Home » নিউজ » প্রাথমিকে মুক্তিযোদ্ধা কোটা মৌখিক পরীক্ষায় ১৫০ পদে প্রার্থী ৩৬৮

প্রাথমিকে মুক্তিযোদ্ধা কোটা মৌখিক পরীক্ষায় ১৫০ পদে প্রার্থী ৩৬৮

চট্টগ্রাম: প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে প্রাক-প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক পদে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চট্টগ্রামে ১৫০ জন নিয়োগ পাচ্ছেন। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৩৬৮ প্রার্থীর মধ্যে মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণরাই এ নিয়োগ পাবেন।

লিখিততে উত্তীর্ণদের মৌখিক পরীক্ষা তিন দফায় ২৬ থেকে ২৮ নভেম্বর চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে।  এরই মধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় চট্টগ্রামের ২০ শিক্ষা থানার ১ হাজার ৬৩৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষাকে তরান্বিত করতে একটি করে সহকারী শিক্ষকের পদ সৃষ্টি করে। সেই প্রেক্ষিতে প্রাক প্রাথমিকে ইতোমধ্যে তিন দফায় নিয়োগ দিয়েছে মন্ত্রণালয়। পরে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় নিয়োগের জন্য আবেদন আহবান করে। আবেদন অনুসারে ইতোমধ্যে লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা  বলেন, থানা শিক্ষা অফিসারদের কাছ থেকে পাওয়া শূন্যপদের তালিকার প্রেক্ষিতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়কে অবহিত করা হয়। প্রাক প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক পদে ইতোমধ্যে তিন দফায় নিয়োগ দিয়েছে মন্ত্রণালয়। পরে নির্ধারিত ৩০ ভাগ মুক্তিযোদ্ধা কোটায় সহকারী শিক্ষক পদে ২৯ অক্টোবর নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চট্টগ্রামের ২০ শিক্ষা থানায় ১৫০টি পদ রয়েছে।

ওই পদে চট্টগ্রামের ৩৬৮ জন নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। উত্তীর্ণদের জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে তিন দফায় ২৬ থেকে ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে। মৌখিক পরীক্ষার পর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় দেড়শ জনকে নিয়োগ দিবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় মুক্তিযোদ্ধা কোটায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের আবেদনের কপি, লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্র, নাগরিকত্ব সনদ, শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদসহ মুক্তিযোদ্ধা সনদ, মুক্তিযোদ্ধার সাথে সম্পর্ক সনদসহ যাবতীয় কাগজপত্রের মূলকপি ২০ নভেম্বরের মধ্যে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে প্রদর্শন করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন।

চট্টগ্রাম জেলা মনিটরিং কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদ  বলেন, চট্টগ্রামের ২০ শিক্ষা থানার ১ হাজার ৬৩৪ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একটি করে প্রাক প্রাথমিক শিক্ষার জন্য সহকারী শিক্ষকের পদ সৃষ্টি হয়। ওই পদের ৩০ ভাগ মুক্তিযোদ্ধা কোটায় সহকারী শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে চট্টগ্রাম জেলার ১৪ উপজেলা ও মহানগরীর ৬ শিক্ষা থানায় প্রধান শিক্ষকের ৪৪২টি ও সহকারী শিক্ষকের ৬৪৮টি শূন্যপদ রয়েছে। প্রধান শিক্ষকের ২ হাজার ২১৭টি পদের মধ্যে বর্তমানে কর্মরত আছেন ১ হাজার ৭৩৫ জন, সহকারী শিক্ষকের ১১ হাজার ২৪৭টি পদের মধ্যে কর্মরত আছেন ১০ হাজার ৫৯৯ জন।

কক্সবাজার জেলার ৮ শিক্ষা থানায় ১৫৩টি প্রধান শিক্ষক ও ৫২৩টি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। তিন পাবর্ত্য জেলার (রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান) ২৫ শিক্ষা থানায় ৩২৯টি প্রধান শিক্ষক ও ৩১৭টি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য বলেও জানান তিনি।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinby feather
Facebooktwitterlinkedinrssyoutubemailby feather
Advertisements

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ঋণের এক অঙ্কের সুদহার কার্যকর

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ এক অঙ্কের ঋণের সুদহার কার্যকর করেছে দেশের কার্যরত সকল ব্যাংক। বুধবার থেকে ক্রেডিট কার্ড ছাড়া সব ধরনের ঋণের সুদহার সর্বোচ্চ ৯ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে। ব্যাংকাররা জানিয়েছেন, ...

ছুটি-শিক্ষাবার্তা

১১ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি বাড়ছে

ডেস্ক,৩১ মার্চ: করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সরকারি-বেসরকারি অফিসে ছুটির মেয়াদ আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ছে। তবে যেসব অফিস খুবই প্রয়োজন, সেগুলো চালু থাকবে। আরো পড়ুন প্রাথমিকসহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়ছে ঈদ পর্যন্ত! ...

১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়তে পারে সাধারণ ছুটি

নিজস্ব প্রতিবেদক | ৩০ মার্চ, ২০২০ বিশ্বব্যাপী বিস্তৃত কোভিড-১৯-এর বিস্তার থেকে দেশবাসীকে রক্ষা করতে সাধারণ ছুটি আরও বাড়ানো হতে পারে। ইতিপূর্বে ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ১০ দিনের সাধারণ ...

primary-shikkha

করোনা মোকাবেলায় ১দিনের বেতন কর্তনের পোষ্টে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে নিয়ে বিরুপ মন্তব্য!

ডেস্কঃ করোনা মোকাবেলায় ১দিনের বেতন কর্তনের পোষ্টে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করেছেন একাধিক শিক্ষক। চুয়াডাঙ্গা জেলার Sarup das নামের এক শিক্ষক করোনা মোকাবেলা ও আমাদের করনীয় শিরোনামে শিক্ষকসহ সকল ...

hit counter