জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক প্রধান শিক্ষকদের টাইমস্কেল অবৈধ। সারা দেশে সরকারী টাকা লুটপাট

শিক্ষাবার্তার সংবাদ প্রকাশের পর তোড়জোড়

দুই পদের সমষ্টিতে টাইম স্কেল নেয়া যায় না।

নিজস্ব প্রতিবেদক,১৯জানুয়ারী : জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক প্রধান শিক্ষকদের টাইমস্কেল নেবার ব্যাপারে মতামত প্রদান করেছে উপ হিসাব নিয়ন্ত্রক মজিবুল হক। গত ৭ জানুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখের এক পত্রে  জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক প্রধান শিক্ষকরা টাইমস্কেল পাচ্ছে না বলে রংপুর ডিভিশনাল কন্টোলারকে চিঠি দিয়েছে। পত্রে বলা হয়েছে উভয় পদের সমষ্টির ভিত্তিতে টাইমস্কেল প্রাপ্য নয় বলে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়েছে এবং পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সুত্র জানায় শুধুমাত্র দৈনন্দিন কার্যক্রম পরিচালনার স্বার্থে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের ১ নং (এক) ক্রমিকে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষককে মাত্র ৫০ (পঞ্চাশ) টাকা ভাতা প্রদানের মাধ্যমে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনের সুযোগ প্রদান করে এমপিওভুক্ত করা হয়েছিলো| ১৪-৭-২০০৮ খ্রিঃ প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের স্মারক নং প্রাগম/বিদ্যা-১/৮ জি-৭/৯৮ ( অংশ) ২৫৩ এর পরিপত্র মোতাবেক রেজিঃ বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সমূহে (জাতীয়কর) শিক্ষা ও ব্যবস্থাপনার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকার এ সকল বিদ্যালয়ে বিদ্যমান শিক্ষকের ৪টি পদের একটিকে উন্নীতকরণের মাধ্যমে প্রধান শিক্ষক পদ সৃষ্টির সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছেন।

অর্থাৎ ২০০৮ সাল থেকে তাদেরকে প্রধান শিক্ষক হিসাবে গননা করা হয় এবং সেখান থেকে সবাই পদ্দোন্নতী প্রাপ্ত।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*