Author Archives: editor

১০৭ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি বাতিল

নিজস্ব প্রতিবেদক,৮ মে২০১৯: মাধ্যমিক ও সমমান পরীক্ষায় এবার ১০৭ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে শিক্ষা বোর্ডগুলো। প্রথমে প্রতিষ্ঠানগুলোকে কারণ দর্শনো নোটিশ করা হচ্ছে। এরপর প্রতিষ্ঠানগুলোর এমপিও স্থগিত, অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতি ও পাঠদানের অনুমোদন বাতিলের ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিভিন্ন বোর্ডের কর্মকর্তারা।

প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীন দাখিল মাদ্রাসা রয়েছে সবচেয়ে বেশি ৫৯টি। কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ৪৩টি, বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের দুটি, দিনাজপুর, রাজশাহী ও যশোর শিক্ষা বোর্ডের একটি করে প্রতিষ্ঠা নের কেউ পাস করেনি।



মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ কে এম ছায়েফ উল্যা বলেন, ‘সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে আমরা প্রথমে শোকজ করবো। এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর এমপিও বাতিলের সুপারিশ করা হবে। আর আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দিয়ে পরে সব প্রতিষ্ঠানের অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতি বাতিল ও পাঠদানের অনুমোদন স্থগিতের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

জানা গেছে, মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীন পাস না করা ৫৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৮টি এমপিওভুক্ত। ২০১৮ সালের দাখিল পরীক্ষায় শতভাগ ফেল করা প্রতিষ্ঠান ছিল ৯৭টি। এবার তা কমেছে। শাস্তির আওতায় আনলে আরও কমে আসবে বলে জানান শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান।

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. প্রকৌশলী সুশীল কুমার পাল বলেন, ‘শূন্য পাস প্রতিষ্ঠান ৪৩টি হলেও আমরা তা বলবো না। অনেক পরীক্ষার্থীর ব্যবহারিক নম্বর না আসায় এমনটা হয়েছে। এটি অবশ্যই কমে আসবে।’ তবে কেউ পাস করেনি এসব প্রতিষ্ঠান নিশ্চিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে জানান পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক।

বরিশাল বোর্ডের দুটি প্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করেনি। এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে শোকজ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউনুস। তিনি বলেন, ‘আমাদের দুটি প্রতিষ্ঠানের কেউ পাস করেনি। এই দুটি প্রতিষ্ঠানকেই শোকজ করা হয়েছে। এরপর বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক ড. মো. আনারুল হক প্রাং বলেন, ‘কেউ পাস করেনি এমন প্রতিষ্ঠান এবার একটি। আগে বেশি ছিল, বিভিন্ন পদক্ষেপের মাধ্যমে এ হার কমিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে। ভবিষ্যতে একটিও যাতে না থাকে সে চেষ্টা রয়েছে।’

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ‘কেউ পাস করেনি এমন প্রতিষ্ঠান এবার একটি। এর আগে বেশি ছিল, তা কমিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে। পরে সেটাও থাকবে না।’

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর বলেন, ‘সংশ্লিষ্ট বোর্ডকে (কারিগরি শিক্ষা বোর্ড ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড) বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নিয়ে মন্ত্রণালয়কে অবহিত করতে বলা হয়েছে।’

উল্লেখ্য, গত ৬ মে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে। ফলাফল অনুযায়ী আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডসহ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১০৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কেউ পাস করতে পারেনি।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

একাদশ ভর্তিতে তিন ক্যাটাগরিতে ভাগ কলেজ

নিজস্ব প্রতিবেদক,৮মে২০১৯:

একাদশ ভর্তিতে তিন ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হবে সরকারি কলেজগুলোকে। গত বছর ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের সংখ্যা এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফলে উপর ভিত্তি করে এ, বি ও সি- এই তিন ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হবে। ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা যেন কোনও বিভ্রান্ত ও প্রতারণার শিকার না হয় এ কারণে কোন কলেজ কোন শ্রেণিতে তা নির্ধারণ করতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

শিক্ষা বোর্ডের সূত্রে,৬৫০ শিক্ষার্থী এবং পাসের হার যদি ৭০ শতাংশের বেশি হয় তাহলে সেই কলেজ হবে ‘এ’ ক্যাটাগরির। ৬০০ শিক্ষার্থী এবং পাসের হার যদি ৫০ থেকে ৭০ শতাংশ থাকলে তা হবে ‘বি’ ক্যাটাগরির। আর ৬০০ এর কম শিক্ষার্থী এবং পাসের হার ৫০ শতাংশের নিচে থাকা কলেজগুলো হবে ‘সি’ ক্যাটাগরির।


আন্তঃ শিক্ষা বোর্ড সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক বলেন, ক্যাটাগরি করার মাধ্যমে আমরা কলেজগুলোকে মূল্যায়ন করতে পারব। পরে আমরা দেখতে পারব, কারা নিচ থেকে ওপরে উঠে এসেছে। আবার কারা ওপর থেকে নিচে নেমে গেছে। যারা ভালো করতে পারছে না তাদের সমস্যা চিহ্নিত করে সমাধান করতে পারব। আবার নিজের প্রয়োজনেই অনেকে মানের উন্নয়ন ঘটাবে। Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

এবার ঈদে ছুটি ৯ দিন!

নিজস্ব প্রতিবেদক,৭ মে ২০১৯: আসছে ঈদুল ফিতরে ৯ দিন ছুটির সুযোগ থাকছে। ঈদের ছুটির আগে ও পরে সাপ্তাহিক ছুটি, লাইলাতুল কদরের ছুটির মধ্যে এক কর্মদিবস রয়েছে। এ কর্মদিবসটি ছুটি হিসেবে ধরলে টানা ৯ দিনের ছুটি হবে ঈদে। সে হিসেবে একদিন ছুটি নিলেই সরকারি চাকরিজীবীরা পেয়ে যাবেন টানা ৯ দিনের ছুটি। ফলে এবারের ঈদে দীর্ঘ ছুটি কাটার সুযোগ রয়েছে সরকারি কর্মজীবীদের।


যদি রমজান মাস ২৯ দিন হলে ঈদ হবে ৫ জুন বুধবার। রমজান ৩০ দিনে শেষ হলে ঈদ হবে ৬ জুন বৃহস্পতিবার। ঈদ যেদিনই হোক এবার ঈদের ছুটি শুরু হবে ৪ জুন। ৫ জুন ঈদ হলে ছুটি থাকবে ৪, ৫ ও ৬ জুন অর্থাৎ মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতি। এরপর শুক্র ও শনিবার (৭ ও ৮ জুন) দু’দিন সাপ্তাহিক ছুটি। ঈদের ছুটি শুরু হওয়ার আগে ২ জুন রবিবার লাইলাতুল কদরের ছুটি। কদরের ছুটির আগে ৩১ মে ও ১ জুন (শুক্র ও শনিবার) দু’দিন সাপ্তাহিক ছুটি। ৩১ মে থেকে ৯ জুন পর্যন্ত ৯ দিনের মধ্যে শুধু ৩ জুন সোমবার অফিস খোলা।

ঈদুল ফিতর ৬ জুন হলে ঈদের ছুটি একদিন বেড়ে ৭ জুন পর্যন্ত হবে। এ ক্ষেত্রে ঈদের ছুটি হবে ৪, ৫, ৬ ও ৭ জুন। অর্থাৎ ৭ জুনের ঈদের ছুটি পড়বে শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির মধ্যে। এ ক্ষেত্রেও ৩ জুন অফিস না করলে ৯ দিন ছুটি কাটানো যাবে। সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এরইমধ্যে দীর্ঘ ছুটিতে বেড়ানোর পরিকল্পনা করছেন। টানা ছুটি পেতে তারা ৩ জুন ছুটি নেবেন।

এর আগে ২০১৬ সালে ঈদুল ফিতরের সময় শবে কদর, সাপ্তাহিক ছুটির সঙ্গে ঈদুল ফিতরের ছুটি মিলিয়ে টানা ৯ দিনের ছুটির মধ্যে একদিন অফিস খোলা ছিল। ওই সময় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মাঝের একদিন ছুটি ঘোষণা করা হয়েছিল।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

আইসিটি শিক্ষকরাও এমপিও পাচ্ছে

ডেস্ক,৭ মে ২০১৯:

অবশেষে এমপিওভুক্ত বিদ্যালয়ের নিম্ন মাধ্যমিকে কর্মরত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের সহকারী শিক্ষকরা এমপিও পেতে চলেছে। ২০১২ খ্রিষ্টাব্দের পূর্বে নিয়োগপ্রাপ্ত নিবন্ধনধারী ও নিবন্ধনবিহীন শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির বিষয়ে বিদ্যমান নীতিমালা যাচাইপূর্বক মতামতসহ প্রতিবেদন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।



গতকাল সোমবার মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের শিক্ষা কর্মকর্তা (মাধ্যমিক-২) মো. আফসার উদ্দিনের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

আবেদন ৯ হাজার, এমপিওভুক্ত ২ হাজার ৭৬২ প্রতিষ্ঠান

ডেস্ক,৭ মে ২০১৯:
প্রায় সাড়ে নয় হাজার আবেদনের বিপরীতে মাত্র ২৭শ’ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির জন্য চূড়ান্ত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে এমপিওভুক্তির জন্য বছরের পর বছর আন্দোলন করে আসা শিক্ষকরা বলছেন, দীর্ঘ দশ বছর পর এমপিওভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েও যদি তিন-চতুর্থাংশ প্রতিষ্ঠানকেই বাদ দেয়া হয় তবে তা তাদের কাছে গ্রহণযোগ্য হবে না। এ অবস্থায় সরকারকে দাবি মানাতে শিগগিরই আলাপ আলোচনার মাধ্যমে নতুন কর্মসূচি দেয়ার পরিকল্পনার কথাও জানান তারা।

এদিকে সর্বশেষ গত মার্চে শিক্ষকরা এমপিওর দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান নিলে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি নিজে গিয়ে শিক্ষক প্রতিনিধিদলকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করিয়ে দেয়ার ঘোষণা দিলে রাস্তা ছেড়ে দেন শিক্ষকরা। তবে ওই ঘোষণার পর দেড় মাস পার হলেও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা হয়নি শিক্ষকদের। এতে আরও ক্ষুব্ধ হয়েছেন শিক্ষকরা। নন-এমপিও শিক্ষকরা বলছেন, শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী সপ্তাহখানেকের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাদের দেখা হওয়ার কথা ছিল। যেখানে তারা নিজেদের দাবির পক্ষে প্রধানমন্ত্রীকে বুঝাতে চান বলেও যায়যায়দিনের কাছে দাবি করেছেন শিক্ষকরা। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার সুযোগ না দিয়ে কিছুসংখ্যক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করে আন্দোলন থেকে শিক্ষকদের সরিয়ে আনার চেষ্টা হচ্ছে কিনা তা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেছেন শিক্ষকরা।


শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্র জানিয়েছে, নীতিমালা অনুসারে তারা ২ হাজার ৭৬২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওর জন্য তালিকাভুক্ত করেছেন। গত বছরের জুলাইয়ে এমপিওভুক্তির দাবিতে নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের ব্যানারে কয়েক হাজার শিক্ষকের প্রায় এক মাস অনশনের পর সরকারের তরফ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে এমপিওর জন্য আবেদন করতে বলা হয়। যার প্রেক্ষিতে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিম্ন-মাধ্যমিক, মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক, মাদ্রাসা, কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ ৯ হাজার ৬১৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনলাইনে তাদের আবেদন জমা দেয়। এরপর সরকারের করা নীতিমালা অনুসারে যোগ্য প্রতিষ্ঠান খুঁজে বের করতে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ভেরিফিকেশন করা হয়। মন্ত্রণালয়ের ভেরিফিকেশন অনুসারে প্রায় সাড়ে নয় হাজার প্রতিষ্ঠান আবেদন করলেও তারা মাত্র ২ হাজার ৭৬২টি যোগ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পেয়েছে। যেগুলো এমপিওভুক্তির শর্ত পূরণ করে। Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

একাদশে ভর্তির আবেদন শুরু ১২ মে

ঢাকা,৬মে:
অনলাইন ও এসএমএস-এ উচ্চ-মাধ্যমিকে ভর্তির আবেদন শুরু হবে ১২ মে (রোববার)।

বরাবরের মতো শিক্ষার্থীরা প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে কলেজে ভর্তির সুযোগ পাবেন। উচ্চ-মাধ্যমিকে ভর্তির ক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নোটিশে এ তথ্য বলা হয়েছে।


নীতিমালা অনুযায়ী, ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া ১২ মে থেকে শুরু হয়ে ২৩ মে (যারা পুনঃনিরীক্ষণের জন্য আবেদন করবে তাদেরও এই সময়ের মধ্যে আবেদন করতে হবে) পর্যন্ত চলবে। পুনঃনিরীক্ষণের পর যাদের ফলাফল পরিবর্তন হবে তারা ৩-৪ জুনের মধ্যে আবেদন করতে পারবে। আবেদন প্রক্রিয়া শেষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য ১ম পর্যায়ে নির্বাচিতদের তালিকা বা ফলাফল ১০ জুন প্রকাশ করা হবে। এসএমএস ও স্ব-স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নোটিশ বোর্ডে তালিকা প্রকাশ করা হবে। ১১-১৮ জুনের মধ্যে শিক্ষার্থীদের মনোনয়নপ্রাপ্ত কলেজে নিশ্চায়ন করতে হবে। অন্যথায় আবেদন বাতিল হবে। Read More »

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ফেল করায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

ডেস্ক : ফেল করায় এসএসসি পরীক্ষায় পার্বতী রাণী (১৫) নামে এক কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে।

আজ সোমবার দুপুরে উপজেলার কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।


পার্বতী রানী স্থানীয় কাশিয়াবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের থেকে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়।

স্থানীয়রা জানান, এসএসসি পরীক্ষায় ফেল করেছে বলে জানতে পারে পার্বতী। এরপর দুপুর ১২টার দিকে নিজ ঘরের তীরের সঙ্গে রশি ঝুলিয়ে সে আত্মহত্যা করে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

মাধ্যমিকে উত্তীর্ণ দুই কিশোরী পূজা চেরি ও দীঘি

অনলাইন ডেস্ক ॥ এবার মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন দুই কিশোরী অভিনয়শিল্পী পূজা চেরি ও দীঘি।

সোমবার এ বছরের মাধমিক ও সমমানের পরীক্ষার যে ফল প্রকাশ করা হয়েছে, তাতে পূজার অর্জন জিপিএ ৪.৩৩ ও দীঘির জিপিও ৩.৬১।



পূজা রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট এলাকার একটি স্কুল থেকে বাণিজ্য বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছেন। আর দীঘি পরীক্ষা দিয়েছেন স্টামফোর্ড স্কুল অ্যান্ড কলেজের ইংরেজি ভার্সন থেকে।

দু’জনেই শিশুশিল্পী হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেছেন।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

খুব সহজেই জানুন এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল

নিজস্ব প্রতিবেদক,৬ মে ২০১৯:

প্রতিবছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল সকালে প্রকাশ করা হলেও শিক্ষার্থীদের কাছে তা পৌঁছতে সন্ধ্যা লেগে যায়। শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে দুপুরের দিকে ফল প্রকাশ করা হলেও সেখানেও বিপদ। সার্ভার আসে না।

তবে এসব বিড়ম্বনাকে দূরে ঠেলে খুব সহজেই জানাতে পারেন এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল। চলুন এবার জেনে নেয়া যাক বিড়ম্বনা থেকে মুক্তি পেয়ে ভিন্ন উপায়ে কিভাবে জানবেন কাঙ্ক্ষিত ফল।


পাবলিক পরীক্ষার ফল প্রকাশের আরও একটি সরকারি ওয়েবসাইট eboardresults.com/app/stud। ওয়েবসাইটটিতে প্রথমে এক্সামিনেশন, ইয়ার, বোর্ড সিলেক্ট করতে হবে। এরপর রেজাল্ট টাইপ অপশনে একক ফলাফল জানতে Individual Result এবং প্রতিষ্ঠানের রেজাল্ট জানতে Institutional Result সিলেক্ট করে রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বর এবং সর্বশেষে সিকিউরিটি কি দিয়ে জানতে পারবেন কাঙ্ক্ষিত ফল। এ উপায়ে জিপিএ ছাড়া জানা যাবে বিষয় অনুযায়ী পূর্ণাঙ্গ ফলাফল।

এছাড়া, মোবাইল থেকে এসএমএস করে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল জানতে পারবেন।এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানতে মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে SSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর, স্পেস দিয়ে রোল নম্বর, স্পেস দিয়ে ২০১৭ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করবেন যেভাবে

ডেস্ক,৬মে ২০১৯:
মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষার ফল সোমবার (৬ মে) প্রকাশ হয়েছে।
আগামী ৭ থেকে ১৩ মে পর্যন্ত এ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করা যাবে।

টেলিটক সংযোগ থেকে RSC <স্পেস> বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর <স্পেস> রোল নম্বর <স্পেস> বিষয় কোড লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়ে পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করা যাবে।


একই এসএমএসে একাধিক বিষয়ের জন্য আবেদন করা যাবে, এক্ষেত্রে বিষয় কোড পর্যায়ক্রমে ‘কমা’ দিয়ে লিখতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফি বাবদ কত টাকা কেটে নেওয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন নম্বর (পার্সোনাল আইযেন্টিফিকেশন নম্বর) দেওয়া হবে।

আবেদনে সম্মত থাকলে RSC <স্পেস> YES <স্পেস> পিন নম্বর <স্পেস> যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল নম্বর লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।

প্রতিটি বিষয় ও প্রতি পত্রের জন্য ১২৫ টাকা হারে চার্জ কাটা হবে। তবে যেসব বিষয়ের দু’টি পত্র (প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র) রয়েছে যেসব বিষয়ে আবেদন করলে দু’টি পত্রের জন্য ২৫০ টাকা ফি কাটা হবে।

শিক্ষা বোর্ড জানিয়েছে, একই এসএমএসে একাধিক বিষয়ের আবেদন করা যাবে, এক্ষেত্রে বিষয় কোড পর্যায়ক্রমে ‘কমা’ দিয়ে লিখতে হবে।
আরো পড়ুন
অদম্য ইচ্ছাশক্তির কাছে হার মানলো শারীরিক প্রতিবন্ধকতা।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

অদম্য ইচ্ছাশক্তির কাছে হার মানলো শারীরিক প্রতিবন্ধকতা।

এক পায়ে লিখে জিপিএ-৫ পেল সেই তামান্না

অনলাইন ডেস্ক,৬মে ২০১৯:
তামান্না আক্তার নূরা। জন্মগতভাবেই তার দুই হাত ও এক পা নেই। শরীরে শুধু একটিমাত্র পা-ই তার সম্বল।
তার অদম্য ইচ্ছাশক্তির কাছে হার মানলো শারীরিক প্রতিবন্ধকতা। এক পায়ে লিখে এসএসসিতে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে সে।

প্রকাশিত ফলাফলে দেখা গেছে, বাংলা বাদে প্রত্যেকটি বিষয়ে এ প্লাস পেয়েছে সে। যশোরের ঝিকরগাছার বাঁকড়া জেকে মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এবার পরীক্ষায় অংশ নেয়। জেএসসিতেও জিপিএ-৫ পেয়েছিল তামান্না নূরা।

ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের রওশন আলী ও খাদিজা পারভীন শিল্পী দম্পতির মেয়ে তামান্না নূরা। অদম্য এই মেয়েটি প্রথম শ্রেণি থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা পর্যন্ত মেধা তালিকায় শীর্ষে ছিল। পাশাপাশি এডাস বৃত্তি পরীক্ষাও বৃত্তি পেয়েছিল। ২০১৩ সালে প্রাথমিক সমাপনী (পিইসি) ও ২০১৬ সালে জেএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পায়।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১০৭ প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থী ফেল

অনলাইন ডেস্ক,৬মে ২০১৯:
চলতি বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১০৭ প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থী ফেল করেছে। আর শতভাগ পাস করেছে এমন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা দুই হাজার ৫৮৩টি। চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার ঘোষিত ফল থেকে এমন তথ্য জানা গেছে।

রোববার বেলা সোয়া ১১টার দিকে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ২০১৯ সালের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল ঘোষণা করেন। এর আগে বোর্ড চেয়ারম্যানরা শিক্ষামন্ত্রীর কাছে ফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেন।


এবার এসএসসি ও সমমানে পাশের হার ৮২.২০ শতাংশ। গত বছরের চেয়ে এবার পাশের হার বেড়েছে শতকরা ৪.৪৩ ভাগ। মোট জিপিএ ৫ পেয়েছে এক লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ জন। মোট পাশের হার বৃদ্ধি পেলেও জিপিএ ৫ প্রাপ্তির হার কমেছে।

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় গতবার ৭৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছিল; জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১ লাখ ১০ হাজার ৬২৯ জন। সেই হিসাবে এবার পাসের হার বেড়েছে ৪ দশমিক ৪৩ শতাংশ পয়েন্ট। আর পূর্ণাঙ্গ জিপিএ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে ৫ হাজার ৩৫ জন।

এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এরমধ্যে ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ জন ছাত্র এবং ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন ছাত্রী। আগের মতোই এবারও পরীক্ষা শেষের ৬০ দিনের মধ্যেই প্রকাশিত হচ্ছে ফলাফল।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

এসএসসি ও সমমানের ফলাফল প্রকাশ। পাশের হার ৮২.২০ শতাংশ

অনলাইন ডেস্ক,৬মে ২০১৯:
২০১৯ শিক্ষাবর্ষে এসএসসি ও সমমানে পাশের হার ৮২.২০ শতাংশ। গত বছরের চেয়ে এবার পাশের হার বেড়েছে শতকরা ৪.৪৩ ভাগ। মোট জিপিএ ৫ পেয়েছে এক লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ জন।

রোববার বেলা সোয়া ১১টার দিকে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ২০১৯ সালের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল ঘোষণা করেন।



এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় গতবার ৭৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছিল; জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১ লাখ ১০ হাজার ৬২৯ জন।

সেই হিসাবে এবার পাসের হার বেড়েছে ৪ দশমিক ৪৩ শতাংশ পয়েন্ট। আর পূর্ণাঙ্গ জিপিএ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে ৫ হাজার ৩৫ জন।

এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এরমধ্যে ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ জন ছাত্র এবং ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন ছাত্রী। আগের মতোই এবারও পরীক্ষা শেষের ৬০ দিনের মধ্যেই প্রকাশিত হচ্ছে ফলাফল।

যেভাবে ফল জানা যাবে:

মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে ফল পাওয়া যাবে। এ জন্য SSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে পরীক্ষার রোল নম্বর লিখে আবার স্পেস দিয়ে পাসের বছর লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

মাদ্রাসা বোর্ডের ক্ষেত্রে Dakhil লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে আবার স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে পাসের সাল লিখে পাঠাতে হবে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

এ ছাড়া কারিগরি বোর্ডের এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষার ফল জানতে SSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে পাসের সাল লিখে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

এ ছাড়া (www.educationboardresults.gov.bd) ওয়েবসাইটে গিয়ে ফলাফল ডাউনলোড করা যাবে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

১৫ জনকে প্রধান শিক্ষককের শূন্যপদে দায়িত্ব প্রদান

ডেস্ক,৫ মে : প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতায় রাজশাহী, রাঙ্গামাটি ও নারায়ণগঞ্জ জেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত ১৫ জন সহকারি শিক্ষকগণকে চলতি পদে প্রধান শিক্ষককের শূন্যপদে দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।

রোববার (৫মে) প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে এই মর্মে একটি আদেশ জারি করা হয়।


তবে শর্ত হলো উক্ত দায়িত্ব পদোন্নতি হিসেবে গণ্য হবে না। চলতি দায়িত্ব প্রাপ্ত শিক্ষকগণ নিজ বেতন স্কেলে বেতন-ভাতা পাবেন।

আদেশে আরও বলা হয়েছে, চলতি দায়িত্বের আদেশ প্রাপ্তির ৫ কর্মদিবসের মধ্যে প্রধান শিক্ষকের চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারি শিক্ষকগনণের পদায়নের আদেশ জারি করতে হবে।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

যশোরে প্রাথমিকের ৬ ছাত্রীকে টানা ধর্ষণ

যশোর প্রতিনিধি,৫মে:

যশোরের খড়কি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষার্থীকে দিনের পর দিন ধর্ষণের অভিযোগে আমিনুরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার দুপুরে অবৈধপথে ভারতে পালানোর চেষ্টাকালে শার্শার গাতিপাড়া সীমান্ত এলাকা থেকে পুলিশ তাকে আটক করে। রাতেই তাকে যশোর কোতোয়ালি থানায় আনা হয়।

যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনসার উদ্দিন জানান, ঘটনার পর থেকেই পুলিশ তাকে আটকের ব্যাপারে তৎপর ছিল। শুক্রবারও রাতভর তাকে আটকের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়। পরে শনিবার দুপুরে তিনি সীমান্ত পাড়ি দেয়ার প্রস্তুতি নেন। এসময় সেখানে হানা দিয়ে তাকে ধরে ফেলে কোতোয়ালি পুলিশ।


যশোর কোতোয়ালি থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) অপূর্ব হাসান জানান, আটকের পর পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত আমিনুল ঘটনার দায় স্বীকার করেছে। তিনি স্বেচ্ছায় আদালতে জবানবন্দি দিতেও রাজি হয়েছেন।

উল্লেখ্য, তিন সন্তানের জনক আমিনুর গত প্রায় একমাস ধরে শহরের খড়কি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষার্থীর উপর পর্যায়ক্রমে যৌন নিপীড়ন চালিয়ে আসছিলেন।

ঘটনাটি ফাঁস হওয়ার পর গত বুধবার এক শিক্ষার্থীর বোন বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। এর আগেই পালিয়ে যান আমিনূর। তিনি ওই এলাকার একটি বাড়ির কেয়ারটেকার।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail
hit counter