোবর: কোনো আবেদনকারীকে পরীক্ষার প্রবেশপত্র দেওয়া হয়নি। তাঁদের ডেকে আনা হয়েছে মুঠোফোনে ফোন করে। ক্যাম্পাসের ফটক বন্ধ করে চলছিল নিয়োগ পরীক্ষার আয়োজন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন না শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কোনো প্রতিনিধি। গত রোববার এভাবে অতি গোপনে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার মাহতাব উদ্দিন ডিগ্রি কলেজের ১৬ জন শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের বাঁধার মুখে শেষ পর্যন্ত পণ্ড হয়ে গেছে ওই আয়োজন। শিক্ষার্থীরা ভাঙচুর করেছেন কলেজের অধ্যক্ষের কক্ষ।
কলেজের একাধিক শিক্ষক অভিযোগ করেছেন, অধ্যক্ষ মাহবুবুর রহমান ও কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি আওয়ামী লীগের স্থানীয় সাংসদ আবদুল মান্নান মিলে সরকারের শেষ সময়ে কোটি টাকার বাণিজ্যের জন্য এই নিয়োগ চূড়ান্ত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। তাঁরা অতি গোপনে নিয়োগ প্রক্রিয়ার সব কাজ করে যাচ্ছেন। প্রতিষ্ঠানের অন্য শিক্ষকেরাও এ বিষয়ে কিছু জানতে পারছেন না।
কলেজ সূত্রে জানা গেছে, মাহতাব উদ্দিন ডিগ্রি কলেজে অনার্স কোর্স চালু করা হয়েছে। ইতিমধ্যে তিনটি বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগ হয়েছে এবং আরও চারটি বিষয় চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এগুলো হলো- রাষ্ট্রবিজ্ঞান, ইতিহাস, হিসাববিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনা বিভাগ। এই চারটি বিষয়ে চারজন করে মোট ১৬ জন শিক্ষক নিয়োগের জন্য গত বছরের শেষ দিকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। পরে চলতি বছরের জুন মাসে ওই বিজ্ঞপ্তি পুনরায় প্রকাশ করা হয়। মোট ৫৪ জন প্রার্থী আবেদনপত্র জমা দেন।
কলেজের শিক্ষকেরা জানান, কলেজ পরিচালনা কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে। এই অবস্থায় সে সময় চলতি বছরের ৫ মার্চ জনৈক ইসমাইল হোসেন বাদী হয়ে কলেজের পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাংসদ আবদুল মান্নান সভাপতি পদের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আদালতে একটি মামলা করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত সভাপতির দায়িত্বের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। এই অবস্থায় পদাধিকারবলে নিয়োগ কমিটির সভাপতি হয়ে সাংসদ নিয়োগ প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত হতে পারেন না।
এদিকে গোপনে পরীক্ষা নেওয়া, নিয়োগ-বাণিজ্য ও অদক্ষ ব্যক্তিদের টাকার বিনিময়ে নিয়োগ দেওয়ার চেষ্টা হচ্ছে এমন খবর পেয়ে কলেজের একাধিক শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও এলাকার সুধীজন দুপুরে কলেজে হাজির হন। তাঁরা নিয়োগ পরীক্ষা বন্ধের দাবি জানান। পরে কলেজ কর্তৃপক্ষ নিয়োগ পরীক্ষা বন্ধ করে দেয়।
কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল আজিম বলেন, টাকার জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো শেষ করে দেওয়া হচ্ছে। এটা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।
তবে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অনিয়ম ও বাণিজ্যের অভিযোগ অস্বীকার করে অধ্যক্ষ মাহবুবুর রহমান দাবি করেন, সব নিয়ম মেনেই নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে। ডিজির প্রতিনিধির সঙ্গে তাঁরা যোগাযোগ করেছিলেন, কিন্তু তিনি আসেননি।
সাংসদ আবদুল মান্নানও নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তবে তিনি স্বীকার করেন, তাঁর উপস্থিতিতেই নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল এবং সেখানে শিক্ষা অধিদপ্তরের ডিজির কোনো প্রতিনিধি ছিলেন না। তিনি বলেন, ডিজির প্রতিনিধির উপস্থিতি ছাড়া নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়া হলে তার কোনো বৈধতা থাকে না। এ ক্ষেত্রেও সেটাই হবে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

চকরিয়ায় বিএনপি নেতা মনজুর আলমকে কুপিয়ে হত্যা। ১ মহিলা আটক

অসীম দাশ,কক্সবাজার প্রতিনিধি:কক্সবাজার জেলার চকরিয়ায় মনজুর আলম (৪২) নামের এক বিএনপি নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় গুরুতর জখম হয়েছে আরো দুই বিএনপি নেতা। গতকাল রোববার দুপুরে উপজেলার বেতুয়াবাজার ব্রীজ এলাকায় ঘটেছে এ ঘটনা। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে জনতা হোসনে আরা বেগম নামের এক মহিলাকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে। নিহত মনজুর আলম কৈয়ারবিল ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের দিপকুল পাড়া গ্রামের দলিলুর রহমানের ছেলে। সে ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।
এদিকে বিএনপি নেতাকে হত্যায় জড়িত সন্ত্রাসীদের ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন উপজেলা ও পৌরসভা বিএনপি।
এলাকাবাসি জানান, ওইদিন দুপুরে সাংগঠনিক সফর শেষ করে ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক একে জিল্লুর রহমান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক ওসমান গনি ও ৯নং ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মনজুর আলমসহ নেতা-কর্মীরা ইউনিয়নের খিলছাদক হয়ে বেতুয়াবাজার দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা তাদের গতিরোধ করেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্থানীয় মৃত আহমদ কবিরের ছেলে জসিম উদ্দিন, জমির উদ্দিন, ও মিলন এর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা ওই সময় ধারালো অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা করে বিএনপি নেতা মনজুর আলমের উপর। এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ঘটনাস্থলে হত্যা করে মনজুর আলমকে। ঘটনার সময় তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে অপর বিএনপি নেতা জিল্লুর রহমান (৪৪) ওসমান গনি (৪০) গুরুতর আহত হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদেরকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, ঘটনার পর উপস্থিত লোকজন ঘটনাস্থল থেকে আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালে নেয়ার পথে বিএনপি নেতা মনজুর আলম মারা যায়। আহত অপর দুইজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
চকরিয়া থানার ওসি রনজিত কুমার বড়ুয়া বলেন, ঘটনার সাথে জড়িত সন্ত্রাসীদের সহযোগি হোসনে আরা বেগম নামের এক মহিলাকে আটক করা হয়েছে। অপরাপর সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযানে রয়েছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে তিন ছাত্রলীগ নেতা বহিস্কার

ঝিনাইদহ, ১৯ অক্টোবর: কোটচাঁদপুর ছাত্রলীগের তিন নেতাকে সমাজ বিরোধী, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও মাদক সেবনে লিপ্ত থাকার অভিযোগে বহিস্কার করা হয়েছে।

কোটচাঁদপুর পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল আরমান ও সাধারন সম্পাদক আব্দুল্লা আল মামুন সাক্ষরীত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, জরুরী সভা ডেকে কোটচাঁদপুর পৌর সভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারন সম্পাদক সজীব হাসান বাবু, ৭ নম্বর ওয়ার্ডের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুজন আহম্মেদ ও সাংগাঠনিক সম্পাদক মামুন হোসেন বহিস্কার করা হয়েছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

শৈলকুপায় আওয়ামীলীগ-বিএনপি সংঘর্ষে আহত-১০

ঝিনাইদহ, ১৯অক্টোবর: শনিবার সকাল ৯ টারদিকে আধিপত্ত বিস্তার নিয়েশৈলকুপা উপজেলার চাঁদপুর গ্রামে আওয়ামীলীগ-বিএনপি সংঘর্ষের কমপ ক্ষে ১০ কর্মী সমর্থক আহত হয়েছে।
স্থানীয়রা জানিয়েছে,একটি মেয়েলী ঘটনা কে কেন্দ্র করে ২দিন আগে বিএনপির পাঞ্জু গ্রুপ আওয়ামীলীগ সমর্থিত মিন্টু নামে এক ট্রাক ড্রাইভার কে মারপিট করে।
শৈলকুপা থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, সংঘর্ষ পাতামোল্লা, সিদ্দিক মোল্লা, আজিজ বিশ্বাস, গোলাম কিবরিয়া, আব্দুর রশিদ, আক্তার হোসেন, ও জিহাদ আলী কে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।দুটি দোকান কয়েকটি বাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

তেভাগা আন্দোলনের নেত্রী ইলা মিত্রের জন্মদিন আজ

আহমেদ নাসিম আনসারী, ঝিনাইদহ থেকে, ১৮অক্টোবর: ১৯২৫ সালের ১৮ অক্টোবর কলকাতায় জন্ম গ্রহণকরেন তেভাগা আন্দোলনের নেত্রী ইলা মিত্র। বাংলার ১৯টি জেলায় গড়ে ওঠে তেভাগা আন্দোলন। তিনি ক্রমশঃ হয়ে উঠেন কৃষক, সাঁওতালসহ আদিবাসীদের রাণী মা। ইলা মিত্রের বাবা নগেন্দ্রনাথ সেন ছিলেন অবিভক্ত বাংলার ডেপুটি একাউনটেন্ট জেনারেল, মা মনোরমা সেন।
বিবাহ সূত্রে ১৯৪৫ সালে তিনি চলে আসেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের রামচন্দ্রপুরে।
১৯৪৬-৪৭ সালে ফসলের দুই-তৃতীয়াংশের উপর কৃষকের অধিকার প্রতিষ্ঠার দাবিতে তেভাগার দাবিতে রাজশাহী জেলার, বিশেষ ভাবে নাচোলের কৃষকদের সংগঠিত করার ক্ষেত্রে অবিস্মরণীয় ভূমিকা রাখেন ইলা মিত্র। বিদ্রোহ ঘটে নাচোলে। ভূমিকা রাখেন, জমিদারি উচ্ছেদ, জোতদারী, শোষণ ও খাদ্য আন্দোলনে । ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার বাগুটিয়া গ্রামে রয়েছে ইলা মিত্রের একটি দ্বিতল পৈতৃক ভিটাবাড়ি ও সম্পদ-সম্পত্তি । ইলামিত্রের জন্মদিন উপলক্ষে শৈলকুপায় ইলামিত্র স্মৃতি সংরক্ষণ পরিষদ আলোচনা সভাসহ নিয়েছে নানা কর্মসূচি।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ভুল অপারেশনে প্রসূতির মৃত্যু

ঝিনাইদহ , ১৮.অক্টোবর: ভুল অপারেশনে তহুরা খাতুন (৩২) নামে এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। তবে সদ্যপ্রসূত পুত্র সন্তানটি বেঁচে আছে। ঝিনাইদহের শৈলকুপায় কবিরপুর আয়েশা প্রাইভেট হাসপাতালে বৃহস্পতিবার রাত ১১:৩০ টার অপারেশনের পর পরই প্রসূতি মারা যায়। নিহত তহুরা বারইপাড়া গ্রামের আবু সাইদ বিশ্বাসের স্ত্রী।
নিহতের স্বজনদের অভিযোগ ক্লিনিকটিতে অজ্ঞান করার (এনেসথেশিয়া) ডাক্তার ছিল না।
স্থানীয়রা জানায়, ক্লিনিকটিতে পরিবেশ অধিদপ্তরের কোনো ছাড়পত্র নেই। এসি কক্ষ নেই, পর্যাপ্ত অক্সিজেন সিলিন্ডার নেই। এখানে ভুল চিকিৎসায় প্রায় রোগী মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।
আয়েশা প্রাইভেট হাসপাতালের মালিক সাইদুল ইসলাম জানান, পাশ্ববর্তী কুষ্টিয়া জেলার খোকসা উপজেরা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের ডাক্তার রাকিবুদ্দিন রকি তহুরা খাতুনকে সিজার করে। তবে রোগীর প্রেসার পর্যাপ্ত না থাকার কারণে মারা গিয়েছে বলে জানান।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

মহেশখালীতে প্রতিপক্ষের গুলিতে এক যুবক নিহত

কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি,১৮ অক্টোবর :উপকুলীয় দ্বীপ মহেশখালীতে প্রতিপক্ষের গুলিতে এক যুবক নিহত হয়েছে। জানা যায় বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ সুত্রে জানা যায় পাহাড়ে সৃজিত তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে এই ঘটনা ঘটেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান উপজেলার ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের তিন রাস্তার মোড় এলাকায় রাত ৮ টার দিকে একই এলাকার আব্দুল খালেকের নেতৃত্বে ১০-১২ জনের এক দল বন্দুকদারী লোক পেছন থেকে গুলি করে জাফর আলম(৩২) কে খুন করে।
নিহত জাফর আলম ঐ এলাকার সৈয়দুর রহমানের পুত্র। ঘটনার কারণ হিসেবে স্থানীয় আরমান শিক্ষাবার্তা কে জানায় স্থানীয় আবু হেনা ও মোহাম্মদ হোসেনের দুই ছেলে নিহত যুবক জাফর আলমের চাচা গোলাম কবির পাহাড়ি পানা বরজে শ্রমিক হিসেবে কাজ করত। কোনো একটা ভুল বোঝাবুঝির কারণে ঐ শ্রমিকদের সাথে গোলাম কবিরের মধ্যে সামান্য ঝগড়া লেগে যায়।
এজন্য আবু হেনা ও মোহাম্মদ হোসেন দায়ী করে গোলাম কবির এর ভাইপো নিহত জাফর আলমকে। এই বিরোধের জের ধরে এলাকার সন্ত্রাসী আব্দুল খালেকের নেতৃত্বে ১০-১২ জন লোক তাকে পেছন থেকে একাধিক রাউন্ড গুলি করলে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে আসলে সেখানের কর্তব্যর্রত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।
এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর হোসন বলেন খুনের ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত দের ধরতে অভিযান চলছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ঝিনাইদহ ১০০ লিটার মদ সহ দুই জনকে আটক

ঝিনাইদহ , ১৭.অক্টোবর: কালীগঞ্জ থেকে ১০০ লিটার মদ সহ দুই জনকে আটক করেছে র‌্যাব।
আটককৃতরা হলেন, কালীগঞ্জ পৌরসভাধীন আড়পাড়া গ্রামের মৃত নাসির উদ্দিনের মেয়ে আসমা বেগম, ও কোটচাঁদপুর পৌরসভাধীন কলেজ স্ট্যান্ড এলাকার মৃত আফিল মুন্সির ছেলে আমিনুল ইসলাম।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free