আন্তর্জাতিক

দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসছে বিজেপি!

ডেস্ক,২৩মে :
ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর খবর অনুযায়ী বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট তিন শতাধিক আসনে এগিয়ে রয়েছে। মহারাষ্ট্র, কর্নাটক, উত্তর প্রদেশ, বিহার, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, দিল্লি আর মুম্বাইয়ে এখন পর্যন্ত গণনা থেকে ধারণা করা হচ্ছে দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসছে বিজেপি।


সাত দফায় অনুষ্ঠিত লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে ১৯ মে। ২৩ মে ঘোষণা করা হবে ফল। ১৪টি বুথফেরত জরিপের মধ্যে ১২টি-ই আভাস দিয়েছে আবারও বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গড়তে চলেছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট। জরিপগুলোতে ওই জোটের ২৮২ থেকে ৩৬৫টি আসন পাওয়ার আভাস মিলেছে। ‌তবে বুথফেরত জরিপকে বিজেপিপন্থী স্টাবলিশমেন্টের কারসাজি হিসেবে দেখছে বিরোধীরা। তাদের কেউ কেউ দাবি করেছে, ইভিএম কারসাজির মধ্য দিয়ে ফল বদলে দিতে পারে ক্ষমতাসীনরা। সেই ফল জায়েজ করতে এই জরিপকে উদাহরণ হিসেবে হাজির করতে পারে তারা। এমন সংশয়ের মধ্যে বৃহস্পতিবার (২৩ মে) কড়া নিরাপত্তায় লোকসভার পাঁচ শতাধিক আসনে ভোটগণনা চলমান রয়েছে।
Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

কথা বেরোয়নি মোদির মুখে, সংবাদ সম্মেলনের নিউজ হলো সাতটি ছবি

ডেস্ক,২০মে:

ভারতে এখন চলছে জাতীয় নির্বাচন। আর কয়দিন বাদেই দেশটিতে নতুন সরকার দায়িত্ব গ্রহণ করবে। এর আগে অর্থ্যাৎ চলতি মেয়াদের পাঁচ বছর প্রাধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন নরেন্দ্র মোদি। তবে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর পাঁচ বছরের মধ্যে একবারও সাংবাদিকদের মুখোমুখি হননি তিনি!


তবে লোকসভা নির্বাচনের শেষপর্যায়ে এসে অবশেষে সাংবাদিকদের সামনে উপস্থিত হয়েছিলেন তিনি। তবে তাতে সাংবাদিকদের আশা পূরণ হয়নি। কারণ লিখিত বক্তব্য দেয়ার পর প্রশ্নোত্তর পর্বে মুখ বুজে বসে ছিলেন। তাদের কোনো প্রশ্নের জবাবই দেননি নরেন্দ্র মোদি।
Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

হোমওয়ার্ক না করায় ছাত্রীকে ১৬৮ চড়!

ডেস্ক,১৮ মে:

হোমওয়ার্ক না করায় এক ছাত্রীকে ১৬৮ চড়ের শাস্তি দিয়েছেন এক শিক্ষক। ছাত্রীর সহপাঠীদের দিয়েই তাকে ওই ১৬৮ চড় মারানো হয়েছে। এমনই এক ঘটনা ঘটেছে ভারতের ভোপালের জাবুয়া সরকারি স্কুলে।


ক্লাস সিক্সের ওই ছাত্রীকে হোমওয়ার্ক দিয়েছিলেন বিজ্ঞানের শিক্ষক মনোজ কুমার। কিন্তু ছাত্রী তা শেষ করতে না পারায় তাকে তার সহপাঠীদের হাতেই ১৬৮টি চড় খেতে হয়।

গত ১১ থেকে ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত টানা ছয়দিন সহপাঠীদের দিয়ে ওই ছাত্রীকে চড় দেওয়ান শিক্ষক মনোজ কুমার। এ ঘটনার পাঁচ মাস পর গত সোমবার তাকে গ্রেপ্তার করেছে ভোপালের পুলিশ।

ওই ছাত্রীর বাবা জানান, শিক্ষকের আদেশেই ১৪ জন সহপাঠী ৬ দিন ধরে তার মেয়েকে ১৬৮টি চড় দেয়। এ কারণে তার মেয়ে মানসিকভাবেও অসুস্থ হয়ে পড়েন।

গত ২২ জানুয়ারি মনোজ কুমারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন ওই ছাত্রীর বাবা। তারপর থেকে পলাতক ছিলেন মনোজ কুমার। কিন্তু গত সোমবার তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

পরীক্ষায় ভালো ফলাফলের পুরস্কার ‘১দিনের কমিশনার’

ডেস্ক: আইএসসি পরীক্ষায় ভারতের মধ্যে চতুর্থ হয়েছেন রিচা সিং। তার এ ভালো ফলাফলের পুরস্কার হিসেবে একদিনের জন্য ডেপুটি কমিশনারের (ডিসি) চেয়ারে বসার সুযোগ করে দিয়েছে কলকাতা পুলিশ। Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

দিনে শিক্ষক রাতে চোর, ইংরেজিতে পারদর্শী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ৩০ এপ্রিল ২০১৯:

দিনে ইংরেজির শিক্ষক। রাতে মোবাইল চোর। এমবিএ ডিগ্রিধারী শিক্ষক কাম চোরকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারের পর প্রথমে তার তুখোড় ইংরেজি শুনে কিছুটা ভড়কে যায় পুলিশও। কিন্তু তার এই বিশেষ দক্ষতার আড়ালে যে লুকিয়ে আছে অন্য চরিত্র তা বেরিয়ে আসে জিজ্ঞাসাবাদে। তার বাড়ি থেকে ৭২টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে।

এমবিএ ডিগ্রি থাকা সত্ত্বেও ভালো ব্তেনের চাকরি পায়নি ভারতের নয়াদিল্লির বাসিন্দা মোহাম্মদ সাজিদ নামের এই যুবক। বাধ্য হয়ে বিলাসবহুল জীবন-যাপনের স্বপ্নে বিভোর হয়ে অপরাধ জগতে নাম লেখান তিনি। দিনে পাড়ার ছেলে-মেয়েদের ইংরেজি প্রাইভেট পড়াতেন তিনি। আর রাতের আঁধার নামলেই শুরু হতো চুরি। Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

স্কুল শিক্ষক ও প্রিন্সিপাল গ্রেপ্তার-শ্রীলঙ্কা ট্র্যাজেডি

অনলাইন   ডেস্ক, ২৮ এপ্রিল, ২০১৯:

গত রবিবার ইষ্টার সানডের দিন শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ হামলা চালানো হয়। ওই হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১০৬ সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে ৷ গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে এক স্কুল শিক্ষক ও একজন প্রিন্সিপালও রয়েছেন বলে জানা গেছে।

শ্রীলঙ্কায় জঙ্গিদের গোপন আস্তানায় সেনা ও পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়েছে। গতকাল এ ধরনের এক অভিযানে নয় নারী-শিশুসহ ১৫ জন নিহত হয়েছে।

স্থানীয় কোনও ব্যক্তি ইষ্টার সানডের হামলার সঙ্গে জড়িত ছিল কিনা সেটি তদন্ত করে দেখছে গোয়েন্দা সংস্থা।

এদিকে, সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, একজন তামিল মাধ্যম স্কুলের শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ৫০টি অবৈধ সিম কার্ড এবং আরও বেশ কিছু অবৈধ জিনিসসহ আটক করা হয়েছে ওই শিক্ষককে। এছাড়া গ্রেপ্তারে তালিকায় রয়েছেন একজন প্রিন্সিপাল ৷ একজন স্বনামধন্য চিকিৎসককেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

শ্রীলঙ্কায় গির্জা-হোটেলে সিরিজ বোমা, হামলায় নিহত বেড়ে ২৯০

ডেস্ক,২২ এপ্রিল: রোববার ইষ্টার সানডে উদযাপনের সময় তিনটি গির্জা ও ৩টি পাঁচতারকা হোটেলসহ ৮টি স্থানে সিরিজ আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৯০ জনে। পুলিশ গতকাল দুপুর পর্যন্ত সন্দেহভাজন হিসেবে ২৪ জনকে আটক করার কথা জানিয়েছে।বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ফেসবুক সহ সব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।
দুই দফায় এ হামলা চালানো হয়। পরবর্তীতে সন্ধ্যায় পুরো শ্রীলঙ্কায় জারি করা হয় কারফিউ। সোমবার সকাল ৬টায় তা তুলে নেওয়া হয়েছে। রয়টার্স, বিবিবি, ইয়ন।

শ্রীলঙ্কায় তামিল টাইগারদের বিদ্রোহ দমনের পর গত এক দশকের মধ্যে রোববারের হামলাই ছিলো সবচেয়ে ভয়াবহ। তবে গতকাল পর্যন্ত এ হামলার দায় এখনও কেউ স্বীকার করেনি।

তবে সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, রোববারের আত্মঘাতী সিরিজ বোমা হামলার আগেই বিবৃতির মাধ্যমে সতর্কবার্তা পাঠানো হয়েছিলো। সিএনএন তাদের এক প্রতিবেদনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। গত ১১ এপ্রিল দেশটির পুলিশের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল স্বাক্ষরিত একটি বিবৃতিতে এরকম একটি হামলার পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে যা উপেক্ষা করা হয়েছিল।

ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের তিনটি বড় গির্জা সেইন্ট অ্যান্থনির চার্চ, সেইন্ট সেবাস্টিয়ানের চার্চ আর জিয়ন চার্চে যখন ইস্টার সানডের প্রার্থনায় সমবেত হয়েছিল হাজারো মানুষ তখনই চালানো ওই নৃশংস আত্মঘাতী বোমা হামলা। হামলার অন্য লক্ষ্য ছিল কলম্বোর পাঁচ তারকা হোটেল সাংগ্রি-লা, কিংসবেরি আর সিনামন গ্র্যান্ড পাঁচ তারকা হোটেলের বিদেশি পর্যটকরা।

শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অন্তত ৬টি দেশের ৩৫ জন বিদেশি নাগরিক ওই বোমা হামলায় নিহত হয়েছে। অন্য পাঁচ শতাধিক মানুষ আহত অবস্থায় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

স্বজন হারানোর কথা জানালেন টিউলিপ : ব্রিটিশ লেবার পার্টির এমপি টিউলিপ সিদ্দিক একটি টুইট বার্তায় জানিয়েছেন যে, শ্রীলঙ্কার হামলায় তিনি একজন স্বজন হারিয়েছেন।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বোন ও আওয়ামী লীগ নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিমের মামাতো বোন শেখ রেহানার কন্যা টিউলিপ সিদ্দিক। ওই হামলায় শেখ সেলিমের নাতি মারা গেছেন বলে জানা যাচ্ছে।

আমরা এটা প্রত্যাশা করিনি : কলম্বে^ার কার্ডিনাল আর্চবিশপ ম্যালকম রনজিত বিবিসিকে বলেছেন, ‘এটা আমাদের সবার জন্য কঠিন ও দু:খজনক পরিস্থিতি কারণ এমন ঘটনা ঘটবে তাও আবার ইস্টার সানেডেতে সেটি আমরা কখনোই প্রত্যাশা করিনি’।

‘মানুষ কিছু না জেনেই গির্জায় গিয়েছিলো……. এবং এখন তাদের মধ্যে অনেকেই মৃত’

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ফার্টিলিটি চিকিৎসক যখন নিজেই ৪৯ নারীকে শুক্রানু দিলেন!

ডেস্ক,১৩ এপ্রিল:
হেগ: নেদারল্যান্ডস এর ঘটনা। সেখানে একজন ফার্টিলিটি চিকিৎসকের কাজ ছিল সন্তান জন্মদানে সমস্যা রয়েছে এমন ব্যক্তিদের ডাক্তারি সহায়তা দেয়া এবং তাদের সন্তান নিতে সহায়তা করা।

কিন্তু তিনি এসব ব্যক্তিদের অনুমতি না নিয়ে নিজেই ৪৯ টি সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। খবর বিবিসির

সেই চিকিৎসক বছর দুয়েক আগে মারাও গেছেন। এখন ডিএনএ পরীক্ষায় ধীরে ধীরে এসব তথ্য বের হচ্ছে।

ঠিক কি ঘটেছিলো?
ডা. ইয়ান কারবাতের ক্লিনিক ছিল নেদারল্যান্ডসের রটারড্যাম এলাকায়।

এসব ক্লিনিকে আসতেন সন্তান নিতে সমস্যা রয়েছে এমন নারী ও দম্পতিরা।

ফার্টিলিটি ক্লিনিকের একটি কাজ হল কোন পুরুষের কাছ থেকে তার দান করা শুক্রাণু সংগ্রহ করা।

অনেক ক্ষেত্রে শুক্রাণু দানকারীর পরিচয় গোপন রাখা হয়।

আবার অনেক সময় চিকিৎসা নিতে আসা ব্যক্তিরা শুক্রাণু দানকারীকে নিজেরা পছন্দ করে নিয়ে আসেন।

এরপর সেই শুক্রাণু দিয়ে ল্যাবে ভ্রূণ তৈরির পর সহায়তা নিতে আসা ব্যক্তিদের সন্তান জন্মদানে সহায়তা করf হয়।

ডা. ইয়ান কারবাতে এসব ক্ষেত্রে নিজেই নিজের শুক্রাণু ব্যবহার করতেন বলে এখন জানা যাচ্ছে।

তাও আবার চিকিৎসা সহায়তা নিতে আসা লোকজনের কোন অনুমতি ছাড়াই। Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

বই হাতে থাকলেই টিকিট ছাড়া ট্রেন ভ্রমণ!

নিজস্ব প্রতিবেদক, ০৭ এপ্রিল, ২০১৯ : বই হাতে থাকলেই নেদারল্যান্ডে টিকিট ছাড়াই ট্রেন ভ্রমণ করা যায়! জানা যায়, গত ১৮ বছর ধরেই সপ্তাহব্যাপী ‘বোকেনউইক’ নামে একটি উৎসব পালন করে চলেছে ডাচ রেল সংস্থাটি। এদিকে, গত এক সপ্তাহ ধরে এ সুবিধা পেয়েছেন সে দেশের ট্রেনযাত্রীরা।

বই পড়ায় উৎসাহ দিতে ১৯৩২ সাল থেকে নেদারল্যান্ডে শুরু হয় সপ্তাহব্যাপী উৎসব ‘বোকেনউইক’। ডাচ শব্দ ‘বোকেন’ এর অর্থ বই। প্রতি বছর এ উৎসবের অংশ হিসেবে দেশজুড়ে চলে নানা ধরনের সাহিত্য উৎসব। বোকেনউইক’-এ নানা সুযোগ সুবিধাও পাওয়া যায়। কেউ কোনো লাইব্রেরির সদস্য হলে, বিনামূল্যে একটা বই দেওয়া হয়। ‘বোকেনউইক’-এর কথা মাথায় রেখেই বিখ্যাত কোনো লেখক একটা বিশেষ উপন্যাস লেখেন। সেই বইটাই এসময় নানাভাবে বিনামূল্যে বিতরণ করা হয় নেদারল্যান্ডের বাসিন্দাদের। এই বার্ষিক উৎসবের স্পন্সর হিসেবে এগিয়ে এসেছিল ডাচ স্টেট রেলওয়ে কোম্পানি। শুধু বই বিতরণ নয়, ট্রেনের মধ্যেই ইয়ান সিবেলিঙ্কের বুক রিডিং-এর ব্যবস্থাও করেছিল রেল কর্তৃপক্ষ।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

বিশ্ব ব্যাংকের নতুন প্রেসিডেন্ট বিতর্কিত ম্যালপাস

অনলাইন ডেস্ক , ৬ এপ্রিল ২০১‌৯:

আন্তর্জাতিক আর্থিক সহায়তা সংস্থা বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালনের আনুষ্ঠানিক অনুমোদন পেলেন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা ডেভিড ম্যালপাস।

শুক্রবার বিশ্ব ব্যাংকের নির্বাহী পর্ষদের সদস্যরা সর্বসম্মতিক্রমে ১৩তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে তাকে মেনে নেন। আগামী মঙ্গলবার থেকে পাঁচ বছরের জন্য বিশ্ব ব্যাংক গ্রুপের নেতৃত্ব দেবেন ম্যালপাস।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অনুগত ম্যালপাস ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারের সময় ট্রাম্পের অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ছিলেন। ট্রাম্প গত ফেব্রয়ারিতে ম্যালপাসকে বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়নের ঘোষণা দিলে বিতর্কের জন্ম হয়। বিশ্ব ব্যাংক, আইএমএফের সমালোচনা করে আসা এই মার্কিন অর্থনীতিবিদ বিশ্ব ব্যাংকের ভূমিকা খর্ব করতে পারেন বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেন অনেকে।

বিশ্ব ব্যাংক ‘অনেক বড়’ বলে মনে করেন ডেভিড ম্যালপাস। চীনের মতো মধ্যম আয়ের দেশগুলোকে কম ঋণ দেওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেছিলেন তিনি। এই দেশগুলো অর্থনৈতিকভাবে যথেষ্ট শক্তিশালী বলে যুক্তি দেন ম্যালপাস।

বিবিসি বলছে, অর্থনীতির ‘গ্লোবাল অর্ডারকেই’ চ্যালেঞ্জ করেছিলেন ম্যালপাস।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

যুক্তরাজ্যের স্কুলে সমকামিতার পাঠ বর্জন করে বিক্ষোভ প্রদর্শন মুসলিম শিক্ষার্থীদের

ডেস্ক,৫ এপ্রিল ২০১৯:
লন্ডন: যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম রাজ্যের পার্কফিল্ড কমিউনিটি বিদ্যালয়ের অন্তত ৬০০ মুসলিম শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে সমকামিতা শেখানোর প্রতিবাদে তাদের ক্লাস বর্জন করেছে।

ক্লাস বর্জনকারী শিক্ষার্থীদের বয়স ৪ থেকে ১১ এর মধ্যে হবে এবং তাদের অবিভাবকেরা তাদেরকে নিজেদের ঘরেই উপযুক্ত শিক্ষা দিচ্ছেন, একই সাথে তারা সমকামীদের জীবন ধারার শিক্ষা দেয়ার বিরোধিতা করেন।

আর এর ফলে বিদ্যালয়টির ৮০ শতাংশ শিক্ষার্থীই সেখান থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করেছে বলে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ থেকে জানা গেছে।

‘The Alum Community Rock Forum’ একটি সংগঠন বার্তা সংস্থা ‘Birmingham Live’ কে জানায়, শিক্ষার্থীদের শ্রেণীকক্ষ থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে, কারণ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ‘অভিভাবকদের অধিকার ক্ষুণ্ণ করছে। একই সাথে তারা বিদ্যালয়ে আগ্রাসীভাবে সমকামিতার শিক্ষা দিচ্ছে।’

তারা আরো জানায় যে, ‘অভিভাবকদের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের আলোচনা, আবেদন, বিক্ষোভ এর সব কিছুকেই কর্তৃপক্ষ অগ্রাহ্য করেছে।’

এদিকে সম্প্রতি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের এমন আচরণের বিরুদ্ধে এক বিক্ষোভ সভা অনুষ্ঠিত হয় যেখানে অন্তত ৩০০ অভিভাবক অংশগ্রহণ করেন।

কিছু মুসলিম বিরোধী ব্যক্তি এও বলেছেন যে, তারা প্রয়োজনে যুক্তরাজ্য ছেড়ে চলে যাক কিন্তু এরপরেও বিদ্যালয় থেকে সমকামিতার পাঠ বন্ধ করা হবে না।

বিক্ষোভে অংশ নেয়া একজন শিশুর হাতে এরকম লিখা প্ল্যাকার্ড দেখা যায় যে- ‘শিশুদের নিজেদের মত করে বেড়ে উঠতে দেয়া হোক।’

অবিভাবকেরা মূলত বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান এন্ড্রু মোফাতের উপর ক্ষেপে আছেন, কেননা তিনিই বিদ্যালয়ে সমকামিতার পাঠ দেয়ার পক্ষের প্রধান ব্যক্তি।

এর পূর্বে এন্ড্রু মোফাত অন্য একটি বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করতেন এবং তিনি সেখানে সমকামীদের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করে এরকম একটি পাঠদান শুরু করলে সেখানকার খ্রিষ্টান অভিভাবকদের বিক্ষোভের কারণে তিনি চাকুরী ছেড়ে বর্তমান কর্মস্থলে যোগদান করেন।
প্রসঙ্গত, পার্কফিল্ড কমিউনিটি বিদ্যালয়ের ৭৫০ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৯৮ শতাংশই মুসলিম শিক্ষার্থী।

মারিয়াম আহমেদ নামের একজন অভিভাবক যার চার বছর বয়সী মেয়ে বিদ্যালয়টিতে অধ্যয়নরত আছে তিনি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নেয়া এই পাঠ বন্ধ করার জন্য একটি পিটিশন চালু করেন।

তিনি বলেন, ‘সেখানে যা শেখানো হচ্ছে তা সঠিক নয়। বাচ্চারা খুবই কম বয়সের। পাঠের মধ্যে অন্তত নয়টি অংশ রয়েছে কিন্তু বিদ্যালয়ে শুধুমাত্র সমকামিতার বিষয়টির উপরেই গুরত্বারোপ করা হচ্ছে যা আসলে একটি ভুল সিদ্ধান্ত।’

‘আমরা মুসলিম এজন্যই নয় বরং সেখানে খ্রিষ্টান শিক্ষার্থী রয়েছে। সমকামিতার প্রতি আমরা ক্ষুদ্ধ নই কিন্তু আমরা বিদ্যালয়ে এর পাঠ দেয়ার বিরোধী।’

বিদ্যালয়টিতে অধ্যয়নরত ছয় বছরের একজন মেয়ে শিক্ষার্থীর পিতা বলেন, তার স্ত্রী প্রয়োজনে এই দেশ ছেড়ে চলে যেতে রাজি আছে কিন্তু তার মেয়েকে সমকামিতার শিক্ষা দিতে তিনি নারাজ।

তিনি বলেন, ‘সে এধরনের পাঠে অংশ নেয়ার জন্য খুবই কম বয়সী। আমাদের কাছাকাছি বাস করা একটি পরিবার এ জন্যই ইতোমধ্যে পাকিস্তান চলে গিয়েছে।’

কিছু অভিভাবক বলেন, ইসলাম সমকামিতার অনুমোদন দেয় না। অন্যদিকে কেউ কেউ বলেন, তারা এর বিপক্ষে নন কিন্তু তারা বিদ্যালয়ে এর পাঠ দেয়ার বিপক্ষে।

এন্ড্রু মোফাত বলেন, তিনি অভিভাবকদের সাথে আলোচনা করার চেষ্টা করেছেন কিন্তু তিনি তাদের আগ্রাসী মনোভাবের কারণে পিছিয়ে এসেছেন।

তিনি বলেন, ‘এতকিছুর পরেও বিদ্যালয় থেকে আমাকে যে সমর্থন দেয়া হয়েছে তা আসলেই চমৎকার।’

বর্তমানে বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী যাদের বয়স নয় থেকে দশের মধ্যে তাদেরকে বয়ঃসন্ধি এবং বংশবৃদ্ধি সম্পর্কে ধারণা দেয়া হচ্ছে।

আর এগার বছরের শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত এবং সামাজিক সম্পর্ক, স্বাস্থ্য ও অর্থনীতি সম্পর্কিত পাঠে অংশ নেয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

যুক্তরাজ্য সরকার বিদ্যালয় সমূহে ‘ব্যক্তিগত সম্পর্ক’ বিষয়ক পাঠ যেখানে সমকামীদের প্রতি সহমর্মিতার প্রকাশ পায় এমন ধারণা যুক্ত থাকে এধরনের পাঠ বাধ্যতামূলক করেছে।

পার্কফিল্ড কমিউনিটি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, তারা চান শিক্ষার্থীদের মধ্যে ‘যে কাউকে গ্রহণ করার এবং স্বাগত জানানোর’ মত মনোভাব গড়ে উঠে।

এক বিবৃতিতে তারা জানায়, কর্তৃপক্ষ অভিভাবকদের বিক্ষোভের কারণে হতাশ কিন্তু সফল সমকামিতা শিক্ষা মূলক পাঠ বন্ধ করার কোনো পরিকল্পনা তাদের নেই।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

শিক্ষার্থীদের খাবারে বিষ মিশিয়ে দিলেন কিন্ডারগার্টেন শিক্ষিকা

ডেস্ক

কিন্ডারগার্টেন স্কুলের কচিকচি নিষ্পাপ বাচ্চাদের খাবারে সবার অলক্ষ্যে ‘বিষ’ মিশিয়ে দিয়েছিলেন এক শিক্ষিকা। টিফিনে সেই খাবার খেয়ে ভয়ানক অসুস্থ হয়ে পড়ে ২৩ খুদে পড়ুয়া। ভরতি করতে হয় হাসপাতালে।

এক সপ্তাহ আগের সেই ঘটনার তদন্তে নেমে মঙ্গলবার চীনের হেনান প্রদেশের এক কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষিকাকে গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ।

পুলিশের দাবি, অভিযুক্ত ওই শিক্ষিকা বাচ্চাদের টিফিনে সোডিয়াম নাইট্রেট মিশিয়ে দিয়েছিলেন। হত্যার চক্রান্ত-সহ একাধিক ধারায় ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

কেন তিনি এমন একটা কাণ্ড ঘটালেন, তা এখনও পরিষ্কার নয়। জানা গিয়েছে, বিষক্রিয়ায় অসুস্থ ২৩ বাচ্চার মধ্যে ১৫ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে, আটটি বাচ্চা এখনও সেখানে চিকিত্‍‌সাধীন রয়েছে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ব্যাংক ঋণ পেতে শারীরিক সম্পর্ক করতে হবে!

অনলাইন ডেস্ক

বেসরকারি একটি ব্যাংক থেকে ঋণ চেয়েছিলেন এক নারী। কিন্তু ঋণ পেতে হলে ওই নারীকে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে হবে বলে জানান ব্যাংক ব্যবস্থাপক। এমন অভিযোগে ওই নারী প্রকাশ্যে জুতাপেটা করেন ওই কর্মকর্তাকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে এই মারধরের ছবি ও ভিডিও।

ভারতের টেলিভিশন চ্যানেল এনডিটিভির প্রতিবেদন বলা হয়, গতকাল সোমবার ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের দাওয়ানগর শহরে এই ঘটনা ঘটে। বার্তা সংস্থা এএনআইকে ওই নারী জানিয়েছেন, তিনি সেখানকার একটি ব্যাংকে ১৫ লাখ রুপি ঋণের জন্য আবেদন করেন। কিন্তু ব্যাংকের ব্যবস্থাপক ঋণ পাইয়ে দিতে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেন। এমন প্রস্তাবের জন্য তিনি রাস্তায় ওই ব্যাংক ব্যবস্থাপককে জুতাপেটা করেন।

সাম্প্রতি যৌন হেনস্তার বিরুদ্ধে #মিটু আন্দোলনে তোলপাড় ভারতজুড়ে। অভিনেতা, খেলোয়াড়, লেখকসহ অনেকেই অভিযুক্তদের তালিকায় রয়েছে। শুধু পুরুষরাই নয় #মিটু-তে বিদ্ধ হয়েছেন বলিউডের অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। তার বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ করেছেন প্রাক্তন প্রেমিক অধ্যয়ন সুমন। কিন্তু সাধারণ মহিলাদেরও তো দৈনন্দিন জীবনে নানাভাবে যৌন হেনস্তার মুখে পড়তে হয়। ঠিক যেমন পড়তে হয়েছে কর্নাটকে ওই নারীকে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, সালোয়ার-কামিজ পরা মধ্যবয়সী এক নারী শার্ট-প্যান্ট পরা এক লোকের কলার ধরে টানছেন আর লাঠি দিয়ে মারছেন। এ সময় ওই নারী লোকটাকে পুলিশ ফাঁড়িতে যাওয়ার জন্য বলছেন। ৫০ সেকেন্ডের ওই ভিডিও ক্লিপে দেখা যায়, লাঠি দিয়ে মারার পাশাপাশি ওই নারী লোকটাকে পা দিয়ে আঘাত করছেন। একপর্যায়ে চটি দিয়েও পেটান।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ভিডিওটি শেয়ার হওয়ার পর মাত্র এক ঘণ্টার মাথায় ২৫ হাজার মানুষ তা দেখেন এবং অনেকেই তাতে মন্তব্য করেন। মন্তব্যকারীদের বেশির ভাগই ওই নারীকে প্রকৃত নায়ক বলে অবহিত করেন। আবার কয়েকজনকে লিখতে দেখা যায়, ‘এটা হলো আসল #মি টু’।

এদিকে ব্যাংক ব্যবস্থাপকের ঘটনাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে দেশটির পুলিশ।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

বিশ্ব জুড়ে আগামী ৪৮ ঘণ্টা বিপর্যস্ত হতে পারে ইন্টারনেট পরিষেবা!

সংবাদ সংস্থা,নয়াদিল্লি|১২ অক্টোবর:

আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বিশ্ব জুড়ে ইন্টারনেট পরিষেবা বিপর্যস্ত হবে। কি ডোমেন সার্ভারের রুটিন মেরামতের কারণে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের এই সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে বলে এক রিপোর্টে উল্লেখ করেছে রাশিয়া টুডে। ফলে ওই সময়ের মধ্যে ওয়েব পেজ খোলায় সমস্যা হবে, ব্যাহত হতে পারে ইন্টারনেটের সঙ্গে জড়িত সমস্ত রকম লেনদেনও। এমনকি ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধও হয়ে যেতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

রাশিয়া টুডে-র রিপোর্টে বলা হয়েছে, দি ইন্টারনেট কর্পোরেশন অব অ্যাসাইনড নেমস অ্যান্ড নাম্বারস (আইসিএএনএন) এই মেরামতির কাজ করবে। ইন্টারনেটের অ্যাড্রেস বুক বা ডোমেন নেম সিস্টেম(ডিএনএস)-কে সুরক্ষিত রাখার জন্য যে ‘ক্রিপটোগ্রাফিক কি’ রয়েছে তা বদলানোর কাজ চলবে এই সময়ে।

কেন এমন সিদ্ধান্ত?

আইসিএএনএন জানিয়েছে, বিশ্ব জুড়ে যে ভাবে সাইবার হানা বাড়ছে, হ্যাকারদের কবল থেকে ইন্টারনেটকে সুরক্ষিত রাখতেই এই ‘ক্রিপটোগ্রাফিক কি’ বদলানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কমিউনিকেশনস রেগুলেটরি অথরিটি(সিআরএ) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ডিএনএস-কে আরও সুরক্ষিত করতে এই সময়ের জন্য বিশ্ব জুড়ে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া জরুরি। সিআরএ আরও জানিয়েছে, নেটওয়ার্ক অপারেটরস বা ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার-রা (আইএসপি) যদি এই অবস্থার জন্য প্রস্তুতি না নেয় তা হলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা সমস্যার মুখে পড়তে পারেন। তবে সিস্টেম সিকিউরিটি এক্সটেনশন-কে যদি যথাযথ ভাবে সক্রিয় রাখা যায়, তা হলে কিছুটা হলেও এর প্রভাব আটকানো সম্ভব হবে বলে জানিয়েছে সিআরএ। তবে বিশেষজ্ঞদের একাংশ বলছেন, এ নিয়ে অযথা আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। শাট ডাউন মানেই যে ইন্টারনেট পরিষেবা পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যাবে, এমনটা নয়।Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

আট বছর বয়সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র!

ডেস্ক রিপোর্ট: মাত্র দেড় বছরেই স্কুলের পড়াশোনার পাঠ শেষ! আর আট বছর বয়সে ভর্তি হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ে।

বিশ্বকে চমকে দিয়ে এ অসাfমান্য মেধার নজির গড়ছে বেলজিয়ামের বালক লরেন্ট সিমন্স। আট বছরেই সে পা রাখতে চলছে বিশ্ববিদ্যালয়ে। খবর বিবিসির।

লনেন্ট সাংবাদিকদের বলেছে, তার প্রিয় বিষয় গণিত। পরিসংখ্যান, জ্যামিতি আর বীজগণিত তার খুবই ভাল লাগে।

তার বাবা বেলজিয়ান আর মা নেদারল্যান্ডসের নাগরিক। তারা বাবা-মা জানিয়েছেন, বুদ্ধিমত্তার পরীক্ষায় লরেন্ট সিমন্সের নম্বর উঠেছে ১৪৫।

তার বাবা জানিয়েছেন, ছোট বেলা থেকেই খেলনার প্রতি কোন আগ্রহ ছিল না তার ছেলের।

লরেন্টের ইচ্ছা ছিল পড়াশোনা শেষ করে সে একজন সার্জন এবং নভোচারী হবে। কিন্তু এখন সে কম্পিউটার নিয়েই কাজ করতে চায়।

তবে তার বাবা বলেছেন, যদি সে আগামীকাল আবার কাঠমিস্ত্রি হতে চায়, তাতেও তার কোন আপত্তি নেই। লরেন্টের যা করতে ভালো লাগবে, তাতেই তারা খুশি।Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Responsive WordPress Theme Freetheme wordpress magazine responsive freetheme wordpress news responsive freeWORDPRESS PLUGIN PREMIUM FREEDownload theme free

hit counter