নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের দাবি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা উচিত’

আশিক রহমান: নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের দাবি-দাওয়া অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা উচিত বলে মনে করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক ও শিক্ষাবিদ সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, শিক্ষার উন্নতি করতে হলে শিক্ষকদের জীবনমান উন্নতি করতে হবে। তাদের বেতন-ভাতা বাড়াতে হবে, এর কোনো বিকল্প নেই, যদি আমরা একটা উন্নত শিক্ষা ব্যবস্থা দেখতে চাই। শিক্ষকেরা যখন রাস্তায় শুয়ে থাকেন, অনাহারে থাকেন, অনশন করেন দাবি আদায়ের জন্য তখন তো বুঝতে হবে শিক্ষকদের মান-মর্যাদাও নেই। মান-মর্যাদা নির্ভর করে বেতন-ভাতার উপরে, এটা হচ্ছে প্রাথমিক শর্ত। তাই নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের দাবি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা উচিত যাতে করে তারা কর্মক্ষেত্রে চলে যেতে পারেন, স্বস্তি নিয়ে দায়িত্ব পালন করতে পারেন সেই ব্যবস্থা দরকার।

তিনি আরও বলেন, আমাদের দেশে শিক্ষাকে গুরুত্ব দেওয়া হয় না। জাতীয় বাজেটেও তার প্রতিফলন দেখা যায়। শিক্ষার জন্য বাজেটও অপ্রতুল। সেই বাজেটও এখন প্রতিনিয়ত কমছে। এতেই প্রমাণিত হয় যে, রাষ্ট্রীয়ভাবে শিক্ষাকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না। শিক্ষা গুরুত্ব না দিলে শিক্ষককেও তো গুরুত্ব দেওয়া হবে না। শিক্ষা এখন তিন ধারায় বিভক্ত। ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষকেরা ভালোই আছেন। কিন্তু মূল ধারার শিক্ষকেরা কতটা খারাপ অবস্থায় রয়েছেন তার প্রতিফলন ঘটে এ ধরনের অনশনের মধ্যদিয়ে।

এক প্রশ্নের জবাবে সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, শিক্ষকেরা আসলে বাধ্য হচ্ছে আন্দোলন-অনশন করতে। এতেই বোঝা যায় আন্দোলনরত শিক্ষকেরা কতটা খারাপ অবস্থায় রয়েছেন। বলা যায় একরকম অসহায় হয়েই এই অনশন-আন্দোলনে নেমেছেন। শিক্ষকদের দাবির প্রতি সরকারের দৃষ্টি দেওয়া দরকার। কিন্তু দৃষ্টিটা দেওয়া হচ্ছে না। আমরা দেখছি যে, তারা দিনের পর দিন আন্দোলন করে যাচ্ছেন, কিন্তু এর প্রতি রাষ্ট্রীয়ভাবে যে মনোযোগ দেওয়া উচিত তা হচ্ছে না।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*