Home » টপ খবর » চার্জ দেওয়া অবস্থায় মোবাইল ব্যবহার করলে কি কোনও সমস্যা হবে?
phone charge

চার্জ দেওয়া অবস্থায় মোবাইল ব্যবহার করলে কি কোনও সমস্যা হবে?

তাহমিদ বোরহান:
ওয়েল, এক কথায় উত্তরটি হচ্ছে হ্যাঁ, আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি চার্জে ফোন লাগিয়ে যেকোনোই নরমাল ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি ফোন সারারাত চার্জে লাগিয়ে রাখুন, সারাদিন চার্জে লাগিয়ে রাখুন, ফোন চার্জ করতে করতে ব্যবহার করুন, ফোন উল্টা কানে ধরুন অথবা সিধা কানে ধরুন, লো ব্যাটারিতে ব্যবহার করুন, ফুল ব্যাটারিতে ব্যবহার করুন, যা ইচ্ছা তাই করুন। এতে কখনোই কোন প্রকারের ক্ষতি আপনার হবে না। আপনি সম্পূর্ণই নিরাপদ থাকবেন।

এরকম অনেক ফটো দেখছেন বা ভিডিও দেখেছেন যেখানে কারো কান ফেটে রক্ত বের হচ্ছে, কারো আবার মুখ পুড়ে গেছে সম্পূর্ণভাবে, কারো হাত পুড়ে গেছে ফোন ব্লাস্ট হয়ে ইত্যাদি। তো এগুলোর মধ্যে কিছু দুর্ঘটনা তো সত্যিই হয়েছিলো তা আমি নিজেও মানছি। কিন্তু এগুলো শুধু তখনই হয়ে থাকে যখন আপনি ফোন ঠিক মতো ব্যবহার করবেন না।

এখন ঠিক মত ফোন ব্যবহার না করা মানে কি? দেখুন ফোনের ব্যাটারি অনেক মারাত্মক একটি জিনিষ এটি আপনিও জানেন আর আমিও জানি এবং ফোন প্রস্তুতকারী কোম্পানি স্যামসাং, অ্যাপেল, এইচটিসিও এই কথা জানে। কিন্তু আপনার ফোন কখনোই একটি মারাত্মক ক্ষতিকর ডিভাইস নয়। ফোনে প্রতিটি উপাদান অনেক পরিমান মতো দেওয়া আছে যার জন্য আপনার কখনোই কোন সমস্যা হবে। আজকাল ফোন এমন একটি ডিভাইস যার উপরে আমাদের সবচাইতে বেশি নিয়ন্ত্রন থাকে।

একটি ফোন বাজারে আসার আগে ঐ ফোনটিকে অনেকগুলো টেস্ট পাস করতে হয় তবেই সে বাজারে আসতে পারে। তো এই অবস্থায় ফোন নিয়ে যতো কথা শোনা যায়, সেলফোন বুকের পকেটে রাখলে হৃদপিন্ডের ক্ষতি হতে পারে, মাথার কাছে রাখলে মস্তিস্কের সমস্যা হতে পারে ইত্যাদি গুজব গুলো সম্পূর্ণই মিথ্যা। এই কথা গুলোর কোনই ভিত্তি নাই। আজ পর্যন্ত এমন একটি গবেষণাও দেখা যায়নি যে এই বিষয় গুলো প্রমানিত করতে পারে। এই কথাগুলো ব্যাস মনগড়া। জানিনা কে যে কোথা থেকে এইসব শোনে আর গুজব রটায় তার ঠিক নেই।

বলুন তো স্যামসাং, অ্যাপেল, এইচটিসি, সোনি ইত্যাদি সহ যতো বড়বড় মোবাইল প্রস্তুতকারী কোম্পানি রয়েছে তারা কি কখনো মোবাইলের প্যাকেটে লিখে রেখেছে যে, মোবাইল ফোন লো ব্যাটারিতে ব্যবহার করা ঝুঁকিপূর্ণ বা চার্জ করার সময় ফোন ব্যবহার করবেন না?

তবে চার্জে লাগিয়ে ফোন ইউজ করার কিছু সমস্যা তৈরি করতে পারে, ১ম হচ্ছে আপনার ফোন বেশি গরম হবে, তবে গরম হয়ে পুড়ে বা ব্লাস্ট হবেনা, কিন্তু সাধারণের চেয়ে বেশি গরম হলে ফোনের ব্যাটারির আয়ু ধীরেধীরে কমে যাবে। আর আরেকটি সমস্যা হচ্ছে আপনার ফোনের চার্জ হতে সময় বেশি লাগবে! তবে চার্জে লাগিয়ে হেভি টাস্ক না করাই ভাল, তবে করলেই যে সমস্যা হবে এমনটাও না!

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail
Facebooktwitterlinkedinrssyoutube
Advertisements

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শিক্ষক নিয়োগ : ই-রিকুইজিশনের সময় বাড়ল

নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের লক্ষ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যক্রম শুরু করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। গত ১৪ জানুয়ারি থেকে তৃতীয় চক্রে শিক্ষক ...

‘উপজেলা পর্যায়ে ৩২৯টি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক,২১জানুয়ারী: আরও একবার শিক্ষাখাতে বড় সুখবর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ লক্ষ্যে আজ মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) বর্তমান সরকারের ২৬তম জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় ‘উপজেলা পর্যায়ে ৩২৯টি ...

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ছবি আঁকা ও রচনা প্রতিযোগিতা

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ছবি আঁকা ও রচনা লেখা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তিতে দেখুন:

কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলোর শিক্ষকদের সনদ যাচাইয়ের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার সকল কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষকদের শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ যাচাইয়ের নির্দেশ দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এস এম মোসা। গত ১৩ জানুয়ারি সোমবার উপজেলা আইনশৃংখলার সভায় ...

hit counter